ম্যাকওএস

অ্যাপল কম্পিউটারের জন্য অপারেটিং সিস্টেম, ২০০১ সালে ম্যাক ওএস এক্স হিসাবে চালু হয়েছিল
(ম্যাক ওএস থেকে পুনর্নির্দেশিত)

ম্যাকওএস ( /ˌmækˈɛs/ ; পূর্ববর্তী ম্যাক ওএস এক্স এবং পরবর্তীতে ওএস এক্স) হলো একটি মালিকানাধীন গ্রাফিক্যাল অপারেটিং সিস্টেম যা ২০০১ সাল থেকে অ্যাপল ইনক. কর্তৃক বিকশিত এবং বাজারজাত করা হয়ে আসছে। এটি অ্যাপলের ম্যাক কম্পিউটারের জন্য প্রাথমিক অপারেটিং সিস্টেম। ডেস্কটপ এবং ল্যাপটপ কম্পিউটারের বাজারে এটি মাইক্রোসফট উইন্ডোজের পরে এবং ক্রোম ওএস-এর আগে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ব্যবহৃত ডেস্কটপ অপারেটিং সিস্টেম।

ম্যাকওএস
MacOS wordmark (2017).svg
চিত্র:MacOS Monterey Desktop.png
ম্যাকওএস মন্টেরি (সংস্করণ ১২) এর স্ক্রিনশট
ডেভলপারঅ্যাপল ইনক.
প্রোগ্রামিং ভাষা
ওএস পরিবারইউনিক্স, ম্যাকিন্টশ
কাজের অবস্থাসক্রিয়
সোর্স মডেলক্লোজড সোর্স (কিছু উন্মুক্ত-উৎসের উপাদানসহ)
প্রাথমিক মুক্তি২৪ মার্চ ২০০১; ২১ বছর আগে (2001-03-24)
মার্কেটিং লক্ষ্যব্যক্তিগত কম্পিউটিং
ভাষাসমূহ[ম্যাকওএস ক্যাটালিনা অনুসারে]: আরবি, কাতালান, ক্রোয়েশিয়ান, চীনা (হংকং), চীনা (সরলীকৃত), চীনা (ঐতিহ্যগত), চেক, ড্যানিশ, ডাচ, ইংরেজি (অস্ট্রেলিয়া), ইংরেজি (যুক্তরাজ্য), ইংরেজি (মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র), ফিনিশ, ফ্রেঞ্চ (কানাডা), ফ্রেঞ্চ (ফ্রান্স), জার্মান, গ্রীক, হিব্রু, হিন্দি, হাঙ্গেরিয়ান, ইন্দোনেশিয়ান, ইতালীয়, জাপানি, কোরিয়ান, মালয়, নরওয়েজিয়ান, পোলিশ, পর্তুগিজ (ব্রাজিল), পর্তুগিজ (পর্তুগাল), রোমানিয়ান, রাশিয়ান, স্লোভাক, স্প্যানিশ (ল্যাটিন আমেরিকা), স্প্যানিশ (স্পেন), সুইডিশ, থাই, তুর্কি, ইউক্রেনীয়, ভিয়েতনামী
হালনাগাদের পদ্ধতি
  • সিস্টেম প্রেফারেন্স (১০.১৪+)
  • ম্যাক অ্যাপ স্টোর (১০.৮–১০.১৩)
  • সফটওয়্যার হালনাগাদ (১০.০–১০.৭)
প্ল্যাটফর্ম
  • এআরএম (ম্যাকওএস মন্টেরে ১২.০-বর্তমান)
  • এক্স৮৬-৬৪ (১০.৪.৭–বর্তমান)
  • আইএ-৩২ (১০.৪.৪–১০.৬.৮; রহিত)
  • পাওয়ারপিসি (১০.০–১০.৫.৮; রহিত)
কার্নেলের ধরনহাইব্রিড (এক্সএনইউ
ইউজারল্যান্ডএসইউএস
ব্যবহারকারী ইন্টারফেস অ্যাকুয়া(গ্রাফিক্যাল)
লাইসেন্সবাণিজ্যিক সফটওয়্যার, মালিকানাধীন সফটওয়্যার
পূর্বসূরীপুরোনো ম্যাক ওএস, নেক্সটস্টেপ
ওয়েবসাইটwww.apple.com/macos
সহায়তার অবস্থা
সমর্থিত

১৯৮৪ থেকে ১৯৯৯ সাল পর্যন্ত নয়টি অবমুক্তি সম্পন্ন ্যাকিন্টশঅ পারেটিং সিস্টেম ক্লাসিক ম্যাক ওএস-এর পর ম্যাকওএস আসে। এই সময়ে অ্যাপলের সহ-প্রতিষ্ঠাতা স্টিভ জবস অ্যাপল ছেড়ে নেক্সট নামক অন্য একটি কোম্পানি শুরু করেছিলেন। তিনি নেক্সটস্টেপ প্ল্যাটফর্মের বিকাশ ঘটান, পরবর্তীতে যেটিকে ম্যাকওএসের ভিত্তি তৈরি করার জন্য অ্যাপল অধিগ্রহণ করে নেয়।

প্রথম ডেস্কটপ সংস্করণ ম্যাক ওএস এক্স ১০.০, ২০০১ সালের মার্চ মাসে প্রকাশিত হয়; এর প্রথম হালনাগাদ ১০.১, সেই বছরের পরে আসে। ম্যাক ওএস এক্স ১০.৫ লেপার্ড [৩] এবং তার পরের সমস্ত অবমুক্তি ইউনিক্স ০৩ প্রত্যয়িত,[৪] তবে ওএস এক্স ১০.৭ লায়ন এক্ষেত্রে ব্যতিক্রম। [৫] অ্যাপলের মোবাইল অপারেটিং সিস্টেম বা আইওএস-কে ম্যাকওএস-এর একটি অবস্থান্তর হিসাবে বিবেচনা করা হয়। [৬]

ম্যাকওএস-এর আসল ব্র্যান্ড পরিচিতির একটি বিশিষ্ট অংশ ছিল রোমান সংখ্যার X এর ব্যবহার, যা ম্যাক ওএস এক্স এবং আইফোন এক্স-এর মতো "দশ" হিসেবে উচ্চারিত হয়, আর সেইসাথে ক্যালিফোর্নিয়ার বড় বিড়ালের প্রজাতি বা স্থানের নাম অনুসারে প্রতিটি অবমুক্তির কোড নামকরণ। [৭] অ্যাপল ২০১২ সালে "ওএস এক্স" নামটি সংক্ষিপ্ত করে এবং তারপরে অ্যাপল এর অন্যান্য অপারেটিং সিস্টেম, যেমন আইওএস, টিভিওএস এবং ওয়াচওএস এর ব্র্যান্ডিংয়ের সাথে সারিবদ্ধ করতে ২০১৬ সালে নামটিকে "ম্যাকওএস" এ পরিবর্তন করে। ম্যাকওএস ১০-এর ষোলটি স্বতন্ত্র সংস্করণের পরে, ২০২০ সালে ম্যাকওএস বিগ স্যর-কে সংস্করণ ১১ হিসাবে উপস্থাপন করা হয় এবং ২০২১ সালে ম্যাকওএস মন্টেরি-কে সংস্করণ ১২ হিসাবে উপস্থাপন করা হয়।

ম্যাকওএস তিনটি প্রধান প্রসেসর আর্কিটেকচারকে সমর্থন করে, ১৯৯৯ সালে পাওয়ারপিসি-ভিত্তিক ম্যাক দিয়ে এর সূত্রপাত ঘটে। ২০০৬ সালে, অ্যাপল ইন্টেল কোর প্রসেসর ব্যবহার করে ম্যাকের একটি লাইনের মাধ্যমে ইন্টেল আর্কিটেকচারে স্থানান্তরিত হয়। ২০২০ সালে অ্যাপল নতুন ম্যাক কম্পিউটারে স্ব-পরিকল্পিত, ৬৪-বিট এআরএম-ভিত্তিক অ্যাপল এম১ প্রসেসর ব্যবহার করে অ্যাপল সিলিকন আর্কিটেকচারে স্থানান্তর শুরু করে।

ইতিহাসসম্পাদনা

বিকাশসম্পাদনা

 
ইউনিক্স-সদৃশ অপারেটিং সিস্টেমগুলোর সরলীকৃত ইতিহাস

ম্যাকওএস যা থেকে উত্তরাধিকার লাভ করে তা ১৯৮৫ সালে অ্যাপল থেকে চলে যাওয়ার পর স্টিভ জবস কর্তৃক প্রতিষ্ঠিত একটি কোম্পানি নেক্সট-এ উদ্ভাবিত হয়। ১৯৮৯ সালে চালু হওয়ার আগে সেখানে ইউনিক্স-সদৃশ নেক্সটস্টেপ অপারেটিং সিস্টেম বিকাশ করা হয়। নেক্সটস্টেপ-এর কার্নেলটি মাচ কার্নেলের উপর ভিত্তি করে তৈরি করা হয়েছে, যা মূলত কার্নেগি মেলন ইউনিভার্সিটিতে তৈরি করা হয়েছিল; এর অতিরিক্ত কার্নেল স্তর এবং নিম্ন-স্তরের ব্যবহারকারী স্থান কোড বিএসডি-এর কিছু অংশ থেকে প্রাপ্ত। [৮] এর গ্রাফিকাল ইউজার ইন্টারফেস একটি অবজেক্ট-ওরিয়েন্টেড জিইউআই টুলকিটের উপরে অবজেক্টিভ-সি প্রোগ্রামিং ভাষা ব্যবহার করে তৈরি করা হয়।

১৯৯০-এর দশকের গোড়ার দিকে, অ্যাপল ট্যালিজেন্ট, কপল্যান্ড এবং গার্শউইন প্রকল্পগুলির মাধ্যমে তার ক্লাসিক ম্যাক ওএসকে সফল করার জন্য একটি "পরবর্তী প্রজন্মের" ওএস তৈরি করার চেষ্টা করে, কিন্তু শেষ পর্যন্ত সবই পরিত্যক্ত হয়। [৯] এটি ১৯৯৬ সালে অ্যাপলকে নেক্সট ক্রয় করার দিকে পরিচালিত করে; নেক্সটস্টেপ, যাকে তখন ওপেনএসটিইপি বলা হত তা অ্যাপলের পরবর্তী প্রজন্মের অপারেটিং সিস্টেমের ভিত্তি হিসাবে কাজ করার সুযোগ করে দেয়। [১০] এই ক্রয়ের ফলে স্টিভ জবস অ্যাপলে একজন অন্তর্বর্তীকালীন সিইও হিসেবে ফিরে আসেন এবং তারপর স্থায়ী সিইও হন। তিনি প্রোগ্রামার-বান্ধব ওপেনস্টেপ-কে এমন একটি সিস্টেমে রূপান্তরিত করেন যা অ্যাপলের প্রাথমিক বাজার অর্থাৎ, বাসাবাড়ির ব্যবহারকারী এবং সৃজনশীল পেশাদারদের দ্বারা গৃহীত হবে। প্রথমে প্রকল্পটির কোড নামকরণ করা হয় "র‍্যাপসোডি" এবং তারপর আনুষ্ঠানিকভাবে এটিকে ম্যাক ওএস এক্স নামকরণ করা হয়। [১১][১২]

ম্যাক ওএস এক্সসম্পাদনা

ম্যাক ওএস এক্স মূলত ম্যাকিন্টশ কম্পিউটারের জন্য অ্যাপলের অপারেটিং সিস্টেমের দশম প্রধান সংস্করণ হিসাবে উপস্থাপিত হয়; ২০২০ পর্যন্ত, ম্যাকওএস-এর সংস্করণগুলি প্রধান সংস্করণ সংখ্যা "১০" ধরে রাখে। ম্যাক ওএস এক্স-এর নামের "এক্স" অক্ষরটি ১০ নম্বরটিকে নির্দেশ করে যা একটি রোমান সংখ্যা, এবং অ্যাপল বলে থাকে যে এই প্রসঙ্গে এটিকে "দশ" হিসেবে উচ্চারণ করা উচিত। যাইহোক, এটি সাধারণত "এক্স" অক্ষরের মতো উচ্চারিত হয়। [১৩][১৪] আগের ম্যাকিন্টশ অপারেটিং সিস্টেম (ক্লাসিক ম্যাক ওএস-এর সংস্করণ) আরবি সংখ্যা ব্যবহার করে নামকরণ করা হয়েছিল, যেমন ম্যাক ওএস ৮ এবং ম্যাক ওএস ৯ । [১৩][১৫] ২০২০ এবং ২০২১ সাল পর্যন্ত, অ্যাপল ধারাবাহিক অবমুক্তির জন্য আরবি সংখ্যার সংস্করণে প্রত্যাবর্তন করে, যেমনঃ ম্যাকওএস ১১ বিগ স্যর এবং ম্যাকওএস ১২ মন্টেরি, যেমনটি তারা আইফোন এক্স এর পরে আইফোন ১১ এবং আইফোন ১২ এর জন্য করেছে।

ম্যাক ওএস এক্স-এর প্রথম সংস্করণ ম্যাক ওএস এক্স সার্ভার ১.০ ছিল একটি অবস্থান্তরপ্রাপ্তিসূচক পণ্য, যা ক্লাসিক ম্যাক ওএস এর মতো একটি ইন্টারফেসের বৈশিষ্ট্যযুক্ত, যদিও এটি পুরানো সিস্টেমের জন্য ডিজাইন করা সফটওয়্যারের সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ ছিল না। ম্যাক ওএস এক্স-এর ভোক্তা পর্যায়ের অবমুক্তিতে আরও পশ্চাৎপদ সামঞ্জস্য অন্তর্ভুক্ত করা হয়। ম্যাক ওএস অ্যাপ্লিকেশনগুলি কার্বন এপিআই এর মাধ্যমে স্থানীয়ভাবে চালানোর জন্য পুনরায় লেখা যেতে পারে; অনেকগুলি কর্মক্ষমতা হ্রাস সহ ক্লাসিক উপাদানের মাধ্যমে সরাসরি চালানো যেতে পারে।

ম্যাক ওএস এক্স-এর ভোক্তা সংস্করণটি ২০০১ সালে ম্যাক ওএস এক্স ১০.০ দিয়ে লঞ্চ করা হয়। পর্যালোচনাগুলি পরিবর্তনমুখী ছিল, এর পরিশীলিত, চকচকে অ্যাকোয়া ইন্টারফেসের জন্য ব্যাপক প্রশংসা পায়, কিন্তু মন্থর কর্মক্ষমতার জন্য এটির সমালোচনা করা হয়। [১৬] অ্যাপলের জনপ্রিয়তা কম হওয়ায়, ফ্রেমমেকার এবং পেজমেকারের মতো বেশ কয়েকটি ক্লাসিক ম্যাক অ্যাপ্লিকেশনের নির্মাতারা ম্যাক ওএস এক্স [১৭] এর জন্য তাদের সফটওয়্যারের নতুন সংস্করণ তৈরি করতে অস্বীকার করে।আরস টেকনিকার কলামিস্ট জন সিরাকুসা, যিনি ১০.১০ পর্যন্ত প্রতিটি বড় ওএস এক্স অবমুক্তি পর্যালোচনা করেছেন, পূর্ববর্তী সময়ে প্রাথমিক অবমুক্তিগুলোকে 'খুবই ধীর, দুর্বল বৈশিষ্ট্যসম্পন্ন' এবং অ্যাকোয়াকে 'অসহনীয়ভাবে ধীর এবং প্রচুর সম্পদ লোভী' হিসাবে বর্ণনা করেছেন।[১৬][১৮][১৯]

অ্যাপল দ্রুত ম্যাক ওএস এক্স [২০] এর বেশ কয়েকটি নতুন অবমুক্তি তৈরি করেছে। [২১] সিরাকুসা-এর সংস্করণ ১০.৩ প্যান্থার-এর পর্যালোচনায় উল্লেখ করেন যে, "বহু বছরের অনিশ্চয়তা এবং ভ্যাপরওয়্যারের মধ্য দিয়ে গিয়ে বড় নতুন অপারেটিং সিস্টেম রিলিজের একটি স্থির বার্ষিক সরবরাহে চলে যাওয়াটা অদ্ভুত।" সংস্করণ ১০.৪ টাইগার, দ্রুত ফাইল অনুসন্ধান এবং উন্নত গ্রাফিক্স প্রক্রিয়াকরণের মতো বেশ কয়েকটি বৈশিষ্ট্য উপস্থাপন করে কথিতভাবে মাইক্রোসফটের কার্যনির্বাহকদের চমকে দেয়, যে বৈশিষ্ট্যগুলো মাইক্রোসফট গ্রহণযোগ্য কর্মক্ষমতা সহ উইন্ডোজে যুক্ত করার জন্য বেশ কয়েক বছর লড়াই করে কাটিয়েছে। [২২]

অপারেটিং সিস্টেমটি বিকশিত হওয়ার সাথে সাথে অ্যাপ্লিকেশন যোগ করা এবং সরানোর কারণে এটি ক্লাসিক ম্যাক ওএস থেকে দূরে সরে যায়। [২৩] সঙ্গীতকে একটি মূল বাজার হিসেবে বিবেচনা করে, অ্যাপল আইটিউনস এবং গ্যারেজব্যান্ড সহ ম্যাকের জন্য আইপড মিউজিক প্লেয়ার এবং মিউজিক সফটওয়্যার তৈরি করে। [২৪] ভোক্তা এবং মিডিয়া বাজারকে লক্ষ্য করে, অ্যাপল তার নতুন "ডিজিটাল লাইফস্টাইল" অ্যাপ্লিকেশন যেমন আইলাইফ স্যুট, ফ্রন্ট রো মিডিয়া সেন্টার এবং সাফারি ওয়েব ব্রাউজারের মাধ্যমে সমন্বিত গৃহ বিনোদনের উপর জোর দেয়। ইন্টারনেটের ক্রমবর্ধমান জনপ্রিয়তার সাথে সাথে অ্যাপল অতিরিক্ত অনলাইন পরিষেবা উপস্থাপন করে, যার মধ্যে রয়েছে ম্যাক, মোবাইলমি এবং অতি সাম্প্রতিক আইক্লাউড পণ্য। এটি পরে ম্যাক অ্যাপ স্টোরের মাধ্যমে তৃতীয় পক্ষের অ্যাপ্লিকেশন বিক্রি করা শুরু করে।

ম্যাক ওএস এক্স-এর নতুন সংস্করণগুলিতে প্রাথমিক সংস্করণগুলির ডোরাকাটা গ্লস এবং স্বচ্ছতা থেকে দূরে সরে এসে সাধারণ ইন্টারফেসের পরিবর্তনগুলিও অন্তর্ভুক্ত ছিল। কিছু অ্যাপ্লিকেশন ১০.৪ সংস্করণে ব্রাশ করা ধাতব অবয়ব, বা নন-পিনস্ট্রিপড টাইটেল বার উপস্থিতি ব্যবহার করতে শুরু করে। [২৫] অ্যাপল লেপার্ডে একটি প্রমিত ধূসর-গ্রেডিয়েন্ট উইন্ডো শৈলী সহ ইন্টারফেসের একত্রীকরণ আনার ঘোষণা দেয়। [২৬][২৭]

২০০৬ সালে, প্রকাশিত প্রথম ইন্টেল ম্যাক-এ ম্যাক ওস এক্স ১০.৪ টাইগার-এর একটি বিশেষ সংস্করণ ব্যবহার করা হয়েছিল। [২৮]

২০০৭ সাল থেকে আইফোনের ঘোষণা এবং প্রকাশ ছিল সিস্টেমের জন্য একটি মূল উন্নয়ন। অ্যাপলের পূর্ববর্তী আইপড মিডিয়া প্লেয়ারগুলো একটি ক্ষুদ্র অপারেটিং সিস্টেম ব্যবহার করলেও, আইফোন ম্যাক ওএস এক্স-এর উপর ভিত্তি করে একটি অপারেটিং সিস্টেম ব্যবহার করত, যা পরে "আইফোন ওএস" এবং তারপরে আইওএস নামে পরিচিত হয়। একই ফ্রেমওয়ার্কের উপর ভিত্তি করে দুটি অপারেটিং সিস্টেমের একযোগে প্রকাশ অ্যাপলের উপর চাপ সৃষ্টি করে, যা আইফোনকে ম্যাক ওএস এক্স ১০.৫ লেপার্ড এর অবমুক্তি বিলম্বিত করতে বাধ্য করে বলে উল্লেখ করা হয়েছে। [২৯] যাইহোক, অ্যাপল তৃতীয় পক্ষের বিকাশকারীদের কাছে আইফোন উন্মুক্ত করার পর এর বাণিজ্যিক সাফল্য বিকাশকারীদের ম্যাক ওএস এক্স-এর প্রতি মনোযোগ আকর্ষণ করে, অনেক আইফোন সফটওয়্যার বিকাশকারী ম্যাক বিকাশকরণে আগ্রহ দেখায়। [৩০]

২০০৭ সালে, ম্যাক ওএস এক্স ১০.৫ লেপার্ড ছিল সর্বজনীন বাইনারি উপাদান সহ একমাত্র অবমুক্তি, যা ইন্টেল ম্যাক এবং নির্বাচিত পাওয়ারপিসি ম্যাক উভয়েই ইনস্টলেশনের সুযোগ দেয়। [৩১] এটি পাওয়ারপিসি ম্যাক সমর্থন সম্পন্ন সর্বশেষ অবমুক্তি। ম্যাক ওস এক্স ১০.৬ স্নো লেপার্ড- এর প্রথম সংস্করণ কেবলমাত্র ইন্টেল ম্যাক-এর জন্য তৈরি করা হয় এবং এটি ছিল ৩২-বিট ইন্টেল ম্যাক সমর্থন সম্পন্ন চূড়ান্ত অবমুক্তি। [৩২] নামটির উদ্দেশ্য ছিল লেপার্ডের একটি পুনরাবৃত্তি হিসাবে এটির স্থিতিকে সংকেত দেওয়ার উদ্দেশ্যে, ব্যবহারকারী-মুখী বৈশিষ্ট্যগুলির পরিবর্তে প্রযুক্তিগত এবং কর্মক্ষমতা উন্নতিতে আলোকপাত করা; প্রকৃতপক্ষে এটি একটি 'নতুন বৈশিষ্ট্য নেই' অবমুক্তি হিসাবে বিকাশকারীদের কাছে স্পষ্টভাবে চিহ্নিত ছিল। [৩৩] এটির অবমুক্তির পর থেকে, বেশ কয়েকটি ওএস এক্স বা ম্যাকওএস অবমুক্তি (যেমন ওএস এক্স মাউন্টেইন লায়ন, ওএস এক্স এল ক্যাপিটান, ম্যাকওএস হাই সিয়েরা, এবং ম্যাকওএস মন্টেরি ) এর পূর্বসূরি থেকে প্রাপ্ত একটি নাম ব্যবহার করে এই ছন্দ অনুসরণ করে; যা ইন্টেল কর্তৃক ব্যবহৃত 'টিক-টক' মডেলের মতো'।

লায়ন এবং মাউন্টেন লায়ন নামক পরবর্তী দুটি সংস্করণে, অ্যাপল কিছু অ্যাপ্লিকেশনকে আইওএস-এর সমসাময়িক সংস্করণ এর মাধ্যমে অনুপ্রাণিত একটি উচ্চ বাস্তবিক ধরণের নকশায় স্থানান্তর করে, যদিও ব্যবহার না করার সময় স্ক্রল বারগুলির মতো নিয়ন্ত্রণের মাধ্যমে কিছু উপাদানকে সরলীকরণ করা হয়। [১৮] এই দিকটি ব্রাশড মেটাল ইন্টারফেসগুলোর মতো কিছু ব্যবহারকারীদের কাছে অ-জনপ্রিয় ছিল, যদিও এটি ইন্টারফেসে বৃহত্তর অ্যানিমেশন এবং বৈচিত্র্যের প্রবণতা অব্যাহত রাখে যেটি পূর্বে টাইম মেশিন ব্যাকআপ ইউটিলিটির মতো ডিজাইনের দিকগুলিতে দেখা গিয়েছিল, যা লেপার্ড এবং স্নো লেপার্ডের চকচকে স্বচ্ছ ডক এবং একটি ঘূর্ণায়মান নীহারিকার সাথে অতীতের ফাইল সংস্করণগুলি উপস্থাপন করে। [৩৪] এছাড়াও, ম্যাক ওএস এক্স ১০.৭ লায়ন-দিয়ে অ্যাপল ম্যাক ওএস এক্স-এর আলাদা সার্ভার সংস্করণ প্রকাশ করা বন্ধ করে দেয়, ম্যাক অ্যাপ স্টোর এর মাধ্যমে একটি পৃথক ডাউনলোডযোগ্য অ্যাপ্লিকেশন হিসাবে সার্ভার টুল বিক্রি করে। একটি পর্যালোচনা সার্ভার পণ্যগুলির প্রবণতাটিকে "সস্তা এবং সহজতর হয়ে উঠা... বড় ব্যবসা থেকে ছোট ব্যবসায়গুলোর দিকে দৃষ্টি স্থানান্তর করা" হিসাবে বর্ণনা করেছে। [৩৫]

