প্রধান মেনু খুলুন

হেনরি নিকোলস

নিউজিল্যান্ডীয় ক্রিকেটার

হেনরি মাইকেল নিকোলস (ইংরেজি: Henry Michael Nicholls; জন্ম: ১৫ নভেম্বর, ১৯৯১) ক্রাইস্টচার্চে জন্মগ্রহণকারী নিউজিল্যান্ডের বিশিষ্ট আন্তর্জাতিক ক্রিকেটার। নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট দলের অন্যতম সদস্য তিনি।[১] দলে তিনি মূলতঃ ব্যাটসম্যান হিসেবে খেলে থাকেন। বামহাতে ব্যাটিংয়ের পাশাপাশি ডানহাতে অফ ব্রেক বোলিং করে থাকেন তিনি। ঘরোয়া প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটে ক্যান্টারবারির প্রতিনিধিত্ব করছেন হেনরি নিকোলস। তার আরও দুই ভাই রয়েছে। তন্মধ্যে, উইলি নিকোলস ব্ল্যাক ক্যাপসদের গণমাধ্যম সাংবাদিকের দায়িত্ব পালন করছেন।[২]

হেনরি নিকোলস
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নামহেনরি মাইকেল নিকোলস
জন্ম (1991-11-15) ১৫ নভেম্বর ১৯৯১ (বয়স ২৭)
ক্রাইস্টচার্চ, নিউজিল্যান্ড
ব্যাটিংয়ের ধরনবামহাতি
বোলিংয়ের ধরনডানহাতি অফ ব্রেক
ভূমিকাব্যাটসম্যান
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
টেস্ট অভিষেক
(ক্যাপ ২৬৯)
১২ ফেব্রুয়ারি ২০১৬ বনাম অস্ট্রেলিয়া
ওডিআই অভিষেক
(ক্যাপ ১৮৯)
২৬ ডিসেম্বর ২০১৫ বনাম শ্রীলঙ্কা
শেষ ওডিআই২৫ জানুয়ারি ২০১৬ বনাম পাকিস্তান
টি২০আই অভিষেক
(ক্যাপ ৬৯)
২৬ মার্চ ২০১৬ বনাম বাংলাদেশ
শেষ টি২০আই২৬ মার্চ ২০১৬ বনাম বাংলাদেশ
ঘরোয়া দলের তথ্য
বছরদল
২০১৩-বর্তমানক্যান্টারবারি (দল নং ৮৬)
২০১৬সিডনি থান্ডার (দল নং ৮৬)
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা ওডিআই এফসি এলএ টি২০
ম্যাচ সংখ্যা ৩৫ ৪৩ ২১
রানের সংখ্যা ১৩১ ২,২৭৪ ১,৩৯১ ৪৬১
ব্যাটিং গড় ৪৩.৬৬ ৫৩.৩৮ ৪৩.৪৬ ২৮.৮১
১০০/৫০ -/১ ৪/১৩ ১/১০ -/৫
সর্বোচ্চ রান ৮২ ১৪৪* ১৭৮ ৬১*
বল করেছে - - - -
উইকেট - - - -
বোলিং গড় - -
ইনিংসে ৫ উইকেট - - - -
ম্যাচে ১০ উইকেট - - - -
সেরা বোলিং - -
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ৫/- ৩২/- ২৫/- ১২/-
উৎস: ক্রিকইনফো, ১২ ফেব্রুয়ারি ২০১৬

১৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬ তারিখে আঘাতপ্রাপ্ত জ্যাক ক্যালিসের পরিবর্তে সিডনি থান্ডার দলে অন্তর্ভূক্ত হন।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটসম্পাদনা

ডিসেম্বর, ২০১৫ সালে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে খেলার জন্য নিউজিল্যান্ডের একদিনের আন্তর্জাতিক দলে অন্তর্ভূক্ত হন।[৩] অতঃপর ২৬ ডিসেম্বর, ২০১৫ তারিখে সফরকারী শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ক্রাইস্টচার্চের হাগলে ওভালে তার ওডিআই অভিষেক হয়।[৪]

