প্রধান মেনু খুলুন

গোলাম মোস্তফা (শহীদ বুদ্ধিজীবী)

অধ্যাপক গোলাম মোস্তফা বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধের একজন শহীদ বুদ্ধিজীবী। ১৯৭১ সালে পাক হানাদার বাহিনী তাকে ধরে নিয়ে নির্মমভাবে হত্যা করে।

পরিচ্ছেদসমূহ

প্রাথমিক জীবনসম্পাদনা

গোলাম মোস্তফা ১৯৩৯ সালের ২৩ নভেম্বর ঠাকুরগাঁও জেলার পীরগঞ্জ উপজেলার রঘুুুনাথপুর গ্রামে জন্মগ্রহন করেন। তিনি রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় হতে হিসাববিজ্ঞান বিষয়ে এমএ পাশ করেন। মুক্তিযুদ্ধের সময় তিনি পীরগঞ্জ সরকারি কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ ছিলেন।

গোলাম মোস্তফা মুক্তি সংগ্রাম কমিটির নেতা ছিলেন। ১৯৭১ সালের ১৭ এপ্রিল পাক হানাদার বাহিনী তাকে বেয়োনেট চার্জে জর্জরিত করলে তিনি শাহাদাৎবরণ করেন।

সম্মাননাসম্পাদনা

গোলাম মোস্তফার স্মৃতি রক্ষার্থে বাংলাদেশ ডাক বিভাগ তার ছবি সম্বলিত জাতীয় ডাকটিকিট প্রকাশ করে। তার স্বরণে পীরগঞ্জ থেকে বোচাগঞ্জ উপজেলা অভিমুখী সড়কটি "শহীদ বুদ্ধিজীবী অধ্যাপক গোলাম মোস্তফা সড়ক" নামে নামকরণ হয়। বাংলা একাডেমী থেকে প্রকাশিত স্মৃতি ১৯৭১-এর তৃতীয় খ-, অক্সফোর্ড এটলাসসহ বিভিন্ন বইয়ে তাঁকে নিয়ে বহু প্রবন্ধ ছাপা হয়। এছাড়াও ঠাকুরগাঁও সাংবাদিক ফোরাম সন্মাননা সহ অসংখ্য সন্মাননায় ভূষিত হয়েছেন তিনি।

ব্যক্তিগত জীবনসম্পাদনা

তার স্ত্রীর নাম বেগম আনোয়ারা মোস্তফা, তিনি পীরগঞ্জ উপজেলা একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির সাবেক আহ্বায়ক ছিলেন। এই দম্পতির তিন সন্তান রয়েছে। ছোট ভাই মোঃ গোলাম হোসেন পীরগঞ্জ পৌরসভার সাবেক মেয়র ছিলেন।

তথ্যসূত্রসম্পাদনা