ওএস এক্সসম্পাদনা

 
২০১২ থেকে ২০১৩ পর্যন্ত ওএস এক্স লোগো

২০১২ সালে, ওএস এক্স ১০.৮ মাউন্টেইন লায়ন প্রকাশের মধ্য দিয়ে সিস্টেমটির নামটি ম্যাক ওএস এক্স থেকে ওএস এক্স-এ সংক্ষিপ্ত করা হয়। সেই বছর, অ্যাপল ওএস এক্স বিকাশের প্রধান, স্কট ফরস্টলকে সরিয়ে দেয়, এবং ডিজাইনটি আরও সূক্ষ্মতার দিকে পরিবর্তন করা হয়। [৩৬] অ্যাপলের নতুন ইউজার ইন্টারফেস ডিজাইন, ডিপ কালার স্যাচুরেশন, টেক্সট-অনলি বোতাম এবং একটি সূক্ষ্ম, 'ফ্ল্যাট' ইন্টারফেস ব্যবহার করে, ২০১৩ সালে আইওএস ৭ দিয়ে আত্মপ্রকাশ করে। ওএস এক্স ইঞ্জিনিয়াররা আইওএস ৭-এ কাজ করে বলে জানা গেছে; ২০১৩ সালে প্রকাশিত সংস্করণ ওএস এক্স ১০.৯ ম্যাভেরিকস একটি অবস্থান্তরসূচক অবমুক্তি ছিল, যার কিছু স্কিওমরফিক ডিজাইন সরিয়ে দেওয়া হয়েছিল, যদিও ম্যাভেরিকস-এর বেশিরভাগ সাধারণ ইন্টারফেস অপরিবর্তিত ছিল। [৩৭] পরবর্তী সংস্করণ ওএস এক্স ১০.১০ ইয়োসেমাইট, আইওএস ৭ -এর মতো একটি নকশা ধারণ করে কিন্তু মাউস দিয়ে নিয়ন্ত্রণের জন্য উপযুক্ত জটিলতার সম্পন্ন একটি ইন্টারফেস সহ। [৩৮]

২০১২ সাল থেকে, সিস্টেমটি আইওএস- এর মতো একটি বার্ষিক অবমুক্তি সময়সূচীতে স্থানান্তরিত হয়। তারা ২০১৩ সালের পর থেকে আপগ্রেড ফি সম্পূর্ণভাবে অপসারণের আগে, স্নো লিওপার্ড থেকে হালনাগাদের খরচ ক্রমাগতভাবে কমিয়ে দেয়। [৩৯] কিছু সাংবাদিক এবং তৃতীয় পক্ষের সফটওয়্যার বিকাশকারীরা পরামর্শ দিয়েছেন যে এই সিদ্ধান্তটি বা আরও দ্রুত বৈশিষ্ট্য অবমুক্তির সুযোগ দেওয়ার অর্থ হলো, স্থিতিশীলতার উপর আলোকপাত করার কম সুযোগ, তাই নতুন বৈশিষ্ট্যগুলির উপরে স্থিতিশীলতা এবং কর্মক্ষমতা প্রয়োজন এমন ব্যবহারকারীদের জন্য ওএস এক্স-এর কোনও সংস্করণ সুপারিশযোগ্য নয়। [৪০] অ্যাপল-এর ২০১৫ সালের হালনাগাদ বা ওএস এক্স ১০.১১ এল ক্যাপিটান, বিশেষভাবে স্থিতিশীলতা এবং কর্মক্ষমতা উন্নতিতে আলোকপাত করার জন্য চালু করার ঘোষণা দেয়া হয়। [৪১]

ম্যাকওএসসম্পাদনা

 
ম্যাকওএস লোগো

২০১৬ সালে, ম্যাকওএস ১০.১২ সিয়েরা প্রকাশের সাথে সাথে, অ্যাপলের অন্যান্য প্রাথমিক অপারেটিং সিস্টেমগুলির ব্র্যান্ডিংয়ের সাথে সারিবদ্ধ করার জন্য নামটি ওএস এক্স থেকে ম্যাকওএস-এ পরিবর্তন করা হয়, যেমন: আইওএস, ওয়াচওএস এবং টিভিওএ।[৪২] ম্যাকওএস ১০.১২ সিয়েরার প্রধান বৈশিষ্ট্যগুলি হল ম্যাকওএস-এ সিরির প্রবর্তন, অপ্টিমাইজড স্টোরেজ, অন্তর্ভুক্ত অ্যাপ্লিকেশনগুলির উন্নতি, এবং অ্যাপলের আইফোন এবং অ্যাপল ওয়াচের সাথে বৃহত্তর একীকরণ। এইচএফএস+ নামক একটি অত্যন্ত সমালোচিত ফাইল সিস্টেম এর প্রতিস্থাপন হিসাবে অ্যাপল ফাইল সিস্টেম (এপিএফএস) আনার ঘোষণা দেয়া হয় ২০১৬ সালের জুনের অ্যাপলের বার্ষিক ওয়ার্ল্ডওয়াইড ডেভেলপারস কনফারেন্সে (ডব্লিউডব্লিউডিসি)।[৪৩]

অ্যাপল ডব্লিউডব্লিউডিসি ২০১৭-তে সেই বছরের পরে এটি প্রকাশ করার আগে ম্যাকওএস ১০.১৩ হাই সিয়েরার পূর্বরূপ দেখায়। [৪৪] সলিড স্টেট ড্রাইভে চলাকালীন, এটি এইচএফএস+ এর পরিবর্তে এপিএফএস ব্যবহার করে [৪৫] এর উত্তরসূরী ম্যাকওএস ১০.১৪ মোহাভে ২০১৮ সালে প্রকাশিত হয়, একটি ডার্ক ব্যবহারকারী ইন্টারফেস বিকল্প এবং একটি গতিশীল ওয়ালপেপার সেটিং যোগ করে। [৪৬] এটির পরে ২০১৯ সালে ম্যাকওস ১০.১৫ ক্যাটালিনা আসে, যা আইটিউনসকে বিভিন্ন ধরণের মিডিয়ার জন্য আলাদা অ্যাপ দিয়ে প্রতিস্থাপন করে এবং আইওএস অ্যাপ পোর্ট করার জন্য ক্যাটালিস্ট সিস্টেম চালু করে। [৪৭]

২০২০ সালে অ্যাপল ডব্লিউডব্লিউডিসি ২০২০-এ ম্যাকওএস ১১ বিগ স্যর-এর পূর্বরূপ দেখানো হয়। ২০০০ সালে ম্যাক ওএস এক্স পাবলিক বিটা প্রকাশের পর থেকে ম্যাকওএস-এর প্রাথমিক সংস্করণ সংখ্যায় এটিই প্রথম বৃদ্ধি; ম্যাকওএস ১১-এর হালনাগাদগুলিকে ১১.x নম্বর দেওয়া হয়েছিল, যা অ্যাপলের অন্যান্য অপারেটিং সিস্টেমগুলির দ্বারা ব্যবহৃত সংস্করণ সংখ্যায়ন পদ্ধতির সাথে মিলে যায়। বিগ স্যর এর ইউআই-তে বড় পরিবর্তন আনা হয় এবং এটি এআরএম পরিচালিত সেটে চলা প্রথম সংস্করণ। [৪৮] ম্যাকওএস ১২ মন্টেরির ক্ষেত্রে ২০২১ সালে নতুন সংখ্যায়ন পদ্ধতিটি অব্যাহত ছিল।

আর্কিটেকচারসম্পাদনা

ম্যাকওএস-এর মূল অংশ এক্সএনইউ কার্নেলের উপরে নির্মিত একটি পিওএসআইএক্স-সমর্থিত একটি অপারেটিং সিস্টেম, যাতে কমান্ড লাইন ইন্টারফেস থেকে পাওয়া স্ট্যান্ডার্ড ইউনিক্স সুবিধা রয়েছে।[৪৯] বিনামূল্যে এবং উন্মুক্ত উৎসের অপারেটিং সিস্টেম হিসাবে অ্যাপল ডারউইন নামে একটি সফটওয়্যার পরিবার প্রকাশ করে। ডারউইনের উপরে, অ্যাপল জিইউআই-ভিত্তিক অপারেটিং সিস্টেম ম্যাকওএসকে সম্পূর্ণ করতে অ্যাকোয়া ইন্টারফেস এবং ফাইন্ডার সহ বেশ কয়েকটি উপাদান স্তরিত করেছে। [৫০]

ম্যাক ওএস এক্স হিসাবে এর আসল পরিচয়ের সাথে সিস্টেমটি তার পূর্বসূরি, ক্লাসিক ম্যাক ওএস- এর চেয়ে আরও স্থিতিশীল এবং নির্ভরযোগ্য প্ল্যাটফর্ম প্রদানের জন্য অনেকগুলি নতুন সক্ষমতা নিয়ে আসে। উদাহরণস্বরূপ, প্রি-এমপ্টিভ মাল্টিটাস্কিং এবং মেমরি সুরক্ষা, যেগুলি একে অপরকে বাধা না দিয়ে বা বিকৃত না করে একসাথে একাধিক অ্যাপ্লিকেশন চালানোর ক্ষেত্রে সিস্টেমের ক্ষমতাকে উন্নত করেছে। ম্যাকওএস-এর আর্কিটেকচারের অনেক দিক ওপেনস্টেপ থেকে নেওয়া হয়েছে, যেটিকে পোর্টেবল করার জন্য ডিজাইন করা হয়েছে, যাতে এক প্ল্যাটফর্ম থেকে অন্য প্ল্যাটফর্মে স্থানান্তর সহজ হয়। উদাহরণস্বরূপ, অ্যাপল কর্তৃক নেক্সট কেনার আগে নেক্সটস্টেপ কে এর আসল 68k- ভিত্তিক নেক্সট ওয়ার্কস্টেশন থেকে x86 এবং অন্যান্য আর্কিটেকচারে স্থানান্তর করা হয়েছিল,[৫১] এবং ওপেনস্টেপ-কে পরে র‍্যাপসোডি প্রকল্পের অংশ হিসাবে পাওয়ারপিসি আর্কিটেকচারে স্থানান্তর করা হয়েছিল।

ম্যাকওএস হাই সিয়েরার আগে, এবং সলিড স্টেট ড্রাইভ (এসএসডি) ছাড়া অন্য ড্রাইভে, ডিফল্ট ফাইল সিস্টেম হল এইচএফএস+, যা এটি ক্লাসিক ম্যাক ওএস থেকে উত্তরাধিকারসূত্রে পেয়েছে। অপারেটিং সিস্টেম ডিজাইনার লিনাস টরভাল্ডস এইচএফএস+ এর সমালোচনা করে বলেছেন, এটি "সম্ভবত সর্বকালের সবচেয়ে খারাপ ফাইল সিস্টেম", যার নকশা "সক্রিয়ভাবে ব্যবহারকারীর ডেটা নষ্ট করছে"। তিনি ফাইলের নামের ক্ষেত্রে অসংবেদনশীলতার সমালোচনা করেছিলেন, অ্যাপল যখন ইউনিকোড সমর্থন করার জন্য ফাইল সিস্টেমকে প্রসারিত করেছিল তখন এই নকশাটি আরও খারাপ হয়ে যায়। [৫২][৫৩]

ম্যাকওএস-এ ডারউইন সাবসিস্টেম ফাইল সিস্টেম পরিচালনা করা হয়, যার মধ্যে ইউনিক্স পারমিশন লেয়ার রয়েছে। ২০০৩ এবং ২০০৫ সালে, দুইজন ম্যাকওয়ার্ল্ড সম্পাদক অনুমতি প্রকল্পের সমালোচনা প্রকাশ করেছিলেন; টেড লান্ডাউ ম্যাকওএস-এ ভুল কনফিগার করা অনুমতিগুলিকে "সবচেয়ে সাধারণ হতাশা" বলে অভিহিত করেছেন, যদিও রব গ্রিফিথস প্রকাশ করেছেন যে কিছু ব্যবহারকারীকে প্রতিদিন অনুমতিগুলি পুনরায় সেট করতে হতে পারে, এই প্রক্রিয়াটি ১৫ মিনিট পর্যন্ত সময় নিতে পারে। [৫৪] অতি সম্প্রতি, আরেকজন ম্যাকওয়ার্ল্ড সম্পাদক ড্যান ফ্রেক্স, অনুমতি মেরামত করার পদ্ধতিকে ব্যাপকভাবে অতিব্যবহৃত বলে অভিহিত করেছেন। [৫৫] তিনি যুক্তি দেন যে ম্যাকওএস সাধারণত ব্যবহারকারীর হস্তক্ষেপ ছাড়াই সঠিকভাবে অনুমতিগুলি পরিচালনা করে এবং যখন সমস্যা দেখা দেয় তখনই অনুমতিগুলি পুনরায় সেট করার চেষ্টা করা উচিত। [৫৬]

ম্যাকওএস এর আর্কিটেকচার একটি স্তরযুক্ত নকশা অন্তর্ভুক্ত করে:[৫৭] স্তরযুক্ত কাঠামো সাধারণ কাজের জন্য বিদ্যমান কোড প্রদান করে অ্যাপ্লিকেশনগুলির দ্রুত বিকাশে সহায়তা করে। [৫৮] অ্যাপল তার নিজস্ব সফটওয়্যার ডেভেলপমেন্ট টুলস প্রদান করে, বিশেষত এক্সকোড নামে একটি ইনটিগ্রেটেড ডেভলপমেন্ট ইনভাইরনমেন্ট । এক্সকোড কম্পাইলারদের ইন্টারফেস প্রদান করে যা সি, সি++, অবজেক্টিভ-সি, এবং সুইফট সহ একাধিক প্রোগ্রামিং ভাষা সমর্থন করে। ইন্টেল প্রসেসরে ম্যাকের স্থানান্তরের জন্য এটি সংশোধন করা হয়, যাতে বিকাশকারীরা তাদের অ্যাপ্লিকেশনগুলিকে একটি সর্বজনীন বাইনারি হিসাবে তৈরি করতে পারে, যা ইন্টেল-ভিত্তিক এবং পাওয়ারপিসি-ভিত্তিক ম্যাকিন্টশ লাইন উভয়ের সাথে সামঞ্জস্য রাখবে। [৫৯] প্রথম এবং তৃতীয় পক্ষের অ্যাপ্লিকেশনগুলি অ্যাপলস্ক্রিপ্ট ফ্রেমওয়ার্ক ব্যবহার করে প্রোগ্রাম্যাটিকভাবে নিয়ন্ত্রণ করা যেতে পারে,[৬০] যা ক্লাসিক ম্যাক ওএস থেকে বজায় আছে,[৬১] অথবা তার চেয়ে নতুন অটোমেটর অ্যাপ্লিকেশন ব্যবহার করে, যা পূর্ব-লিখিত কাজগুলি উপস্থাপন করে যার জন্য প্রোগ্রামিং জ্ঞানের প্রয়োজন হয় না। [৬২]

সফটওয়্যার সমর্থনযোগ্যতাসম্পাদনা

ম্যাকওএস সংস্করণের তালিকা এবং তারা যে সফ্টওয়্যার চালায়
অপারেটিং সিস্টেম সাফারি মেইল কুইকটাইম আইটিউন্স মেসেজেস/ আইচ্যাট আইওয়ার্ক
১২ "মন্টেরি" ১৫.০ ১৪.০ ১০.৫ প্রযোজ্য নয় ১৫.০ ২০২১
১১ "বিগ স্যর" ১৪.০
১০.১৫ "ক্যাটালিনা" ১৩.০ ১৩.০ ২০২১ আংশিক, ২০২০
১০.১৪ "মোহাভি" ১৪.১.২ ১২.০ ১২.৯.৫ ১২.০ ২০২০
১০.১৩ "হাই সিয়েরা" ১৩.১.২ ১১.০ ১০.৪ ১২.৮.২ ১১.০ ২০১৯
১০.১২ "সিয়েরা" ১২.১.২ ১০.০ ২০১৮
১০.১১ "এল ক্যাপিটান" ১১.১.২ ৯.৩ ৯.২ ২০১৪
১০.১০ "ইয়োসেমাইট" ১০.১.২ ৮.০
১০.৯ " ম্যাভেরিক্স" ৯.১.৩ ৭.৩ ১০.৩ ১২.৬.২ ২০১৩
১০.৮ "মাউন্টেইন লায়ন" ৬.২.৮ অজানা ১০.২ ১২.৪.৩ [৬৩] '০৯
১০.৭ "লায়ন"[note ১] ৬.১.৬ ১০.১ ১২.২.২[৬৪] ৮.০বি বা ৬.০.১
১০.৬ "স্নো লেপার্ড" ৫.১.১০[৬৫] ৪.৫ [৬৬] ১১.৪ [৬৭] ৫.০
১০.৫ "লেপার্ড" ৫.০.৬ ৩.৬ ৭.৭ ১০.৬.৩ [৬৮] ৪.০
১০.৪ "টাইগার" ৪.১.৩ ২.১.৩ ৭.৬.৪ ৯.২.১ [৬৯] ৩.০
১০.৩ "প্যান্থার" ১.৩.২ ১.x ৭.৫ ৭.৭.১ [৭০] ২.১ [৭১] '০৫
১০.২ "জাগুয়ার"[note ২] ১.০.৩ ৬.৫.৩ ৬.০.৫ ২.০ কি নোট
১০.১ "পুমা" প্রযোজ্য নয় ৬.৩.১ ৪.৭.১ প্রযোজ্য নয় প্রযোজ্য নয়
১০.০ "চিতা"[note ৩] ৫.০ ২.০.৪
  1. মেসেজেস ৮.০বি ছিল একটি বিটা অবমুক্তি যা শুধুমাত্র ১৬ ফেব্রুয়ারী থেকে ১২ ডিসেম্বর, ২০১২ পর্যন্ত কাজ করেছিল ৷ পরে, মেসেজেস অ্যাপের ব্যবহার চালিয়ে যেতে ব্যবহারকারীরা হয় আইচ্যাট-এ ফিরে যেতে পারে বা ওএস এক্স এর একটি নতুন সংস্করণে হালনাগাদ করতে পারে ($১৯.৯৯ মার্কিন ডলারে ১০.৮ "মাউন্টেন লায়ন", বা ১০.৯ "ম্যাভেরিকস" বা নতুন বিনামূল্যে)। ওয়েব্যাক মেশিনে আর্কাইভকৃত এপ্রিল ১৭, ২০১৭ তারিখে
  2. কিনোট ১.০ হল একমাত্র আইলাইফ প্রোগ্রাম যা ম্যাক ওএস এক্স ১০.২ "জাগুয়ার" এর সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ। দুটি ছোটখাটো হালনাগাদ, ১.১ এবং ১.১.১, এই সংস্করণটিতে প্রয়োগ করা যেতে পারে।
  3. আইটিউনস ২.০.৪ শুধুমাত্র ক্লাসিক ইনস্টল করা থাকলেই চালানো যাবে। অন্যথায়, ম্যাক ওএস এক্স ১০.০ শুধুমাত্র স্থানীয়ভাবে আইটিউনস ১.১.১ চালাতে পারে।

অ্যাপল ম্যাকওএস-এর জন্য স্থানীয়ভাবে সফটওয়্যার বিকাশের জন্য দুটি প্রধান এপিআই উপস্থাপন করেছে: কোকোয়া এবং কার্বন । কোকোয়া ক্লাসিক ম্যাক ওএস এর কোন উত্তরাধিকার ছাড়াই ওপেনস্টেপ থেকে উত্তরাধিকারসূত্রে প্রাপ্ত এপিআই-এর উত্তরাধিকারী ছিল, যদিও কার্বন ছিল ক্লাসিক ম্যাক ওএস এপিআই-এর একটি অভিযোজন, যা ম্যাক ওএস এক্স-এ ম্যাক সফটওয়্যারকে ন্যূনতমভাবে পুনঃলিখিত হলেই স্থানীয়ভাবে চালানোর অনুমতি দেয়।[১২]

কোকোয়া এপিআই ১৯৯৩ সালে নেক্সট কম্পিউটার এবং সান মাইক্রোসিস্টেমস-এর মধ্যে সহযোগিতার ফলাফল হিসাবে তৈরি করা হয়। এই ঐতিহ্যটি কোকোয়া ডেভেলপারদের কাছে অত্যন্ত দৃশ্যমান, যেহেতু "এনএস" উপসর্গটি কাঠামোতে সর্বব্যাপী নেক্সট/সান কে বিভিন্নভাবে চিহ্নিত করে। ১৯৯৪ সালের সেপ্টেম্বরে প্রকাশিত অফিসিয়াল ওপেনস্টেপ এপিআই, ফাউন্ডেশন এবং অ্যাপ্লিকেশনকিট-এর মধ্যে এপিআই কে বিভক্ত করে এবং প্রথম "এনএস" উপসর্গটি ব্যবহার করে। [৭২] ঐতিহ্যগতভাবে, কোকোয়া প্রোগ্রামগুলির বেশিরভাগই জাভার একটি বিকল্প হিসাবে অবজেক্টিভ-সি তে লেখা হয়েছে। যাইহোক, ১১ জুলাই, ২০০৫-এ, অ্যাপল ঘোষণা করে যে "১০.৪-এর পরে ম্যাক ওএস এক্স সংস্করণে কোকোয়া-তে যোগ করা বৈশিষ্ট্যগুলি কোকোয়া-জাভা প্রোগ্রামিং ইন্টারফেসে যোগ করা হবে না।" [৭৩] ম্যাকওএস জাভা প্ল্যাটফর্মটিকে একটি "পছন্দের সফ্টওয়্যার প্যাকেজ" হিসাবে সমর্থন করতেও ব্যবহার করত—কার্যক্ষেত্রে এর মানে হল, জাভাতে লেখা অ্যাপ্লিকেশনগুলি ক্রস-প্ল্যাটফর্ম সামঞ্জস্যপূর্ণ থাকাকালীন অপারেটিং সিস্টেমে যতটা সম্ভব সুন্দরভাবে ফিট করে এবং সেই গ্রাফিকাল ইউজার ইন্টারফেসগুলি সুইং-এ লেখা দেখতে প্রায় হুবহু নিজস্ব কোকোয়া ইন্টারফেসের মতো হয়। অ্যাপল ২০১৪ সাল থেকে, অ্যাপল প্ল্যাটফর্মগুলিতে সফটওয়্যার বিকাশের জন্য পছন্দনীয় ভাষা হিসাবে তার নতুন প্রোগ্রামিং ভাষা সুইফটকে প্রচার করেছে।

