ওয়াল্টার গিফেন

অস্ট্রেলীয় ক্রিকেটার

ওয়াল্টার ফ্রাঙ্ক গিফেন (ইংরেজি: Walter Giffen; জন্ম: ২০ সেপ্টেম্বর, ১৮৬১ - মৃত্যু: ২৮ জুন, ১৯৪৯) দক্ষিণ অস্ট্রেলিয়ার নরউড এলাকায় জন্মগ্রহণকারী প্রথিতযশা অস্ট্রেলীয় আন্তর্জাতিক ক্রিকেটার ছিলেন। অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট দলের অন্যতম সদস্য ছিলেন তিনি। ১৮৮৭ থেকে ১৮৯২ সময়কালে অস্ট্রেলিয়ার পক্ষে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অংশগ্রহণ করেছিলেন। ঘরোয়া প্রথম-শ্রেণীর অস্ট্রেলীয় ক্রিকেটে সাউথ অস্ট্রেলিয়া দলের প্রতিনিধিত্ব করেছেন ওয়াল্টার গিফেন। দলে তিনি মূলতঃ ডানহাতি ব্যাটসম্যান হিসেবে খেলতেন।

ওয়াল্টার গিফেন
Walter Giffen.jpg
ব্যক্তিগত তথ্য
জন্ম(১৮৬১-০৯-২০)২০ সেপ্টেম্বর ১৮৬১
নরউড, দক্ষিণ অস্ট্রেলিয়া
মৃত্যু২৮ জুন ১৯৪৯(1949-06-28) (বয়স ৮৭)
অ্যাডিলেড, অস্ট্রেলিয়া
ব্যাটিংয়ের ধরনডানহাতি
বোলিংয়ের ধরন
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা টেস্ট এফসি
ম্যাচ সংখ্যা ৪৭
রানের সংখ্যা ১১ ১১৭৮
ব্যাটিং গড় ১.৮৩ ১৫.৯১
১০০/৫০ ০/০ ০/৬
সর্বোচ্চ রান ৮৯
বল করেছে
উইকেট
বোলিং গড়
ইনিংসে ৫ উইকেট
ম্যাচে ১০ উইকেট
সেরা বোলিং
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ১/০ ২৩/০
উৎস: ইএসপিএনক্রিকইনফো.কম, ২৬ মার্চ ২০১৯

মাঝারীমানের ব্যাটসম্যান ছিলেন ও কেবলমাত্র রক্ষণাত্মক ঢংয়েই ক্রিকেট খেলতেন। অ্যাডিলেড ক্লাব ক্রিকেটে বেশ কয়কটি শতরানের ইনিংস খেলেছেন। এছাড়াও, ফিল্ডার হিসেবে ডিপ অঞ্চলে চমৎকার ফিল্ডিং করতেন।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটসম্পাদনা

১৮৮২-৮৩ মৌসুম থেকে ১৯০১-০২ মৌসুম পর্যন্ত ঘরোয়া প্রথম-শ্রেণীর অস্ট্রেলীয় ক্রিকেটে দক্ষিণ অস্ট্রেলিয়ার পক্ষে খেলেছেন। সমগ্র খেলোয়াড়ী জীবনে তিনটিমাত্র টেস্টে অংশগ্রহণ করার সুযোগ পেয়েছিলেন তিনি। ২৫ ফেব্রুয়ারি, ১৮৮৭ তারিখে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে টেস্ট ক্রিকেটে অভিষেক ঘটে ওয়াল্টার গিফেনের। জানা যায় যে, শুধুমাত্র সহোদর জর্জ গিফেন বাহুতে আঘাত পেলে তিনি টেস্ট ক্রিকেট খেলার সুযোগ পেয়েছিলেন। নতুবা ওয়াল্টার গিফেন খেলার সুযোগ পেতেন না।[১] ঐ সিরিজে তিনি ২, , ১, ৩, ৩ ও ২ রান তুলেছিলেন। এরফলে, টেস্ট ক্রিকেটের ইতিহাসে সর্বকালের বাজে টেস্ট ব্যাটসম্যান হিসেবে তাকে চিত্রিত করা হয়েছে। [১]

ব্যক্তিগত জীবনসম্পাদনা

বিখ্যাত অস্ট্রেলীয় ক্রিকেট তারকা জর্জ গিফেন সম্পর্কে তার ভ্রাতা হন। ১৮৮৬ সালে একজোড়া দন্তযুক্ত চাকার মাঝখানে আটকে বামহাতের দুই আঙ্গুলের সম্মুখ ভাগ কেটে যায়।[১] সাউথ অস্ট্রেলিয়া গ্যাস কোম্পানিতে প্রায় ৫০ বছর কর্মজীবন অতিবাহিত করেছেন ওয়াল্টার গিফেন।[২]

২৮ জুন, ১৯৪৯ তারিখে ৮৭ বছর বয়সে অ্যাডিলেডের নর্থ আনলে এলাকায় ওয়াল্টার গিফেনের দেহাবসান ঘটে।

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "Where'd he come from?"। Cricinfo। সংগ্রহের তারিখ ২২ ডিসেম্বর ২০১০ 
  2. "Death of Mr W.F. Giffen", The Advertiser, 29 June 1949, p. 4

আরও দেখুনসম্পাদনা

বহিঃসংযোগসম্পাদনা