আলমগীর কবির (ক্রিকেটার)

বাংলাদেশী ক্রিকেটার

মোহাম্মদ আলমগীর কবির (জন্ম: ১০ জানুয়ারি, ১৯৮১) চাপাইনবাবগঞ্জে জন্মগ্রহণকারী বাংলাদেশের সাবেক আন্তর্জাতিক ক্রিকেটার।[১] বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের অন্যতম সদস্য ছিলেন তিনি। দলে তিনি মূলতঃ ডানহাতে মিডিয়াম-ফাস্ট বোলিং করতেন। এছাড়াও ডানহাতে ব্যাটিংয়ে অভ্যস্ত আলমগীর কবির

মোহাম্মদ আলমগীর কবির
ক্রিকেট তথ্য
ব্যাটিংয়ের ধরনডানহাতি
বোলিংয়ের ধরনডানহাতি মিডিয়াম-ফাস্ট
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা টেস্ট এফসি
ম্যাচ সংখ্যা ৩৮
রানের সংখ্যা ৪১৩
ব্যাটিং গড় ২.০০ ৮.৬০
১০০/৫০ -/- -/-
সর্বোচ্চ রান ২৭*
বল করেছে ২৬১ ৫৮১২
উইকেট - ১২৬
বোলিং গড় - ২৬.৬৫
ইনিংসে ৫ উইকেট -
ম্যাচে ১০ উইকেট - -
সেরা বোলিং - ৬/৭১
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং -/- ১১/-
উৎস: ক্রিকইনফো, ১০ মে ২০১৭

খেলোয়াড়ী জীবনসম্পাদনা

টেস্টে অংশগ্রহণের পূর্বে প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেট খেলতেন। রাজশাহী বিভাগের পক্ষে প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটে প্রতিনিধিত্ব করতেন। ৫৪ খেলায় অংশ নিয়ে ১৮২ উইকেট দখল করেন। ২০০২ সালে টেস্টে অভিষেক ঘটালেও তিন টেস্টের কোনটিতেই উইকেট লাভে সক্ষমতা দেখাতে পারেননি।

২০০২ থেকে ২০০৪ সময়কালে বাংলাদেশ দলের পক্ষে তিনটি টেস্টে অংশগ্রহণ করেছেন। তবে, টেস্ট ক্রিকেট অভিষেকে অগৌরবজনক অধ্যায় রচনা করেন তিনি। বাংলাদেশের একমাত্র ক্রিকেটার হিসেবে অভিষেক টেস্টের উভয় ইনিংসে জোড়া শূন্য লাভ করেন। ২১ জুলাই, ২০০২ তারিখে স্বাগতিক শ্রীলঙ্কা দলের বিপক্ষে অনুষ্ঠিত ১ম টেস্টে বাংলাদেশের এহসানুল হক, হান্নান সরকারতালহা জুবায়ের এবং শ্রীলঙ্কার ডব্লিউআরএস ডি সিলভা’র সাথে তারও একযোগে টেস্ট অভিষেক ঘটে।[২] কলম্বোর পি. সারাভানামুত্তু স্টেডিয়ামে মুত্তিয়া মুরালিধরনের নিজ মাঠে অনুষ্ঠিত দুই টেস্ট সিরিজের প্রথম টেস্টের দুই ইনিংসেই শূন্য রানে বোল্ড হন যথাক্রমে মুরালিধরন ও ডব্লিউআরএস ডি সিলভা’র বলে। ঐ টেস্টে তার দল ইনিংস ও ১৯৬ রানের বিশাল ব্যবধানে পরাভূত হয়েছিল।[৩]

২০০৪ সালে জাতীয় দল থেকে বাদ পড়ার পর ওডিআইয়ে খেলার সুযোগ পাননি। ২০০৯ সালে খেলা থেকে অবসর নেয়ার পূর্ব-পর্যন্ত রাজশাহী বিভাগের পক্ষে খেলা চালিয়ে যান। এরপর তিনি কোচিং পেশায় জড়িয়ে পড়েন।

আরও দেখুনসম্পাদনা

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. হাউস্ট্যাটে আলমগীর কবিরের প্রোফাইল
  2. ইসাম, মোহাম্মদ। "Match reports - Sri Lanka v Bangladesh, First Test"ক্রিকইনফো। সংগ্রহের তারিখ ২৭ জুন ২০১৫ 
  3. "Almenack reports - Sri Lanka v Bangladesh, First Test"ক্রিকইনফো। সংগ্রহের তারিখ ১০ মে ২০১৭ 

বহিঃসংযোগসম্পাদনা