এম এ মালেক (সামরিক কর্মকর্তা)

বাংলাদেশী রাজনীতিবিদ

ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) এমএ মালেক বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর (অব.) ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ছিলেন, তিনি তত্ত্বাবধায়ক সরকারের প্রধান উপদেষ্টার বিশেষ সহকারী ছিলেন।[১][২]

ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) এম এ মালেক
জন্ম (1948-02-04) ৪ ফেব্রুয়ারি ১৯৪৮ (বয়স ৭৬)
বরিশাল
মৃত্যু৮ জানুয়ারী ২০১৬
অস্ট্রেলিয়া
আনুগত্য বাংলাদেশ
সেবা/শাখা বাংলাদেশ সেনাবাহিনী
পদমর্যাদাব্রিগেডিয়ার জেনারেল
নেতৃত্বসমূহ
যুদ্ধ/সংগ্রামমুক্তিযুদ্ধে অনন্য অবদান রাখেন

প্রাথমিক জীবন এবং শিক্ষা সম্পাদনা

ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) এমএ মালেক ৪ ফেব্রুয়ারি ১৯৪৮ জন্মগ্রহণ করেন। চার বছর বয়সে তার মা মারা যান। তিনি বরিশাল জিলা স্কুলে পড়াশোনা শেষে বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় (বুয়েট) ভর্তি হন। ১৯৭১ সালের এপ্রিল মাসে ফাতেমা খাতুন নেলিকে বিয়ে করেন। ১৬ জানুয়ারি ২০১২ তারিখে ফাতেমা খাতুন মারা যান। এম এ মালেক দুই ছেলে, এক মেয়েসহ অনেক গুণগ্রাহী রেখে গেছেন। [৩]

পেশা সম্পাদনা

তিনি মুক্তিযুদ্ধে অনন্য অবদান রাখেন। একাত্তরে ত্রিপুরার মতিনগর ও মেলাঘর ক্যাম্পে অবস্থান করে তিনি খালেদ মোশাররফ ও মেজর হায়দারের সঙ্গে যুদ্ধ পরিচালনায় সাহসী ভূমিকা রাখেন। ডিসেম্বরে তিনি ঢাকা মুক্ত করার অভিযানেও অংশ নিয়েছিলেন। [৪] তিনি তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক প্রধান উপদেষ্টা ফখরুদ্দিন আহমেদের বিশেষ সহকারী হিসাবে বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডপল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ডের প্রধান হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। [৫] তিনি সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয় ও ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রণালয়ের প্রধান ছিলেন। [৬]

মৃত্যু সম্পাদনা

৮ জানুয়ারী ২০১৬ সালে অস্ট্রেলিয়ায় মারা যান।[৩]

তথ্যসূত্র সম্পাদনা

  1. "Plea to increase food production"independent-bangladesh.com। ১০ জানুয়ারি ২০১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৯ জানুয়ারি ২০১৮ 
  2. "Teletalk to expand its network across CHT: Malek"independent-bangladesh.com। ১০ জানুয়ারি ২০১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৯ জানুয়ারি ২০১৮ 
  3. "ব্রিগেডিয়ার (অব.) মালেকের ইন্তেকাল"সমকাল। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৬-১৫ [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  4. "Obituary"The Daily Sun (ইংরেজি ভাষায়)। ১০ জানুয়ারি ২০১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৯ জানুয়ারি ২০১৮ 
  5. "MA Malek's death condoled"The New Nation (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ৯ জানুয়ারি ২০১৮ 
  6. "Actions taken against officials for negligence: MA Malek"The Daily Star (ইংরেজি ভাষায়)। ১৬ মার্চ ২০০৮। সংগ্রহের তারিখ ৯ জানুয়ারি ২০১৮