ম্যাকওএস-এর নিয়ে অ্যাপলের মূল পরিকল্পনাটি ছিল সমস্ত বিকাশকারীকে তাদের সফটওয়্যারটি কোকোয়া এপিআইগুলিতে পুনরায় লিখতে হবে। এটি বিদ্যমান ম্যাক ডেভেলপারদের মধ্যে অনেক ক্ষোভের সৃষ্টি করে, যারা একটি ব্যয়বহুল পুনর্লিখনে বিনিয়োগ করার পরিবর্তে প্ল্যাটফর্ম পরিত্যাগ করার হুমকি দেয়, ফলে ধারণাটি বাতিল করা হয়। [১২][৭৪] ম্যাক ওএস ৯ থেকে ম্যাক ওএস এক্স-এ একটি মসৃণ স্থানান্তরের সুযোগ দেওয়ার জন্য, কার্বন অ্যাপ্লিকেশন প্রোগ্রামিং ইন্টারফেস (এপিআই) তৈরি করা হয়। [১২] কার্বন দিয়ে লিখিত অ্যাপ্লিকেশনগুলি প্রাথমিকভাবে ক্লাসিক ম্যাক ওএস এবং ম্যাক ওএস এক্স উভয় ক্ষেত্রেই স্থানীয়ভাবে চলতে সক্ষম হয়, যদিও এই ক্ষমতাটি পরে ম্যাক ওএস এক্স বিকাশের সাথে সাথে বাদ দেওয়া হয়। ম্যাক ওএস এক্স হিসাবে বিক্রি হওয়া প্রথম পণ্যটিতে কার্বন অন্তর্ভুক্ত ছিল না: ম্যাক ওএস এক্স সার্ভার ১.০ -এর স্বল্প-ব্যবহৃত মূল প্রকাশ, যেটিতে অ্যাকোয়া ইন্টারফেসও অন্তর্ভুক্ত ছিল না। [৭৫] অ্যাপল লেপার্ডের অবমুক্তির পর থেকে কার্বনের আরও উন্নয়নকে সীমিত করে এবং ঘোষণা করে যে কার্বন অ্যাপ্লিকেশন ৬৪-বিটে চলবে না। [১২][৭৪] বেশ কিছু ম্যাকওএস অ্যাপ্লিকেশন পরবর্তীতে কিছু সময়ের জন্য কার্বন ব্যবহার করতে থাকে, বিশেষ করে যেগুলি ক্লাসিক ম্যাক ওএস-এর সাথে ঐতিহ্যবাহী এবং যার জন্য হালনাগাদগুলি করা কঠিন, অ-বাণিজ্যিক বা প্রয়োজনীয় নয়। এতে অফিস ২০১৬ পর্যন্ত মাইক্রোসফট অফিস এবং সিএস৫ পর্যন্ত ফটোশপ অন্তর্ভুক্ত রয়েছে। [৭৪][৭৬] ম্যাকওএস-এর প্রারম্ভিক সংস্করণগুলি পারফরম্যান্সের সীমাবদ্ধতা সহ ক্লাসিক এনভায়রনমেন্টের মাধ্যমে কিছু ক্লাসিক ম্যাক ওএস অ্যাপ্লিকেশন চালাতে পারে; এই বৈশিষ্ট্যটি ১০.৫ এর পর থেকে এবং ইন্টেল প্রসেসর ব্যবহার করা সমস্ত ম্যাক থেকে সরানো হয়।

যেহেতু ম্যাকওএস পিওএসআইএক্স সমর্থিত, তাই লিনাক্স সহ অন্যান্য ইউনিক্স-সদৃশ সিস্টেমের জন্য লেখা অনেক সফ্টওয়্যার প্যাকেজ অনেক বৈজ্ঞানিক এবং প্রযুক্তিগত সফ্টওয়্যার সহ এটিতে চালানোর জন্য পুনরায় কম্পাইল করা যায়। [৭৭] থার্ড-পার্টি প্রোজেক্ট যেমন হোমব্রু, ফিঙ্ক, ম্যাকপোর্টস, এবং pkgsrc পূর্ব-সংকলিত বা প্রাক-বিন্যাসিত প্যাকেজ প্রদান করে। অ্যাপল এবং অন্যরা এক্স উইন্ডো সিস্টেম গ্রাফিকাল ইন্টারফেসের সংস্করণ সরবরাহ করে যা এই অ্যাপ্লিকেশনগুলিকে ম্যাকওএস লুক-এন্ড-ফিলের আনুমানিকতা সহ চালানোর সুযোগ দের। [৭৮][৭৯][৮০] বর্তমান অ্যাপল-অনুমোদিত পদ্ধতি হল ওপেন সোর্স এক্সকোয়ার্টজ প্রকল্প; পূর্ববর্তী সংস্করণগুলি অ্যাপল কর্তৃক প্রদত্ত এক্স১১ অ্যাপ্লিকেশন, বা তার আগে এক্সডারউইন প্রকল্প ব্যবহার করতে পারে। [৮১]

ম্যাক-এ বিভিন্ন অ্যাপ্লিকেশন বিতরণ করা যায় এবং ব্যবহারকারী কর্তৃক যে কোনও উত্স থেকে এবং যে কোনও পদ্ধতি যেমন ডাউনলোড করা (কোড সাইনিং সহ বা ছাড়া, অ্যাপল বিকাশকারী অ্যাকাউন্টের মাধ্যমে উপলব্ধ) বা ম্যাক অ্যাপ স্টোরের মাধ্যমে ইনস্টল করা যেতে পারে, যা অ্যাপলের অনুমোদনের প্রয়োজন এমন একটি প্রক্রিয়ার মাধ্যমে অ্যাপল কর্তৃক পরিচালিত সফটওয়্যারের একটি বাজার। ম্যাক অ্যাপ স্টোরের মাধ্যমে ইনস্টল করা অ্যাপগুলি একটি স্যান্ডবক্সের মধ্যে চলে, যা অন্যান্য অ্যাপ্লিকেশনের সাথে তথ্য বিনিময় বা মূল অপারেটিং সিস্টেম এবং এর বৈশিষ্ট্যগুলি পরিবর্তন করার ক্ষমতাকে সীমাবদ্ধ করে। এটি একটি সুবিধা হিসাবে উদ্ধৃত করা হয় যে, ব্যবহারকারীদের আত্মবিশ্বাসের সাথে অ্যাপগুলি ইনস্টল করার অনুমতি দিয়ে যে তারা তাদের সিস্টেমের ক্ষতি করতে সক্ষম হবে না, তবে যেসব পেশাদার অ্যাপ্লিকেশনগুলির জন্য উন্নত বিশেষাধিকার প্রয়োজন সেগুলোর জন্য ম্যাক অ্যাপ স্টোরের ব্যবহার অবরুদ্ধ করার কারণে এটিকে একটি অসুবিধা হিসাবেও উদ্ধৃত করা হয়৷ [৮২][৮৩] কোনো কোড স্বাক্ষরবিহীন অ্যাপ্লিকেশন একটি কম্পিউটারের প্রশাসক অ্যাকাউন্ট ছাড়া ডিফল্টরূপে চালানো যায় না।[৮৪][৮৫]

অ্যাপল ম্যাকওএস অ্যাপ্লিকেশন তৈরি করে থাকে। কিছু ম্যাকওএস এর সাথে অন্তর্ভুক্ত এবং কিছু আলাদাভাবে বিক্রি করা হয়। এর মধ্যে রয়েছে আইওয়ার্ক, ফাইনাল কাট প্রো, লজিক প্রো, আইলাইফ, এবং ডাটাবেস অ্যাপ্লিকেশন ফাইলমেকার। আরও অনেক ডেভেলপার ম্যাকওএস-এর জন্য সফটওয়্যার তৈরি করে।

২০১৮ সালে, অ্যাপল আইওএস অ্যাপগুলিকে ম্যাকওএস-এ পোর্ট করার জন্য একটি অ্যাপ্লিকেশন লেয়ার চালু করে, যার কোডনাম ছিল মার্জিপান। [৮৬][৮৭] ম্যাকওএস মোহাভে হোম এবং নিউজ সহ চারটি প্রথম পক্ষের আইওএস অ্যাপের পোর্ট অন্তর্ভুক্ত করে এবং ঘোষণা করা হয় যে এপিআই তৃতীয় পক্ষের বিকাশকারীদের জন্য ২০১৯ সাল থেকে ব্যবহার করার জন্য উপলব্ধ হবে। [৮৮][৮৯][৯০]

হার্ডওয়্যার সমর্থনযোগ্যতাসম্পাদনা

ম্যাকওএস সংস্করণগুলির তালিকা, যে সমর্থিত সিস্টেমগুলিতে তারা চলে এবং তাদের র‍্যাম এর প্রয়োজনীয়তা
অপারেটিং সিস্টেম সমর্থিত সিস্টেম [৯১] ইনস্টল করতে প্রয়োজনীয় সময় র‍্যাম এর প্রয়োজনীয়তা
১২
  • ম্যাকবুক (২০১৬ সালের প্রথম দিকের বা তার চেয়ে নতুন)
  • ম্যাকবুক এয়ার (২০১৫ সালের প্রথম দিকের বা তার চেয়ে নতুন)
  • ম্যাকবুক প্রো (প্রাথমিক ২০১৫ সালের প্রথম দিকের বা তার চেয়ে নতুন)
  • ম্যাক মিনি (সালের শেষের দিকের বা তার চেয়ে নতুন)
  • আইম্যাক (২০১৫ সালের শেষের দিকের বা তার চেয়ে নতুন)
  • আইম্যাক প্রো (২০১৭ বা তার চেয়ে নতুন)
  • ম্যাক প্রো (২০১৩ সালের শেষের দিকের বা তার চেয়ে নতুন)
৬-৮ ঘন্টা ৪ জিবি
১১
  • ম্যাকবুক (২০১৫ বা তার চেয়ে নতুন)
  • ম্যাকবুক এয়ার (২০১৩ বা তার চেয়ে নতুন)
  • ম্যাকবুক প্রো (২০১৩ সালের শেষের দিকের বা তার চেয়ে নতুন)
  • ম্যাক মিনি (২০১৪ বা তার চেয়ে নতুন)
  • আইম্যাক (২০১৪ বা তার চেয়ে নতুন)
  • আইম্যাক প্রো (২০১৭)
  • ম্যাক প্রো (২০১৩ বা তার চেয়ে নতুন)
১০.১৫
  • ম্যাকবুক (প্রাথমিক ২০১৫ বা তার চেয়ে নতুন)
  • ম্যাকবুক এয়ার (২০১২ সালের মাঝামাঝি বা তার চেয়ে নতুন)
  • ম্যাকবুক প্রো (২০১২ সালের মাঝামাঝি বা তার চেয়ে নতুন)
  • ম্যাক মিনি (২০১২ সালের শেষের দিকের বা তার চেয়ে নতুন)
  • আইম্যাক (২০১২ সালের শেষের দিকের বা তার চেয়ে নতুন)
  • আইম্যাক প্রো (২০১৭)
  • ম্যাক প্রো (২০১৩ সালের শেষের দিকের বা তার চেয়ে নতুন)
১০.১৪
  • ম্যাকবুক (প্রাথমিক ২০১৫ বা তার চেয়ে নতুন)
  • ম্যাকবুক এয়ার (মধ্য ২০১২ বা তার চেয়ে নতুন)
  • ম্যাকবুক প্রো (২০১২ সালের মাঝামাঝি বা তার চেয়ে নতুন)
  • ম্যাক মিনি (২০১২ সালের শেষের দিকের বা তার চেয়ে নতুন)
  • আইম্যাক (২০১২ সালের শেষের দিকের বা তার চেয়ে নতুন)
  • আইম্যাক প্রো (২০১৭)
  • ম্যাক প্রো (২০১৩ সালের শেষের দিকের বা তার চেয়ে নতুন; মেটাল-সক্ষম গ্রাফিক্স কার্ড সহ ২০১০ সালের মাঝামাঝি এবং ২০১২ সালের মাঝামাঝি সুপারিশকৃত মডেলগুলো [৯২])
৩০-১১০ মিনিট ২ জিবি
১০.১২-১০.১৩
  • ম্যাকবুক (২০০৯ সালের শেষের দিকের বা তার চেয়ে নতুন)
  • ম্যাকবুক প্রো (২০১০ সালের মাঝামাঝি বা তার চেয়ে নতুন)
  • ম্যাকবুক এয়ার (২০১০ সালের শেষের দিকের বা তার চেয়ে নতুন)
  • ম্যাক মিনি (মধ্য ২০১০ বা তার চেয়ে নতুন)
  • আইম্যাক (২০০৯ সালের শেষের দিকের বা তার চেয়ে নতুন)
  • ম্যাক প্রো (মধ্য ২০১০ বা তার চেয়ে নতুন)
১.৫-৪ ঘন্টা
১০.৮-১০.১১
  • ম্যাকবুক (২০০৮ সালের শেষের দিকের অ্যালুমিনিয়াম মডেল, বা ২০০৯ সালের প্রথম দিকের বা তার চেয়ে নতুন)
  • ম্যাকবুক প্রো (২০০৭ সালের মাঝামাঝি/শেষ বা তার চেয়ে নতুন)
  • ম্যাকবুক এয়ার (২০০৮ সালের শেষের দিকের বা তার চেয়ে নতুন)
  • ম্যাক মিনি (২০০৯ সালের প্রথম দিকের বা তার চেয়ে নতুন)
  • আইম্যাক (২০০৭ সালের মাঝামাঝি বা তার চেয়ে নতুন)
  • ম্যাক প্রো (২০০৮ সালের প্রথম দিকের বা তার চেয়ে নতুন)
  • এক্সসার্ভ (২০০৯ সালের প্রথম দিকের)
৩০ - ৭৫ মিনিট
১০.৭ ইন্টেল ম্যাক (৬৪-বিট) [৯৩]
রোজেটা ১০.৭ এবং এর চেয়ে নতুনগুলো থেকে সমর্থন বাদ দেয়।
৩৫-৪৫ মিনিট
১০.৬ ইন্টেল ম্যাক (৩২-বিট বা ৬৪-বিট) [৯৩] ২৫-৪৫ মিনিট ১ জিবি
১০.৫ জি৪, জি৫ এবং ইন্টেল ম্যাক (৩২-বিট বা ৬৪-বিট) ৮৬৭ মেগাহার্টজ বা এর দ্রুত
ক্লাসিক ১০.৫ এবং এর চেয়ে নতুনগুলো থেকে সমর্থন বাদ দেয়।
২০-৪৫ মিনিট ৫১২ এমবি
১০.৪ বিল্ট-ইন ফায়ারওয়্যার সহ ম্যাক এবং হয় একটি নিউ ওয়ার্ল্ড রম বা ইন্টেল প্রসেসর ২০-৬০ মিনিট ২৫৬ এমবি
১০.৩ একটি নিউ ওয়ার্ল্ড রম সমৃদ্ধ ম্যাক [৯৪] ১০-৩০ মিনিট ১২৮ এমবি
১০.০-১০.২ জি৩, জি৪ এবং জি৫ আইবুক এবং পাওয়ারবুক, পাওয়ার ম্যাক এবং আইম্যাক
( পাওয়ারবুক জি৩ "কাঙ্গা" ছাড়া)

অ্যাপল কর্তৃক আনুষ্ঠানিকভাবে সমর্থিত নয় এমন সিস্টেমগুলিতে ম্যাকওএস-এর নতুন সংস্করণগুলির ইনস্টলেশন সক্ষম করার জন্য এক্সপোস্টফ্যাক্টো এবং ইনস্টলেশন মিডিয়াতে প্রয়োগ করা প্যাচ-গুলির মতো সরঞ্জামগুলি তৃতীয় পক্ষ কর্তৃক তৈরি করা হয়েছে। এর মধ্যে রয়েছে অনেকগুলি প্রাক-জি৩ পাওয়ার ম্যাকিন্টশ সিস্টেম যা ম্যাক ওএস এক্স ১০.২ জাগুয়ার, টাইগারসহ সমস্ত জি৩-ভিত্তিক ম্যাক পর্যন্ত চালানোর জন্য তৈরি করা যায় এবং সাব-৮৬৭ মেগাহার্টজ জি৪ ম্যাকগুলি ইনস্টলেশন ডিভিডি থেকে সীমাবদ্ধতা অপসারণ করে বা ম্যাকের ওপেন ফার্মওয়্যার ইন্টারফেসে একটি কমান্ড প্রবেশ করিয়ে লেপার্ড ইনস্টলারকে বলতে পারে যে এটির ক্লক রেট ৮৬৭ মেগাহার্টজ বা তার বেশি। গ্রাফিক্স এক্সেলেরেশন বা ডিভিডি লেখার মতো নির্দিষ্ট হার্ডওয়্যারের প্রয়োজনীয় বৈশিষ্ট্যগুলি ছাড়া, অপারেটিং সিস্টেমটি সমস্ত সমর্থিত হার্ডওয়্যারে একই কার্যকারিতা সরবরাহ করে।

যেহেতু বেশিরভাগ ম্যাক হার্ডওয়্যার উপাদান বা এর অনুরূপ উপাদান ইন্টেল স্থানান্তর ক্রয়ের জন্য উপলব্ধ,[৯৫] কিছু প্রযুক্তি-সক্ষম গোষ্ঠী নন-অ্যাপল কম্পিউটারে ম্যাকওএস ইনস্টল করার জন্য সফটওয়্যার বিকাশ করেছে। এগুলিকে হ্যাকিনটোস হিসাবে উল্লেখ করা হয়, যা "হ্যাক" এবং "ম্যাকিন্টশ" শব্দের একটি যুগলবন্দী। এটি অ্যাপলের ইইউএলএ লঙ্ঘন করে (এবং তাই অ্যাপলের প্রযুক্তিগত সহায়তা, ওয়ারেন্টি ইত্যাদি থেকে অসমর্থিত), কিন্তু যে সম্প্রদায়গুলি সেসব ব্যক্তিগত ব্যবহারকারীদের সরবরাহ করে, যারা পুনঃবিক্রয় এবং লাভের জন্য ইনস্টল করে না, সাধারণত সেগুলো অ্যাপল কর্তৃক উপেক্ষিত হয়। [৯৬][৯৭][৯৮] এই স্ব-নির্মিত কম্পিউটারগুলি হার্ডওয়্যারের আরও নমনীয়তা এবং কাস্টমাইজেশনের অনুমতি দেয়, তবে এটি ব্যবহারকারীকে তাদের নিজস্ব মেশিনের জন্য আরও বেশি খরচ করার জন্য দায়বদ্ধ করে, যেমন ডেটার অখণ্ডতা বা সুরক্ষার বিষয়ে। [৯৯] সাইস্টার নামক একটি কোম্পানি যেটি নন-অ্যাপল সার্টিফাইড হার্ডওয়্যারে ম্যাকওএস বিক্রি করে লাভের চেষ্টা করেছিল, ২০০৮ সালে অ্যাপল সেটির বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করে। [১০০]

পাওয়ারপিসি থেকে ইন্টেলে স্থানান্তরসম্পাদনা

 
স্টিভ জবস ইন্টেল প্রসেসরে স্থানান্তর সম্পর্কে কথা বলেছেন।

২০০২ সালের এপ্রিলে, ইউইক একটি গুজব প্রকাশ করে যে অ্যাপলের কাছে ম্যাক ওএস এক্স এর মার্কলার কোড-নামযুক্ত একটি সংস্করণ রয়েছে, যা ইন্টেল x৮৬ প্রসেসরে চলে। মার্কলারের পেছনের ধারণাটি ছিল ম্যাক ওএস এক্সকে একটি বিকল্প প্ল্যাটফর্মে চলমান রাখা যদি অ্যাপল পাওয়ারপিসি প্ল্যাটফর্মের অগ্রগতিতে অসন্তুষ্ট হয়। [১০১] এই গুজবগুলি ২০০৫ সালের মে মাসের শেষের দিকে প্রশমিত হয়, যখন বিভিন্ন মিডিয়া আউটলেট, যেমন ওয়াল স্ট্রিট জার্নাল [১০২] এবং সিনেট,[১০৩] ঘোষণা করে যে অ্যাপল আগামী কয়েক মাসের মধ্যে মার্কলার উন্মোচন করবে। [১০৪][১০৫][১০৬]

৬ জুন, ২০০৫-এ, স্টিভ জবস ডব্লিউডব্লিউডিসি-তে তার মূল বক্তব্যে ঘোষণা করেন যে অ্যাপল পরবর্তী দুই বছরের মধ্যে পাওয়ারপিসি থেকে ইন্টেল প্রসেসরে স্থানান্তর ঘটাবে এবং ম্যাক ওএস এক্স স্থানান্তরের সময় উভয় প্ল্যাটফর্মে সমর্থন করবে। জবস গুজবও নিশ্চিত করেন যে অ্যাপলের বেশিরভাগ বিকাশমূলক সময়কালের জন্য ইন্টেল প্রসেসরে চলমান ম্যাক ওএস এক্স-এর সংস্করণ রয়েছে। ইন্টেল-ভিত্তিক ম্যাকগুলো রোজেটা দিয়ে ওএস এক্স-এর একটি নতুন সংকলিত সংস্করণ চালাবে, যা একটি বাইনারি অনুবাদ স্তর যেটি পাওয়ারপিসি ম্যাক ওএস এক্স-এর জন্য সংকলিত সফটওয়্যারকে ইন্টেল ম্যাক ওএস এক্স যন্ত্রে চালানোর জন্য সক্ষম করে। [১০৭] সিস্টেমটি ১০.৬.৮ সংস্করণ পর্যন্ত ম্যাক ওএস এক্স সংস্করণগুলির সাথে অন্তর্ভুক্ত ছিল। [১০৮] অ্যাপল নতুন ইন্টেল ম্যাকগুলিতে ক্লাসিক মোডের জন্য সমর্থন বাদ রাখেনি। থার্ড পার্টি ইমুলেশন সফটওয়্যার যেমন মিনি ভিম্যাক, ব্যাসিলিক ২ এবং শিপশেভার ম্যাক ওএসের কিছু প্রাথমিক সংস্করণের জন্য সমর্থন প্রদান করে। এক্সকোডের একটি নতুন সংস্করণ এবং অন্তর্নিহিত কমান্ড-লাইন কম্পাইলারগুলি এমন সার্বজনীন বাইনারি তৈরি করার জন্য সমর্থিত যা উভয় আর্কিটেকচারে চলবে। [১০৯]

পাওয়ারপিসি-অনলি সফটওয়্যার অ্যাপলের আনুষ্ঠানিক ইমুলেশন সফটওয়্যার রোজেটা দ্বারা সমর্থিত, যদিও ইন্টেল প্রসেসরের জন্য প্রকাশিত নতুন সংস্করণগুলিতে সঠিকভাবে চালানোর জন্য অ্যাপ্লিকেশনগুলিকে শেষ পর্যন্ত পুনরায় লিখতে হয়েছিল। অ্যাপল প্রাথমিকভাবে বিকাশকারীদেরকে পাওয়ারপিসি এবং ইন্টেল উভয়ের সমর্থন সহ সর্বজনীন বাইনারি তৈরি করতে উত্সাহিত করেছিল। [১১০] রোজেটা-এর মাধ্যমে ইন্টেল ম্যাকগুলো চালানোর সময় পাওারপিসি বাইনারিগুলি কার্যক্ষমতার বাজেয়াপ্তি ভোগ করে। অধিকন্তু, কিছু পাওয়ারপিসি সফ্টওয়্যার, যেমন কার্নেল এক্সটেনশন এবং সিস্টেম প্রিফারন্সেস প্লাগইন, ইন্টেল ম্যাকগুলিতে মোটেও সমর্থিত নয়। কিছু পাওয়ারপিসি অ্যাপ্লিকেশন মোটেও ম্যাকওএস-এ চলে না। সাফারি-এর জন্য প্লাগইনগুলি সাফারি-এর মতো একই প্ল্যাটফর্মের জন্য কম্পাইল করার দরকার হয়, তাই সাফারি যখন ইন্টেল-এ চলে তখন এর জন্য সেই প্লাগ-ইনগুলির প্রয়োজন হয় যা শুধুমাত্র ইন্টেল বা সার্বজনীন বাইনারি হিসাবে কম্পাইল করা হয়, তাই পাওয়ারপিসি-অনলি প্লাগ-ইনগুলি কাজ করে না। [১১১] যদিও ইন্টেল ম্যাকগুলি পাওয়ারপিসি, ইন্টেল এবং সর্বজনীন বাইনারি চালাতে পারে, পাওয়ারপিসি ম্যাকগুলি কেবল সর্বজনীন এবং পাওয়ারপিসি বিল্ডগুলিকে সমর্থন করে।

