রজার কিথ "সিড" ব্যারেট (জানুয়ারি ৬, ১৯৪৬ – জুলাই ৭, ২০০৬) ছিলেন একজন ব্রিটিশ সঙ্গীতঙ্গ, সুরকার, গায়ক, গানলেখক, চিত্রশিল্পী এবং কবি। পিংক ফ্লয়েড ব্যান্ডের প্রতিষ্ঠাতা সদস্য হিসেবে সবচেয়ে ভাল পরিচিত, র‌্যারেট ছিলেন ব্যান্ডটির প্রথম দিককার প্রধান গায়ক, গিটারবাদক এবং প্রধান গীতিকার এবং ব্যান্ডের নামকরণের কৃতিত্বধারী। ব্যারেট পিংক ল্লয়েড ছেড়ে যান এপ্রিল ১৯৬৮ সালে এবং পরবর্তীতে জীবনব্যাপী ট্রোমাটাইজেশন ঘটায় মানসিক অসুস্থতার কারণে হাসপাতালে থাকতে হয়েছিল।[২]

সিড ব্যারেট
সিড ব্যারেট (১৯৬৯).jpg
সিড ব্যারেট ১৯৬৯ সালে
প্রাথমিক তথ্য
স্থানীয় নামSyd Barrett
জন্ম নামরজার কিথ ব্যারেট
আরো যে নামে
পরিচিত
সিড
জন্ম(১৯৪৬-০১-০৬)৬ জানুয়ারি ১৯৪৬
ক্যামব্রিজ, ইংল্যান্ড
উদ্ভবক্যামব্রিজ
মৃত্যু৭ জুলাই ২০০৬(2006-07-07) (বয়স ৬০)
ক্যামব্রিজ, ইংল্যান্ড
ধরনসাইকেডেলিক রক, স্পেস রক, সাইকেডেলিক লোক, ব্লুজ রক, পরীক্ষামূলক রক, আঁভা-গার্ড, সাইকেডেলিক পপ[১]
পেশাসংগীতজ্ঞ, গায়ক-গানলেখক, শিল্পী, কবি
বাদ্যযন্ত্রসমূহকণ্ঠ, গিটার, পিয়ানো
কার্যকাল১৯৬৪–১৯৭৪
লেবেলহার্ভেস্ট
সহযোগী শিল্পীপিংক ফ্লয়েড, স্টার্স
ওয়েবসাইটপ্রাতিষ্ঠানিক ওয়েবসাইট

ব্যারেট দশ বছরের কম সময় ধরে সঙ্গীতে সক্রিয় ছিলেন। পিংক ফ্লয়েড সঙ্গে, তিনি চারটি একক, পাশাপাশি তাদের আত্মপ্রকাশ অ্যালবাম এবং বিভিন্ন অপ্রকাশিত গান রেকর্ড করেন। ব্যারেট তার প্রথম একক অ্যালবাম দ্য ম্যাডকেপ লাফস থেকে "অক্টোপাস" গানের মাধ্যমে ১৯৬৯ সালে তার একক কর্মজীবন শুরু করেন। অ্যালবামটি এক বছরের কোর্সের উপর পাঁচজন পৃথক প্রযোজকের (পিটার জেনার, ম্যালকম জোন্স, ডেভিড গিলমোর, রজার ওয়াটার্স এবং ব্যারেট নিজে) সঙ্গে রেকর্ড করা হয়েছিল। ম্যাডকেপ মুক্তির প্রায় দুই মাস পর, ব্যারেট তার দ্বিতীয় এবং সর্বশেষ ব্যারেট (১৯৭০) অ্যালবামের কাজ শুরু করেন, গিলমোর প্রযোজনা এবং রিচার্ড রাইটের সমন্বিত অবদানে। তিনি ২০০৬ সালে তার মৃত্যু পর্যন্ত স্ব-আরোপিত নিঃসঙ্গতায় জীবনযাপন করেন। ১৯৮৮ সালে, অপেল অ্যালবামের একটি অপ্রকাশিত ট্র্যাক এবং আউটটেক, ব্যারেটের অনুমোদনে ইএমআই কর্তৃক মুক্তি দেয় হয়।

ব্যারেটের উদ্ভাবনী গিটার কাজ এবং পরীক্ষামূলক কৌশল অন্বেষণ যেমন ঐক্যহীনতা, বিকৃতি এবং ডেভিড বোয়িব্রিয়ান ইনো সহ বিভিন্ন সঙ্গীতশিল্পীর প্রভাবের প্রতিক্রিয়া নজরে আসে। তার রেকর্ডিংয়ে এইসব শিল্পীদের দৃঢ়ভাবে ইংরেজি-স্বরাঘাত কণ্ঠ্যের প্রভাব রয়েছে উল্লেখ করা হয়। সঙ্গীত ছাড়ার পর, ব্যারেট চিত্রকলা শুরু করেন এবং নিজেকে বাগান করায় নিবেদিত রাখেন। ১৯৮০-এর দশকে তার জীবনী উপস্থাপিত হয়। পিংক ফ্লয়েড তার সম্মানার্থে বিভিন্ন লেখা এবং রেকর্ড প্রকাশ করেছে, এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য হল ১৯৭৫ সালের উইশ ইউ ওয়্যার হেয়ার অ্যালবাম, যেখানে তার প্রতি শ্রদ্ধাস্বরূপ "শাইন অন ইউ ক্রেজি ডায়মন্ড" গান অন্তর্ভুক্ত হয়েছে।

ডিস্কোগ্রাফিসম্পাদনা

স্টুডিও অ্যালবাম

চলচ্চিত্রের তালিকাসম্পাদনা

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

পাদটিকা
উদ্ধৃতি
  1. Unterberger, Richie (২০০৬)। "Review of Syd Barrett"Allmusic। সংগ্রহের তারিখ জুলাই ৩১, ২০১৫ 
  2. Patterson, R. Gary (২০০৪)। Take a Walk on the Dark Side: Rock and Roll Myths, Legends, and Curses। Touchstone (প্রকাশিত হয় জুলাই ৬, ২০০৪)। পৃষ্ঠা ১৮০। আইএসবিএন 978-0-7432-4423-7। সংগ্রহের তারিখ জুলাই ৩১, ২০১৫ 

উৎসসম্পাদনা

বহিঃসংযোগসম্পাদনা