অদিতি পোহনকর

ভারতীয় অভিনেত্রী

অদিতি পোহনকর (জন্ম:৩১শে ডিসেম্বর ১৯৯৪) হিন্দি, মারাঠি এবং তামিল চলচ্চিত্র জগতে কাজ করেছেন এমন একজন ভারতীয় অভিনেত্রী। লাভ সেক্স অর ধোখা (২০১০) দিয়ে অভিনয়ের আত্মপ্রকাশের পরে, তিনি রিতেশ দেশমুখের সাথে লাই ভারি (২০১৪) ছবিতে তাঁর ভূমিকায় বিরাট সাফল্য অর্জন করেছিলেন। ।[১]

অদিতি পোহনকর
জন্ম৩১শে ডিসেম্বর ১৯৯৪
পেশাঅভিনেত্রী
কর্মজীবন২০১০-বর্তমান

প্রাথমিক জীবনসম্পাদনা

আদিতি পোহনকর ১৯৯৪ সালের ৩১শে ডিসেম্বর জন্মগ্রহণ করেছিলেন। তাঁর বাবা ও মায়ের নাম যথাক্রমে সুধীর ও শোভা পোহনকর। তাঁর বাবা ছিলেন প্রাক্তন ম্যারাথন দৌড়বীর এবং তাঁর মা ছিলেন জাতীয় স্তরের প্রাক্তন হকি খেলোয়াড়। তাঁর ঠাকুমা সুশীলা “তাই” পোহনকর ছিলেন কিরানা ঘরানার এক ধ্রুপদী কণ্ঠশিল্পী, শাস্ত্রীয় কণ্ঠশিল্পী অজয় পোহনকর তাঁর কাকা। অভিজিৎ পোহঙ্কর তাঁর খুড়তুতো ভাই। [১]

কর্ম জীবনসম্পাদনা

একজন উচ্চাকাঙ্ক্ষী নাট্য অভিনেত্রী হিসাবে, ২০১৪ সালে আদিতি সত্যদেব দুবের সাথে পরিচিত হন। অভিনেতা মকরন্দ দেশপাণ্ডে কে সত্যদেব বলেছিলেন, মুম্বাইয়ের মঞ্চ নাটকের অভিনয়শিল্পী হিসাবে আদিতির অভিনয় জীবনের জন্য পরামর্শ দিতে।[১] অদিতি একই সঙ্গে ছবিতে অভিনয় করার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছিলেন এবং হিন্দি সংহিত চলচ্চিত্র লাভ সেক্স অর ধোখা (২০১০) -তে একটি ছোট্ট ভূমিকায় অভিনয় করে তিনি চলচ্চিত্র জীবনে পা রেখেছিলেন। অদিতি রেখা সরায়ের ছোট বাজেটের মারাঠি ছবি কুনাসাথী কুনিটারি (২০১১) তে প্রবীণ অভিনেতা অশোক সরফ, স্মিতা জয়কর এবং পুনম ধিল্লোঁর সাথে কাজ করেছিলেন, যে ছবিটি সীমিতভাবে প্রকাশিত হয়েছিল। ২০১২ সালে, অদিতি এম এস অনিল পরিচালিত একটি মালায়ালাম ছবিতে অভিনয়ের জন্য চুক্তি স্বাক্ষর করেছিলেন এবং মালয়ালম ভাষা শিখতে অল্প কিছুদিনের জন্য কেরলে চলে এসেছিলেন, কিন্তু প্রকল্পটি স্থগিত হয়ে যায়।[২][৩]

