লক্ষ্মীপ্রসাদ দেবকোটা

নেপালি কবি

লক্ষ্মীপ্রসাদ দেবকোটা (নেপালি: लक्ष्मीप्रसाद देवकोटा, ১২ নভেম্বর ১৯০৯ - ১৪ সেপ্টেম্বর ১৯৫৯, উচ্চারণ: লক্স্মী প্রসাদ দেবকোটা) একজন নেপালি কবি, নাট্যকার এবং ঔপন্যাসিক ছিলেন। নেপালী সাহিত্যে তিনি মহা কবি (আক্ষরিক অর্থে: महाकवि) এবং সোনালি হৃদয়ের কবি হিসাবে পরিচিত। দেবকোটা নেপাল ও নেপালি ভাষাতে সর্বশ্রেষ্ঠ কবি হিসাবেও পরিচিত। মুনা মদন, সুলোচনা, কুঞ্জিনি, এবং শকুন্তলা তার জনপ্রিয় কয়েকটি গ্রন্থ।

মহাকবি

লক্ষ্মীপ্রসাদ দেবকোটা
लक्ष्मीप्रसाद देवकोटा
নেপালি কবি
লক্ষ্মীপ্রসাদ দেবকোটা
শিক্ষা এবং সৎ শাসন মন্ত্রী
কাজের মেয়াদ
২৬ জুলাই ১৯৫৭ – ১৫ মে ১৯৫৮
ব্যক্তিগত বিবরণ
জন্ম১২ নভেম্বর ১৯০৯ (বি সং ১৯৬৬ কার্তিক ২৭)
ধোবিধারা, কাঠমাডৌঁ, নেপাল
মৃত্যু১৪ সেপ্টেম্বর ১৯৫৯ (বয়স ৫০ বছর)
কাঠমান্ডু, নেপাল
জাতীয়তা   নেপাল
দাম্পত্য সঙ্গীমনদেবী চালিসে
সন্তান৫ কন্যা এবং ৪ ছেলে
পেশাকবি নাট্যকার এবং পণ্ডিত

জীবনীসম্পাদনা

দেবকোটার জন্ম ১২ নভেম্বর ১৯০৯ (১৯৬৬ কার্তিক ২৭ বিএস) লক্ষ্মী পুজার রাতে জন্মগ্রহণ করেন। তার পিতা তীল মাধব দেবকোটা এবং মাতা অমর রাজ্য লক্ষ্মী দেবী। তিনি কাঠমান্ডুর ঠাটুনাটিতে (বর্তমানে ধোবীধারা) জন্মগ্রহণ করেন।[১] তার পিতা টিল মাধব সংস্কৃতে পণ্ডিত ছিলেন। সুতরাং, তিনি তার বাবার জিম্মাদারির অধীনে তার মৌলিক শিক্ষা অর্জন করেন। তিনি কাঠমান্ডুর দরবার উচ্চ বিদ্যালয়ে তার শিক্ষা শুরু করেন, যেখানে তিনি সংস্কৃত ব্যাকরণ এবং ইংরেজি উভয়ই অধ্যয়ন করেছিলেন।

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. Muna ওয়েব্যাক মেশিনে আর্কাইভকৃত ৬ ডিসেম্বর ২০১৩ তারিখে Being born on the auspicious day of Laxmi pooja(the goddess of wealth), he was regarded as the gift of goddess Laxmi, but in contradiction to it, he became a gift of Saraswati(goddess of knowledge and education).