২৫ জানুয়ারি, ২০১৬ তারিখে ব্যাসিন রিজার্ভে সফরকারী পাকিস্তানের বিপক্ষে একদিনের আন্তর্জাতিকে নিজস্ব সর্বোচ্চ ৮২ রান তোলেন। এরফলে তার দল ৭০ রানের ব্যবধানে জয় পায়। ঐ খেলায় তিনি ম্যান অব দ্য ম্যাচের পুরস্কার লাভ করেন।[৫]

১২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬ অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে তার টেস্ট অভিষেক ঘটে। [৬] ফেব্রুয়ারি, ২০১৬ তারিখে ভারতে অনুষ্ঠিত আইসিসি বিশ্ব টুয়েন্টি২০ প্রতিযোগিতায় খেলার জন্য মনোনীত হন। তিনি নিয়মিত উইকেট-রক্ষক লুক রঙ্কি'র বিকল্প হিসেবে দলে অন্তর্ভূক্ত হন।[৭] ২৬ মার্চ, ২০১৬ তারিখে গ্রুপ পর্বের শেষ খেলায় বাংলাদেশের বিপক্ষে তার টুয়েন্টি২০ আন্তর্জাতিকে অভিষেক হয়।[৮]

ম্যান অব দ্য ম্যাচসম্পাদনা

নং প্রতিপক্ষ মাঠ তারিখ খেলায় অবদান ফলাফল
1 পাকিস্তান বেসিন রিজার্ভ, ওয়েলিংটন ২৫ জানুয়ারি, ২০১৬ ৮২ (১১১ বল, ৭x৪); ১ কট   নিউজিল্যান্ড ৭০ রানে বিজয়ী।[৯]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "Henry Nicholls"ESPN Cricinfo। সংগ্রহের তারিখ ২৯ অক্টোবর ২০১৫ 
  2. "The Blackcaps brothers"Cricinfo। সংগ্রহের তারিখ ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৬ 
  3. "Boult rested; Nicholls earns maiden call-up"ESPNcricinfo। ESPN Sports Media। ১৪ ডিসেম্বর ২০১৫। সংগ্রহের তারিখ ১৪ ডিসেম্বর ২০১৫ 
  4. "Sri Lanka tour of New Zealand, 1st ODI: New Zealand v Sri Lanka at Christchurch, Dec 26, 2015"ESPNcricinfo। ESPN Sports Media। ২৬ ডিসেম্বর ২০১৫। সংগ্রহের তারিখ ২৬ ডিসেম্বর ২০১৫ 
  5. Fernando, Andrew Fidel। "Nicholls leads revival to sink Pakistan"। ESPNcricinfo। সংগ্রহের তারিখ ২৫ জানুয়ারি ২০১৬ 
  6. "Australia tour of New Zealand, 1st Test: New Zealand v Australia at Wellington, Feb 12-16, 2016"ESPN Cricinfo। সংগ্রহের তারিখ ১২ ফেব্রুয়ারি ২০১৬ 
  7. "NZ pick spin trio for World Twenty20"Cricinfo। সংগ্রহের তারিখ ১ ফেব্রুয়ারি ২০১৬ 
  8. "World T20, 28th Match, Super 10 Group 2: Bangladesh v New Zealand at Kolkata, Mar 26, 2016"ESPNcricinfo। ESPN Sports Media। ২৬ মার্চ ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ ২৬ মার্চ ২০১৬ 
  9. "Pakistan in New Zealand ODI Series, 2015/16 – New Zealand v Pakistan Scorecard"ESPNcricinfo। ২৫ জানুয়ারি ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ ২৫ জানুয়ারি ২০১৬ 

আরও দেখুনসম্পাদনা

বহিঃসংযোগসম্পাদনা