মুম্বাইয়ে মকরন্দের টাইম বয় নাটকটি দেখে অদিতিকে পরিচালক নিশিকান্ত কামাত চিহ্নিত করেছিলেন, যেখানে অভিনেত্রী সাত বছরের ছেলের চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন।[১] কামাত অদিতিকে তাঁর মারাঠি ছবি লাই ভারির একটি চরিত্রে অভিনয় করার জন্য দু'দিন ধরে পর্দায় চেহারা পরীক্ষা করে দেখেছিলেন এবং তাঁর প্রকৃতি দেখে খুশি হয়ে তাঁকে রিতেশ দেশমুখের বিপরীতে অভিনয়ের জন্য পছন্দ করে নেন। অদিতি প্রকাশ করেছেন যে, চিত্রায়ন চলার সময়, ছবির চরিত্রে প্রবেশ করার জন্য অভিনেত্রী হিসাবে তিনি যা করতে চান, তা করার স্বাধীনতা কামাত তাঁকে দিয়েছিলেন। তিনি নিজেকে "ভূতে পাওয়া ব্যক্তি" হিসাবে কল্পনা করেছিলেন।[১] লাই ভারি ইতিবাচক পর্যালোচনার জন্য উন্মুক্ত হয়েছিল, অভিনেত্রী আদিতির খলনায়ক নন্দিনী চরিত্রটি সমালোচকদের প্রশংসা পেয়েছিল।[৪][৫] ছবিটি মুক্তির পর সর্বকালের সবচেয়ে লাভজনক মারাঠি ছবিতে পরিণত হয়েছিল।[৬]

২০১৬ সালের শেষদিকে, অদিতি পোহনকর তামিল ভাষার দুটি ছবিতে স্বাক্ষর করে সংক্ষিপ্ত বিশ্রাম নিয়ে পরে আবার অভিনয়ে ফিরেছিলেন। একটি বহু তারকা খচিত হাসির চলচ্চিত্র জেমিনি গণেশানুম সুরুলি রাজানুম (২০১৭) তে তিনি অভিনেত্রী আনন্দীর বদলে অভিনয়ের সুযোগ পেয়েছিলেন। মূল ভূমিকায় ছিলেন অথর্ব এবং তাঁর সাথে ছিলেন আরও তিনজন অভিনেত্রী, রেজিনা ক্যাসান্ড্রা, প্রণীথা সুভাষ এবং ঐশ্বর্যা রাজেশ[৭] এরপরে অদিতি সেলভরাঘাওয়ানের রোমান্টিক নাটকীয় চলচ্চিত্র মান্নাবন বন্ঠনাদি (২০১৭) তে স্বাক্ষর করেছিলেন, যেখানে তিনি সন্তানমের বিপরীতে অভিনয় করেছেন। [৮][৯]

অন্যান্য কাজসম্পাদনা

চলচ্চিত্র ও নাট্যশিল্পে তাঁর অভিনয়ের কাজের পাশাপাশি, আদিতি মডেল হিসাবে কাজ করেছেন এবং ২০১৪ সালে আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব গোয়ায় লাল কার্পেটে হেঁটেছেন। তিনি ক্যাডবারি মাঞ্চ, গোদরেজ এআর, এয়ারটেল, লেনকার্ট এবং স্যামসাং সহ কুড়িটিরও বেশি ব্র্যান্ডের বিজ্ঞাপন করেছেন, যার পরিচালক ছিলেন সুজিত সরকার[১][১০]

অদিতি সেলিব্রেটি ক্রিকেট লীগ ফ্র্যাঞ্চাইজি, বীর মারাঠির সমর্থক ছিলেন এবং দলের ম্যাচগুলিতে উপস্থিত থাকতেন। [১]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "Lai Bhaari star Aaditi to make Bollywood Khans her mentors : Bollywood Helpline" 
  2. Santhosh, K. (২৮ অক্টোবর ২০১২)। "Straddling stage, screen and stadium"The Hindu 
  3. "Aaditi to debut in Mollywood - Times of India"The Times of India 
  4. "Review: Lai Bhaari is awesome"Rediff 
  5. "সংরক্ষণাগারভুক্ত অনুলিপি"। ১৯ মে ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩১ মার্চ ২০২০ 
  6. "Riteish Deshmukh would be a fantastic father: Aaditi Pohankar"। ২৭ নভেম্বর ২০১৪। 
  7. "Anandhi walks out; now, Aaditi in Atharvaa's film - Times of India"The Times of India 
  8. "Aaditi Pohankar in Selva-Santhanam untitled flick"The New Indian Express 
  9. "Aaditi Pohankar in Selvaraghavan- Santhanam film!"Sify 
  10. "When Aaditi Pohankar went fishing with the King - Sushant Singh Rajput!"Urban Asian। ৬ অক্টোবর ২০১৫। 

বহিঃসংযোগসম্পাদনা