সিসিমপুর

টেলিভিশন সিরিজ

সিসিমপুর হচ্ছে শিশুদের জন্য টেলিভিশন অনুষ্ঠান সেসামি স্ট্রিট-এর বাংলাদেশি সংস্করণ। এটির নতুন পর্ব প্রতি শুক্রবার বাংলাদেশ টেলিভিশনে প্রচারিত হয়ে থাকে। এছাড়াও, অনুষ্ঠানটি আরটিভি এবং দুরন্ত টিভিতে সম্প্রচার করা হয়ে থাকে।[১] ১৪ এপ্রিল ২০০৪, পহেলা বৈশাখে অনুষ্ঠানটি যাত্রা শুরু করে৷

১২৩ সিসিমপুরের লোগো
বাংলাদেশে যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত আর্ল মিলারের সাথে সিসিমপুরের চরিত্র

প্রথম মৌসুমে এটির মোট ২৬টি পর্ব নির্মিত হয়, এবং ফেব্রুয়ারি ২০০৬ পর্যন্ত এটির দ্বিতীয় মৌসুমে ৩৬টি পর্ব নির্মিত হয়।[২] ইউএসএইড এই অনুষ্ঠানটি নির্মাণে আর্থিক সহায়তা প্রদান করে থাকে। অনুষ্ঠানটি ১২ টি মৌসুমে ৭০০ এরও অধিক পর্ব প্রচারিত হয়েছে।[১]

চরিত্রসমূহ সম্পাদনা

  • হালুম — একটি বেঙ্গল টাইগার। মাছ খেতে খুবই ভালোবাসে। Voice by Ashraful Ashish
  • ইকরি মিকরি — একটি ছোট দানব আকৃতির মেয়ে পুতুল। যথেষ্ট ভাবুক একটি চরিত্র। সে নিজেকে নাম ধরে উপস্থাপন করতে ভালোবাসে। এই চরিত্রটি নওসাবা আহমেদ ২০১০-২০১৪, kabyakatha Proteeti ২০১৫-২০১৭ voice দিয়েছেন।
  • শিকু — একটি ছোট শিয়াল। বিজ্ঞানমনষ্ক, যুক্তিবাদী, গোয়েন্দা। শিকুর বলতে পারো অনুষ্ঠানের উপস্থাপক।
  • টুকটুকি — একটি মেয়ে পুতুল। বই পড়তে ভালোবাসে। সে দুই বেণী করতে ভালবাসে। হাতে চুড়ি পরে থাকে। টুকটুকি খুবই মিশুক প্রকৃতির মেয়ে। দ্য নিউ টুকটুকি অপেরার উপস্থাপক। voice by Nawshaba Ahmed
  • মানিক-রতন — দুইটি ভেড়া জুটি। তাদের একসঙ্গে মানিক-রতন হিসাবে সম্মোধন করা হয়।
  • "আর্নিও বার্ট"
  • বিস্কুট পাগলা
  • মিঃ গ্রোভার

মানব চরিত্র সম্পাদনা

  • লাল মিয়া — ডাকপিয়ন। সিসিমপুরের যাত্রা শুরুর দিকে সে অভিনয় শুরু করেছিল। এরপর, সে মৃত্যুবরণ করে। সিসিমপুরে তার নামে একটি পাঠাগার আছে।
  • মুকুল — বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পাসকৃত একটি যুবক ও উদ্যোক্তা। (চঞ্চল চৌধুরী)
  • সুমনা — সিসিমপুরের স্কুলের শিক্ষক। (রুনা খান)
  • গুণী ময়রা — মিষ্টির দোকানদার। (সৈয়দ দুলাল)
  • আশা — গুণীর স্ত্রী, এবং সিসিমপুরের একমাত্র গ্রন্থাগারটির গ্রন্থাগারিক।
  • শান্ত — গুণী ও আশার ছেলে।
  • বাহাদুর — সিসিমপুরের ফেরিওয়ালা। (শাহাদাৎ হোসেন)

সাফল্য সম্পাদনা

২০০৭ সালে এসিপিআর পরিচালিত একটি গবেষণায় দেখা যায়, যেসব শিশু সিসিমপুর অনুষ্ঠানটি নিয়মিত দেখে, তারা তাদের চেয়ে এক বছরের বড় শিশু, যারা সিসিমপুর দেখে না, তাদের চেয়ে ভাষা, বর্ণ, গণিত ও সামাজিক-সাংস্কৃতিক বিষয়ে বেশি দক্ষতা প্রদর্শন করে থাকে।[১] এছাড়া, বিবিসি ওয়ার্ল্ড সার্ভিস ট্রাস্ট পরিচালিত একটি জরিপে সিসিমপুর শিশুতোষ অনুষ্ঠান হিসেবে শীর্ষস্থানীয় এবং সামগ্রিকভাবে তৃতীয় জনপ্রিয় অনুষ্ঠান হিসেবে নির্বাচিত হয়।[১]

পুরস্কার সম্পাদনা

  • শ্রেষ্ঠ মিক্সড মিডিয়া সিরিজ বিভাগে ১৪তম আন্তর্জাতিক কিডস্ক্রিন পুরস্কার[৩]

আরো দেখুন সম্পাদনা

তথ্যসূত্র সম্পাদনা

  1. "দুরন্তর পর্দায় প্রতিদিন 'সিসিমপুর'"প্রথম আলো। ১০ জুলাই ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ১০ জুলাই ২০১৯ 
  2. "USAID Bangladesh in Focus: USAID Introduces Sesame Street Television Program in Bangladesh"। ১৯ জুন ২০০৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩০ মার্চ ২০১০ 
  3. "'Sisimpur' wins International Kidscreen Awards"ঢাকা ট্রিবিউন (ইংরেজি ভাষায়)। ২০ জুলাই ২০২২। সংগ্রহের তারিখ ২৬ জুলাই ২০২২ 

বহিঃসংযোগ সম্পাদনা