উইলিয়াম শল্ডার্স

দক্ষিণ আফ্রিকান ক্রিকেটার

উইলিয়াম আলফ্রেড শল্ডার্স (ইংরেজি: William Shalders; জন্ম: ১২ ফেব্রুয়ারি, ১৮৮০ - মৃত্যু: ১৯ মার্চ, ১৯১৭) উত্তর কেপের কিম্বার্লী এলাকায় জন্মগ্রহণকারী দক্ষিণ আফ্রিকান আন্তর্জাতিক ক্রিকেটার ছিলেন। দক্ষিণ আফ্রিকা ক্রিকেট দলের অন্যতম সদস্য ছিলেন তিনি। ১৮৯৯ থেকে ১৯০৭ সময়কালে দক্ষিণ আফ্রিকার পক্ষে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অংশগ্রহণ করেছেন।

উইলিয়াম শল্ডার্স
উইলিয়াম শল্ডার্স.jpg
আনুমানিক ১৯০৭ সালের সংগৃহীত স্থিরচিত্রে উইলিয়াম শল্ডার্স
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নামউইলিয়াম আলফ্রেড শল্ডার্স
জন্ম(১৮৮০-০২-১২)১২ ফেব্রুয়ারি ১৮৮০
কিম্বার্লী, কেপ প্রদেশ, দক্ষিণ আফ্রিকা
মৃত্যু১৯ মার্চ ১৯১৭(1917-03-19) (বয়স ৩৭)
ক্রাডক, কেপ প্রদেশ, দক্ষিণ আফ্রিকা
ব্যাটিংয়ের ধরনডানহাতি
বোলিংয়ের ধরনডানহাতি মিডিয়াম-পেস
ভূমিকাব্যাটসম্যান
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
টেস্ট অভিষেক
(ক্যাপ ৪৮)
১ এপ্রিল ১৮৯৯ বনাম ইংল্যান্ড
শেষ টেস্ট১৯ আগস্ট ১৯০৭ বনাম ইংল্যান্ড
ঘরোয়া দলের তথ্য
বছরদল
১৮৯৭/৯৮ - ১৮৯৮/৯৯গ্রিকুয়াল্যান্ড ওয়েস্ট
১৯০২/০৩ - ১৯০৬/০৭ট্রান্সভাল
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা টেস্ট এফসি
ম্যাচ সংখ্যা ১২ ৮৮
রানের সংখ্যা ৩৫৫ ৩৩৫১
ব্যাটিং গড় ১৬.১৩ ২৩.২৭
১০০/৫০ ০/০ ২/১৪
সর্বোচ্চ রান ৪২ ১০৫
বল করেছে ৪৮ ৩৩১
উইকেট
বোলিং গড় ৬.০০ ২৩.১৬
ইনিংসে ৫ উইকেট
ম্যাচে ১০ উইকেট
সেরা বোলিং ১/৬ ৩/৩০
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ৩/- ৩৮/-
উৎস: ইএসপিএনক্রিকইনফো.কম, ৫ এপ্রিল, ২০২০

ঘরোয়া প্রথম-শ্রেণীর দক্ষিণ আফ্রিকান ক্রিকেটে গ্রিকুয়াল্যান্ড ওয়েস্টট্রান্সভাল এবং ইংরেজ ক্রিকেটে লন্ডন কাউন্টি দলের প্রতিনিধিত্ব করেন। দলে তিনি মূলতঃ ডানহাতি ব্যাটসম্যান হিসেবে খেলতেন। এছাড়াও, ডানহাতে মিডিয়াম-পেস বোলিংয়ে পারদর্শী ছিলেন উইলিয়াম শল্ডার্স

প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটসম্পাদনা

উত্তর কেপের কিম্বার্লী এলাকায় উইলিয়াম শল্ডার্সের জন্ম। জেন ও এমিলি শল্ডার্স দম্পতির সন্তান তিনি। ১৮৮৪ থেকে ১৯২৫ সময়কালে হাফওয়ে হাউজে তাদের বসবাস ছিল। কিম্বার্লী বয়েজ হাই স্কুলে ভর্তি হন।[১]

১৮৯৭-৯৮ মৌসুম থেকে ১৯০৮-০৯ মৌসুম পর্যন্ত উইলিয়াম শল্ডার্সের প্রথম-শ্রেণীর খেলোয়াড়ী জীবন চলমান ছিল। ব্যাটিংয়ের পাশাপাশি চমৎকার ফিল্ডার ও কার্যকরী বোলার হিসেবেও তার যথেষ্ট সুনাম ছিল।[২] স্ট্রোকের দিকেই অধিক আগ্রহ তার। উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান হিসেবে খেলতে নেমে প্রায়শঃই বিশ থেকে ত্রিশ রানের মধ্যে আউট হবার প্রবণতা ছিল তার।[২]

১৯০৩-০৪ মৌসুমে ৯৩ রান করেন। দক্ষিণ আফ্রিকার মাটিতে এটিই তার সর্বোচ্চ সংগ্রহ ছিল। এছাড়াও, এ সংগ্রহটি খেলার সর্বোচ্চ সংগ্রহ ছিল। ট্রান্সভালের সদস্যরূপে নাটালের বিপক্ষে অনুষ্ঠিত ঐ খেলায় তার দল ইনিংস ব্যবধানে জয় পায়।[৩]

