কাজী দীন মোহাম্মদ

কাজী দীন মোহাম্মদ বাংলাদেশী একজন চিকিৎসক, অধ্যাপক ও স্নায়ুরোগ বিশেষজ্ঞ। ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব নিউরো সায়েন্সেস ও হাসপাতালের প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক তিনি।[১][২]ঢাকা মেডিকেল কলেজের ৩৭তম অধ্যক্ষ তিনি।[৩]

কাজী দীন মোহাম্মদ
Quazi Deen Mohammad.jpg
প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব নিউরোসায়েন্সেস ও হাসপাতাল
দায়িত্বাধীন
অধিকৃত কার্যালয়
২০১৪
সভাপতি
বাংলাদেশ কলেজ অব ফিজিসিয়ানস এন্ড সার্জনস
দায়িত্বাধীন
অধিকৃত কার্যালয়
২০১৯
পূর্বসূরীকনক কান্তি বড়ুয়া
অধ্যক্ষ
ঢাকা মেডিকেল কলেজ
কাজের মেয়াদ
১৭.০১.২০০৮ – ০৯.০১.২০১৪
পূর্বসূরীএম. আবুল ফয়েজ
উত্তরসূরীমো. ইসমাইল খান
ব্যক্তিগত বিবরণ
জাতীয়তাবাংলাদেশী
প্রাক্তন শিক্ষার্থীঢাকা মেডিকেল কলেজ

শিক্ষাসম্পাদনা

কাজী দীন মোহাম্মদ ফরিদপুর জেলা স্কুল থেকে পাস করে রাজেন্দ্র কলেজে ভর্তি হন। স্বাধীনতার পর ১৯৭২ সালে ঢাকা মেডিকেল কলেজে ভর্তি হন। ঢাকা মেডিকেলের ছাত্র হিসেবে ১৯৭৮ সালে এমবিবিএস ডিগ্রি লাভ করেন। তিনি ১৯৮৩ সালে বাংলাদেশ কলেজ অব ফিজিশিয়ানস এন্ড সার্জনস হতে মেডিসিনে এফসিপিএস ডিগ্রি অর্জন করেন। তিনি ১৯৯৪ সালে নিউরোলজিতে এমডি ডিগ্রি লাভ করেন। তিনি যুক্তরাষ্ট্রের ইউনিভার্সিটি হসপিটাল ম্যাডিসন থেকে ক্লিনিক্যাল নিউরোফিজিওলজির ওপর ফেলোশিপ সম্পন্ন করেন।[৪]

কর্মজীবনসম্পাদনা

তিনি ১৯৯৬ সালে ঢাকা মেডিকেল কলেজে স্নায়ুরোগ বিভাগের অধ্যাপক পদে যোগদান করেন। ২০০৬ থেকে ২০১৪ পর্যন্ত তিনি ঢাকা মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ পদে দায়িত্বপালন করেন। পরবর্তীতে তিনি ন্যাশনাল ইন্সটিটিউট অব নিউরোসায়েন্সেস ও হাসপাতালের প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক পদে নিযুক্ত হন।[৫] ২০১৯ সালে তিনি বাংলাদেশ কলেজ অব ফিজিশিয়ানস এন্ড সার্জনস এর সভাপতি নির্বাচিত হন।[৫][৬][৭][৮]

গবেষণা ও প্রকাশনাসম্পাদনা

তাঁর ১৮৬র অধিক গবেষণাপত্র দেশি ও আন্তর্জাতিক জার্নালে প্রকাশিত হয়েছে। তিনি নিন্স, সিডিসি(আটলান্টা) ইরাসমাস(নেদারল্যান্ডস) ও আইসিডিডিআর,বি এর যৌথ গবেষণা প্রকল্পে জে্যষ্ঠ পরামর্শক হিসেবে কর্মরত। তিনি স্ট্রোক, মৃগীরোগ ও স্মৃতিভ্রংশ রোগ সম্পর্কিত সামাজিক গবেষণার প্রধান গবেষক। সন্ন্যাসরোগ ও পারকিনসন্স রোগ ও বিবিধ স্নায়ুক্ষয়ী রোগের গবেষণায় যুক্তরাজ্যের শেফিল্ড বিশ্ববিদ্যালয় ও নিনস এর যৌথ গবেষণার জে্যষ্ঠ গবেষক তিনি। গিয়েন-বাড়ৈ সিন্ড্রোম এর প্রতিষেধকের সন্ধানে পরিচালিত আন্তর্জাতিক গবেষণার তিনি বাংলাদেশী সহ-গবেষক।[৪] এপিলেপসি- বিলিফস & মিসবিলিভস তার যৌথ লেখা। ডব্লিউএইচও বুলেটিন সহ অনেক জার্নাল নিবন্ধ প্রকাশিত হয়। [৯]

পুরস্কার ও সম্মাননাসম্পাদনা

কলেজ অব ফিজিশিয়ানস এন্ড সার্জনস পাকিস্তান তাঁকে সাম্মানিক এফসিপিএস প্রদান করে। তার কর্মের স্বীকৃতি হিসেবে তাঁকে ডাঃ ইব্রাহিম স্মারক স্বর্ণপদক দেওয়া হয়।[৪]

আরো দেখুনসম্পাদনা

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "National Institute of Neurosciences and Hospital – NINS | ShopnoBaz"shopnobaz.com (ইংরেজি ভাষায়)। ২০১৭-০৪-২২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৭-০৪-২৩ 
  2. nins। "Home"www.nins.com.bd (ইংরেজি ভাষায়)। ২০১৭-০৪-২২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৭-০৪-২৩ 
  3. উদ্দিন, ডা. মুহাম্মদ হেলাল। "অধ্যাপক ডা. কাজী দীন মুহাম্মদ"ncdcenter.com (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০১৭-০৪-২৩ 
  4. "Director"www.nins.gov.bd। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৮-০৬ 
  5. "'প্রফেসর ডা. কাজী দীন মোহাম্মদ যেমন কিংবদন্তি চিকিৎসক:তেমনি দক্ষ স্বাস্থ্য প্রশাসকও'"daktarprotidin.com। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৮-০৬ 
  6. "BCPS delegation meets UGC chairman - Eduvista - observerbd.com"The Daily Observer। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৮-০৬ [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  7. "বিসিপিএস এর সভাপতি হলেন ডা. দ্বীন মোহাম্মদ | banglatribune.com"Bangla Tribune। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৮-০৬ 
  8. "বিসিপিএসের নতুন সভাপতি কাজী দ্বীন মোহাম্মদ"Jugantor। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৮-০৬ 
  9. "www.ethicsclub.org -"www.ethicsclub.org। ২০১৭-০৪-২২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৭-০৪-২৩