প্রধান মেনু খুলুন

আদিল হোসেন নোবেল

বাংলাদেশী মডেল ও অভিনেতা

নোবেল একজন বাংলাদেশী মডেল। তার পুরো নাম আদিল হোসেন নোবেল। তিনি চট্টগ্রাম শহরে জন্মগ্রহণ করেন। মডেলিং এর পাশাপাশি তিনি কিছু টিভি নাটকে অভিনয় করেছেন। তিনি ভীট চ্যানেল আই ফিমেল মডেল হান্ট অনুষ্ঠানের বিচারক ছিলেন। [১]

নোবেল
Adil Hossain Noble 2013.jpg
জন্মমোঃ আদিল হোসেন নোবেল
চট্টগ্রাম, বাংলাদেশ
জাতীয়তাবাংলাদেশী
পেশামডেল, অভিনেতা, কর্পোরেট চাকুরীজীবী
কার্যকাল১৯৯১-বর্তমান
পুরস্কারমেরিল-প্রথম আলো পুরস্কার

পরিচ্ছেদসমূহ

প্রাথমিক জীবনসম্পাদনা

নোবেল চট্টগ্রামে জন্মগ্রহণ করেন এবং সেখানেই বেড়ে ওঠেন। ১৯৮৯ সালে চট্টগ্রাম কলেজ থেকে স্নাতক সম্পন্ন করে ঢাকা চলে আসেন। তিনি ভিক্টোরিয়া ইউনিভার্সিটি থেকে এমবিএ সম্পন্ন করেন। এছাড়া তিনি সিঙ্গাপুর ইনস্টিটিউট অব ম্যানেজমেন্ট, ইন্ডিয়ান ইনস্টিটিউট অব ম্যানেজমেন্ট এবং জেভিয়ার লেবার রিলেশনস ইনস্টিটিউট থেকে ‘কি অ্যাকাউন্টস ম্যানেজমেন্ট’-এর ওপর উচ্চতর প্রশিক্ষণ নিয়েছেন। [২] ছাত্র অবস্থায় মডেল হিসেবে কাজ করার জন্য তাঁর এক কাজিন তাঁকে পরামর্শ। জনপ্রিয় অভিনেতা ও বিজ্ঞাপন নির্মাতা  আফজাল হোসেন নির্মিত স্প্রাইটের একটি বিজ্ঞাপনে তিনি প্রথম কাজ করেন। টেকনিক্যাল কারণে ওই বিজ্ঞাপনটি প্রচার হয়নি। [৩] 

আফজাল হোসেনের নির্দেশনায় ‘আজাদ বলপেন’র ‘Lonely Day, Lonely Night’ বিজ্ঞাপনটি নোবেলের প্রথম ব্যাপক দর্শকপ্রিয় বিজ্ঞাপন।[৪]

কর্মজীবনসম্পাদনা

১৯৯১ সালে ফ্যাশন শো-এর মাধ্যমে নোবেল তাঁর কর্মজীবন জীবন শুরু করেন। [৫] তাঁর করা টেলিভিশন বিজ্ঞাপনগুলোর মধ্যে রয়েছে এইচআরসি চা, আজাদ বলপয়েন্ট কলম, আরসি কোলা, পাকিজা শাড়ী, কেয়া সাবান, কেয়া লিপ জেল এবং এশিয়ান পেইন্ট। নোবেল এবং আরেক অভিনেত্রী মৌ একসময় টেলিভিশন মডেলিং-এ জনপ্রিয় জুটি ছিলেন।[৬]

মডেলিং এর সাথে সাথে তিনি কিছু টিভি নাটকে অভিনয় করেছেন। তাঁর প্রথম নাটক প্রাচীর পেরিয়ে, যেটি বাংলাদেশের প্রথম প্যাকেজ টিভি নাটক। নাটকটি ১৯৯৫ সালে বাংলাদেশ টেলিভিশনে প্রচারিত হয়। তিনি লেখক কাজী আনোয়ার হোসেনের জনপ্রিয় চরিত্র মাসুদ রানা চরিত্রেও অভিনয় করেন।[৭] 
নোবেল ১৯৯৩ সালে এমজিএইচ গ্রুপের জাহাজ বিভাগে যোগ দেন। ১৯৯৬ সালের জুলাইয়ে তিনি কোটস বাংলাদেশ লিমিটেডে যোগ দেন। তিনি কোটস বাংলাদেশ লিমিটিডের মার্কেটিং সার্ভিসের জেনারেল ম্যানেজার নিযুক্ত হন। ২০১০ সালে তিনি ওয়ারিদ টেলিকম লিমিটেডের (বর্তমানে এয়ারটেল) বিপণন বিভাগে হেড কর্পোরেট এবং এসএমই সেলস হিসেবে নিযুক্ত হন।[২] 

বর্তমানে নোবেল রবির সেলস অ্যান্ড মার্কেটিং ডিপার্টমেন্টে ‘হেড অব এন্টারপ্রাইজ বিজনেস’ হিসেবে কর্মরত আছেন। [৪]

নোবেল ভীট -চ্যানেল আই ফিমেল মডেল হান্ট প্রতিযোগিতার বিচারক ছিলেন। এছাড়া লাক্স চ্যানেল আই সুপারস্টারের অতিথি বিচারকও ছিলেন। [১]

পুরস্কারসম্পাদনা

তিনি ২০০৩ সালে সেরা মডেল হিসেবে মেরিল-প্রথম আলো পুরস্কার পান।[৮]  

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "Noble: A model icon".
  2. "Adil Hossain Noble joins Warid as Head of Corporate & SME Sales"। Fore Thought PR। ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ সেপ্টেম্বর ২৫, ২০১৫ 
  3. "অপ্রতিদ্বন্দ্বী নোবেল"। ৭ ডিসেম্বর ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ জানুয়ারি ৯, ২০১৬ 
  4. "নতুন বিজ্ঞাপনে মডেলিংয়ের রাজপুত্র" 
  5. "এ সপ্তাহের সাক্ষাৎকারঃ মডেল আদিল হোসেন নোবেল"। বিবিসি বাংলা। সংগ্রহের তারিখ ৯ই জানুয়ারী, ২০১৬  এখানে তারিখের মান পরীক্ষা করুন: |সংগ্রহের-তারিখ= (সাহায্য)
  6. "Noble: A model icon" আর্কাইভকৃত ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৫ ওয়েব্যাক মেশিনে..
  7. "Bangladeshi Model Adil Hossain Noble"। BD All Time। সংগ্রহের তারিখ সেপ্টেম্বর ২৫, ২০১৫ 
  8. "Meril-Prothom Alo Award handed over"The Daily Star। মে ২২, ২০০৪।