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটসম্পাদনা

সমগ্র খেলোয়াড়ী জীবনে বারোটি টেস্টে অংশগ্রহণ করেছেন উইলিয়াম শল্ডার্স। ১ এপ্রিল, ১৮৯৯ তারিখে কেপ টাউনে সফরকারী ইংল্যান্ড দলের বিপক্ষে টেস্ট ক্রিকেটে অভিষেক ঘটে তার। ১৯ আগস্ট, ১৯০৭ তারিখে ওভালে একই দলের বিপক্ষে সর্বশেষ টেস্টে অংশ নেন তিনি।

১৯০১, ১৯০৪১৯০৭ সালে দক্ষিণ আফ্রিকা দলের সদস্যরূপে ইংল্যান্ড গমন করেন। অংশগ্রহণকৃত ৮৮টি প্রথম-শ্রেণীর খেলার মধ্যে ৫৮টি ইংল্যান্ডের মাটিতে খেলেন। এ পর্যায়ে দুইটি প্রথম-শ্রেণীর সেঞ্চুরি পেয়েছিলেন। তন্মধ্যে, ১৯০১ সালে দক্ষিণ আফ্রিকানদের মধ্যে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক ছিলেন। ৩০.০৭ গড়ে ৭৮২ রান তুলেছিলেন তিনি।[৪] সমারসেটের বিপক্ষে ১০৩ রান তুলে সর্বোচ্চ রানধারী হন।[৫] ১৯০২-০৩ মৌসুমে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সিরিজের দ্বিতীয় টেস্টে ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ ৪২ রান তুলেছিলেন। প্রথম ইনিংসে ৬৫ রানে এগিয়ে থেকেও পরবর্তীতে তার দল ১৫৯ রানে হেরে যায়।[৬] ১৯০৫-০৬ মৌসুমে ইংল্যান্ড দল দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে আসে। তার অমূল্য ৩৮ রানের কল্যাণে স্বাগতিক দল এক উইকেটে জয় পেয়েছিল।[২]

ইংল্যান্ড গমনসম্পাদনা

১৯০৭ সালের ইংল্যান্ডে জনপ্রিয়তা পাওয়া দক্ষিণ আফ্রিকা দলের অন্যতম তারকার খ্যাতি লাভ থেকে বঞ্চিত হয়েছিলেন। তবে, ব্যাট হাতে বেশ কার্যকরী ভূমিকা রেখেছিলেন। সম্পূর্ণ সফরে তালিকার ষষ্ঠ স্থানে অবস্থান করেন। ২২ খেলায় অংশ নিয়ে ২২-এর কম গড়ে ৭৪৭ রান তুলেন। তিন টেস্টে অংশ নিয়ে ওভালে ৩১ ও অপরাজিত ২৪ রান তুলেছিলেন। ১৯০৭ সালে হ্যাম্পশায়ারের বিপক্ষে ১০৫ রান করেন।[৭]

ব্যক্তিগত জীবনসম্পাদনা

অক্টোবর, ১৮৯৯ থেকে ফেব্রুয়ারি, ১৯০০ সাল পর্যন্ত কিম্বার্লী অভিযানে কিম্বার্লী টাউন গার্ডের সদস্যের দায়িত্বে ছিলেন। ফলশ্রুতিতে, কুইন্স সাউথ আফ্রিকা মেডেল ও কিম্বার্লী স্টার উপাধিপ্রাপ্ত হন।[১] এছাড়াও, প্রথম বিশ্বযুদ্ধে অংশগ্রহণ করেছিলেন তিনি।[৮]

ব্যক্তিগত জীবনে বিবাহিত ছিলেন উইলিয়াম শল্ডার্স। মাইরা শল্ডার্স নাম্নী এক রমণীর পাণিগ্রহণ করেন।[১] ১৯ মার্চ, ১৯১৭ তারিখে মাত্র ৩৭ বছর বয়সে পূর্ব কেপের ক্রাডক এলাকায় উইলিয়াম শল্ডার্সের দেহাবসান ঘটে। এরপর, ক্রাডক সমাধিক্ষেত্রে তাকে সমাহিত করা হয়।[৯]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "Today in Kimberley's history 12 February"। Kimberley City Info। সংগ্রহের তারিখ ১৩ জুলাই ২০১৭ 
  2. Christopher Martin-Jenkins, The Complete Who's Who of Test Cricketers, Rigby, Adelaide, 1983, p. 312.
  3. "Transvaal v Natal, 1903-04"। CricketArchive। সংগ্রহের তারিখ ১৩ জুলাই ২০১৭ 
  4. "Batting and fielding for South Africans, 1901"। CricketArchive। সংগ্রহের তারিখ ১৩ জুলাই ২০১৭ 
  5. "Somerset v South Africans, 1901"। CricketArchive। সংগ্রহের তারিখ ১৩ জুলাই ২০১৭ 
  6. "South Africa v Australia, Second Test, 1902-03"। CricketArchive। সংগ্রহের তারিখ ১৩ জুলাই ২০১৭ 
  7. "Hampshire v South Africans, 1907"। CricketArchive। সংগ্রহের তারিখ ১৩ জুলাই ২০১৭ 
  8. "Cricket and Rugby Players and the War", The Illustrated Sporting and Dramatic News, 21 November 1914, p. 342.
  9. "S - Surnames :: Vanne - S"। eGGSA library। সংগ্রহের তারিখ ১৩ জুলাই ২০১৭ 

আরও দেখুনসম্পাদনা

বহিঃসংযোগসম্পাদনা