কমর আল-দ্বীন[fn ১] (আরবি: قمر الدين‎‎; ধর্মের চাঁদ) একটি খুবানি রস বা অমৃত পানীয়, যা সাধারণত মুসলিম পবিত্র রমজান মাসে খাওয়া হয়। এটি সিরিয়া থেকে আগত বলে মনে করা হয়।[২] এটি প্রথম ঘৌতাতে উৎপাদিত হয়েছিল, যেখানে কমর আল-দ্বীনের জন্য সবচেয়ে উপযুক্ত জাতের খুবানির প্রথম জন্ম হয়েছিল। কমর আল-দ্বীন মধ্যপ্রাচ্য এবং উত্তর আফ্রিকার পাশাপাশি সোমালিয়াতেও পান করা হয়, যদিও সিরীয় কমর আল-দ্বীন এখনও সেরা বলে মনে করা হয়, কারণ কমর আল-দ্বীনের জন্য বিভিন্ন জাতের খুবানি কেবল সিরিয়া এবং দক্ষিণ-পশ্চিম তুরস্ক জন্মানোর জন্য সবচেয়ে উপযুক্ত।[৩][৪] এটা লাভাশ্যাক নামে (ফার্সি: لواشک‎‎) ইরানে পরিচিত এবং এটি একটি শুকনো ফলের রোল হিসাবে পরিবেশন করা হয়।

কমর আল-দ্বীন
QAMAR AD-DIN.jpg
অন্যান্য নামলাভাশ্যাক কমরউদ্দিন
ধরনপানীয়
প্রকারইফতার
উৎপত্তিস্থলসিরিয়া
অঞ্চল বা রাজ্যঘৌতা
পরিবেশনডান্ডায়
প্রধান উপকরণখুবানি
সাধারণত ব্যবহৃত উপকরণকমলা ফুলের জল, চিনি
খাদ্য শক্তি
(প্রতি ১০০ গ্রাম পরিবেশনায়)
৩৮ কিলোক্যালরি (১৫৯ কিলোজুল)[১]
পুষ্টিমান
(প্রতি ১০০ গ্রাম পরিবেশনায়)
আমিষ০ গ্রাম
স্নেহ পদার্থ০ গ্রাম
শর্করা১০ গ্রাম

উৎপত্তিসম্পাদনা

কমর আল-দ্বীনের নাম উত্থাপনের জন্য বেশ কয়েকটি তত্ত্বের প্রস্তাবিত হয়েছে। একটি তত্ত্বের মতে এটির নামকরণ করা হয়েছিল তার উদ্ভাবক, "কমর আল-দ্বীন" নামক এক সিরীয় ব্যক্তির নামানুসারে। তিনি ছিলেন খুবই সুদর্শন, বলা হয় যে, তিনি চাঁদ (কমর, আরবি: قمر‎‎)-এর মতো ছিলেন।[২]

আরেকটি তত্ত্ব অনুসারে, খুবানির মৌসুমটি কমর আল-দ্বীনের উদ্ভাবিত হওয়ার পরে রমজানের শুরুর দিকে নতুন চাঁদ দেখার সাথে মিলে যায়।[২] অন্য একটি অনুরূপ তত্ত্ব মিশরে বিস্তৃ, যা খলিফার নামের সন্ধান করে, যিনি রমজানে অর্ধচন্দ্র দেখে কমর আল-দ্বীন দ্বারা উৎযাপন করতেন।[৩]

