হেমেন্দ্রপ্রসাদ ঘোষ

বাঙালি লেখক

'হেমেন্দ্রপ্রসাদ ঘোষ' (২৪ সেপ্টেম্বর ১৮৭৬ - ১৬ ফেব্রুয়ারি ১৯৬২) একজন বাঙালি সাহিত্যিক, সম্পাদক এবং সাংবাদিক।[১][২]

হেমেন্দ্র্রপ্রসাদ ঘোষ বর্তমান বাংলাদেশের যশোহরের চৌগাছা-তে জন্মগ্রহণ করেন। তার পিতার নাম গিরীন্দ্রপ্রসাদ ঘোষ। ১৮৯৩ খ্রিষ্টাব্দে কলকাতার হেয়ার স্কুল থেকে এন্ট্রান্স পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হন। প্রেসিডেন্সি কলেজ থেকে ইংরেজিতে অনার্স নিয়ে তিনি বিএ পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হন।[১]

১৩০০ বঙ্গাব্দ থেকে 'সাহিত্য' পত্রিকার সাথে তার ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক ছিল। এছাড়া 'দাসী', 'সুহৃদ', 'উৎসাহ', 'মুকুল', 'ভারতী', 'বঙ্গদর্শন' প্রভৃতি পত্রিকাতে তার রচিত বহু গদ্য ও কবিতা প্রকাশিত হয়েছিল। তিনি 'ক্যালকাটা রিভিউ', 'হিন্দুস্তান রিভিউ' প্রভৃতি পত্রিকার লেখক ছিলেন।[১]

১৯০৬ খ্রিষ্টাব্দে অরবিন্দ ঘোষ, শ্যামসুন্দর চক্রবর্তী ও বিপিনচন্দ্র পালের সঙ্গে 'বন্দেমাতরম' পত্রিকা পরিচালনা করেন।[১][২]

সাংবাদিক হিসাবে তিনি বিখ্যাত ছিলেন। সুরেশচন্দ্র সমাজপতি তার সাংবাদিক জীবনের গুরু। তিনি লন্ডনের 'ইনস্টিটিউট অফ জার্নালিস্ট'-এর সদস্য, 'দৈনিক বসুমতী'র সম্পাদক এবং ১৯১৭ খ্রিষ্টাব্দে মেসোপটেমিয়ায় প্রেরিত সাংবাদিক প্রতিনিধিদলের সদস্য ছিলেন। ১৯১৮ খ্রিষ্টাব্দে ভারতীয় সংবাদপত্রসেবীদের প্রতিনিধি হিসাবে প্রথম বিশ্বযুদ্ধের সঠিক বিবরণ জানার জন্য ইংল্যান্ড ও মধ্যপ্রাচ্যে যান।[১][২]

হেমেন্দ্রপ্রসাদ ঘোষ বাঙালির জাতীয় আন্দোলনে বহু নেতার পরামর্শদাতা ছিলেন।[১]

কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ে সাংবাদিকতা শিক্ষাদানের ব্যবস্থা হলে তিনি অধ্যাপক হন।[১]

গ্রন্থতালিকা[১]সম্পাদনা

  • বিপত্নীক
  • অধঃপতন
  • প্রেমের জয়
  • নাগপাশ
  • মৃত্যুমিলন
  • অশ্রু
  • নিউ জার্মানি
  • দি নিউজপেপার ইন ইন্ডিয়া
  • কংগ্রেস ও বাঙালী
  • আষাঢ়ে গল্প (বালক পাঠ্য পুস্তক)

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. সংসদ বাঙালী চরিতাভিধান - সাহিত্য সংসদ
  2. স্বাধীনতা সংগ্রামী চরিতাভিধান - ডাঃ ননীগোপাল দেবদাস