স্থানান্তরের পর পাওয়ারপিসি প্ল্যাটফর্মের জন্য সমর্থন বাদ দেওয়া হয়। ২০০৯ সালে, অ্যাপল ডব্লিউডব্লিউডিসি-তে ঘোষণা করে যে ম্যাক ওএস এক্স ১০.৬ স্নো লেপার্ড পাওয়ারপিসি প্রসেসরের জন্য সমর্থন করবে না এবং শুধুমাত্র ইন্টেল-এ সমর্থন করবে। [১১২] ম্যাক ওএস এক্স ১০.৭ লায়ন এর জন্য বন্ধ হওয়ার আগে স্নো লেপার্ড-এ রোজেটা-কে একটি ঐচ্ছিক ডাউনলোড বা ইনস্টলেশন পছন্দ হিসাবে উপস্থাপন করা অব্যাহত ছিল। [১১৩] এছাড়াও, ম্যাক ওএস এক্স প্রথম এবং তৃতীয়-পক্ষের সফটওয়্যারের নতুন সংস্করণগুলির জন্য ক্রমবর্ধমানভাবে ইন্টেল প্রসেসরের প্রয়োজনীয়তা রয়েছে, যার মধ্যে আছে আইলাইফ, আইওয়ার্ক, অ্যাপারচার এবং লজিক প্রো-এর নতুন সংস্করণ।

ইন্টেল থেকে এআরএম-এ স্থানান্তরসম্পাদনা

 
অ্যাপলের ম১ প্রসেসরের একটি ছবি।

আইওএস ডিভাইসে ব্যবহৃত এআরএম প্রসেসরে অ্যাপল ম্যাক স্থানান্তর করার গুজবের প্রচার শুরু হয় ২০১১ সালের প্রথম দিকে,[১১৪] এবং ২০১০-এর দশক জুড়েই প্রবাহিত হয়। [১১৫] ২০২০ সালে গুজব আরও তীব্র হয়, যখন অসংখ্য প্রতিবেদন প্রকাশ করে যে কোম্পানিটি ডব্লিউডব্লিউডিসি-তে তার কাস্টম প্রসেসরগুলিতে স্থানান্তর করার ঘোষণা দেবে। [১১৬]

অ্যাপল আনুষ্ঠানিকভাবে ২২ শে জুন, ২০২০ তারিখে, ডব্লিউডব্লিউডিসি ২০২০-এ নিজস্ব ডিজাইন করা প্রসেসরগুলিতে স্থানান্তরিত করার ঘোষণা দেয়; এই স্থানান্তরটি দুই বছর ধরে চলার পরিকল্পনা করা হয়। [১১৭] এআরএম সমর্থন করার জন্য ম্যাকওএস-এর প্রথম প্রকাশ হল ম্যাকওএস বিগ স্যর

প্রসেসর আর্কিটেকচারের পরিবর্তন এআরএম প্রসেসরসহ ম্যাকগুলিকে আইওএস এবং আইপ্যাডওএস অ্যাপের সাথে স্থানীয়ভাবে চালানোর অনুমতি দেয়। [১১৮]

বৈশিষ্ট্যসম্পাদনা

অ্যাকোয়া ইউজার ইন্টারফেসসম্পাদনা

চিত্র:Macosxpb.png
২০০০ সালের ম্যাক ওএস এক্স পাবলিক বিটাতে দেখানো আসল অ্যাকোয়া ইউজার ইন্টারফেস

ক্লাসিক ম্যাক ওএস এবং বর্তমান ম্যাকওএস-এর মধ্যে প্রধান পার্থক্যগুলির মধ্যে একটি হল ম্যাক ওএস এক্স-এর প্রথম বড় অবমুক্তিতে অ্যাকোয়া বা জল-সদৃশ উপাদান সহ একটি গ্রাফিকাল ইউজার ইন্টারফেস যুক্ত করা। প্রতিটি উইন্ডো উপাদান, পাঠ্য, গ্রাফিক বা উইজেট স্পেশিয়াল অ্যান্টি-আলিয়াসিং প্রযুক্তি ব্যবহার করে অন-স্ক্রীনে আঁকা হয়। [১১৯] প্রিন্টিং এবং মাল্টিমিডিয়া পেশাদারদের জন্য রঙের মিল সরবরাহ করার জন্য বহু বছর আগে প্রবর্তিত কালার সিঙ্ক নামক একটি প্রযুক্তি, মূল অঙ্কন ইঞ্জিনে তৈরি এবং উন্নয়ন করা হয়। [১২০] এছাড়াও, ড্রপ শ্যাডোগুলি উইন্ডোর চারপাশে যুক্ত করা হয় এবং গভীরতার অনুভূতি প্রদানের জন্য বিচ্ছিন্ন পাঠ্য উপাদানগুলিকে যুক্ত করা হয়েছিল। শীট (নির্দিষ্ট উইন্ডোতে সংযুক্ত ডায়ালগ বক্স ) এবং ড্রয়ার সহ নতুন ইন্টারফেস উপাদানগুলি একত্রিত করা হয়, যা স্লাইড আউট এবং বিকল্পগুলি প্রদান করবে।

প্রথম আইম্যাকগুলোর হার্ডওয়্যার ডিজাইনের মতো নরম প্রান্ত, স্বচ্ছ রঙ এবং পিনস্ট্রাইপের ব্যবহার, ম্যাক ওএস ৯ এবং ম্যাক ওএস এক্স সারভার ১.০ -এর " প্ল্যাটিনাম " চেহারার তুলনায় ইউজার ইন্টারফেসে আরও টেক্সচার এবং রঙ উপস্থাপন করে। সিরাকুসা এর মতে, আকোয়া এর প্রবর্তন এবং তৎকালীন প্রচলিত অবয়ব থেকে এর প্রস্থান "এক টন ইটের মত আঘাত"। [১২১] ব্রুস তোগনাজিনি (যিনি আসল অ্যাপল হিউম্যান ইন্টারফেস গ্রুপ প্রতিষ্ঠা করেছিলেন) বলেন যে ম্যাক ওএস এক্স ১০.০ -এর অ্যাকোয়া ইন্টারফেসটি আসল ম্যাক ওএস ইন্টারফেসের তুলনায় ব্যবহারযোগ্যতার দিক থেকে এক ধাপ পিছিয়ে রয়েছে। [১২২][১২৩] তৃতীয়-পক্ষের বিকাশকারীরা কাস্টমাইজযোগ্য অ্যাপ্লিকেশন এবং অন্যান্য অপারেটিং সিস্টেমের জন্য স্কিন তৈরি করা শুরু করে যা অ্যাকোয়া অবয়বের নকল করে। কিছু ক্ষেত্রে, অ্যাপল এই নতুন ডিজাইনের সফল রূপান্তরকে উদ্দেশ্যসাধনের উপায় হিসাবে ব্যবহার করেছে, বিভিন্ন সময়ে এমন লোকেদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়ার হুমকি দিয়ে যারা একটি ইন্টারফেস দিয়ে সফটওয়্যার তৈরি বা বিতরণ করে যেটিকে কোম্পানিটি তাদের কপিরাইটযুক্ত নকশা থেকে উদ্ভূত হয়েছে বলে দাবি করে। [১২৪]

অ্যাপল ম্যাকওএসের অবয়ব এবং ডিজাইনের দিক পরিবর্তন করে চলেছে, বিশেষ করে উইন্ডো এবং মেনু বারের অবয়বের পরিবর্তনের সাথে সাথে। ২০১২ সাল থেকে, অ্যাপল উচ্চ-রেজোলিউশনের রেটিনা ডিসপ্লে সহ তার অনেকগুলি ম্যাক মডেল বিক্রি করে, এবং ম্যাকওএস এবং এর এপিআইগুলি উচ্চ-রেজোলিউশন প্রদর্শন সমর্থন করার জন্য রেজোলিউশন-স্বাধীন বিকাশের জন্য ব্যাপক সমর্থন দেয়। পর্যালোচকরা প্রযুক্তির জন্য অ্যাপলের সমর্থনকে উইন্ডোজের তুলনায় উচ্চতর বলে বর্ণনা করেছেন। [১২৫][১২৬][১২৭]

অনেকগুলি অ্যাপ্লিকেশন তাদের সামঞ্জস্যপূর্ণ ইউজার ইন্টারফেস এবং কীবোর্ড শর্টকাট দিয়ে ম্যাকওএস-এর জন্য অ্যাপল দ্বারা প্রকাশিত মানব ইন্টারফেস নির্দেশিকাগুলি অনুসরণ করে থাকে। [১২৮] এছাড়াও, অ্যাপ্লিকেশনগুলির জন্য নতুন পরিষেবা অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে, যার মধ্যে রয়েছে বানান এবং ব্যাকরণ পরীক্ষক, বিশেষ অক্ষর প্যালেট, রঙ চয়নকারী, ফন্ট চয়নকারী এবং অভিধান; এই বৈশ্বিক বৈশিষ্ট্যগুলি প্রতিটি কোকোয়া অ্যাপ্লিকেশনে ধারাবাহিকতার সাথে উপস্থিত রয়েছে। গ্রাফিক্স সিস্টেমটি ওপেনজিএল হার্ডওয়্যার-আক্সেলেরেশন অঙ্কনকে অনুমতি দেওয়ার জন্য পর্দায় উইন্ডোগুলিকে সংমিশ্রিত করে। ১০.২ সংস্করণে প্রবর্তিত এই প্রযুক্তিকে বলা হয় কোয়ার্টজ এক্সট্রিম, যা কোয়ার্টজের একটি উপাদান। কোয়ার্টজের অভ্যন্তরীণ ইমেজিং মডেলটি পোর্টেবল ডকুমেন্ট ফরম্যাট (পিডিএফ) ইমেজিং মডেলের সাথে ভালভাবে সম্পর্কযুক্ত, এটি একাধিক ডিভাইসে পিডিএফ আউটপুট করা সহজ করে তোলে। [১২০] ফলস্বরূপ, যেকোনো অ্যাপ্লিকেশন থেকে পিডিএফ দেখা এবং পিডিএফ ডকুমেন্ট তৈরি করা এটির বিল্ট-ইন বৈশিষ্ট্য। [১২৯] ডিজাইন ব্যবহারকারীদের কাছে এর জনপ্রিয়তা প্রতিফলিত করে, ম্যাকওএস-এর বিভিন্ন ধরনের পেশাদার ভিডিও এবং চিত্র বিন্যাসের জন্য সিস্টেম সমর্থন রয়েছে এবং এতে একটি বিস্তৃত প্রাক-ইনস্টল করা ফন্ট লাইব্রেরি রয়েছে, যদিও অনেক বিশিষ্ট ব্র্যান্ড-নাম ডিজাইন রয়েছে। [১৩০]

উপাদানসম্পাদনা

ফাইন্ডার হল একটি ফাইল ব্রাউজার যা কম্পিউটারের সমস্ত এলাকায় দ্রুত প্রবেশের অনুমতি দেয়, যেটি ম্যাকওএসের পরবর্তী অবমুক্তিগুলোতে পরিবর্তন করা হয়েছে। [১৩১][১৩২] কুইক লুক ১০.৫ সংস্করণ থেকে ফাইন্ডারের অংশ। এটি অন্য কোনো অ্যাপ্লিকেশন না খুলেই ভিডিও এবং বহু-পৃষ্ঠার নথি সহ ফাইলগুলির গতিশীল পূর্বরূপ দেখার অনুমতি দেয়। স্পটলাইট একটি ফাইল অনুসন্ধান প্রযুক্তি যা ১০.৪ সংস্করণ থেকে ফাইন্ডারে একত্রিত করা হয়েছে, এটি ডেটা ফাইল; মেইল বার্তা; ছবি; এবং অন্যান্য তথ্য আইটেম বৈশিষ্ট্য (মেটাডেটা) বা বিষয়বস্তুর উপর ভিত্তি করে দ্রুত রিয়েল-টাইম অনুসন্ধানের সুযোগ দেয়। [১৩৩][১৩৪] ম্যাকওএস একটি ডক ব্যবহার করে, যা ফাইল এবং ফোল্ডার শর্টকাটগুলির পাশাপাশি মিনিমাইজ করা উইন্ডো ধারণ করে।

অ্যাপল সংস্করণ ১০.৩ ( সংস্করণ ১০.৭ থেকে মিশন কন্ট্রোল নামে পরিচিত) এ এক্সপোজ যুক্ত করেছে, এটি এমন একটি বৈশিষ্ট্য যা উইন্ডো এবং ডেস্কটপের মধ্যে ব্যবহারযোগ্যতাকে সহায়তা করার জন্য তিনটি ফাংশন অন্তর্ভুক্ত করে। এর কাজগুলি হল বিভিন্ন কাজে সহজে নেভিগেশনের জন্য সমস্ত খোলা উইন্ডোগুলিকে থাম্বনেইল হিসাবে তাত্ক্ষণিকভাবে প্রদর্শন করা, বর্তমান অ্যাপ্লিকেশন থেকে সমস্ত খোলা উইন্ডোগুলিকে থাম্বনেইল হিসাবে প্রদর্শন করা এবং ডেস্কটপে প্রবেশ করার জন্য সমস্ত উইন্ডো লুকানো। [১৩৫] ফাইলভল্ট হল ১২৮-বিট অ্যাডভান্সড এনক্রিপশন স্ট্যান্ডার্ড (এইএস-১২৮) সহ ব্যবহারকারীর ফাইলগুলির ঐচ্ছিক এনক্রিপশন ব্যবস্থা। [১৩৬]

১০.৪ সংস্করণে প্রবর্তিত বৈশিষ্ট্যগুলির মধ্যে রয়েছে অটোমেটর, এটি এমন একটি অ্যাপ্লিকেশন যা বিভিন্ন কাজের জন্য একটি স্বয়ংক্রিয় কর্মপ্রবাহ তৈরি করার জন্য ডিজাইন করা হয়েছে;[১৩৭] ড্যাশবোর্ড, যেটি ডেস্কটপ উইজেট নামে পরিচিত ছোট অ্যাপ্লিকেশনগুলির একটি পূর্ণ-স্ক্রীন গ্রুপ যা একটি বোতাম চেপে নিয়ে আসা এবং বাতিল করা যেতে পারে;[১৩৮] এবং ফ্রন্ট রো নামক অ্যাপল রিমোট দিয়ে ব্যবহার করা একটি মিডিয়া ভিউয়ার ইন্টারফেস। [১৩৯] সিঙ্ক পরিষেবাগুলি অ্যাপ্লিকেশনগুলিকে ক্যালেন্ডার এবং যোগাযোগের আইটেম সহ ব্যবহারকারীর ডেটার বিভিন্ন উপাদানগুলির জন্য একটি কেন্দ্রীভূত প্রসারণশীল ডেটাবেস ব্যবহার করতে দেয়। অপারেটিং সিস্টেমটি তখন বিরোধপূর্ণ সম্পাদনা এবং ডেটা সামঞ্জস্য পরিচালনা করে। [১৪০]

যেখানে সেগুলি বড় আকারে প্রদর্শিত হয় সেখানে সমস্ত সিস্টেম আইকনগুলি ১০.৫ সংস্করণ অনুসারে ৫১২×৫১২ পিক্সেল পর্যন্ত স্কেলযোগ্য, উদাহরণস্বরূপ কভার ফ্লো ভিউ; যা কভার আর্টওয়ার্কের মাধ্যমে ফাইল এবং ডিজিটাল মিডিয়া লাইব্রেরির মাধ্যমে দৃশ্যমানভাবে সরানোর করার জন্য আইটিউন্স, ফাইন্ডার এবং অন্যান্য অ্যাপল পণ্যগুলির সাথে অন্তর্ভুক্ত একটি ত্রিমাত্রিক গ্রাফিকাল ইউজার ইন্টারফেস। সেই সংস্করণটির প্রবরতন করা বৈশিষ্ট্যের মধ্যে রয়েছে: স্পেসেস, যেটি একটি ভার্চুয়াল ডেস্কটপ বাস্তবায়ন যা ব্যবহারকারীকে একাধিক ডেস্কটপ রাখতে সক্ষম করে এবং সেগুলিকে একটি এক্সপোজ-সদৃশ ইন্টারফেসে প্রদর্শন করে;[১৪১] টাইম মেশিন নামক একটি স্বয়ংক্রিয় ব্যাকআপ প্রযুক্তি, যা ব্যবহারকারীদের ফাইল এবং অ্যাপ্লিকেশন ডেটার পূর্ববর্তী সংস্করণগুলি দেখতে এবং পুনরুদ্ধার করতে দেয়;[১৪২] এবং স্ক্রিন শেয়ারিং প্রথমবারের মতো তৈরি হয়। [১৪৩]

সাম্প্রতিক অবমুক্তিতে, অ্যাপল মালিকানা অ্যাপল কালার ইমোজি ফন্ট অন্তর্ভুক্ত করে ইমোজি অক্ষরের জন্য সমর্থন তৈরি করেছে। [১৪৪][১৪৫] অ্যাপল ছবি এবং পাঠ্যের মতো বিষয়বস্তুর জন্য শেয়ার বোতাম যুক্ত করার মাধ্যমে টুইটার এবং ফেসবুকের মতো সামাজিক নেটওয়ার্কগুলির সাথে ম্যাকওএসকে সংযুক্ত করেছে। [১৪৬] অ্যাপল সাম্প্রতিক অবমুক্তিতে ম্যাকওএস-এ প্রাথমিকভাবে এর মোবাইল অপারেটিং সিস্টেম আইওএস-এ আত্মপ্রকাশ করা বেশ কয়েকটি অ্যাপ্লিকেশন এবং বৈশিষ্ট্য নিয়ে এসেছে, বিশেষ করে বুদ্ধিমান ব্যক্তিগত সহকারী সিরি, যা ম্যাকওএস-এর ১০.১২ সংস্করণে চালু করা হয়েছিল। [১৪৭][১৪৮]

বহুভাষিক সমর্থনসম্পাদনা

ইনস্টলেশনের মুহুর্তে ব্যবহারকারীর জন্য ম্যাকওএস-এ ৩৯টি সিস্টেম ভাষা উপলব্ধ থাকে; সিস্টেম ভাষাটি সমগ্র অপারেটিং সিস্টেম পরিবেশ জুড়ে ব্যবহৃত হয়। কয়েক ডজন স্ক্রিপ্টে টাইপ করার জন্য ইনপুট পদ্ধতিগুলি সিস্টেমের ভাষা থেকে স্বাধীনভাবে বেছে নেওয়া যেতে পারে। [১৪৯] সাম্প্রতিক হালনাগাদগুলি চীনের জনপ্রিয় সামাজিক নেটওয়ার্কগুলির সাথে চীনা অক্ষর এবং আন্তঃসংযোগের জন্য বর্ধিত সমর্থন যোগ করেছে। [১৫০][১৫১][১৫২][১৫৩]

হালনাগাদ করার পদ্ধতিসম্পাদনা

সিস্টেম প্রিফারেন্সেস-এর সফটওয়্যার হালনাগাদ পছন্দ ফলক বা softwareupdate কমান্ড লাইন ইউটিলিটি ব্যবহার করে ম্যাকওএস হালনাগাদ করা যেতে পারে। ওএস এক্স ১০.৮ মাউন্টেইন লায়ন পর্যন্ত, একটি পৃথক সফটওয়্যার হালনাগাদ অ্যাপ্লিকেশন এই কার্যকারিতা সম্পাদন করেছে। মাউন্টেন লায়নে এবং পরবর্তীতে, এটিকে ম্যাক অ্যাপ স্টোর অ্যাপ্লিকেশনে একীভূত করা হয়, যদিও অন্তর্নিহিত হালনাগাদ প্রক্রিয়া অপরিবর্তিত রয়েছে এবং এটি একটি অ্যাপ স্টোর অ্যাপ্লিকেশন কেনার সময় ব্যবহৃত ডাউনলোড পদ্ধতি থেকে মৌলিকভাবে আলাদা। ম্যাকওএস ১০.১৪ মোহাভে-তে, হালনাগাদ করার ফাংশন আবার সফটওয়্যার আপডেট পছন্দ ফলকে সরানো হয়।

অবমুক্তির ইতিহাসসম্পাদনা

ম্যাক ওএস এক্স, ওএস এক্স, এবং ম্যাকওএস সংস্করণের তথ্য
সংস্করণ কোডনাম ডারউইন
সংস্করণ
প্রসেসর
সমর্থন
অ্যাপ্লিকেশন
সমর্থন
কার্নেল ঘোষণার
তারিখ
অবমুক্তির
তারিখ
সবচেয়ে সাম্প্রতিক
সংস্করণ
পুরানো সংস্করণ, আর সমর্থিত নয়: র‍্যাপসোডি বিকাশকারী অবমুক্তি গ্রেইল১জেড৪/ টাইটান১ইউ অজানা ৩২-বিট পাওয়ারপিসি ৩২-বিট পাওয়ারপিসি ৩২-বিট জানুয়ারি ৭, ১৯৯৭[১৫৪] আগস্ট ৩১, ১৯৯৭ ডিআর২
(মে ১৪, ১৯৯৮)
পুরানো সংস্করণ, আর সমর্থিত নয়: ম্যাক ওএস এক্স সার্ভার ১.০ হেরা অজানা অজানা মার্চ ১৬, ১৯৯৯ ১.২ভি৩
(অক্টোবর ২৭, ২০০০)
পুরানো সংস্করণ, আর সমর্থিত নয়: ম্যাক ওএস এক্স বিকাশকারী পূর্বরূপ অজানা অজানা মে ১১, ১৯৯৮[১৫৫] মার্চ ১৬, ১৯৯৯ ডিপি৪
(এপ্রিল ৫, ২০০০)
পুরানো সংস্করণ, আর সমর্থিত নয়: ম্যাক ওএস এক্স পাবলিক বিটা কোডিয়াক[১৫৬] অজানা মে ১৫, ২০০০[১৫৭] সেপ্টেম্বর ১৩, ২০০০ প্রযোজ্য নয়
পুরানো সংস্করণ, আর সমর্থিত নয়: ম্যাক ওএস এক্স ১০.০ চিতা ১.৩.১ জানুয়ারি ৯, ২০০১[১৫৮] মার্চ ২৪, ২০০১ ১০.০.৪ (৪কিউ১২)
(জুন ২২, ২০০১)
পুরানো সংস্করণ, আর সমর্থিত নয়: ম্যাক ওএস এক্স ১০.১ পুমা ১.৪.১/ ৫ জুলাই ১৮, ২০০১[১৫৯] সেপ্টেম্বর ২৫, ২০০১ ১০.১.৫ (৫এস৬০)
(জুন ৬, ২০০২)
পুরানো সংস্করণ, আর সমর্থিত নয়: ম্যাক ওএস এক্স ১০.৩ জাগুয়ার ৩২/৬৪-বিট পাওয়ারপিসি[Note 1] মে ৬, ২০০২[১৬০] আগস্ট ২৪, ২০০২ ১০.২.৮
(অক্টোবর ৩, ২০০৩)
পুরানো সংস্করণ, আর সমর্থিত নয়: ম্যাক ওএস এক্স ১০.৩ প্যান্থার ৩২/৬৪-বিট পাওয়ারপিসি জুন ২৩, ২০০৩[১৬১] অক্টোবর ২৪, ২০০৩ ১০.৩.৯ (৭ডব্লিউ৯৮)
(এপ্রিল ১৫, ২০০৫)
পুরানো সংস্করণ, আর সমর্থিত নয়: ম্যাক ওএস এক্স ১০.৪ টাইগার ৩২/৬৪-বিট পাওয়ারপিসি এবং ইন্টেল ৩২/৬৪-বিট[Note 2] পাওয়ারপিসি[Note 3]
এবং ইন্টেল
মে ৪, ২০০৪[১৬২] এপ্রিল ২৯, ২০০৫ ১০.৪.১১
(নভেম্বর ১৪, ২০০৭)
পুরানো সংস্করণ, আর সমর্থিত নয়: ম্যাক ওএস এক্স ১০.৫ লেপার্ড ৩২/৬৪-বিট পাওয়ারপিসি[Note 3]
এবং ইন্টেলl
জুন ২৬, ২০০৬[১৬৩] অক্টোবর ২৬, ২০০৭ ১০.৫.৮ (৯এল৩১এ)
(আগস্ট ১৩।, ২০০৯)
পুরানো সংস্করণ, আর সমর্থিত নয়: ম্যাক ওএস এক্স ১০.৬ স্নো লেপার্ড ১০ ৩২/৬৪-বিট ইন্টেল ৩২/৬৪-বিট ইন্টেল
৩২-বিট পাওয়ারপিসি[Note 3]
৩২/৬৪-বিট[১৬৪] জুন ৯, ২০০৮[১৬৫] আগস্ট ২৮, ২০০৯ ১০.৬.৮(১০কে৫৪৯)
(জুলাই ২৫, ২০১১)
পুরানো সংস্করণ, আর সমর্থিত নয়: ম্যাক ওএস এক্স ১০.৭ লায়ন ১১ ৬৪-বিট ইন্টেল ৩২/৬৪-বিট ইন্টেল অক্টোবর ২০, ২০১০[১৬৬] জুলাই ২০, ২০১১ ১০.৭.৫ (১১জি৬৩)
(অক্টোবর ৪, ২০১২)
পুরানো সংস্করণ, আর সমর্থিত নয়: ওএস এক্স ১০.৮ মাউন্টেইন লায়ন ১২ ৬৪-বিট[১৬৭] ফেব্রুয়ারি ১৬, ২০১২[১৬৮] জুলাই ২৫, ২০১২[১৬৯] ১০.৮.৫ (১২এফ২৫৬০)
(আগস্ট ১৩, ২০১৫)
পুরানো সংস্করণ, আর সমর্থিত নয়: ওএস এক্স ১০.৯ ম্যাভেরিকস ১৩ জুন ১০, ২০১৩[১৭০] অক্টোবর ২২, ২০১৩ ১০.৯.৫ (১৩এফ১৯১১)

