মিখাইল মিয়াসনিকোভিচ

মিখাইল মিয়াসনিকোভিচ (বেলারুশীয়: Міхаіл Уладзіміравіч Мясніковіч, বেলারুশীয় উচ্চারণ: [mʲixail ulad͡zʲimʲiravʲit͡ʃ mʲasnʲikovʲit͡ʃ]; রুশ: Михаил Владимирович Мясникович; জন্ম: ৬ মে, ১৯৫০)[১] বেলারুশের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। ২০১০ সালের রাষ্ট্রপতি নির্বাচনের পর তিনি ঐ দেশের প্রেসিডেন্ট আলেকজান্ডার লুকাশেঙ্কো কর্তৃক মনোনীত হন।[২]

মিখাইল মিয়াসনিকোভিচ
Mikhail Myasnikovich, March 2011.jpeg
বেলারুশের প্রধানমন্ত্রী
দায়িত্বাধীন
অধিকৃত কার্যালয়
২৮ ডিসেম্বর, ২০১০
রাষ্ট্রপতিআলেকজান্ডার লুকাশেঙ্কো
ডেপুটিভ্লাদিমির সেমাশকো
পূর্বসূরীসার্গেই সিদোরস্কি
ব্যক্তিগত বিবরণ
জন্ম (1950-05-06) ৬ মে ১৯৫০ (বয়স ৭০)
নোভি স্নোভ, সোভিয়েত ইউনিয়ন
(বর্তমানে বেলারুশ)
রাজনৈতিক দলস্বতন্ত্র
প্রাক্তন শিক্ষার্থীব্রেস্ট স্টেট টেকনিক্যাল
ইউনিভার্সিটি

ব্যক্তিগত জীবনসম্পাদনা

মিখাইল মিয়াসনিকোভিচ সোভিয়েত ইউনিয়নের বেলারুশের মিনস্ক অঞ্চলের নেসভিঝ জেলার নোভি স্নোভ এলাকায় জন্মগ্রহণ করেন। ১৯৭২ সালে ব্রেস্ট স্টেট এন্ড কনস্ট্রাকশন ইনস্টিটিউট থেকে স্নাতক ডিগ্রী অর্জন করেন। ১৯৮৯ সালে মিনস্কের কমিউনিস্ট পার্টি স্কুলে ছিলেন। অর্থনীতিতে পিএইচডি ডিগ্রী লাভ করেন এবং প্রকৌশলী হিসেবে নির্মাণ শিল্পে কর্মরত ছিলেন। তিনি ইংরেজি ভাষায়ও পারদর্শী। ব্যক্তিগত জীবনে তিনি বিবাহিত এবং এক পুত্র ও এক কন্যা সন্তানের জনক।[১]

কর্মজীবনসম্পাদনা

১৯৯৫ সাল থেকে ২০০১ সাল পর্যন্ত রাষ্ট্রপতির কার্যালয়ে প্রশাসনের প্রধান হিসেবে কর্মরত ছিলেন মিখাইল। এরপর ২০০১ সাল থেকে ২০১০ সাল পর্যন্ত জাতীয় বিজ্ঞান একাডেমীর সভাপতি ছিলেন।[১]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

রাজনৈতিক দপ্তর
পূর্বসূরী
সার্গেই সিদোরস্কি
বেলারুশের প্রধানমন্ত্রী
২০১০–বর্তমান
নির্ধারিত হয়নি