বিশপ বা অধ্যক্ষ (প্রাচীন গ্রিকἐπίσκοπος, epískopos; ইংরেজি: Bishop বা Overseer) হল খ্রিস্টধর্মীয় উচ্চপদস্থ যাজকের পদবি। প্রথানুযায়ী একজন বিশপ হলেন আনুষ্ঠানিকভাবে অভিষিক্ত বা সরাসরি নিয়োগপ্রাপ্ত খ্রিষ্টান ধর্মযাজক যাঁর উপর নির্দিষ্ট অঞ্চলের ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান এবং মণ্ডলীপ্রচারাভিযানের সাথে সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানসমূহের কর্তৃত্ব ন্যস্ত থাকে।

Henning Toft Bro1 (bispevielse).jpg

রোমান ক্যাথলিক, পূর্ব অর্থডক্স , প্রাচ্য অর্থডক্স, মোরাভীয়, ইঙ্গবাদী, প্রাচীন ক্যাথলিক ও স্বাধীন ক্যাথলিক মণ্ডলীসমূহের মধ্যে এবং একইসাথে অশূরীয় মণ্ডলীর ক্ষেত্রে বিশপেরা নিরবচ্ছিন্ন প্রেরিতীয় পরম্পরার (Apostolic Succession) উত্তরাধিকারী হিসেবে বিবেচিত হন, যা বারোজন প্রেরিতের (ঈশ্বরের বাণী প্রচারের জন্য যিশুখ্রিস্ট কর্তৃক নির্বাচিত বারোজন শিষ্য) সাথে সরাসরি ঐতিহাসিকভাবে সম্পর্কিত। এইসব মণ্ডলীর মধ্যে বিশপরা হলেন সেইসব ব্যক্তি, যাঁরা পূর্ণ যাজকীয় ক্ষমতার অধিকারী এবং অন্য ধর্মযাজকদের এমনকি অন্য বিশপদের অভিষিক্ত করার ক্ষমতাসম্পন্ন। কিছু প্রোটেস্ট্যান্ট মণ্ডলীতে, যেমন লুথারবাদী, ইঙ্গবাদী ও পদ্ধতিবাদী মণ্ডলীতে বিশপরা অনুরূপ কর্তব্য পালন করে থাকেন, তবে সেক্ষেত্রে প্রেরিতীয় উত্তরাধিকারের বিষয়টি একইরকম থাকে না।

একজন ব্যক্তি পর্যায়ক্রমে পরিচারক, পাদ্রি এবং পরবর্তীতে বিশপ হিসেবে অভিষিক্ত হন। এভাবে তিনি  যাজকবৃত্তি অর্থাৎ যীশু কর্তৃক প্রদত্ত যাজকীয় অনুশাসন, শিক্ষাদান ও যীশুর দেহকে পরিতৃপ্ত করার দায়িত্বের পূর্ণতা প্রাপ্ত হন বলে বিবেচনা করা হয়। পরিচারক, পাদ্রি ও অযাজকীয় প্রচারকরা তাদের বিশপকে যাবতীয় যাজকীয় কাজে সহযোগিতা করেন।

পশ্চিমা খ্রিষ্টান মতবাদের বিশপদের দ্বারা ব্যবহৃত
রোমান ক্যাথলিক বিশপের এক ধরনের পরিচায়ক চিহ্ন

ক্ষমতা ও পদমর্যাদার দিক দিয়ে কোন সাধারণ বিশপ পোপ, কার্ডিনালআর্চবিশপদের পরে চতুর্থ অবস্থানে থাকেন। তবে পোপ ও কার্ডিনালরাও বিশপ উপাধি ধারণ করতে পারেন। যেমন, ক্যাথলিক মণ্ডলীর সর্বোচ্চ নেতা পোপ একইসাথে রোমের বিশপ উপাধি ধারণ করে থাকেন। [১]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. Bokenkotter, Thomas (২০০৪)। A Concise History of the Catholic Church। New York: Doubleday। পৃষ্ঠা 7। আইএসবিএন 9780307423481