(১৮ জুলাই, ২০১৬)

পুরানো সংস্করণ, আর সমর্থিত নয়: ওএস এক্স ১০.১০ ইয়োসেমাইট ১৪ জুন ২, ২০১৪[১৭১] অক্টোবর ১৬, ২০১৪ ১০.১০.৫ (১৪এফ২৫১১)

(১৯ জুলাই, ২০১৭)

পুরানো সংস্করণ, আর সমর্থিত নয়: ওএস এক্স ১০.১১ এল কাপিটান ১৫ জুন ৮, ২০১৫[১৭২] সেপ্টেম্বর ৩০, ২০১৫ ১০.১১.৬ (১৫জি২২০১০)

(৯ জুলাই, ২০১৮)

পুরানো সংস্করণ, আর সমর্থিত নয়: ম্যাকওএস ১০.১২ সিয়েরা ১৬ জুন ১৩, ২০১৬[১৭৩] সেপ্টেম্বর ২০, ২০১৬ ১০.১২.৬ (১৬জি২১৩৬)

(২৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৯)

পুরানো সংস্করণ, আর সমর্থিত নয়: ম্যাকওএস ১০.১৩ হাই সিয়েরা ১৭ জুন ৫, ২০১৭ সেপ্টেম্বর ২৫, ২০১৭ ১০.১৩.৬ (১৭জি১৪০৪২)

(১২ নভেম্বর, ২০২০)

পুরানো সংস্করণ, আর সমর্থিত নয়: ম্যাকওএস ১০.১৪ মোহাভি ১৮ জুন ৪, ২০১৮ সেপ্টেম্বর ২৪, ২০১৮ ১০.১৪.৬ (১৮জি৯৩২৩)

(২১ জুলাই, ২০২১)

একটি পুরানো সংস্করণ, তবে এখনও সমর্থিত: ম্যাকওএস ১০.১৫ ক্যাটালিনা ১৯ ৬৪-বিট ইন্টেল জুন ৩, ২০১৯ অক্টোবর ৭, ২০১৯ ১০.১৫.৭ (১৯এইচ১৭১৫)(১৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২২)
একটি পুরানো সংস্করণ, তবে এখনও সমর্থিত: ম্যাকওএস ১১ বিগ স্যর ২০ ৬৪-বিট ইন্টেল এবং এআরএম ৬৪-বিট ইন্টেল এবং এআরএম[Note 4] জুন ২২, ২০২০ নভেম্বর ১২, ২০২০ ১১.৬.৪ (২০জি ৪১৭)

(১৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২২)

সর্বশেষ স্থিতিশীল সংস্করণ: ম্যাকওএস ১২ মন্টেরি ২১ জুন ৭, ২০২১ অক্টোবর ২৫, ২০২১ ১২.২.১ (২১ডি৬২)

(ফেব্রুয়ারী ১০, ২০২২)

ব্যাখ্যা:
পুরনো সংস্করণ
পুরানো সংস্করণ, এখনও সমর্থিত
সর্বশেষ সংস্করণ
সর্বশেষ পূর্বরূপ সংস্করণ
ভবিষ্যৎ প্রকাশ
Note 1 পাওয়ারম্যাক জি৫-এ বিশেষ জাগুয়ার বিল্ড রয়েছে।
Note 2 টাইগার ৬৪-বিট জিইউআই অ্যাপ্লিকেশনগুলিকে সমর্থন করে না, শুধুমাত্র ৬৪-বিট সিএলআই অ্যাপ্লিকেশনগুলিকে সমর্থন করে।[১৭৪][১৭৫]
Note 3 ৩২-বিট (কিন্তু ৬৪-বিট নয়) পাওয়ারপিসি অ্যাপ্লিকেশনগুলি রোসেটা সম্বলিত ইন্টেল প্রসেসরগুলিতে সমর্থিত ছিল।
Note 4 64-বিট ইন্টেল অ্যাপ্লিকেশনগুলি রোসেটা ২ সম্বলিত অ্যাপল সিলিকন ম্যাকে সমর্থিত। তবে, ইন্টেল-ভিত্তিক ম্যাক এআরএম-ভিত্তিক অ্যাপ্লিকেশনগুলি যেমন আইওএস এবং আইপ্যাডওএস অ্যাপ চালাতে অক্ষম।


Rhapsody (operating system)Mac OS X Server 1.0Mac OS X Public BetaMac OS X 10.0Mac OS X 10.1Mac OS X JaguarMac OS X PantherMac OS X TigerMac OS X LeopardMac OS X Snow LeopardMac OS X LionOS X Mountain LionOS X MavericksOS X YosemiteOS X El CapitanmacOS SierramacOS High SierramacOS MojavemacOS CatalinamacOS Big Sur
সংস্করণগুলোর সময়রেখা

যখন অ্যাপল ক্যালিফোর্নিয়ার অবস্থানগুলি ব্যবহার করতে শুরু করে তার আগে ম্যাক ওএস এক্স সার্ভার ১.০ এবং মূল পাবলিক বিটা ব্যাতীত, ওএস এক্স ১০.৯ ম্যাভেরিকস পর্যন্ত ওএস এক্স সংস্করণগুলি বড় বিড়ালের নাম অনুসারে নামকরণ করা হয়েছিল। অবমুক্তির আগে, ম্যাক ওএস এক্স ১০.০-এর জন্য অভ্যন্তরীণভাবে অ্যাপলের কোডনাম ছিল "চিতা", এবং ম্যাক ওএস এক্স ১০.১-এর জন্য অভ্যন্তরীণভাবে কোড নামকরণ করা হয় "পুমা"। ম্যাক ওএস এক্স ১০.২ এর কোডনাম "জাগুয়ার"-কে ঘিরে ব্যাপক গুঞ্জনের পর, অ্যাপলের পণ্য বিপণন খোলাখুলিভাবে অপারেটিং সিস্টেমের প্রচারের জন্য কোড নাম ব্যবহার করা শুরু করে। ম্যাক ওএস এক্স ১০.৩ কে "প্যান্থার", ম্যাক ওএস এক্স ১০.৪ কে "টাইগার" হিসাবে, ম্যাক ওএস এক্স ১০.৫ কে "লেপার্ড" হিসাবে, ম্যাক ওএস এক্স ১০.৬ কে "স্নো লেপার্ড" হিসাবে, ম্যাক ওএস এক্স ১০.৭ কে "লায়ন", ওএস এক্স ১০.৮ কে "মাউন্টেন লায়ন" এবং ওএস এক্স ১০.৯ কে "ম্যাভেরিকস" হিসাবে বাজারজাত করা হয়।

"প্যান্থার", "টাইগার" এবং "লেপার্ড" অ্যাপলের ট্রেডমার্ক হিসাবে নিবন্ধিত,, [১৭৬][১৭৭][১৭৮] কিন্তু "চিতা", "পুমা" এবং "জাগুয়ার" কখনও ট্রেডমার্ক হিসাবে নিবন্ধিত হয়নি। অ্যাপল "লিংক্স" এবং "কুগার" কে ট্রেডমার্ক হিসাবে নিবন্ধিত করেছে, যদিও এগুলিকে বাতিল করে দেওয়া হয়।[১৭৯][১৮০] কম্পিউটার খুচরা বিক্রেতা টাইগার ডাইরেক্ট অ্যাপলের "টাইগার" নামটি ব্যবহারের জন্য মামলা করে। ১৬ মে, ২০০৫-এ, ফ্লোরিডার দক্ষিণ জেলায় একটি মার্কিন ফেডারেল আদালত রায় দেয় যে অ্যাপলের ব্যবহারটি টাইগার ডাইরেক্টের ট্রেডমার্ক লঙ্ঘন করে না। [১৮১]

ম্যাক ওএস এক্স পাবলিক বিটাসম্পাদনা

১৩ সেপ্টেম্বর, ২০০০-এ, অ্যাপল ব্যবহারকারীদের কাছ থেকে প্রতিক্রিয়া পেতে ম্যাক ওএস এক্স-এর একটি ২৯.৯৫ মার্কিন ডলার মূল্যের একটি [১৮২] "পূর্বরূপ" সংস্করণ প্রকাশ করে, যার অভ্যন্তরীণ কোডনাম ছিল কোডিয়াক।

যেমনটি জানা যায়, "পিবি" অ্যাকোয়া ইন্টারফেসের প্রথম সর্বজনীন উপলব্ধতা চিহ্নিত করে এবং অ্যাপল গ্রাহকদের প্রতিক্রিয়ার ভিত্তিতে ইউআই-তে অনেক পরিবর্তন করে। ম্যাক ওএস এক্স পাবলিক বিটা-এর মেয়াদ শেষ হয়ে গেছে এবং ২০০১ সালের বসন্তের সময় এটি কাজ করা বন্ধ করে দিয়েছে। [১৮৩]

ম্যাক ওএস এক্স ১০.০ (চিতা)সম্পাদনা

চিত্র:MacOSX10-0screenshot.png
ওস এক্স ১০.০ এর স্ক্রিনশট

২৪শে মার্চ, ২০০১-এ, অ্যাপল ম্যাক ওএস এক্স ১০.০ (অভ্যন্তরীণভাবে চিতা নামে পরিচিত) প্রকাশ করে। [১৮৪] প্রাথমিক সংস্করণটি ছিল ধীর,[১৮৫] অসম্পূর্ণ,[১৮৬] এবং লঞ্চের সময় বেশিরভাগ স্বাধীন বিকাশকারীদের কাছে উপলব্ধ। [১৮৭] খুব কম অ্যাপ্লিকেশন উপলব্ধ ছিল। যদিও অনেক সমালোচক প্রকাশ করেছেন যে অপারেটিং সিস্টেমটি মূলধারার গ্রহণের জন্য প্রস্তুত নয়, তারা উন্নতির ভিত্তি হিসাবে এটির প্রাথমিক প্রবর্তনের গুরুত্বকে স্বীকৃতি দেয়। [১৮৬] ম্যাক ওএস এক্স-কে সহজভাবে অবমুক্ত করা ম্যাকিন্টশ সম্প্রদায় একটি মহান কৃতিত্ব হিসাবে গ্রহণ করে,[১৮৬] ১৯৯৬ সাল থেকে ম্যাক ওএসকে সংশোধন করার প্রচেষ্টা চলছিল এবং অগণিত বাধার কারণে এটি বিলম্বিত হয়।

ম্যাক ওএস এক্স ১০.১ (পুমা)সম্পাদনা

সেই বছরের পরবর্তীতে ২৫শে সেপ্টেম্বর, ২০০১-এ, ম্যাক ওএস এক্স ১০.১ (আভ্যন্তরীণ কোডনাম পুমা) প্রকাশিত হয়। এটি বর্ধিত কর্মক্ষমতা বৈশিষ্ট্যযুক্ত এবং অনুপস্থিত বৈশিষ্ট্যগুলো প্রদান করে, যেমন ডিভিডি প্লেব্যাক। অ্যাপল ১০.০ ব্যবহারকারীদের জন্য বিনামূল্যে হালনাগাদ সিডি হিসাবে ১০.১ প্রকাশ করে, এছাড়া ম্যাক ওএস ৯ চালনাকারীদের জন্য ১২৯ মার্কিন ডলার মূল্যের বক্সযুক্ত সংস্করণও প্রকাশ করে। প্রকাশিত হয় যে হালনাগাদ সিডিগুলি সম্পূর্ণ ইনস্টল সিডি যা একটি নির্দিষ্ট ফাইল সরিয়ে ম্যাক ওএস ৯ সিস্টেমের সাথে ব্যবহার করা যেতে পারে; অ্যাপল পরে সিডিগুলিকে একটি প্রকৃত স্ট্রাইপ-ডাউন বিন্যাসে পুনরায় প্রকাশ করে, যা এই জাতীয় উপায়ে ইনস্টলেশনের সুবিধা দেয়নি। [১৮৮] ১ জানুয়ারী, ২০০২-এ, অ্যাপল ঘোষণা করে যে সেই মাসের শেষ নাগাদ সমস্ত ম্যাকিন্টশ পণ্যের জন্য ডিফল্ট অপারেটিং সিস্টেম হবে ম্যাক ওএস এক্স। [১৮৯]

ম্যাক ওএস এক্স ১০.২ জাগুয়ারসম্পাদনা

২৩ আগস্ট, ২০০২-এ [১৯০] অ্যাপল ব্র্যান্ডিংয়ের অংশ হিসাবে কোড নাম ব্যবহারের প্রথম অবমুক্তি নিয়ে আসে ম্যাক ওএস এক্স ১০.২ জাগুয়ার দিয়ে। [১৯১] এটি পারফরম্যান্সের দুর্দান্ত উন্নতি, একটি মসৃণ অবয়ব, এবং অনেক শক্তিশালী ইউজার-ইন্টারফেস বর্ধন (১৫০ টিরও বেশি, অ্যাপল অনুসারে[১৯২] ) নিয়ে আসে, যার মধ্যে রয়েছে একটি এটিআই রেডন বা এনভিডিয়া জিফোর্স২ এমএক্স এজিপি-ভিত্তিক কমপক্ষে ১৬ এমবি ভির‍্যাম সংবলিত ভিডিও কার্ডে সরাসরি গ্রাফিক্স কম্পোজিট করার জন্য কোয়ার্টজ এক্সট্রিম, নতুন অ্যাড্রেস বুক-এ যোগাযোগের তথ্যের জন্য একটি সিস্টেম-ব্যাপী সংগ্রহস্থল এবং আইচ্যাট নামক একটি তাত্ক্ষণিক বার্তা ক্লায়েন্ট। [১৯৩] যে হ্যাপি ম্যাক প্রায় ১৮ বছর ধরে ম্যাক ওএস চালু হওয়ার সময় দেখা যেত, সেটির বদলে একটি ধূসর বড় অ্যাপল লোগো দিয়ে ম্যাক ওএস এক্স ১০.২ প্রবর্তন করা হয়। [১৯৪]

ম্যাক ওএস এক্স ১০.৩ প্যান্থারসম্পাদনা

ম্যাক ওএস এক্স ১০.৩ প্যান্থার ২৪ অক্টোবর, ২০০৩-এ মুক্তি পায়। এটিতে উল্লেখযোগ্যভাবে কর্মক্ষমতা উন্নত করা হয় এবং ব্যবহারকারী ইন্টারফেসে এখনও পর্যন্ত সবচেয়ে ব্যাপক হালনাগাদ অন্তর্ভুক্ত করে। প্যান্থারে জাগুয়ারের আগের বছরের মতো অনেক বা তার বেশি নতুন বৈশিষ্ট্য অন্তর্ভুক্ত ছিল, যার মধ্যে একটি হালনাগাদকৃত ফাইন্ডার, একটি ব্রাশড-মেটাল ইন্টারফেস, দ্রুত ব্যবহারকারী পরিবর্তন, এক্সপোজ (উইন্ডো ম্যানেজার), ফাইলভল্ট, সাফারি, আইচ্যাট এভি (যা আইচ্যাট-এ ভিডিও কনফারেন্সিং বৈশিষ্ট্য যুক্ত করে), উন্নত পোর্টেবল ডকুমেন্ট ফরম্যাট (পিডিএফ) সম্পাদন এবং অনেক বেশি মাইক্রোসফট উইন্ডোজ আন্তঃকার্যক্ষমতা। [১৯৫] কিছু প্রারম্ভিক জি৩ কম্পিউটার যেমন "বেইজ" পাওয়ার ম্যাক এবং "ওয়ালস্ট্রিট" পাওয়ারবুকগুলির জন্য সমর্থন বন্ধ করা হয়েছিল। [১৯৬]

ম্যাক ওএস এক্স ১০.৪ টাইগারসম্পাদনা

চিত্র:TigerDesk.png
টাইগার-এর স্ক্রিনশট

ম্যাক ওএস এক্স ১০.৪ টাইগার ২৯ এপ্রিল, ২০০৫-এ মুক্তি পায়। অ্যাপল জানায় যে টাইগারে ২০০ টিরও বেশি নতুন বৈশিষ্ট্য রয়েছে। [১৯৭] প্যান্থারের মতো, কিছু পুরানো যন্ত্রে এটি আর সমর্থন করত না; টাইগারে ২৬৫ এমবি সংবলিত একটি ম্যাক এবং একটি অন্তর্নির্মিত ফায়ারওয়্যার পোর্ট প্রয়োজন হত। [৯৪] টাইগারের আনা নতুন বৈশিষ্ট্যগুলির মধ্যে রয়েছে স্পটলাইট, ড্যাশবোর্ড, স্মার্ট ফোল্ডার, স্মার্ট মেইলবক্সের সাথে হালনাগাদ করা মেইল প্রোগ্রাম, কুইকটাইম ৭, সাফারি ২, অটোমেটর, ভয়েসওভার, কোর ইমেজ এবং কোর ভিডিও। অ্যাপল টিভির প্রাথমিক প্রকাশে টাইগারের একটি ভিন্ন গ্রাফিকাল ইন্টারফেস ও কম অ্যাপ্লিকেশন এবং পরিষেবা সহ একটি পরিবর্তিত সংস্করণ ব্যবহার করা হয়। [১৯৮] ১০ জানুয়ারী, ২০০৬-এ, অ্যাপল টাইগারের ১০.৪.৪ হালনাগাদ সহ প্রথম ইন্টেল-ভিত্তিক ম্যাক প্রকাশ করে। ক্লাসিক এনভায়রনমেন্টের জন্য ইন্টেল অবমুক্তির সমর্থনের অভাব ছাড়া এই অপারেটিং সিস্টেমটি পাওয়ারপিসি-ভিত্তিক ম্যাক এবং নতুন ইন্টেল-ভিত্তিক যন্ত্রগুলিতে একইভাবে কাজ করত। [১৯৯]

ম্যাক ওএস এক্স ১০.৫ লেপার্ডসম্পাদনা

ম্যাক ওএস এক্স ১০.৫ লেপার্ড ২৬ অক্টোবর, ২০০৭-এ মুক্তি পায়। অ্যাপল এটিকে "ম্যাক ওএস এক্স-এর বৃহত্তম হালনাগাদ" বলে অভিহিত করে। এটি ৩০০ টিরও বেশি নতুন বৈশিষ্ট্য নিয়ে আসে। [২০০] লেপার্ড পাওয়ারপিসি-ভিত্তিক এবং ইন্টেল x৮৬-ভিত্তিক উভয় ম্যাকিন্টোশ কম্পিউটারে সমর্থন করে; জি৩ প্রসেসরের জন্য সমর্থন বাদ দেওয়া হয় এবং জি৪ প্রসেসরের জন্য সর্বনিম্ন ৮৬৭ মেগাহার্টজ ক্লক রেট প্রয়োজন হয়, এবং কমপক্ষে ৫১২ এমবি র‍্যাম ইন্সটল করতে হয়। একক ডিভিডি সব সমর্থিত ম্যাকের (৬৪-বিট মেশিন সহ) জন্য কাজ করে। নতুন বৈশিষ্ট্যগুলির মধ্যে রয়েছে একটি নতুন অবয়ব, হালনাগাদকৃত ফাইন্ডার, টাইম মেশিন, স্পেস, আগে থেকে ইনস্টল করা বুট ক্যাম্প,[২০১] ৬৪-বিট অ্যাপ্লিকেশনগুলির (গ্রাফিকাল অ্যাপ্লিকেশন সহ) জন্য সম্পূর্ণ সমর্থন, মেইল এবং আইচ্যাটে নতুন বৈশিষ্ট্য এবং বেশ কয়েকটি নতুন নিরাপত্তা বৈশিষ্ট্য। লেপার্ড হল ইন্টেল প্ল্যাটফর্মে একটি ওপেন ব্র্যান্ড ইউনিক্স ০৩ নিবন্ধিত পণ্য। এটিই প্রথম বিএসডি-ভিত্তিক অপারেটিং সিস্টেম যা ইউনিক্স ০৩ সার্টিফিকেশন পায়। [৩][২০২] লেপার্ড ক্লাসিক এনভায়রনমেন্ট এবং সমস্ত ক্লাসিক অ্যাপ্লিকেশনের জন্য সমর্থন বাদ দেয়। [২০৩] পাওয়ারপিসি আর্কিটেকচারকে সমর্থন করার ক্ষেত্রে এটি ছিল ম্যাক ওএস এক্স-এর চূড়ান্ত সংস্করণ। [২০৪]

ম্যাক ওএস এক্স ১০.৬ স্নো লেপার্ডসম্পাদনা

ম্যাক ওএস এক্স ১০.৬ স্নো লেপার্ড ২৮শে আগস্ট, ২০০৯ এ মুক্তি পায়। ম্যাক ওএস এক্স এর আগের অবমুক্তিগুলোর মতো অবয়ব এবং প্রান্তিক ব্যবহারকারীর কার্যকারিতায় বড় পরিবর্তন আনার পরিবর্তে, স্নো লেপার্ড অপারেটিং সিস্টেমের কর্মক্ষমতা, দক্ষতা এবং স্থায়িত্ব বৃদ্ধি করে "আবরণের নিচের" পরিবর্তনের উপর দৃষ্টি নিবদ্ধ করে। বেশিরভাগ ব্যবহারকারীর জন্য সবচেয়ে লক্ষণীয় পরিবর্তনগুলি হল: ম্যাক ওএস এক্স ১০.৫ লেপার্ডের তুলনায় একটি পরিষ্কার ইনস্টল করার পরে অপারেটিং সিস্টেমটি ডিস্কের স্থান খালি করে, কোকোয়া দিয়ে পুনর্লিখিত আরও প্রতিক্রিয়াশীল ফাইন্ডার, দ্রুত টাইম মেশিন ব্যাকআপ, আরও নির্ভরযোগ্য এবং ব্যবহারকারী-বান্ধব ডিস্ক ইজেক্ট, প্রিভিউ অ্যাপ্লিকেশনের আরও শক্তিশালী সংস্করণ, সেইসাথে দ্রুত সাফারি ওয়েব ব্রাউজার। স্নো লেপার্ড শুধুমাত্র ইন্টেল সিপিইউ সংবলিত যন্ত্রে সমর্থিত, যার জন্য কমপক্ষে ১ জিবি র‍্যাম প্রয়োজন হয়, এবং পাওয়ারপিসি আর্কিটেকচারের জন্য নির্মিত অ্যাপ্লিকেশনগুলির জন্য ডিফল্ট সমর্থন বাদ দেওয়া হয় (পাওয়ারপিসি-অনলি অ্যাপ্লিকেশনগুলির জন্য সমর্থন বজায় রাখার জন্য রোজেটা একটি অতিরিক্ত উপাদান হিসাবে ইনস্টল করা যেতে পারে)। [২০৫]

স্নো লেপার্ড আরও বেশি পরিমাণে র‍্যাম সমর্থন করতে সক্ষম নতুন ৬৪-বিট প্রযুক্তি, গ্র্যান্ড সেন্ট্রাল ডিসপ্যাচের মাধ্যমে মাল্টি-কোর প্রসেসরের জন্য উন্নত সমর্থন, এবং ওপেনসিএল-সমৃদ্ধ উন্নত জিপিইউ কর্মক্ষমতার বৈশিষ্ট্যসম্পন্ন। [২০৬]

১০.৬.৬ হালনাগাদটি ম্যাক অ্যাপ স্টোরের জন্য সমর্থন চালু করে, যা ম্যাকওএস অ্যাপ্লিকেশনের জন্য অ্যাপলের ডিজিটাল বিতরণ প্ল্যাটফর্ম। [২০৭]

