প্রধান মেনু খুলুন

রৌরকেলা বিমানবন্দর হল ভারতের ওড়িশা রাজ্যের একটি বিমানবন্দর।এই বিমানবন্দরটি ইস্পাত নগরী রৌরকেলা থেকে ৬ কিলোমিটার (৩.৭ মা) পশ্চিমে চহেন্ড কোলনি এলাকায় অবস্থিত।এই বিমানবন্দরটি ব্যবহৃত হয় প্রধানত রৌরকেলা ইস্পাত কারখানায় কোনো সন্মানীয় বা গুরুত্ব পূর্ণ ব্যক্তি পরিদর্শনে আসলে।এই বিমানবনওদরটি রৌরকেলা তথা ভারতীয় ইস্পাত নিগমের মালিকানাধীন।বর্তমানে এই বিমানবন্দরের সঙ্গে কলকাতা বিমানবন্দরের মধ্যে উড়ান চালুর ঘোষনা হয়েছে রিজনাল কানেক্টিভিটি স্কিমে।[১]

রৌরকেলা বিমানবন্দর
ରାଉରକେଲା ବିମାନ ବନ୍ଦର
সংক্ষিপ্ত বিবরণ
বিমানবন্দরের ধরনব্যক্তিগত/জনসাধারন
মালিকভারতীয় ইস্পাত নিগম লিমিটেট
পরিচালকভারতীয় ইস্পাত নিগম লিমিটেট
সেবা দেয়রৌরকেলা, ওড়িশা
এএমএসএল উচ্চতা৬৫৬ ফুট / ২০০ মিটার
স্থানাঙ্ক২২°১৫′২৩″ উত্তর ০৮৪°৪৮′৫৭″ পূর্ব / ২২.২৫৬৩৯° উত্তর ৮৪.৮১৫৮৩° পূর্ব / 22.25639; 84.81583
মানচিত্র
RRK ওড়িশা-এ অবস্থিত
RRK
RRK
ওড়িশায় বিমানবন্দরটির অবস্থান
রানওয়েসমূহ
দিকনির্দেশনা দৈর্ঘ্য পৃষ্ঠতল
ফুট মি
০৯/২৭ ৬,০০০ ১,৮২৮ আস্ফাল্ট

পরিচ্ছেদসমূহ

ইতিহাসসম্পাদনা

বিমানবন্দরবি নির্মান করে টাটা আইরোন ও ইস্পাত কোম্পানি।এই বিমান বন্দরের সঙ্গে জামশেদপুরের বিমানবন্দরের মধ্যে উড়ান চালু ছিল।এই রানে প্রতিদিন জামশেদপুর থেকে জামশেদপুর ইস্পাত কারখানার আধিকারিক আসতেন সুন্দরগর জেলার ডলডাইট নিয়ে যাওয়ার জন্য।

১৯৬১ সালে এই বিমানবন্দরটি ভারতীয় বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ অধিগ্রহন করে ও নতুন রানওয়ে নির্মান করে।এর পর বায়দূত বিমান সংস্থা এই বিমানবন্দর থেকে উড়ান চলু করে।রাঁচি থেকে কলকাতা ভায়া রৌকেলা ও রাঁচি ভূবনেশ্বর ভায়া রৌরকেলা।এই উড়ান প্রতিদিন চালু ছিল ৮০ এর দশক পর্যন্ত।৯০ এর দশকের আগেই এই পরিসেবা বন্ধ হয়।কারন বায়ুদূত বিমান সংস্থা আর্থিক ক্ষতির মধওযে চলছিল।যার কারনে বায়ুদূত ১০৫ টি বিমানবন্দরে মধ্যে বিমান পরিসেবা চালু রাখে ৪৫ টিতে।১৯৯৪ সালে বিমানবন্দরটি আবার ভারতীয় স্পাত নিগমের হাতে আসে এবং ভিআইপি জেট চালু হয় রৌরকেলা ইস্পাত কারখানার জন্য।

২০০৭ সালে ভারতীয় বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ-এর থেকে তিন জনের একটি পর্যবেক্ষক দল পাঠানো হয় বিমানবন্দরটি পর্যবেক্ষনের জন্যএর পর বিমান বন্দরটি বিমান পরিচালনা ও পরিকাঠামো উন্নয়নের ছাড়পত্র পায়।[২] ওড়িশা এয়ার এর পর উড়ান চালু করে রৌরকেলা ,ভূবনেশ্বর ও ঝাসুগুদা এর মধ্য ১ নভেম্বর ২০১২ সালে।[৩] এর পর ২০১৩ সালের মাঝ্যে রৌরকেল্লা থেকে ভূবনেশ্বর ও কলকাতার মধ্যে প্রতিদিন উড়ান চালু হয়।[৪]

গন্তব্য ও বিমান সংস্থাসম্পাদনা

বিমান সংস্থা গন্তব্য ধরন তথ্য
এয়ার ডেকান কলকাতা(শুরু ২০১৮) অভ্যান্তরীন [৫]
এয়ার ওড়িশা ভূবনেশ্বর অভ্যান্তরীন [৬]

[৫][৭]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "UDAN to take off from Rourkela airport"Indian Express 
  2. "AAI Checks up on Rourkela air strip"। ৬ অক্টোবর ২০০৭। সংগ্রহের তারিখ ১৬ ফেব্রু ২০১২ [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  3. "Dual boost to aviation sector Rourkela on air service radar"  line feed character in |শিরোনাম= at position 30 (সাহায্য)
  4. "Air Odisha introduces flights to industrial towns in state"। ২ নভেম্বর ২০১২। সংগ্রহের তারিখ ৯ এপ্রিল ২০১৩ 
  5. "Centre's nod opens up 6 new routes on Bengal flight map" 
  6. "Air Odisha - Flight Schedule"। ২ মে ২০১৮। ৩ মে ২০১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩ মে ২০১৮ 
  7. "Flight service from Odisha capital to Rourkela to start from September"। ১ এপ্রিল ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৫ এপ্রিল ২০১৭ 

বহিঃসংযোগসম্পাদনা