 
কমর আল-দ্বীন তৈরির জন্য শুকনো খুবানির পেস্ট।

প্রস্তুতি পদ্ধতিসম্পাদনা

কমর আল-দ্বীন উৎপাদনের জন্য খুবানি এবং চিনি আগুনের উপরে সিদ্ধ করা হয় এবং তারপরে একটি কাঠের ছাঁকনি দিয়ে টানানো হয় যা জলপাই তেলে ভিজিয়ে রাখা হয়। পরে খুবানিগুলো সরাসরি সূর্যের আলোতে শুকনো রেখে দেওয়া হয়। এটি পুরোপুরি শুকিয়ে যাওয়ার পরে এটি মোড়কজাত, বাজারজাত এবং বিক্রি করা হয়। এই শুকনো খুবানির চামড়া ঘন, আরও সুসংগত এবং সাধারণ খুবানির চামড়ার চেয়ে শক্ত স্বাদযুক্ত এবং এইভাবে কমর আল-দ্বীন তৈরির জন্য আরও উপযুক্ত।[৪] এই খুবানির চামড়া থেকে পানীয় তৈরি করতে কেবল গোলাপ জল বা কমলা ফুলের জল যোগ করা প্রয়োজন, যদিও খুবানির টুকরা (তাজা বা শুকনো) এবং বরফ প্রায়শই যুক্ত করা হয়। কখনও কখনও, ফুলের কিছু জল কমলা রস বা সরল জল দিয়ে প্রতিস্থাপিত হয়।[২] কমর আল-দ্বীনকে ঐতিহ্যগতভাবে ঘন এবং ঠান্ডাভাবে পরিবেশন করা হয় এবং এটি বিশেষত জোরালোভাবে বিশ্বাস করা হয় যে এটি শক্তি, তড়িৎ এবং হাইড্রেশনের একটি ভাল উৎস, এগুলো সবই রোজার দিনশেষে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।[৫] লেভান্টের কিছু লোক তাদের কমর আল-দ্বীনে পাইন বাদাম এবং বরফ যুক্ত করে এমন পানীয় তৈরি করে যা জাল্লাবের ঘন, খুবানির স্বাদযুক্ত সংস্করণের অনুরূপ ।[৬]

লাভাশ্যাক নামক ইরানি জাতটি বীজযুক্ত ফলগুলোকে কিছু জল দিয়ে গরম করে তৈরি করা হয় যতক্ষণ না সেগুলো ভর্তায় পরিণত হয় এবং তারপরে ফলের খোসা ছাড়ানোর জন্য চালনি ব্যবহার করা হয়। এরপরে ভর্তাটি আরও উত্তপ্ত করে ঘন পেস্ট তৈরি করা হয় এবং অতঃপর রোদে শুকনো অবস্থায় রেখে দেওয়া হয় এবং কয়েক দিন পরে পরিবেশন করা হয়। ঐতিহ্যগতভাবে লাভাশ্যাক বরই বা খুবানি থেকে তৈরি করা হয়, তবে আধুনিক ও বাণিজ্যিক জাতগুলো আপেল, ডালিম, চেরি, বার্বি এবং কর্নেলিয়ান চেরিকে ফলের ভিত্তি হিসাবে ব্যবহার করে থাকে।

টীকাসম্পাদনা

  1. Also transliterated Qamar al-Deen, Qamar ad-Din/ad-Deen, Qamar Eddine, Qamaruddin, Kamaruddin, Amardine, and a myriad of other ways. Transliteration of Arabic is notoriously fraught with challenges, even before differences between Arabic's many dialects are taken into account.

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "قمر الدين"كوكباد। Cookpad Inc.। ২৬ জুন ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২২ মে ২০১৮ 
  2. Xawaash, Leila; Xawaash, Abdullahi (২০১৪-০৬-০৯)। "Qamar al-Din (Qamaraddiin) قمر الدين"Xawaash.com। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০৫-২২ 
  3. Robertson, Amy (২০১৭-০৬-০৮)। "All Over The World, Thirsty Muslims Have Their Ramadan Go-To Drinks"। NPR। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০৫-২২ 
  4. Denker, Joel (২০১৬-০৬-১৪)। "'Moon Of The Faith:' A History Of The Apricot And Its Many Pleasures"। NPR। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০৫-২২ 
  5. Amira (এপ্রিল ২২, ২০১৭)। "QAMAR AL-DEEN (APRICOT JUICE); FAMOUS MIDDLE EASTERN DRINK"Amira's Pantry। সংগ্রহের তারিখ ২২ মে ২০১৮ 
  6. نانا (অক্টোবর ৪, ২০০৬)। "3 طرق مختلفة لعمل مشروب قمرالدين"Arabic Cooking (الطبخ العربي)। মে ২৪, ২০১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ এপ্রিল ৩০, ২০২০ 

বহিঃসংযোগসম্পাদনা