 
ওএস এক্স লায়ন আনার ঘোষণা করা হয়েছিল ডব্লিউডব্লিউডিসি ২০১১-তে মস্কোন ওয়েস্ট- এ

ওএস এক্স ১০.৭ লায়নসম্পাদনা

ওএস এক্স ১০.৭ লায়ন ২০ জুলাই, ২০১১-এ মুক্তি পায়। এটি অ্যাপলের আইওএস-এ হওয়া উন্নয়ন ম্যাকে নিয়ে আসে, যেমন লঞ্চপ্যাড নামক ইনস্টল করা অ্যাপ্লিকেশনগুলির একটি সহজে পরিচালনসাধ্য ডিসপ্লে এবং মাল্টি-টাচ সংকেতের বৃহত্তর ব্যবহার। এটি রোজেটাকে বাদ দিয়ে দেয়, যা এটিকে পাওয়ারপিসি অ্যাপ্লিকেশনগুলির জন্য অসমর্থিত করে তোলে। [১১৩]

জিইউআই-তে করা পরিবর্তনগুলির মধ্যে স্বয়ং-লুকানো স্ক্রলবারগুলি অন্তর্ভুক্ত রয়েছে যেগুলি শুধুমাত্র তখনই প্রদর্শিত হয় যখন সেগুলি ব্যবহার করা হয়, এবং মিশন কন্ট্রোল যা এক্সপোজ, স্পেস, ড্যাশবোর্ড এবং একটি একক ইন্টারফেসের মধ্যে পূর্ণ-স্ক্রীন অ্যাপ্লিকেশনগুলিকে একীভূত করে। [২০৮] অ্যাপল অ্যাপ্লিকেশনগুলিতেও পরিবর্তন করে: সেগুলো আইওএসের মতো বন্ধ হওয়ার আগে যে অবস্থায় ছিল সেগুলি একই অবস্থায় পুনরায় চালু হয়। নথিগুলি পূর্বনির্ধারিতভাবে স্বয়ংক্রিয়ভাবে সংরক্ষণ করে। [২০৯]

ওএস এক্স ১০.৮ মাউন্টেন লায়নসম্পাদনা

ওএস এক্স ১০.৮ মাউন্টেন লায়ন ২৫ জুলাই, ২০১২ এ মুক্তি পায়। আগের বছর লায়ন প্রকাশের পর, এটি ওএস এক্স (এবং পরে ম্যাকওএস) এ দ্বি-বার্ষিক হালনাগাদের পরিবর্তে প্রথম বার্ষিক হালনাগাদ ছিল, যা বার্ষিক আইওএস অপারেটিং সিস্টেম হালনাগাদের সাথেও ঘনিষ্ঠভাবে সংযুক্ত ছিল। এটি আইওএস ৫-এ দেখা যাওয়া কিছু বৈশিষ্ট্য অন্তর্ভুক্ত করে, যার মধ্যে রয়েছে গেম সেন্টার, নতুন মেসেজেস বার্তা প্রদান অ্যাপ্লিকেশনে আইমেসেজ-এর জন্য সমর্থন এবং আইক্যাল থেকে আলাদা একটি করণীয় তালিকা হিসাবে রিমাইন্ডারস অ্যাপ (যা আইওএস অ্যাপের মতো ক্যালেন্ডার হিসাবে পুনঃনামকরণ করা হয়েছে)। এটি আইক্লাউডআইওয়ার্ক নথি সংরক্ষণের জন্য সমর্থন অন্তর্ভুক্ত করে। [২১০] মাউন্টেন লায়নে প্রথম আত্মপ্রকাশ করা নোটিফিকেশন সেন্টার, যা আইওএস ৫.০ এবং উচ্চতর সংস্করণের মতো একটি ডেস্কটপ সংস্করণ। অ্যাপ্লিকেশন পপ-আপগুলি এখন স্ক্রিনের কোণে কেন্দ্রীভূত হয় এবং কেন্দ্রটি নিজেই পর্দার ডান দিক থেকে বের হয়। মাউন্টেন লায়নে আরও চীনা বৈশিষ্ট্য অন্তর্ভুক্ত রয়েছে যার মধ্যে রয়েছে সাফারি সার্চ ইঞ্জিন-এর জন্য একটি বিকল্প হিসাবে বাইডু এর সমর্থন, মেইল, পরিচিতি ও ক্যালেন্ডারের জন্য QQ, 163.com এবং 126.com এর পরিষেবাগুলো, ইউকু, টুডউ এবং সিনা ওয়েইবো শেয়ার শীটগুলোতে একত্রিত করা হয়েছে। [১৫৩]

মাউন্টেন লায়ন দিয়ে অ্যাপলের সফটওয়্যার হালনাগাদগুলো (অপারেটিং সিস্টেম সহ) অ্যাপ স্টোরের মাধ্যমে বিতরণ করা শুরু হয়। [২১১] এই হালনাগাদ করার পদ্ধতি অ্যাপল সফটওয়্যার আপডেট ইউটিলিটি-কে প্রতিস্থাপন করেছে। [২১২]

চিত্র:Macintosh OS X Mavericks representation.png
ওএস এক্স ম্যাভেরিকস এর একটি স্ক্রিনশট

ওএস এক্স ১০.৯ ম্যাভেরিকসসম্পাদনা

ওএস এক্স ১০.৯ ম্যাভেরিকস ২২ অক্টোবর, ২০১৩-এ মুক্তি পায়। এটি একটি ৬৪-বিট ইন্টেল প্রসেসর সংবলিত স্নো লেপার্ড বা তার পরের সংস্করণ চালানো সমস্ত ব্যবহারকারীদের জন্য একটি বিনামূল্যের হালনাগাদ ছিল। [২১৩] এর পরিবর্তনগুলির মধ্যে রয়েছে পূর্বের আইওএস-অনলি মানচিত্র এবং আইবুকস অ্যাপ্লিকেশনের সংযোজন, বিজ্ঞপ্তি কেন্দ্রের উন্নয়ন, বেশ কয়েকটি অ্যাপ্লিকেশনের উন্নয়ন এবং অনেকগুলি আন্ডার-দ্য-হুড উন্নয়ন। [২১৪]

ওস এক্স ১০.১০ ইয়োসেমাইটসম্পাদনা

ওস এক্স ১০.১০ ইয়োসেমাইট ১৬ অক্টোবর, ২০১৪ এ প্রকাশিত হয়। এটি আইওএস ৭-এর মতো একটি পুনঃডিজাইন করা ইউজার ইন্টারফেস বৈশিষ্ট্যযুক্ত, যার উদ্দেশ্য আরও সূক্ষ্ম, টেক্সট-ভিত্তিক 'ফ্ল্যাট' ডিজাইন, স্বচ্ছতা প্রভাব এবং তীব্রভাবে স্যাচুরেটেড রঙের ব্যবহার সংবলিত বৈশিষ্ট্যযুক্ত করা। [২১৫] ইয়োসেমাইট-এ অ্যাপল-এর প্রদর্শনীর নতুন বৈশিষ্ট্য হল হ্যান্ডঅফ, যা আইওএস ৮.১ বা তার পরবর্তী সংস্করণে চালিত আইফোনগুলির ব্যবহারকারীদের ফোন কলের উত্তর দিতে, এসএমএস বার্তা গ্রহণ এবং পাঠাতে এবং তাদের ম্যাক-এ অসমাপ্ত আইফোন ইমেলগুলি সম্পূর্ণ করতে সক্ষম করে। ওএস এক্স ১০.১০.৩ অনুযায়ী, ফটোস আইফটো এবং অ্যাপারচারকে প্রতিস্থাপন করেছে। [২১৬]

ওএস এক্স ১০.১১ এল ক্যাপিটানসম্পাদনা

চিত্র:El capitan desktop display.png
এল ক্যাপিটানের স্ক্রিনশট

ওএস এক্স ১০.১১ এল ক্যাপিটান ৩০ সেপ্টেম্বর, ২০১৫ এ মুক্তি পায়। ম্যাক ওএস এক্স ১০.৬ স্নো লেপার্ডের মতো, অ্যাপল এই অবমুক্তিটিকে "ম্যাকের অভিজ্ঞতার পরিমার্জন" এবং "সিস্টেম কর্মক্ষমতার উন্নতি" বলে উল্লেখ করে। [২১৭] পরিমার্জনগুলির মধ্যে রয়েছে মানচিত্র অ্যাপ্লিকেশনে নির্মিত পাবলিক ট্রান্সপোর্ট, নোটস অ্যাপ্লিকেশনে জিইউআই উন্নয়ন, স্পষ্ট পাঠযোগ্যতার জন্য সিস্টেম ফন্ট হিসাবে সান ফ্রান্সিসকো ফন্টটিকে গ্রহণ করা এবং সিস্টেম অখণ্ডতা সুরক্ষার প্রবর্তন।

আইওএস ৮ -এ প্রথম প্রবর্তিত হওয়া মেটাল এপিআই, "২০১২ সাল থেকে সমস্ত ম্যাকের জন্য" এই অপারেটিং সিস্টেমে অন্তর্ভুক্ত ছিল। [২১৮] অ্যাপলের মতে, মেটাল সিস্টেম-লেভেল রেন্ডারিংকে ৫০ শতাংশ পর্যন্ত ত্বরান্বিত করে, যার ফলে দৈনন্দিন ব্যবহার্য অ্যাপের জন্য গ্রাফিক্স পারফরম্যান্স দ্রুত হয়। মেটাল গেম এবং প্রো অ্যাপে আরও সাবলীল অভিজ্ঞতার জন্য ১০ গুণ দ্রুত ড্র কল পারফরম্যান্স সরবরাহ করে। [২১৯]

ম্যাকওএস ১০.১২ সিয়েরাসম্পাদনা

ম্যাকওএস ১০.১২ সিয়েরা ২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৬-এ জনসাধারণের জন্য প্রকাশ করা হয়। নতুন বৈশিষ্ট্যগুলির মধ্যে রয়েছে সিরি, অপ্টিমাইজড স্টোরেজ এবং ফটোস, মেসেজেস এবং আইটিউনসের হালনাগাদসমূহ। [২২০][২২১]

ম্যাকওএস ১০.১৩ হাই সিয়েরাসম্পাদনা

ম্যাকওএস ১০.১৩ হাই সিয়েরা ২৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৭-এ জনসাধারণের জন্য প্রকাশ করা হয়। [২২২] ওএস এক্স এল ক্যাপিটান এবং ওএস এক্স মাউন্টেইন লায়ন- এর মতো, হাই সিয়েরা হল একটি পরিমার্জন-ভিত্তিক হালনাগাদ যাতে ব্যবহারকারীর কাছে খুব কম নতুন বৈশিষ্ট্য দৃশ্যমান, যার মধ্যে সাফারি, ফটোস, এবং মেইল-এর হালনাগাদ সহ অন্যান্য পরিবর্তন রয়েছে৷ [২২৩]

আবরণের অধীনে প্রধান পরিবর্তন হল অ্যাপল ফাইল সিস্টেমে পরিবর্তন করা, যা বেশিরভাগ নতুন ম্যাক কম্পিউটারে ব্যবহৃত সলিড-স্টেট স্টোরেজের জন্য অপ্টিমাইজ করা। [২২৪]

ম্যাকওএস ১০.১৪ মোহাভিসম্পাদনা

ম্যাকওএস ১০.১৪ মোহাভি ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ এ প্রকাশিত হয়।[২২৫] হালনাগাদটি একটি সিস্টেম-ব্যাপী ডার্ক মোড এবং আইওএস থেকে তুলে নেওয়া বেশ কয়েকটি নতুন অ্যাপ প্রবর্তন করে, যেমন অ্যাপল নিউজ । এটিই প্রথম সংস্করণ যার জন্য এমন একটি জিপিইউ প্রয়োজন যা মেটাল-কে সমর্থন করে। মোহাভি অ্যাপ স্টোর (যদিও এটি ওএস এক্স মাউন্টেন লায়ন এর পর থেকে ছিল) থেকে সিস্টেম সফটওয়্যার হালনাগাদ প্রক্রিয়াটিকে সিস্টেম পছন্দগুলির একটি নতুন প্যানেলে পরিবর্তন করে। অ্যাপের হালনাগাদগুলো অ্যাপ স্টোরে থেকে যায়।

ম্যাকওএস ১০.১৫ ক্যাটালিনাসম্পাদনা

ম্যাকওএস ১০.১৫ ক্যাটালিনা ৭ অক্টোবর, ২০১৯ এ প্রকাশিত হয়। [২২৬] হালনাগাদগুলোর মধ্যে রয়েছে উন্নত ভয়েস কন্ট্রোল, এবং মিউজিক, ভিডিও এবং পডকাস্টের জন্য গুচ্ছবদ্ধ করা অ্যাপ যা একসাথে আইটিউনসের কার্যক্রমকে প্রতিস্থাপন করে, এবং আইপ্যাডকে একটি বাহ্যিক মনিটর হিসাবে ব্যবহার করার সক্ষমতা। ক্যাটালিনা আনুষ্ঠানিকভাবে ৩২-বিট অ্যাপ্লিকেশনের জন্য সমর্থন বাদ দিয়েছে। [২২৭]

ম্যাকওএস বিগ স্যরসম্পাদনা

২২ জুন, ২০২০-এ ডব্লিউডব্লিউডিসি-এর মূল বক্তব্যের সময় ম্যাকওএস বিগ স্যর আনার ঘোষণা করা হয়,[২২৮] এবং এটি ১২ নভেম্বর, ২০২০-এ জনসাধারণের জন্য উপলব্ধ করা হয়। ২০০০ সালের ম্যাক ওএস এক্স পাব্লিক বিটা থেকে এই প্রথম অপারেটিং সিস্টেমের প্রধান সংস্করণ সংখ্যা বৃদ্ধি করা হয়। এটি সিস্টেমে এআরএম সমর্থন,[২২৯] নতুন আইকন এবং নান্দনিক ইউজার ইন্টারফেস পরিবর্তন নিয়ে আসে। [২৩০]

ম্যাকওএস ১২ মন্টেরিসম্পাদনা

৭ জুন, ২০২১-এ ডব্লিউডব্লিউডিসি-এর মূল বক্তৃতার সময় ম্যাকওএস মন্টেরির ঘোষণা করা হয় এবং ২৫ অক্টোবর, ২০২১-এ প্রকাশিত হয়। এটির নিয়ে আসা বৈশিষ্ট্যগুলোর মধ্যে রয়েছে ইউনিভার্সাল কন্ট্রোল (যা ইনপুট ডিভাইসগুলিকে একসাথে একাধিক ডিভাইসের সাথে ব্যবহার করার অনুমতি দেয়), ফোকাস (যা ব্যবহারকারী-সংজ্ঞায়িত ব্যবহারকারী/কাজের মোড নির্বাচনের উপর নির্ভর করে বিজ্ঞপ্তি এবং সতর্কতা সীমিত করার অনুমতি দেয়), শর্টকাট (একটি টাস্ক স্বয়ংক্রিয়করণ ফ্রেমওয়ার্ক যা পূর্বে শুধুমাত্র আইওএস এবং আইপ্যাডওএস- এ ছিল যা অটোমেটরকে প্রতিস্থাপনের জন্য প্রত্যাশিত ছিল), একটি পুনঃডিজাইন করা সাফারি ওয়েব ব্রাউজার, এবং ফেসটাইমে হালনাগাদ ও উন্নয়ন। [২৩১]

অভ্যর্থনাসম্পাদনা

ব্যবহারের অংশসম্পাদনা

২০১৬ সালের জুলাই পর্যন্ত, উইকিমিডিয়া ফাউন্ডেশন দ্বারা সংকলিত পরিসংখ্যান অনুসারে, ম্যাকওএস হল মাইক্রোসফট উইন্ডোজের পরে ওয়ার্ল্ড ওয়াইড ওয়েবে ব্যবহৃত দ্বিতীয়-সবচেয়ে সক্রিয় সাধারণ-উদ্দেশ্যের ডেস্কটপ ক্লায়েন্ট অপারেটিং সিস্টেম যার ব্যবহারের অংশ ৪.৯০% । এটি উইন্ডোজের পরে দ্বিতীয় সর্বাধিক ব্যবহৃত ডেস্কটপ অপারেটিং সিস্টেম (ওয়েব ব্রাউজিংয়ের জন্য), এবং এটি লিনাক্সের (যেটির অংশ ১.০১%) ব্যবহারের প্রায় পাঁচগুণ বলে অনুমান করা হয়। ব্যবহারের অংশ সাধারণত ডেস্কটপ থেকে কমে যায় এবং মোবাইল অপারেটিং সিস্টেম যেমন আইওএস এবং অ্যান্ড্রয়েড এর দিকে বেড়ে যায়। [২৩২]

ম্যালওয়্যার এবং স্পাইওয়্যারসম্পাদনা

এর আগের বছরগুলিতে, যে ম্যালওয়্যার এবং স্পাইওয়্যার মাইক্রোসফট উইন্ডোজ ব্যবহারকারীদের প্রভাবিত করেছে ম্যাক ওএস এক্স সেগুলোর প্রায় অনুপস্থিত থাকা উপভোগ করে ।[২৩৩] [২৩৪][২৩৫] উইন্ডোজের তুলনায় ম্যাকওএস-এর ব্যবহার কম। [২৩৬] ওয়ার্ম এবং সেইসাথে সম্ভাব্য দুর্বলতাগুলি ২০০৬ সালে উল্লেখ করা হয়, যা কিছু শিল্প বিশ্লেষক এবং অ্যান্টি-ভাইরাস সংস্থাগুলিকে সতর্কতা জারি করার দিকে পরিচালিত করেছিল যে অ্যাপল এর ম্যাক ওএস এক্স ম্যালওয়্যার থেকে প্রতিরোধী নয়। [২৩৭] ক্রমবর্ধমান মার্কেট শেয়ার বিভিন্ন আক্রমণের অতিরিক্ত বর্ণনার সাথে মিলে যায়। [২৩৮] ২০১১ সালের গোড়ার দিকে, ম্যাক ওএস এক্স ম্যালওয়্যার আক্রমণের একটি বড় বৃদ্ধির অভিজ্ঞতা লাভ করে,[২৩৯] এবং ম্যাক ডিফেন্ডার, ম্যাকপ্রোটেক্টর এবং ম্যাকগার্ডের মতো ম্যালওয়্যার ম্যাক ব্যবহারকারীদের জন্য একটি ক্রমবর্ধমান সমস্যা হিসাবে দেখা যায়। প্রথমে ম্যালওয়্যার ইনস্টলার এর চালু হতে ব্যবহারকারীকে প্রশাসনিক পাসওয়ার্ড লিখতে হত, কিন্তু পরবর্তী সংস্করণগুলি ব্যবহারকারীর ইনপুট ছাড়াই ইনস্টল হয়। [২৪০] প্রাথমিকভাবে, অ্যাপল সহায়তা কর্মীদের ম্যালওয়্যার অপসারণে সহায়তা না করার বা ম্যালওয়্যার সমস্যাটির অস্তিত্ব স্বীকার না করার নির্দেশ দেওয়া দিয়েছিল, কিন্তু ম্যালওয়্যার ছড়িয়ে পড়ার সাথে সাথে একটি সহায়তা নথি জারি করা হয়। সমস্যা সমাধানের জন্য অ্যাপল একটি ওএস এক্স হালনাগাদ আনার ঘোষণা দেয়। আনুমানিক ১০০,০০০ ব্যবহারকারী প্রভাবিত হয়। [২৪১][২৪২] অ্যাপল নিয়মিতভাবে ম্যাকওএস-এর জন্য নিরাপত্তা হালনাগাদ প্রকাশ করে,[২৪৩] সেইসাথে এক্সপ্রোটেক্ট-এর জন্য ম্যালওয়্যার স্বাক্ষর সংবলিত স্বাক্ষর ফাইলের হালনাগাদ প্রকাশ করে; ম্যাক ওএস এক্স স্নো লেপার্ড থেকেই এক্সপ্রোটেক্ট বর্তমান ফাইল কোয়ারেন্টাইনের একটি অ্যান্টি-ম্যালওয়্যার বৈশিষ্ট্যের অংশ। [২৪৪]

প্রচারসম্পাদনা

একটি ডিভাইস কোম্পানি হিসাবে অ্যাপল বেশিরভাগ সময়ই ম্যাক বিক্রি করার জন্য ম্যাকওএস-কে প্রচার করেছে, বিদ্যমান ব্যবহারকারীদের উপর দৃষ্টি নিবদ্ধ করে ম্যাকওএস হালনাগাদের প্রচার, অ্যাপল স্টোর এবং অন্যান্য খুচরা অংশীদারদের প্রচার, বা বিকাশকারীদের জন্য ইভেন্টের মাধ্যমে। বৃহত্তর মাপের বিজ্ঞাপন প্রচারাভিযানে অ্যাপল বিশেষভাবে মিডিয়া এবং অন্যান্য বাসাবাড়িতে ব্যবহারকারীদের জন্য অ্যাপ্লিকেশনগুলি পরিচালনার ক্ষেত্রে ম্যাকওএসকে আরও ভাল হিসাবে প্রচার করেছে এবং দীর্ঘ-প্রতীক্ষিত উইন্ডোজ ভিস্তা অপারেটিং সিস্টেমের জন্য মাইক্রোসফট যে প্রবল সমালোচনার সম্মুখীন হয়েছে তার সাথে ম্যাক ওএস এক্স (বিশেষ করে টাইগার এবং লেপার্ড সংস্করণ) এর তুলনা করেছে। [২৪৫][২৪৬]

