শরিফিয়ান খিলাফত

শরিফিয়ান খিলাফত (আরবি: خلافة شريفية‎‎) ছিল হেজাজের মক্কার শরিফ কর্তৃক ঘোষিত খিলাফত। ১৯২৪ সালে উসমানীয় খিলাফতের বিলুপ্তির পর এই খিলাফত ঘোষিত হয়।

শরিফিয়ান খিলাফত

১৯২৪–১৯২৫
অবস্থাসমর্থনহীন
রাজধানীমক্কা (de facto)
প্রচলিত ভাষাআরবি
ধর্ম
ইসলাম
সরকারখিলাফত
মক্কার শরিফ 
ঐতিহাসিক যুগযুদ্ধমধ্যবর্তীকালীন সময়
• প্রতিষ্ঠা
৩ মার্চ ১৯২৪
• বিলুপ্ত
১৯ ডিসেম্বর ১৯২৫
পূর্বসূরী
উত্তরসূরী
হেজাজ রাজতন্ত্র
সৌদি আরব
বর্তমানে যার অংশ সৌদি আরব

ইতিহাসসম্পাদনা

 
সবুজ অংশ দ্বারা তৎকালীন রাজ্য এবং লাল অংশ দ্বারা বর্তমান অঞ্চল চিহ্নিত।

১৫ শতাব্দীর দিকে শরিফিয়ান খিলাফত নিয়ে কিছু ধারণা তৈরী হলেও তা বাস্তব রূপ লাভ করে ১৯ শতকের শেষদিকে উসমানীয় সাম্রাজ্যের পতনের কারণে তা গুরুত্ব লাভ করতে থাকে। ১৮৭৭-১৮৭৮ সালে রুশ-তুর্কি যুদ্ধে তুর্কিদের পরাজয়ের ফলে এর গুরুত্ব বৃদ্ধি পায়। তবে মধ্য প্রাচ্য বা অন্যান্য অঞ্চলে এই খিলাফত বেশি সমর্থন পায়নি।[১]

১৯২২ সালের ১ নভেম্বর তুরস্কের স্বাধীনতা যুদ্ধের মধ্যবর্তী সময়ে উসমানীয় সাম্রাজ্যের বিলুপ্তি হয়। তবে সুলতানের পদ না থাকলেও খলিফার পদ আরো ১৬ মাস টিকে ছিল। এসময়ের মধ্যে খলিফা ছিলেন দ্বিতীয় আবদুল মজিদ। ১৯২৪ সালের ৩ মার্চ পর্যন্ত নবগঠিত তুর্কি প্রজাতন্ত্রের পৃষ্ঠপোষকতায় তিনি খলিফা হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। এরপর তুরস্কের গ্র্যান্ড ন্যাশনাল এসেম্বলি খিলাফতকে বিলুপ্ত ঘোষণা করে। মক্কার শরিফ হুসাইন বিন আলি নিজেকে খলিফা ঘোষণা করেন। তার দাবি ছিল যে তিনি নবির বংশের ব্যক্তি এবং ইসলামের প্রথম দুই পবিত্র স্থান মসজিদুল হারামমসজিদে নববী তার আওতাধীন রয়েছে তাই তিনি খিলাফতের দাবিদার। এই দুই মসজিদের তত্ত্বাবধান খলিফার জন্য অলঙ্ঘনীয় শর্ত ছিল।[২] দ্য টাইমস অনুযায়ী শেষ উসমানীয় সুলতান ও সাবেক খলিফা ষষ্ঠ মুহাম্মদ একটি টেলিগ্রাফ পাঠিয়ে হুসাইনের খিলাফতের দাবিকে সমর্থন করেন।[৩] তবে হুসাইন বিন আলির খিলাফত এসময় ঔপনিবেশিক শক্তির আওতাধীন আরব বিশ্বের ব্যাপক স্বীকৃতি লাভে ব্যর্থ হয়। ইবনে সৌদের ইখওয়ান বাহিনী কর্তৃক হেজাজ বিজয়ের পর হুসাইনের হাশিমি পরিবারকে হেজাজ ছেড়ে পালিয়ে যেতে হয়।[৪] ফলে শরিফিয়ান খিলাফতের বিলুপ্তি ঘটে।

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. Teitelbaum 2001, pp. 43–44.
  2. Teitelbaum 2001, p. 12
  3. Teitelbaum 2001, p. 240.
  4. Teitelbaum 2001, p. 248.

গ্রন্থপঞ্জিসম্পাদনা

সুন্নি ইসলাম পদবীসমূহ
পূর্বসূরী
উসমানীয় খিলাফত
খলিফা
(স্বঘোষিত, ব্যাপক স্বীকৃতি ছিল না)

১৯২৪
অজ্ঞাত