আফতাবউদ্দিন খাঁ

বাঙালি লোকসঙ্গীত ও যন্ত্রসঙ্গীত শিল্পী

ফকির আফতাবউদ্দিন খাঁ (১৮৬২-১৯৩৩) ছিলেন একজন বাঙালি লোকসঙ্গীত ও যন্ত্রসঙ্গীত শিল্পী। তিনি উপমহাদেশের প্রখ্যাত সঙ্গীতজ্ঞ আলাউদ্দিন খাঁআয়েত আলী খাঁর বড় ভাই। তিনি বাঁশি, তবলা, বেহালা, ন্যাসতরঙ্গসহ বিভিন্ন প্রকার বাদ্যযন্ত্র বাজানোয় পারদর্শী ছিলেন। আল্লাহর প্রতি অসীম ভক্তি ও সংসারের প্রতি বৈরাগ্যের কারণে তাকে 'ফকির' বলে ডাকা হত।[১]

আফতাবউদ্দিন খাঁ
আফতাবউদ্দিন খাঁ.jpg
জন্ম১৮৬২
মৃত্যু১৯৩৩
জাতীয়তাব্রিটিশ ভারতীয়
পেশাগীতিকার, সুরকার, সঙ্গীতশিল্পী, বংশীবাদক
পিতা-মাতাসবদর হোসেন খাঁ (পিতা)
সুন্দরী বেগম (মাতা)
আত্মীয়ওস্তাদ আলাউদ্দিন খাঁ (ভাই)
আয়েত আলী খাঁ (ভাই)
টীকা
ওস্তাদ ফুলঝুরি খানইয়াসিন খান তার কন্যার দুই পুত্র

জীবনীসম্পাদনা

আফতাবউদ্দিন ১৮৬২ সালে তদানীন্তন ব্রিটিশ ভারতের বেঙ্গল প্রেসিডেন্সির (বর্তমান বাংলাদেশ) ব্রাহ্মণবাড়ীয়া জেলার নবীনগর উপজেলার শিবপুর গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। তার পিতা সবদর হোসেন খাঁ ছিলেন একজন সঙ্গীতজ্ঞ এবং মাতা সুন্দরী বেগম। তার দুই ছোট ভাই উপমহাদেশের প্রখ্যাত সঙ্গীতজ্ঞ আলাউদ্দিন খাঁআয়েত আলী খাঁ[২] ওস্তাদ ফুলঝুরি খান ও সেতার বাদক ইয়াসিন খান তার কন্যা কমলা-উন-নেসার দুই পুত্র।[৩]

শৈশব থেকেই তার সঙ্গীতে আগ্রহ দেখা যায়। তাদের পার্শ্ববর্তী বাঙ্গোড়া গ্রামের জমিদারের সভার সঙ্গীতজ্ঞ ভাতৃদ্বয় রামধন ও রামকানাইয়ের নিকট তিনি তবলাবেহালার তালিম নেন। পরে ত্রিপুরার রাজসভার সঙ্গীতজ্ঞ কাসিম আলী খাঁর নিকটও তিনি সঙ্গীতের তালিম নেন। তিনি বিভিন্ন প্রকার বাদ্যযন্ত্রে পারদর্শী ছিলেন, তবে তার খ্যাতি ছিল বংশীবাদনে।[১]

তার একটি বিশেষ গুণ ছিল তিনি একসাথে তিনটি বাদ্যযন্ত্র বাজাতে পারতেন। তিনি একসাথে তবলা, বাঁশিহারমোনিয়াম; এবং দোতারা, বাঁশিবাঁয়া বাজাতে পারতেন। আফতাবউদ্দিন মেঘডম্বুরস্বরসংগ্রহ বাদ্যযন্ত্র দুটির উদ্ভাবক।[১]

তিনি রাগসঙ্গীতেও দক্ষ ছিলেন। তার গানের সুর ছিল রাগনির্ভর। তিনি কুমিল্লার সাধক কবি মনোমোহন দত্তের গানে রাগরাগিনীর সুর প্রয়োগ করেন এবং বিভিন্ন গ্রামে গাওয়ার ফলে গানগুলো জনপ্রিয় হয়ে ওঠে। এর মাধ্যমে তিনি লোকসঙ্গীত ও রাগসঙ্গীতের মধ্যে সেতুবন্ধ তৈরি করে এবং সর্বপ্রথম প্রমাণ করেন, পল্লিসঙ্গীত ও রাগসঙ্গীত একে অপরের পরিপূরক।[১]

তিনি আল্লাহভক্তি ও সংসার বৈরাগ্যের জন্য তাকে লোকে 'ফকির' (তাপস) বলে ডাকত। কালীসাধনার জন্য তিনি 'আফতাবউদ্দিন সাধু' নামেও পরিচিতি লাভ করেন। তিনি ১৯৩৩ সালে মৃত্যুবরণ করেন।[১]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. মোবারক হোসেন খান"খাঁ, ফকির আফতাবউদ্দিন"বাংলাপিডিয়া। সংগ্রহের তারিখ ২০ মে ২০১৭ 
  2. মোবারক হোসেন খান (৯ অক্টোবর ২০১৪)। "সুরের পরম্পরা"যায়যায়দিন। সংগ্রহের তারিখ ২০ মে ২০১৭ 
  3. "সেতার বাদক ইয়াসিন খান আর নেই"দৈনিক প্রথম আলো। ২২ মার্চ ২০১১। সংগ্রহের তারিখ ২০ মে ২০১৭ 

বহিঃসংযোগসম্পাদনা