আরো দেখুনসম্পাদনা

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "What Is the I/O Kit?"IOKit Fundamentals। ২২ জানুয়ারি ২০২১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৮ জুন ২০২০অ্যাপল অনেকগুলো প্রোগ্রামিং ভাষা নিয়ে ভালো, শেষ পর্যন্ত সি++ এর একটি সাবসেটকে বাছাই করলো। 
  2. "What's New in Swift"অ্যাপল ডেভেলপার (ভিডিও)। ১৪ জুন ২০১৬। ৪ আগস্ট ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৩ জুন ২০২০ 
  3. "Mac OS X Version 10.5 on Intel-based Macintosh computers"। The Open Group। মে ১১, ২০০৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ডিসেম্বর ৪, ২০১৪ 
  4. "Mac OS X Version 10.6 on Intel-based Macintosh computers"। The Open Group। Archived from the original on নভেম্বর ১৬, ২০১৪। সংগ্রহের তারিখ ডিসেম্বর ৪, ২০১৪ The Open Group. from the original on November 16, 2014. Retrieved December 4, 2014.
  5. "Re: was OS X version 10.7 Lion UNIX 03 certified?"www.mail-archive.com। ২০২০-০৪-২৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৭-২২ 
  6. Foresman, Chris (সেপ্টেম্বর ২০১০)। "Apple TV definitely running iOS, could be jailbreak target"Ars TechnicaCondé Nast Digital। নভেম্বর ১৭, ২০১০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ নভেম্বর ১৬, ২০১০ 
  7. Ha, Anthony (জুন ১০, ২০১৩)। "Apple Has A New, California-Based Naming Scheme For OS X, Starting With OS X Mavericks"TechCrunch। জুলাই ৯, ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ জুন ১০, ২০১৩ 
  8. "1. System Overview"NeXTstep ConceptsNeXT। ২১ নভেম্বর ২০২১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২২ 
  9. "Apple Facts"। The Apple Museum। ডিসেম্বর ২১, ২০০৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ডিসেম্বর ১৫, ২০০৮a joint venture with IBM, called Taligent, but was discontinued soon thereafter 
  10. Markoff, John (ডিসেম্বর ২৩, ১৯৯৬)। "Why Apple Sees Next as a Match Made in Heaven"The New York Times। পৃষ্ঠা D1। মে ৩১, ২০০৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  11. Fawcett, Neil (ফেব্রুয়ারি ১২, ১৯৯৮)। "Rhapsody suffers an identity crisis"Computer WeeklyReed Business Information। মে ২, ২০১৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ এপ্রিল ১৯, ২০১২ (সদস্যতা প্রয়োজনীয়)
  12. Siracusa, John (এপ্রিল ৩, ২০০৮)। "Rhapsody and Blues"Ars Technica। নভেম্বর ৪, ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩০ নভেম্বর ২০১৫ 
  13. Siracusa, John (মার্চ ২৪, ২০০৬)। "Five years of Mac OS X"Ars TechnicaCondé Nast Digital। জুন ২৫, ২০০৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ এপ্রিল ১৫, ২০০৯Even Steve Jobs still says "ecks" instead of "ten" sometimes. 
  14. Kelly, Spencer (ফেব্রুয়ারি ২৬, ২০১১)। Click – BBC TV programmeBBC। মার্চ ১৮, ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ মার্চ ২০, ২০১১Of course X ("ex") does mean 10, but anyone who used to poke around on Unix systems will know that in those days anything Unix had an X ("ex") in it, and OS Ten is written OS X ("ex") in honour of the fact that it is based on UNIX, unlike its predecessors. So, hey, you can say it any way you want; me, I'm showing my age and sticking with X (ex). 
  15. "What is an operating system (OS)?"Apple। জুলাই ১৫, ২০০৪। ফেব্রুয়ারি ২৬, ২০০৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ডিসেম্বর ২০, ২০০৬The current version of Mac OS is Mac OS X (pronounced "Mac O-S ten"). 
  16. Siracusa, John (মে ১৩, ২০১১)। "Here's to the crazy ones: a decade of Mac OS X reviews"Ars Technica। ডিসেম্বর ৮, ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ নভেম্বর ৩০, ২০১৫ 
  17. Dalrymple, Jim (মার্চ ২৩, ২০০৪)। "Adobe discontinues FrameMaker for Macintosh"Macworld। ডিসেম্বর ৮, ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩০ নভেম্বর ২০১৫ 
  18. Siracusa, John (জুলাই ২০, ২০১১)। "Lion review"Ars Technica। ডিসেম্বর ১৪, ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  19. Rubenstein, John (জুলাই ১, ২০১১)। "Jon Rubinstein sends message to HP staff; Addresses TouchPad reviews"WebOS Nation। ডিসেম্বর ৮, ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ নভেম্বর ৩০, ২০১৫ 
  20. Spolsky, Joel (জুন ১৩, ২০০৪)। "How Microsoft Lost the API War"। এপ্রিল ২৬, ২০০৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ এপ্রিল ১৫, ২০০৯The developers of the Macintosh OS at Apple have always been in this camp [i.e. not trying to be backwards compatible no matter what]. It's why so few applications from the early days of the Macintosh still work... 
  21. Siracusa, John (নভেম্বর ৯, ২০০৩)। "OS X Panther review"Ars Technica। নভেম্বর ২৬, ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩০ নভেম্বর ২০১৫ 
  22. Gregg Keizer (জানুয়ারি ২৯, ২০০৭)। "Microsoft's Vista Had Major Mac Envy, Company E-Mails Reveal"Information Week। সংগ্রহের তারিখ জুলাই ১০, ২০২১ 
  23. Orlowski, Andrew। "The Jagwyre Review"The Register। সেপ্টেম্বর ২০, ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৭Using Mac OS X is like touring a land of fabulous ancient treasures – with a tourist authority that's still busy renovating them, and that hasn't quite completed the infrastructure. The sights can be breathtaking, but the roads are potholed and incomplete, and sometimes you have to get out and push. There are a few magnificent modern additions – Rendezvous, AppleScript Studio, for example – but in places the modern Apple archaeologists seem to have forgotten their ancestors techniques, and have resorted to inferior contemporary methods such as the Windows bodge of using three letter extensions for identifying the file type. 
  24. Thompson, Ben (আগস্ট ২, ২০১৭)। "Apple and the Oak Tree"Stratechery। সেপ্টেম্বর ২০, ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৭ 
  25. Rizzo, John (নভেম্বর ১২, ২০০৩)। "Mac OS X 10.3 Panther"। ডিসেম্বর ৮, ২০০৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ এপ্রিল ১৫, ২০০৯Once you reboot, you'll notice that Apple has abandoned the light and airy Aqua interface for the darker, heavier brushed-metal look of iTunes. 
  26. W., Jeff (মে ২৭, ২০০৮)। "Mac OS X (10.5) – User Interface Changes"। University of Wisconsin। জুলাই ২০, ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ এপ্রিল ১৫, ২০০৯ 
  27. Siracusa, John (অক্টোবর ২৯, ২০০৭)। "OS X Leopard review"Ars Technica। নভেম্বর ২৫, ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩০ নভেম্বর ২০১৫ 
  28. "Mac OS X versions (builds) for computers – Apple Support"support.apple.com। মে ১৪, ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ মে ২৪, ২০১৫ 
  29. Chartier, David। "Apple announces Leopard delays due to the iPhone"Engadget। ডিসেম্বর ৮, ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩০ নভেম্বর ২০১৫ 
  30. Gruber, John। "WWDC 2009 Wrap-Up"Daring Fireball। ডিসেম্বর ৮, ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩০ নভেম্বর ২০১৫ 
  31. "Apple – Press Info – Apple to Ship Mac OS X Leopard on October 26"www.apple.com। জানুয়ারি ২৮, ২০১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ জানুয়ারি ২, ২০১৮ 
  32. "Mac OS X 10.6 Snow Leopard"Apple Store (U.S.)। মে ২৫, ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ মে ২৪, ২০১৫ 
  33. Turner, Dan। "Apple's Snow Leopard—an OS without new features"Macworld। জানুয়ারি ৯, ২০১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৮ জানুয়ারি ২০১৮ 
  34. Brand, Thomas (জুলাই ২৪, ২০১২)। "Apple's History of Skeuomorphism"Egg Freckles। আগস্ট ৩, ২০২০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ মার্চ ২১, ২০২০ 
  35. Cunningham, Andrew (জুলাই ২৯, ২০১২)। "Server, simplified: A power user's guide to OS X Server"Ars Technica। ডিসেম্বর ৮, ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২ ডিসেম্বর ২০১৫ 
  36. Charles Arthur, technology editor (২০১২-১০-৩০)। "Apple's Tim Cook shows ruthless streak in firing maps and retail executives | Technology | guardian.co.uk"Guardian। London। অক্টোবর ২৪, ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১২-১২-০৬ 
  37. Siracusa, John (অক্টোবর ২২, ২০১৩)। "OS X Mavericks review"Ars Technica। নভেম্বর ২২, ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩০ নভেম্বর ২০১৫ 
  38. Siracusa, John (অক্টোবর ১৬, ২০১৪)। "OS X Yosemite review"Ars Technica। নভেম্বর ২৪, ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩০ নভেম্বর ২০১৫ 
  39. Gruber, John। "Mountain Lion"Daring Fireball। আগস্ট ১১, ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৫ আগস্ট ২০১৫ 
  40. Arment, Marco। "Apple has lost the functional high ground"। ৩১ অক্টোবর ২০২১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৫ আগস্ট ২০১৫ 
  41. Hattersley, Lucy। "Mac OS X El Capitan review: The best (and worst) new features"Macworld UK (ইংরেজি ভাষায়)। মে ১১, ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৭-০৫-১৯ 
  42. "Apple just renamed one of its oldest and most important products"Business Insider। জুন ১৩, ২০১৬। নভেম্বর ১১, ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ নভেম্বর ১১, ২০১৬ 
  43. Introducing Apple File System। Apple। ২০১৬। আগস্ট ৪, ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  44. "macOS 10.13 High Sierra Announced, Release Date Set for Fall"OS X Daily। জুন ৫, ২০১৭। ২৭ জুন ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৬ জুন ২০১৭ 
  45. "macOS High Sierra now available as a free update"। ২৬ অক্টোবর ২০২১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২১ আগস্ট ২০১৯ 
  46. Juli Clover (সেপ্টেম্বর ২৪, ২০১৮)। "Apple Releases macOS Mojave With Dark Mode, Stacks, Dynamic Desktop and More"MacRumors। সেপ্টেম্বর ২৪, ২০১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ সেপ্টেম্বর ২৪, ২০১৮ 
  47. Cunningham, Andrew (২০১৯-১০-০৭)। "macOS 10.15 Catalina: The Ars Technica review"Ars Technica (ইংরেজি ভাষায়)। ২০২১-০৪-১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-১০-০৭ 
  48. Tung, Liam (২০২০-০৬-২৩)। "Apple Big Sur: Here's what makes new macOS 'biggest update to design in over a decade'"ZDNet (ইংরেজি ভাষায়)। ২০২১-১১-২৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৬-২৩ 
  49. Lucy (২০০৭)। "Inside the Mac OS X Kernel" (PDF)। 24th Chaos Communication Congress 24C3। আগস্ট ২৯, ২০১৭ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ জুন ১৩, ২০১২ 
  50. Grothaus, Michael (এপ্রিল ১২, ২০১১)। "Mac OS X Lion to tone down the Aqua"The Unofficial Apple WeblogAOL। আগস্ট ২৮, ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ এপ্রিল ৯, ২০১২ 
  51. "Cocoa Fundamentals Guide: A Bit of History"ADC Reference LibraryApple Developer Connection। সংগ্রহের তারিখ জানুয়ারি ১৮, ২০১৮ 
  52. Swapnil Bhartiya (জানুয়ারি ১৩, ২০১৫)। "Linus Torvalds: Apple's HFS+ is probably the worst file system ever"CIO। মে ২৫, ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  53. "CVE-2014-9390 aka "Git on case-insensitive filesystems"I did not give the…"google.com। নভেম্বর ৭, ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  54. Griffiths, Rob (ফেব্রুয়ারি ২০০৫)। "Prevent Mac Disasters"MacworldIDG। ফেব্রুয়ারি ২১, ২০০৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ফেব্রুয়ারি ৮, ২০০৯ 
  55. Frakes, Dan (আগস্ট ২০০৬)। "Repairing permissions: what you need to know"MacworldIDG। ফেব্রুয়ারি ১৯, ২০০৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ফেব্রুয়ারি ৮, ২০০৯ 
  56. Frakes, Dan (জুন ২০০৮)। "Five Mac maintenance myths"MacworldIDG। জানুয়ারি ২৩, ২০০৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ফেব্রুয়ারি ৮, ২০০৯ 
  57. "About the Technologies for Developing Mac OS X Software"Apple। জুন ২, ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ এপ্রিল ৪, ২০১২ 
  58. Zepko, Tom (নভেম্বর ৬, ২০০৩)। "Why Cocoa?"। আগস্ট ৪, ২০০৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ এপ্রিল ১৫, ২০০৯ 
  59. "Adopting Universal Binaries on Mac OS X"Apple। ফেব্রুয়ারি ২২, ২০০৭। ডিসেম্বর ২০, ২০০৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ডিসেম্বর ১৫, ২০০৮ 
  60. Productions, Nyhthawk। "AppleScript: Graphic User Interface (GUI) Scripting"www.macosxautomation.com। নভেম্বর ২১, ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৭-০১-০৩ 
  61. "AppleScript Introduction"whitefiles.org। জানুয়ারি ৩১, ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৭-০১-০৩ 
  62. "The really simple guide to Automator in OS X on the Mac | RAW Mac"www.rawinfopages.com। জানুয়ারি ৩, ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৭-০১-০৩ 
  63. "iTunes – Download iTunes Now"Apple। জুন ১, ২০১৬। সেপ্টেম্বর ৫, ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ সেপ্টেম্বর ১৬, ২০১৭ 
  64. "iTunes – Download iTunes Now"Apple। সেপ্টেম্বর ১৬, ২০১৫। সেপ্টেম্বর ১৬, ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ এপ্রিল ১৬, ২০১৭ 
  65. "Safari 5.1.10 for Snow Leopard"Apple (ইংরেজি ভাষায়)। সেপ্টেম্বর ১২, ২০১৩। ফেব্রুয়ারি ২২, ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ এপ্রিল ১৬, ২০১৭ 
  66. "Mac OS X v10.6: "You can't use this version of Mail…" alert after installing Security Update 2012-004"Apple। মার্চ ২৩, ২০১৬। এপ্রিল ১৭, ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ এপ্রিল ১৬, ২০১৭ 
  67. "iTunes 11.4 for OS X 10.6"Apple (ইংরেজি ভাষায়)। সেপ্টেম্বর ৯, ২০১৪। ফেব্রুয়ারি ১১, ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ এপ্রিল ১৬, ২০১৭ 
  68. "iTunes 10.6.3"Apple (ইংরেজি ভাষায়)। জুন ১১, ২০১২। ফেব্রুয়ারি ১৬, ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ এপ্রিল ১৬, ২০১৭ 
  69. "iTunes 9.2.1"Apple (ইংরেজি ভাষায়)। জুলাই ১৯, ২০১০। ফেব্রুয়ারি ২৬, ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ এপ্রিল ১৬, ২০১৭ 
  70. "iTunes 7.7.1 for Panther"Official Apple Support Communities। আগস্ট ২৫, ২০১২। এপ্রিল ১৭, ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ এপ্রিল ১৬, ২০১৭ 
  71. "iChat AV 2.1"Apple। মার্চ ২৩, ২০০৪। এপ্রিল ২৯, ২০০৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ মার্চ ১৬, ২০১৭ 
  72. "Cocoa Fundamentals Guide: A Bit of History"ADC Reference LibraryApple Developer Connection। মার্চ ৭, ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ জানুয়ারি ১৮, ২০১৮ 
  73. "Introduction to Cocoa-Java Integration Guide"ADC Reference LibraryApple Developer Connection। আগস্ট ৩১, ২০০৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ এপ্রিল ৮, ২০০৬ 
  74. Nack, John। "Photoshop, Lightroom, and Adobe's 64-bit roadmap"Adobe Systems। এপ্রিল ১৪, ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ মার্চ ৩০, ২০১৬ 
  75. "Looking back at OS X's origins"Macworld। জানুয়ারি ৩, ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ সেপ্টেম্বর ২৫, ২০২০ 
  76. Hall, Zac (মার্চ ৫, ২০১৫)। "Back to the Mac: Microsoft releases redesigned Office for Mac 2016 Preview w/ Retina support, collaboration, more"9to5 Mac। ডিসেম্বর ২৮, ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৭ ডিসেম্বর ২০১৭ 
  77. Steele, Billy। "NASA WISE Deputy Project Scientist Amy Mainzer"Engadget। জুন ২৫, ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। As an astrophysicist, having the Unix core underlying the OS is key, since virtually all of our software is Unix-based in some sense 
  78. "X11 for Mac OS X 1.0"Apple। অক্টোবর ২৮, ২০০৩। ডিসেম্বর ২৪, ২০০৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ডিসেম্বর ১৫, ২০০৮ 
  79. Ben Byer (অক্টোবর ২৭, ২০০৭)। "Re: X11 in Leopard: xterm on start-up"Apple's x11-users mailing list। ফেব্রুয়ারি ১০, ২০০৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ জানুয়ারি ১৮, ২০০৮ 
  80. Michael Larabel (মে ২৮, ২০১১)। "X.Org Server 1.10.2 Brings A Bunch Of Bug-Fixes"। phoronix। জুন ৩, ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ মে ২৯, ২০১১ 
  81. Slivka, Eric (ফেব্রুয়ারি ১৭, ২০১২)। "Apple Removes X11 in OS X Mountain Lion, Shifts Support to Open Source XQuartz"MacRumors। ফেব্রুয়ারি ২২, ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ফেব্রুয়ারি ২৩, ২০১২ 
  82. Counsell, Dan (নভেম্বর ১৬, ২০১৫)। "Not on the Mac App Store"। ডিসেম্বর ৮, ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  83. "Distributing Apps Outside the Mac App Store"Apple Developer। Apple। ডিসেম্বর ৮, ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১ ডিসেম্বর ২০১৫ 
  84. Kazmucha, Allyson (অক্টোবর ৪, ২০১৯)। "How to open apps from an unidentified developer in OS X Mountain Lion"IMore। ডিসেম্বর ৩১, ২০২১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ সেপ্টেম্বর ২৫, ২০২০ 
  85. "About Gatekeeper"। Apple। ডিসেম্বর ৪, ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১ ডিসেম্বর ২০১৫ 
  86. Gurman, Masrk (ডিসেম্বর ২০, ২০১৭)। "Apple Plans Combined iPhone, iPad & Mac Apps to Create One User Experience"Bloomberg.com। ২৩ নভেম্বর ২০২১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ 
  87. Steinberger, Peter। "Marzipan: Porting iOS Apps to the Mac"। PSPDFKit। ১৭ আগস্ট ২০২১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ 
  88. Gartenberg, Chaim; Bohn, Dieter (জুন ৭, ২০১৮)। "The future of the Mac comes from iOS apps"The Verge। ১১ নভেম্বর ২০২১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৯ জানুয়ারি ২০১৯ 
  89. Ritchie, Rene (জুন ৪, ২০১৮)। "Marzipan: What you need to know about iOS apps on the Mac"iMore। ১৮ আগস্ট ২০২১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৯ জানুয়ারি ২০১৯ 
  90. Mayo, Benjamin। "Marzipan"benjaminmayo.co.uk। সংগ্রহের তারিখ ২৯ জানুয়ারি ২০১৯ 
  91. ওয়েব্যাক মেশিনে macOS – Mac Hardware Requirements (index তারিখে আর্কাইভ)
  92. "Install macOS 10.14 Mojave on Mac Pro (Mid 2010) and Mac Pro (Mid 2012)"Apple Support। নভেম্বর ১২, ২০২০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ মার্চ ৩, ২০২১ 
  93. "System requirements for OS X Lion and Mac OS X v10.6" (ইংরেজি ভাষায়)। সেপ্টেম্বর ২৩, ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৬-০৯-২২ 
  94. "Mac OS X: System Requirements"Apple। এপ্রিল ২৮, ২০০৫। আগস্ট ৯, ২০০৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ডিসেম্বর ২০, ২০০৬ 
  95. "iMac – Tech Specs – Apple"। Apple Inc.। জুলাই ২৮, ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ জুলাই ২৮, ২০১৫ 
  96. "Home page – footer"tonymacx86.com। জুলাই ২৮, ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ জুলাই ২৮, ২০১৫ 
  97. K, M। "Is installing Mavericks on Hackintosh legal?"apple.stackexchange.com। আগস্ট ২৩, ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ জুলাই ২৮, ২০১৫ 
  98. "Choosing the right CPU for your hackintosh"www.macbreaker.com। জুলাই ১১, ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ জুলাই ২৮, ২০১৫ 
  99. Arment, Marco। "Far Too Much Analysis Of The Alleged New Mac Pro Geekbench Score"Marco.org। এপ্রিল ৫, ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৪ আগস্ট ২০১৫ 
  100. Taub, Eric (জুলাই ১৬, ২০০৮)। "Apple sues Psystar to block Macintosh clones"The New York Times। ২০ অক্টোবর ২০২১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১ আগস্ট ২০১৫ 
  101. Rothenbourg, Matthew; dePlume, Nick (আগস্ট ৩০, ২০০২)। "Apple Keeps x86 Torch Lit with 'Marklar'"। eWeek.com। জানুয়ারি ২১, ২০২২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ জুন ৮, ২০১৩ 
  102. Clark, Don; Wingfield, Nick (মে ২৩, ২০০৫)। "Apple Explores Use Of Chips From Intel For Macintosh Line"The Wall Street JournalDow Jones & Company। জানুয়ারি ১৫, ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ফেব্রুয়ারি ৮, ২০০৯ 
  103. Kanellos, Michael (মে ২৪, ২০০৫)। "Apple to Intel: Some advantage, lots of risk"CNETCBS Interactive। জানুয়ারি ২২, ২০২২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ জানুয়ারি ২২, ২০২২ 
  104. Gruber, John। "I'll See You Intel"Daring Fireball। মার্চ ১৩, ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩১ মার্চ ২০১৬ 
  105. Gruber, John। "Intel-Apple Odds and Ends"Daring Fireball। জুন ৮, ২০০৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩১ মার্চ ২০১৬ 
  106. Gruber, John। "Bombs Away"Daring Fireball। এপ্রিল ১১, ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩১ মার্চ ২০১৬ 
  107. Siracusa, John (জুন ৭, ২০০৫)। "Picking up the pieces: John Siracusa mourns the Power PC"Ars Technica। মার্চ ২৯, ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩১ মার্চ ২০১৬ 
  108. AppleInsider Staff (ফেব্রুয়ারি ২৬, ২০১১)। "Mac OS X Lion drops Front Row, Java runtime, Rosetta"AppleInsider। AppleInsider, Inc। মার্চ ১, ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ফেব্রুয়ারি ২৭, ২০১১ 
  109. "Apple to Use Intel Microprocessors Beginning in 2006" (সংবাদ বিজ্ঞপ্তি)। Apple। জুন ৬, ২০০৫। জানুয়ারি ৩০, ২০১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ জানুয়ারি ২, ২০১৮ 
  110. "Adopting Universal Binaries"Apple। জানুয়ারি ২০০৬। অক্টোবর ১৭, ২০০৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ডিসেম্বর ২০, ২০০৬ 
  111. Landau, Ted (মে ২০০৬)। "OS X First Aid"MacworldIDG। জানুয়ারি ৯, ২০০৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ফেব্রুয়ারি ৮, ২০০৯ 
  112. Stevens, Tim (জুন ১০, ২০০৯)। "Snow Leopard officially puts PowerPC Macs on endangered species list"EngadgetAOL। মার্চ ২৩, ২০১০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ জুন ১৫, ২০০৯ 
  113. Arnold Kim (ফেব্রুয়ারি ২৭, ২০১১)। "Mac OS X Lion: Drops PowerPC Emulation, Adds QuickTime Pro Features, Much More"MacRumors। ফেব্রুয়ারি ২৭, ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ফেব্রুয়ারি ২৭, ২০১১ 
  114. Demerjian, Charlie (মে ৫, ২০১১)। "Apple dumps Intel from laptop lines"SemiAccurate। Stone Arch Networking Services, Inc.। জানুয়ারি ২৮, ২০২১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ জুন ২৫, ২০২০ 
  115. "Apple Testing ARM Based Mac Prototypes with Large Magic Trackpad?"MacRumors (ইংরেজি ভাষায়)। ২০২১-০২-০৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৬-২২ 
  116. "ARM Macs: Expected at WWDC 2020, What We Know"MacRumors (ইংরেজি ভাষায়)। ২০২০-০৬-২৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৬-২২ 
  117. "Apple announces Mac transition to Apple silicon" (সংবাদ বিজ্ঞপ্তি)। Apple Inc.। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৬-২২ 
  118. Lee, Nicole (জুন ২২, ২০২০)। "iOS apps will run natively on ARM-powered Macs"Engadget। ডিসেম্বর ৮, ২০২০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ জুন ২৩, ২০২০ 
