রেহাল[ক] (উর্দু: رِحال‎‎; আরবি: رَحْل‎‎; তুর্কি: rahle), তাওলা (আরবি: طاولة‎‎) বা কথ্য ভাষায় কুরআন স্ট্যান্ড হলো একটি ইংরেজি X-আকৃতির ভাজযোগ্য গ্রন্থধারক, যেখানে কোনো গ্রন্থ (বিশেষত ধর্মগ্রন্থ) রেখে পাঠ করা হয়। সহজে বহনযোগ্যতার ও রাখার সুবিধার্থে একে ভাঁজ করে ফেলা যায়। প্রধানত মুসলিম, শিখ ও হিন্দু ধর্মাবলম্বীরা এ ধরনের ধারক ব্যবহার করেন। মূলত কাঠ দিয়ে তৈরি হলেও, ক্রমশ প্লাস্টিক প্রভৃতি উপাদানে তৈরি রেহালও জনপ্রিয় হচ্ছে। প্রধানত ধর্মগ্রন্থকে (মুসলিমদের কুরআন, হিন্দুদের রামায়ণ ও শিখদের জপজি সাহিব প্রভৃতি) মেঝে থেকে উপরে ধরে রেখে মর্যাদা সমুন্নত রাখার উদ্দেশ্যে আরবউপমহাদেশীয় দেশসমূহে ঐতিহাসিকভাবে রেহাল ব্যবহৃত হয়ে আসছে।[১][ভাল উৎস প্রয়োজন]

একটি কাঠের বইধারক, যা রেহাল বা তাওলা নামের পরিচিত

ব্যুৎপত্তিসম্পাদনা

“রেহাল” শব্দটি আরবি রাহল (رَحْل) থেকে এসেছে, যার অর্থ “উঠের পিঠের জিন”। খোলা রেহালের সাথে এই ধরনের জিনের সাদৃশ্যের জন্য এরূপ নামকরণ করা হয়েছে।[২]

ইতিহাসসম্পাদনা

শতাব্দীর পর শতাব্দী ধরে মুসলিম বিশ্বে তেলাওয়াতের সময় কুরআন রাখার জন্য রেহাল ব্যবহৃত হয়ে আসছে। বিভিন্ন মসজিদে এদের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ আসবাব হিসেবে বিবেচনা করা হয়। আরবি ক্যালিগ্রাফি বা ফুলেল আরাবেস্ক মোটিফে নকশা রেহালে খোদাই করা হয়। রেহালের নকশা ও আকৃতি দেখে বোঝা যায়, এগুলো প্রাচীন মিশরে ব্যবহৃত ভাঁজযোগ্য চেয়ারের ধারণা থেকে আবির্ভূত হয়েছে।[৩]

চিত্রশালাসম্পাদনা

টীকাসম্পাদনা

  1. ভাষাভেদে “রায়হাল”, “রিহাল” বা “রাহলা” ও “রাহিল” নামেও লেখা হয়।

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "Extra Large Wooden Quran Stand"। Islamicbookstore.com। সংগ্রহের তারিখ ২০১৪-০২-১১ 
  2. Tenerowicz, Eleonora। "Składany pulpit pod Koran"etnomuzeum.eu (পোলিশ ভাষায়)। Ethnographic Museum of Krakow। ২৪ জানুয়ারি ২০২১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  3. "Qur'an stand | Discover Islamic Art | Virtual Museum"islamicart.museumwnf.orgMuseum with No Frontiers। ২৫ জুলাই ২০২১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা।