উইলিস ল্যাম্ব

পদার্থবিদ্যায় নোবেল পুরষ্কার বিজয়ী

উইলিস ইউজিন ল্যাম্ব (ইংরেজি: Willis Eugene Lamb, Jr.; জন্ম: জুলাই ১২, ১৯১৩ - মৃত্যু: মে ১৫, ২০০৮) একজন মার্কিন পদার্থবিজ্ঞানী যিনি ১৯৫৫ সালে পদার্থবিজ্ঞানে নোবেল পুরস্কার লাভ করেন। হাইড্রোজেন মৌলের বর্ণালির সরল গঠন আবিষ্কার সংশ্লিষ্ট গবেষণার জন্য তাকে নোবেল পুরস্কার প্রদান করা হয়। ল্যাম্ব পলিকার্প কুশের সাথে মিলে ইলেকট্রনের নির্দিষ্ট কিছু তাড়িতচৌম্বক ধর্ম নির্ণয় করতে সক্ষম হয়েছিলেন। এর উল্লেখযোগ্য উদাহরণ হল ল্যাম্ব অপসরণ। ল্যাম্ব অ্যারিজোনা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপনায় নিযুক্ত ছিলেন।[১]

উইলিস ল্যাম্ব
Willis Lamb 1955.jpg
জন্ম(১৯১৩-০৭-১২)১২ জুলাই ১৯১৩
মৃত্যু১৫ মে ২০০৮(2008-05-15) (বয়স ৯৪)
জাতীয়তামার্কিন যুক্তরাষ্ট্র
মাতৃশিক্ষায়তনইউনিভার্সিটি অব ক্যালিফোর্নিয়া, বার্কলে
পরিচিতির কারণল্যাম্ব অপসরণ
লেজার তত্ত্ব
কোয়ান্টাম অপটিক্স
পুরস্কারপদার্থবিজ্ঞানে নোবেল পুরস্কার (১৯৫৫)
বৈজ্ঞানিক কর্মজীবন
কর্মক্ষেত্রপদার্থবিজ্ঞান
প্রতিষ্ঠানসমূহঅ্যারিজোনা বিশ্ববিদ্যালয়
অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়
ইয়েল বিশ্ববিদ্যালয়
কলাম্বিয়া বিশ্ববিদ্যালয়
স্ট্যানফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়
ডক্টরাল উপদেষ্টাজে. রবার্ট ওপেনহেইমার
ডক্টরাল শিক্ষার্থীথিয়োডর মাইম্যান
মারল্যান স্কালি
বালাজ লাসজলো জিওর্ফি
ফ্রেদেরিক হফ
৩য় মুরে সারজেন্ট
স্ট্যানলি এল. কাফম্যান
ডেভিড মাদের
রাল্ফ জ্যাকবস

কর্মজীবনসম্পাদনা

উইলিস ল্যাম্বের জন্ম মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়া অঙ্গরাজ্যের লস অ্যাঞ্জেল্‌স শহরে। তিনি ১৯৩০ সালে ইউনিভার্সিটি অব ক্যালিফোর্নিয়া, বার্কলের রসায়ন বিভাগে ভর্তি হন এবং ১৯৩৪ সালে রসায়নে বিএসসি ডিগ্রি লাভ করেন। একই বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ১৯৩৮ সালে পিএইচডি অর্জন করেন। তার পিএইচডি উপদেষ্টা ছিলেন জে. রবার্ট ওপেনহেইমার। এরপর শুরু করেন কর্মজীবন। ১৯৫৬ থেকে ১৯৬২ সাল পর্যন্ত অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ে পদার্থবিজ্ঞান বিভাগের ওয়াইকহ্যাম অধ্যাপক হিসেবে কর্মরত ছিলেন। এছাড়া ইয়েল, কলাম্বিয়া এবং স্ট্যানফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষকতা করেছেন।[২]

বৈবাহিক জীবনসম্পাদনা

ল্যাম্প তার প্রথম স্ত্রী আরসুলা শেফারকে ১৯৩৯ সালে বিয়ে করেন। ১৯৯৬ সালে ব্রুরিয়া কাফম্যানকে বিয়ে করেন যা পরবর্তীতে বিবাহ-বিচ্ছেদে রূপ নেয়। ২০০৮ সালে এলসি ওয়াটসন নামীয় মহিলাকে ৩য় বারের মতো বিয়ে করেন। বিংহ্যাম উইলিস নামীয় সন্তানের পিতা হিসেবে ল্যাম্ব ১৫ মে, ২০০৮ সালে ৯৪ বছর বয়সে মৃত্যুবরণ করেন।[৩]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. Lamb Jr., 94, Dies; Won Nobel for Work on Atom
  2. Lamb Jr.[স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  3. Holley, Joe (May 19, 2008). "Willis E. Lamb Jr., 94; Nobel Prize-Winning Physicist". The Washington Post. Retrieved September 27, 2012.

বহিঃসংযোগসম্পাদনা