  119. "The Aqua Interface"Apple Human Interface GuidelinesApple। জুন ৯, ২০০৮। ডিসেম্বর ৯, ২০০৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ডিসেম্বর ১৬, ২০০৮ 
  120. Davidson, James Duncan (২০০২)। Learning Cocoa With Objective-C। O'Reilly। পৃষ্ঠা 6আইএসবিএন 0-596-00301-3 
  121. Siracusa, John (অক্টোবর ২৮, ২০০৭)। "Mac OS X 10.5 Leopard: the Ars Technica review"Ars TechnicaCondé Nast Digital। ডিসেম্বর ১৬, ২০০৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ডিসেম্বর ১৬, ২০০৮ 
  122. Tognazzini, Bruce (ফেব্রুয়ারি ২০০০)। "OS X: A First Look"। সেপ্টেম্বর ২৭, ২০০৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ নভেম্বর ৫, ২০০৮ 
  123. Thomas, Matthew Paul (ফেব্রুয়ারি ১৬, ২০০৪)। "My first 48 hours enduring Mac OS X"। অক্টোবর ১৪, ২০০৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ নভেম্বর ৫, ২০০৮ 
  124. "Apple lowers boom on Aqua 'skins'"ZDNetCBS Interactive। ফেব্রুয়ারি ২, ২০০১। অক্টোবর ৩১, ২০০১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ মে ২২, ২০০৬ 
  125. Castle, Alex (ফেব্রুয়ারি ১৯, ২০১৪)। "How to make the Windows desktop look good on high-DPI displays"PC World। আগস্ট ১৪, ২০২১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ সেপ্টেম্বর ২৫, ২০২০ 
  126. Cunningham, Andrew (এপ্রিল ১৩, ২০১৫)। "Using the Retina MacBook as a Windows PC"Ars Technica। জুলাই ৯, ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৯ জুলাই ২০১৫ 
  127. Hutchinson, Lee (অক্টোবর ২৮, ২০১৪)। "The Retina iMac and its 5K display… as a gaming machine? [Updated]"Ars Technica। জুলাই ১০, ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৯ জুলাই ২০১৫ 
  128. O'Malley, Kevin (২০০৩)। Programming Mac OS X: A Guide for Unix Developers। Manning। পৃষ্ঠা 7আইএসবিএন 1-930110-85-5 
  129. "Mac OS X. It's what makes a Mac a Mac."Apple। ফেব্রুয়ারি ২২, ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ মার্চ ২, ২০১১ 
  130. Girard, Dave (সেপ্টেম্বর ৯, ২০১৩)। "Making the ultimate creative content OS from bits of Windows, Mac, and Linux"Ars Technica। আগস্ট ১৯, ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৪ আগস্ট ২০১৫ 
  131. Holwerda, Thom (ডিসেম্বর ৬, ২০০৭)। "Review: Mac OS X 10.5 Leopard"। OS News। মে ১৫, ২০০৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ এপ্রিল ১৫, ২০০৯The next area where Apple claims to have made major improvements is the Finder. 
  132. Siracusa, John (জানুয়ারি ২৬, ২০০৬)। "Finding Leopard"Ars TechnicaCondé Nast Digital। ফেব্রুয়ারি ৪, ২০০৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ এপ্রিল ১৫, ২০০৯Unsurprisingly, each new Mac OS X release has been the vehicle for a parade of Finder fantasies. 
  133. Siracusa, John (এপ্রিল ২৮, ২০০৫)। "Mac OS X 10.4 Tiger"Ars TechnicaCondé Nast Digital। এপ্রিল ২, ২০০৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ এপ্রিল ১৫, ২০০৯ 
  134. "Mac 101: Spotlight"Apple। নভেম্বর ৬, ২০০৮। জানুয়ারি ১৯, ২০০৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ এপ্রিল ১৫, ২০০৯ 
  135. "Mac 101: Exposé"Apple। অক্টোবর ৩১, ২০০৮। ডিসেম্বর ১৬, ২০০৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ডিসেম্বর ১৬, ২০০৮ 
  136. "About FileVault"Mac OS X 10.5 HelpApple। জানুয়ারি ১৩, ২০০৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ডিসেম্বর ১৬, ২০০৮ 
  137. "Mac 101: Automator"Apple। নভেম্বর ৬, ২০০৮। ডিসেম্বর ২১, ২০০৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ডিসেম্বর ১৬, ২০০৮ 
  138. "Mac 101: Dashboard"Apple। নভেম্বর ১১, ২০০৮। ডিসেম্বর ১০, ২০০৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ডিসেম্বর ১৬, ২০০৮ 
  139. "Front Row"Apple। ডিসেম্বর ১৫, ২০০৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ডিসেম্বর ১৬, ২০০৮ 
  140. "Why Use Sync Services?"Apple। অক্টোবর ৩১, ২০০৭। অক্টোবর ১২, ২০০৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ডিসেম্বর ১৬, ২০০৮ 
  141. "Spaces. Room for everything."Apple। ডিসেম্বর ১৫, ২০০৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ডিসেম্বর ১৬, ২০০৮ 
  142. "Time Machine. A giant leap backward."Apple। ডিসেম্বর ১৫, ২০০৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ডিসেম্বর ১৬, ২০০৮ 
  143. "Finder"Apple। ডিসেম্বর ১৫, ২০০৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ডিসেম্বর ১৬, ২০০৮ 
  144. Jeff Blagdon (২০১৩-০৩-০৪)। "How emoji conquered the world"The Verge। মার্চ ৬, ২০১৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৪-০৭-২৮ 
  145. Sternbergh, Adam (নভেম্বর ১৭, ২০১৪)। "Smile, You're Speaking EMOJI: the rapid evolution of a wordless tongue"New York magazine। মার্চ ২৬, ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৫ আগস্ট ২০১৫ 
  146. "OS X Mountain Lion: Share with iCloud, Facebook, Twitter, and other services"। Apple। এপ্রিল ১৯, ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৪ আগস্ট ২০১৫ 
  147. "13 Things You Can Do with macOS Sierra You Couldn't Before"Gizmodo। সেপ্টেম্বর ২৭, ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ সেপ্টেম্বর ২৮, ২০১৬ 
  148. "How to use Siri in macOS Sierra: A look at using the Apple's virtual assistant on the Mac"Macworld। ফেব্রুয়ারি ৪, ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ সেপ্টেম্বর ২৮, ২০১৬ 
  149. "System – New system languages."Apple। জুন ২৩, ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ জুন ৬, ২০১১ 
  150. Cheng, Jacqui (জানুয়ারি ১০, ২০১৩)। "Apple's Tim Cook visits China to talk expansion, expansion, expansion"Ars Technica। সেপ্টেম্বর ১৮, ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৪ আগস্ট ২০১৫ 
  151. Foresman, Chris (ফেব্রুয়ারি ১৬, ২০১২)। "Next version of OS X to be more iOS-like than ever with Mountain Lion"Ars Technica। Conde Nast। আগস্ট ২০, ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৪ আগস্ট ২০১৫ 
  152. Campbell, Mikey। "Apple targets China, Japan with new OS X El Capitan system fonts and input"Apple Insider। সেপ্টেম্বর ৬, ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৪ আগস্ট ২০১৫ 
  153. Panzarino, Matthew (ফেব্রুয়ারি ১৬, ২০১২)। "Apple courts China with Sina Weibo, Baidu, Youku and more integrated in Mountain Lion"। The Next Web। মার্চ ২১, ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ মার্চ ১৫, ২০১২ 
  154. "Apple Announces Future Macintosh Operating System (OS) Strategy and Road Map"Apple.com। Apple Computer, Inc.। ৭ জানুয়ারি ১৯৯৭। ১৬ জানুয়ারি ১৯৯৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৮ 
  155. Davis, Jim (মে ১১, ১৯৯৮)। "OS X is the future for Apple"CNET। সেপ্টেম্বর ১৩, ২০১৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ জুলাই ১৭, ২০১৩ 
  156. Steven Borden-Weill (এপ্রিল ১৫, ২০১১)। "Kodiak to Lion: 10 years of Mac OS X"Network World। জুন ১৭, ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  157. "Apple Releases Mac OS X Developer Preview 4 with Final API Specs"Apple Newsroom (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০৯-১৮ 
  158. "Apple's Mac OS X to Ship on March 24"Apple Newsroom (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০৯-১৭ 
  159. "Apple Previews Next Version of Mac OS X" (সংবাদ বিজ্ঞপ্তি)। Apple। জুলাই ১৮, ২০০১। জানুয়ারি ৩, ২০১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ জানুয়ারি ২, ২০১৮ 
  160. "Apple Previews "Jaguar", the Next Major Release of Mac OS X" (সংবাদ বিজ্ঞপ্তি)। Apple। মে ৬, ২০০২। জানুয়ারি ৩, ২০১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ জানুয়ারি ২, ২০১৮ 
  161. "Apple Previews Mac OS X "Panther"" (সংবাদ বিজ্ঞপ্তি)। Apple। জুন ২৩, ২০০৩। জানুয়ারি ৩, ২০১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ জানুয়ারি ২, ২০১৮ 
  162. "Steve Jobs to Kick Off Apple's Worldwide Developers Conference 2004 with Preview of Mac OS X "Tiger"" (সংবাদ বিজ্ঞপ্তি)। Apple। জানুয়ারি ৩, ২০১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ জানুয়ারি ২, ২০১৮ 
  163. "Apple Executives to Preview Mac OS X "Leopard" at WWDC 2006 Keynote" (সংবাদ বিজ্ঞপ্তি)। Apple। জানুয়ারি ৩, ২০১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ জানুয়ারি ২, ২০১৮ 
  164. "Road to Mac OS X Snow Leopard: 64-bit to the Kernel"। AppleInsider। অক্টোবর ২৮, ২০০৮। সেপ্টেম্বর ২৮, ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ সেপ্টেম্বর ২৮, ২০১৫ 
  165. "Apple Previews Mac OS X Snow Leopard to Developers" (সংবাদ বিজ্ঞপ্তি)। Apple। জুন ৯, ২০০৮। নভেম্বর ১, ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ জানুয়ারি ২, ২০১৮ 
  166. "Apple Gives Sneak Peek of Mac OS X Lion" (সংবাদ বিজ্ঞপ্তি)। Apple। অক্টোবর ২০, ২০১০। জানুয়ারি ৩, ২০১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ জানুয়ারি ২, ২০১৮ 
  167. "Older 64-bit Macs out of the picture for Mountain Lion"CNET। জুলাই ১১, ২০১২। অক্টোবর ১, ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ সেপ্টেম্বর ২৮, ২০১৫ 
  168. "Apple Releases OS X Mountain Lion Developer Preview with Over 100 New Features" (সংবাদ বিজ্ঞপ্তি)। Apple। ফেব্রুয়ারি ১৬, ২০১২। নভেম্বর ২৩, ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ জানুয়ারি ২, ২০১৮ 
  169. "Mountain Lion Available Today From the Mac App Store" (সংবাদ বিজ্ঞপ্তি)। Apple। জুলাই ২৫, ২০১২। অক্টোবর ১০, ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ জানুয়ারি ২, ২০১৮ 
  170. "Apple Releases Developer Preview of OS X Mavericks With More Than 200 New Features" (সংবাদ বিজ্ঞপ্তি)। Apple। জুন ১০, ২০১৩। ফেব্রুয়ারি ১৩, ২০১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ জানুয়ারি ২, ২০১৮ 
  171. "Apple Announces OS X Yosemite" (সংবাদ বিজ্ঞপ্তি)। Apple। জুন ২, ২০১৪। অক্টোবর ৯, ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ জানুয়ারি ২, ২০১৮ 
  172. "Apple Announces OS X El Capitan with Refined Experience & Improved Performance" (সংবাদ বিজ্ঞপ্তি)। Apple। জুন ৮, ২০১৫। অক্টোবর ৮, ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ জানুয়ারি ২, ২০১৮ 
  173. "Apple previews major update with macOS Sierra" (সংবাদ বিজ্ঞপ্তি)। Apple। জুন ১৩, ২০১৬। জানুয়ারি ৩, ২০১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ জানুয়ারি ২, ২০১৮ 
  174. John Siracusa (এপ্রিল ২৮, ২০০৫)। "Mac OS X 10.4 Tiger"ArsTechnica.com। পৃষ্ঠা 4। সংগ্রহের তারিখ ফেব্রুয়ারি ২৫, ২০০৭ 
  175. Apple (মার্চ ৬, ২০০৬)। "Developing 64-bit applications"Apple Developer Connection। সেপ্টেম্বর ২৫, ২০০৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ মার্চ ৫, ২০০৭ 
  176. টেমপ্লেট:US trademark
  177. টেমপ্লেট:US trademark
  178. টেমপ্লেট:US trademark
  179. টেমপ্লেট:US trademark
  180. টেমপ্লেট:US trademark
  181. Kasper, Jade। "Court sides with Apple over "Tiger" trademark dispute"AppleInsider। সেপ্টেম্বর ২৭, ২০০৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ এপ্রিল ২৫, ২০০৬ 
  182. John Siracusa। "Mac OS X Beta – Page 1 – (10/2000)"Ars TechnicaCondé Nast Digital। অক্টোবর ৩০, ২০০৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ মার্চ ১১, ২০১০ 
  183. "Mac OS X Public Beta Expires Today | News"। The Mac Observer। জুন ৮, ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ মার্চ ১১, ২০১০ 
  184. Although the version is now called Cheetah by users, rare evidences can be found to prove that it was called so internally.
  185. "Mac OS X 10.0"Ars Technica (ইংরেজি ভাষায়)। এপ্রিল ১৭, ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৭-০৪-১৭ 
  186. "Mac OS X 10.0 – Page 17 – (03/2001)"archive.arstechnica.com। আগস্ট ১৭, ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৭-০৪-২৯ 
  187. Williams, Justin (২০০৮-০৩-১১)। Getting StartED with Mac OS X Leopard (ইংরেজি ভাষায়)। Apress। আইএসবিএন 9781430205197। ২০২১-০৮-১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২২-০২-২৫ 
  188. "Apple Cease-And-Desists Stupidity Leak"। Slashdot। ২০০১। মার্চ ২৫, ২০২১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ জুলাই ১০, ২০২১ 
  189. "Apple Makes Mac OS X the Default Operating System on All Macs" (সংবাদ বিজ্ঞপ্তি)। Apple। জানুয়ারি ৭, ২০০২। অক্টোবর ১০, ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ জানুয়ারি ২, ২০১৮ 
  190. "Jaguar "Unleashed" at 10:20 pm Tonight" (সংবাদ বিজ্ঞপ্তি)। Apple। আগস্ট ২৩, ২০০২। জানুয়ারি ৩, ২০১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ জানুয়ারি ২, ২০১৮ 
  191. The headline of the press release mention "Jaguar", while the codename was not mentioned for earlier versions.
  192. "Mac OS X 10.2 Product Information Page"Apple। আগস্ট ২৯, ২০০২। আগস্ট ২৯, ২০০২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ জুন ১২, ২০০৮ 
  193. "Apple Previews "Jaguar," the Next Major Release of Mac OS X" (সংবাদ বিজ্ঞপ্তি)। Apple। মে ৬, ২০০২। জানুয়ারি ৩, ২০১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ জানুয়ারি ২, ২০১৮ 
  194. Thomas, Tommy। "Murder on Macintosh Row: Happy Mac, 1984–2002"lowendmac.com (ইংরেজি ভাষায়)। জানুয়ারি ৩, ২০১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৭-০৪-২৯ 
  195. "Apple Announces Mac OS X "Panther"" (সংবাদ বিজ্ঞপ্তি)। Apple। অক্টোবর ৮, ২০০৩। জানুয়ারি ৩, ২০১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ জানুয়ারি ২, ২০১৮ 
  196. "Mac OS X 10.3 Panther"Low End Mac (ইংরেজি ভাষায়)। ২০০৩-১০-২৪। ডিসেম্বর ৩০, ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৬-১২-৩১ 
  197. "Apple Unleashes "Tiger" Friday at 6:00 p.m." (সংবাদ বিজ্ঞপ্তি)। Apple। এপ্রিল ২৮, ২০০৫। মার্চ ২২, ২০১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ জানুয়ারি ২, ২০১৮ 
  198. Mossberg, Walter S. (মার্চ ২১, ২০০৭)। "From PC to TV – via Apple"All Things DigitalDow Jones & Company। মে ২০, ২০০৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ মে ১৮, ২০০৮ 
  199. "Apple unveils Intel iMacs"। AppleInsider। জানুয়ারি ২০০৬। জানুয়ারি ১৩, ২০০৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ডিসেম্বর ১৫, ২০০৮ 
  200. "Apple – Mac OS X Leopard – Features – 300+ New Features"Apple। ২০০৮। মে ১, ২০০৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ জুন ১৩, ২০০৮ 
  201. "Apple – BootCamp"Apple। ২০০৬। জুন ২, ২০০৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ জুন ৫, ২০০৬ 
  202. "Mac OS X Leopard – Technology – UNIX"Leopard Technology OverviewApple। জুন ৯, ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ অক্টোবর ২৬, ২০০৭Leopard is now an Open Brand UNIX 03 Registered Product, conforming to the SUSv3 and POSIX 1003.1 specifications for the C API, Shell Utilities, and Threads. 
  203. "Do Classic applications work with Mac OS X 10.5 or Intel-based Macs?"Knowledge BaseApple। জানুয়ারি ১৩, ২০০৬। অক্টোবর ২৫, ২০০৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ অক্টোবর ২৫, ২০০৭ 
  204. Cheeseman, Bill (২০১০-০৪-২৬)। Cocoa Recipes for Mac OS X (ইংরেজি ভাষায়)। Pearson Education। আইএসবিএন 9780321702883। ২০২১-০৮-১৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২২-০২-২৫ 
  205. Lynch, Steven (জুন ১২, ২০০৮)। "Mac OS X Snow Leopard Drops PowerPC Support"। HardOCP। সেপ্টেম্বর ২৭, ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ অক্টোবর ২০, ২০১০ 
  206. "The 64-Bitness of Mac OS X 10.6 Snow Leopard"Low End Mac (ইংরেজি ভাষায়)। ২০০৯-০৮-১৯। ডিসেম্বর ২৭, ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৬-১২-৩১ 
  207. Reisinger, Don (জানুয়ারি ৬, ২০১১)। "Mac App Store launches on Snow Leopard"CNETCBS Interactive। আগস্ট ১০, ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  208. "Apple – OS X Lion – The world's most advanced desktop operating system."Apple। অক্টোবর ২০, ২০১০। মে ২৩, ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ অক্টোবর ২০, ২০১০ 
  209. "Mac OS X 10.7 Lion Review – Document Model"Ars Technica। জুলাই ২০, ২০১১। ডিসেম্বর ২০, ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ডিসেম্বর ১১, ২০১৬ 
  210. "Apple – OS X Mountain Lion – The world's most advanced desktop operating system."Apple। ফেব্রুয়ারি ১৬, ২০১২। ফেব্রুয়ারি ১৬, ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ফেব্রুয়ারি ১৬, ২০১২ 
  211. "Inside OS X 10.8 Mountain Lion: Apple overhauls software updates, App Store"AppleInsider (ইংরেজি ভাষায়)। জুলাই ৬, ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৭-০৪-২৯ 
  212. Slivka, Eric। "Software Update to Move Inside Mac App Store in OS X Mountain Lion"। জুলাই ১, ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৭-০৪-২৯ 
  213. Gupta, Poornima; Chan, Edwin (অক্টো ২২, ২০১৩)। "Apple gives away Mac software, unveils iPad Air"Reuters। ফেব্রুয়ারি ৪, ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  214. "OS X Mavericks Available Today Free from the Mac App Store" (সংবাদ বিজ্ঞপ্তি)। Apple Inc.। অক্টোবর ২২, ২০১৩। অক্টোবর ১০, ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  215. Siracusa, John (অক্টোবর ১৬, ২০১৪)। "Yosemite review"Ars Technica। জুলাই ২০, ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  216. Gibbs, Samuel (১৬ এপ্রিল ২০১৫)। "Upgrading from iPhoto or Aperture to Apple's Photos? Read this"The Guardian। London। মে ২৭, ২০১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৭ জুলাই ২০১৭ 
  217. "Apple Announces OS X El Capitan with Refined Experience & Improved Performance"Apple Inc.। জুন ৮, ২০১৫। আগস্ট ১৮, ২০২১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ আগস্ট ৬, ২০২০ 
  218. Dhiraj, Rav (জুন ২০১৫)। "What's New in Metal, Part 1" (PDF)Apple Developer। Apple। পৃষ্ঠা 84। জুন ১৭, ২০১৫ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ জুন ১৭, ২০১৫ 
  219. "Apple – Press Info – Apple Announces OS X El Capitan with Refined Experience & Improved Performance" (সংবাদ বিজ্ঞপ্তি)। Apple Inc.। জুন ৮, ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  220. "macOS"। সেপ্টেম্বর ২৬, ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ সেপ্টেম্বর ২৬, ২০১৬ 
  221. "Siri for Mac: How it works in Apple's macOS Sierra and what it's capable of"AppleInsider। অক্টোবর ১, ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ সেপ্টেম্বর ২৮, ২০১৬ 
  222. Dillet, Romain। "Apple is releasing macOS High Sierra on September 25"TechCrunch (ইংরেজি ভাষায়)। অক্টোবর ১৩, ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৭-১০-১২ 
  223. "macOS 10.13 High Sierra Release Date Set for Fall"OS X Daily (ইংরেজি ভাষায়)। ২০১৭-০৬-০৫। জুন ২৭, ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৭-১০-১২ 
  224. "Apple macOS High Sierra preview: the biggest Mac update you'll never see"The Verge। অক্টোবর ১৩, ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৭-১০-১৩ 
  225. "Apple Releases macOS Mojave With Dark Mode, Stacks, Dynamic Desktop and More"MacRumors (ইংরেজি ভাষায়)। ২০১৮-০৯-২৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২২-০৪-০২ 
  226. "macOS Catalina"। Apple Inc.। ১০ জুলাই ২০০৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৭ অক্টোবর ২০১৯ 
  227. Nield, David। "12 Things You Can Do in macOS Catalina That You Couldn't Before"Gizmodo। G/O Media Group। ১৫ আগস্ট ২০২১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৭ অক্টোবর ২০১৯ 
  228. "Apple introduces macOS Big Sur with a beautiful new design" (সংবাদ বিজ্ঞপ্তি)। Apple Inc.। জুন ২২, ২০২০। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৬-২২ 
  229. "Apple debuts macOS Big Sur with all-new design, ARM support"VentureBeat। জুন ২২, ২০২০। অক্টোবর ২৭, ২০২১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৬-২২ 
  230. "Apple unveils macOS 11.0 Big Sur, featuring a new aesthetic and redesigned apps"TechCrunch (ইংরেজি ভাষায়)। ২০২২-০১-২১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৬-২২ 
  231. Apple Inc. (২০২১-০৬-০৭)। "Apple WWDC 2021 Keynote"apple.comApple Inc.। ২০২১-০৬-১০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৬-০৭ 
  232. "Wikimedia Traffic Analysis Report – Operating Systems, Jun27-Jul31, 2016"। মে ৩, ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  233. Welch, John (জানুয়ারি ৬, ২০০৭)। "Review: Mac OS X Shines In Comparison With Windows Vista"Information Week। ফেব্রুয়ারি ৯, ২০০৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ফেব্রুয়ারি ৫, ২০০৭ 
  234. Granneman, Scott (অক্টোবর ৬, ২০০৩)। "Linux vs. Windows Viruses"The Register। সেপ্টেম্বর ৭, ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ফেব্রুয়ারি ৫, ২০০৭ 
  235. Gruber, John (জুন ৪, ২০০৪)। "Broken Windows"Daring Fireball। সেপ্টেম্বর ৪, ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ এপ্রিল ২৪, ২০০৬ 
  236. "Operating System Market Share"। সেপ্টেম্বর ২০০৯। জানুয়ারি ২৫, ২০১০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ এপ্রিল ১০, ২০০৯ 
  237. Roberts, Paul (ফেব্রুয়ারি ২১, ২০০৬)। "New Safari Flaw, Worms Turn Spotlight on Apple Security"eWeek। সংগ্রহের তারিখ জানুয়ারি ২২, ২০২২ 
  238. Conneally, Tim (আগস্ট ২৮, ২০০৯)। "'Macs don't get viruses' myth dissolves before public's eyes"। BetaNews.com। আগস্ট ৩০, ২০০৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  239. Conneally, Tim (আগস্ট ২৮, ২০০৯)। "'Macs don't get viruses' myth dissolves before public's eyes"। BetaNews.com। আগস্ট ৩০, ২০০৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  240. "Mac Security Boasts Threatened by Malware Surge – International Business Times"। Ibtimes.com। মে ২৬, ২০১১। আগস্ট ৮, ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ জুলাই ৫, ২০১১ 
  241. Trenholm, Rich (মে ২০, ২০১১)। "Apple tells support staff not to confirm Mac Defender infections"। CNET। ডিসেম্বর ১৪, ২০২০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ মার্চ ২১, ২০২০ 
  242. Seltzer, Larry (মে ২৫, ২০১১)। "Mac Defender 2.0 Released – Security Watch"PC Mag। জুলাই ১৭, ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ জুলাই ৫, ২০১১ 
  243. "Apple security updates"। Apple। জানুয়ারি ২১, ২০০৯। ফেব্রুয়ারি ৫, ২০০৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ জানুয়ারি ২৯, ২০০৯ 
  244. "XProtect Explained: How Your Mac's Built-in Anti-malware Software Works"। How-To Geek। মে ১৮, ২০১৫। মার্চ ২৩, ২০১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  245. Nudd, Tim। "Apple's Get a Mac campaign"AdWeek। অক্টোবর ৫, ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২ ডিসেম্বর ২০১৫ 
  246. Arthur, Charles (অক্টোবর ২৩, ২০০৮)। "Apple tweaks Microsoft over Vista ad spending"The Guardian। ডিসেম্বর ৮, ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২ ডিসেম্বর ২০১৫ 

বহিঃসংযোগসম্পাদনা

টেমপ্লেট:MacOS