প্রধান মেনু খুলুন

সরকারি রাজেন্দ্র কলেজ (ইংরেজি: Government Rajendra College) : দক্ষিণ বাংলার অন্যতম শ্রেষ্ঠ বিদ্যাপীঠ সরকারি রাজেন্দ্র কলেজ ১৯১৮ সালে প্রতিষ্ঠিত হয় । এটি বাংলাদেশের ফরিদপুর জেলার একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। এটি ফরিদপুর জেলা শহরে অবস্থিত।

সরকারী রাজেন্দ্র কলেজ
Government Rajendra College
Rajendra College Logo.jpg
ধরনসরকারী কলেজ
স্থাপিত১৯১৮
অধ্যক্ষপ্ৰফেসর মোঃ মোশার্রফ আলী
অবস্থান,
২৩°৩৬′১৫″ উত্তর ৮৯°৫০′৩১″ পূর্ব / ২৩.৬০৪০৮৭° উত্তর ৮৯.৮৪২০৩২° পূর্ব / 23.604087; 89.842032স্থানাঙ্ক: ২৩°৩৬′১৫″ উত্তর ৮৯°৫০′৩১″ পূর্ব / ২৩.৬০৪০৮৭° উত্তর ৮৯.৮৪২০৩২° পূর্ব / 23.604087; 89.842032
শিক্ষাঙ্গন২টি
সংক্ষিপ্ত নামস.রা.ক.
অধিভুক্তিবাংলাদেশ জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়
ওয়েবসাইটhttp://www.rajendracollege.edu.bd/

পরিচ্ছেদসমূহ

অবস্থানসম্পাদনা

ফরিদপুর শহর থেকে ২ কিলোমিটার পূর্বে রাজেন্দ্র কলেজের মূল ক্যাম্পাস অবস্থিত। শাখা পদ্মা নদীর পশ্চিম প্রান্তে মোট প্রায় ৫৪.১ একর জায়গা নিয়ে গড়ে উঠেছে সরকারি রাজেন্দ্র কলেজের মূল ক্যাম্পাস। রাজধানী ঢাকা থেকে ১৩০ কিলোমিটার দক্ষিণ-পূর্বে সরকারি রাজেন্দ্র কলেজের অবস্থান।

নামকরণসম্পাদনা

১৫ নভেম্বর ১৯১৫ সালে অম্বিকাচরণ মুজমদার ফরিদপুরের গণ্যমান্য ব্যক্তিদের নিয়ে সভা করে ফরিদপুর শহরে একটা ২য় গ্রেডের কলেজ স্থাপনের রূপরেখা প্রণয়নের জন্য কমিটি গঠন করেন। উক্ত কমিটি কলেজ প্রতিষ্ঠা ও পরিচালনার জন্য ৮০ হাজার টাকার প্রাথমিক তহবিল গঠনের সুপারিশ করে। শহরের গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ ও ব্যবসায়ীদের নিকট হতে মাত্র ৪০ হাজার টাকা সংগৃহীত হয়। বাকি টাকার জন্য অম্বিকাচরণ ভাবতে থাকেন। তিনি ফরিদপুর জেলার বাইশরশির জমিদার রমেশ নারায়ণ রায় চৌধুরীর নিকট আর্থিক সহায়তার বিষয়টি উত্থাপন করেন। রমেশ নারায়ণ রায় চৌধুরী কলেজের নাম তাঁর স্বর্গীয় পিতা রাজেন্দ্র নারায়ণ রায় চৌধুরীর নামে করার শর্তে ৫০ হাজার টাকা দেয়ার প্রস্তাব করেন। কলেজ কমিটি উক্ত প্রস্তাবে স্বীকৃত হয়ে কলেজের নামকরণ করেন ‘‘রাজেন্দ্র কলেজ’’। অম্বিকাচরণ মজুমদারের প্রাণান্ত প্রচেষ্টায় ১৯১৮ সালের ১৩ মে ভারত সরকারের নিকট হতে রাজেন্দ্র কলেজ অধিভুক্তির চূড়ান্ত অনুমোদন লাভ করে।

অবকাঠামোসম্পাদনা

সরকারি রাজেন্দ্র কলেজ মূলত ২টি ক্যাম্পাসে বিভক্ত। এই ২টি ক্যাম্পাসের একটি ফরিদপুর শহরের মধ্যেই ফরিদপুর স্টেডিয়াম এর পাশে অবস্থিত। একে ডিগ্রী শাখা বা শহর শাখা বলা হয়ে থাকে। অন্যটি শহর থেকে কিছুটা দূরে বায়তুল-আমান এলাকায় অবস্থিত। এটিকে অনার্স শাখা বা বায়তুল-আমান শাখা বলা হয়ে থাকে।

কলেজ প্রতিষ্ঠার সংক্ষিপ্ত ইতিহাসসম্পাদনা

ঊনবিংশ শতাব্দীর প্রথম দিকে ফরিদপুরে একটি কলেজ প্রতিষ্ঠার প্রয়োজনীয়তা অনুভূত হয় । কেননা এ সময় ফরিদপুর জেলায় ৩৫টি উচ্চ বিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা লাভ করে । ফরিদপুর জেলার বিভিন্ন উচ্চ বিদ্যালয় থেকে ম্যাট্রিক পাশ করা শিক্ষার্থীদের উচ্চ শিক্ষার পথ সুগম করতে ফরিদপুর শহরে একটি কলেজ প্রতিষ্ঠার দাবি উস্থাপিত হয় । কিন্তু স্থানীয় প্রশাসন বিষয়টির গুরুত্ব অনুধাবনে ব্যর্থ হন । অতঃপর ফরিদপুরে কলেজ প্রতিষ্ঠার নেতৃত্ব গ্রহণ করেন জেলার বিখ্যাত আইনজীবি এবং প্রখ্যাত কংগ্রেস নেতা (অবিভক্ত কংগ্রেসের সভাপতি) অম্বিকাচরণ মজুমদার

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

বহিঃসংযোগসম্পাদনা