বুথ টার্কিংটন

মার্কিন ঔপন্যাসিক

নিউটন বুথ টার্কিংটন (২৯ জুলাই ১৮৬৯ - ১৯ মে ১৯৪৬) ছিলেন একজন মার্কিন ঔপন্যাসিক ও নাট্যকার। তিনি দ্য ম্যাগনিফিসেন্ট অ্যাম্বারসন্সঅ্যালিস অ্যাডামস উপন্যাসের জন্য সর্বাধিক পরিচিত। তিনি মাত্র তিনজন ঔপন্যাসিকের একজন যিনি একাধিকবার কথাসাহিত্যে পুলিৎজার পুরস্কার অর্জন করেছেন, বাকি দুজন হলেন উইলিয়াম ফকনারজন আপডিক। যদিও বর্তমান সময়ে তার রচনা স্বল্পপঠিত, কিন্তু ১৯১০ ও ১৯২০-এর দশকে তাকে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের শ্রেষ্ঠ জীবিত লেখক বলে গণ্য করা হত। তার কয়েকটি গল্প চলচ্চিত্রে উপযোগ করা হয়েছে। তিনি এক মেয়াদকালে ইন্ডিয়ানা হাউজ অব রিপ্রেজেন্টেটিভ হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। তিনি অটোমোবাইলের বিস্তাবে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেন। তার বেশ কিছু গল্প মিডওয়েস্টের পটভূমিতে রচিত হয়েছিল। পরবর্তী কালে তাকে মেইনের কেনবারঙ্কপোর্টে প্রেরণ করা হয়। সেখানেও তিনি তার কর্মজীবন চালিয়ে যান এবং দৃষ্টিশক্তি হারান।

প্রারম্ভিক জীবনসম্পাদনা

টার্কিংটন ১৮৬৯ সালের ২৯শে জুলাই ইন্ডিয়ানা অঙ্গরাজ্যের ইন্ডিয়ানাপোলিস শহরে জন্মগ্রহণ করেন। তার পিতা জন এস. টার্কিংটন ও মাতা এলিজাবেথ বুথ টার্কিংটন। তার নামকরণ করা হয় তার মামা নিউটন বুথের নামানুসারে, যিনি পরবর্তী কালে ক্যালিফোর্নিয়ার গভর্নর হয়েছিলেন। এছাড়া আলমিরা বুথ উডওয়ার্থের মাধ্যমে তিনি শিকাগোর নগরপাল জেমস হাচিনসন উডওয়ার্থ তার আত্মীয়।

টার্কিংটন ইন্ডিয়ানাপোলিসের শর্টরিজ হাই স্কুলে পড়াশোনা করেন এবং পূর্ব উপকূলের বোর্ডিং স্কুল ফিলিপস এক্‌জেটার একাডেমি থেকে মাধ্যমিক সমাপ্ত করনে।[১] তিনি পার্ডু বিশ্ববিদ্যালয়ে দুই বছর পড়াশোনা করেন, সেখানে তিনি সিগমা কাই ফ্র্যাটার্নিটি ও বিশ্ববিদ্যালয়ের মর্লি ইটিং ক্লাবের সদস্য ছিলেন। তিনি পরবর্তী কালে পার্ডু বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রদের ছাত্রাবাস নির্মাণে প্রচুর দান করেন। বিশ্ববিদ্যালয় তার সম্মানার্থে এর নামকরণ করে টার্কিংটন হল। পার্ডু বিশ্ববিদ্যালয় তাকে একটি সম্মানসূচক ডক্টরেটও প্রদান করে।[২]

পুরস্কার ও সম্মাননাসম্পাদনা

টার্কিংটন কলেজের ডিগ্রি অর্জন করতে পারেননি। তিনি লেখক হিসেবে তার দক্ষতা ও অবদানের জন্য একাধিক পুরস্কার অর্জন করেছেন। তিনি দ্য ম্যাগনিফিসেন্ট অ্যাম্বারসন্সঅ্যালিস অ্যাডামস উপন্যাসের জন্য যথাক্রমে ১৯১৯ ও ১৯২২ সালে দুবার কথাসাহিত্যে পুলিৎজার পুরস্কার অর্জন করেছেন।[৩] ১৯২১ সালে পাবলিশার্স উয়িকলি-র এক জরিপে বই বিক্রেতারা তাকে "সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ সমকালীন মার্কিন লেখক" বলে অভিহিত করে। তিনি ১৯৩১ সালে সিডার অব নরম্যান্ডি ছোটগল্পের জন্য ও. হেনরি স্মারক পুরস্কার অর্জন করেন। তার জীবদ্দশাতেই তার রচনাগুলি প্রায়ই সর্বাধিক বিক্রীত তালিকায় ওঠে আসে। তিনি পার্ডু বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সম্মানসূচক ডক্টরেট, প্রিন্সটন বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সম্মানসূচক মাস্টার্স ও ডক্টরেট, কলাম্বিয়া বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সম্মানসূচক ডক্টরেটসহ একাধিক বিশ্ববিদালয় থেকে সম্মানসূচক ডিগ্রি অর্জন করেন।

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. প্রাইস, নেলসন (২০০৪)। Indianapolis Then & Now (ইংরেজি ভাষায়)। স্যান ডিয়েগো, ক্যালিফোর্নিয়া: থান্ডার বে প্রেস। পৃষ্ঠা ১২২। আইএসবিএন 1-59223-208-6 
  2. "Tarkington Hall" (ইংরেজি ভাষায়)। পার্ডু বিশ্ববিদ্যালয়। ১৫ এপ্রিল ২০০৯। এপ্রিল ১৫, ২০০৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৯ অক্টোবর ২০১৯ 
  3. ট্রুহার্ট, চার্লস (১০ এপ্রিল ১৯৯১)। "THE ARTS OF THE PULITZER WINNERS"ওয়াশিংটন পোস্ট (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২৯ অক্টোবর ২০১৯ 

বহিঃসংযোগসম্পাদনা

উইকিসংকলন-এ এই লেখকের লেখা মূল বই রয়েছে:

অনলাইন সংস্করণসম্পাদনা