বাক্স-রহস্য (চলচ্চিত্র)

সন্দীপ রায় পরিচালিত চলচ্চিত্র

বাক্স রহস্য, সন্দীপ রায় পরিচালিত ১৯৯৬ সালের টেলিছবি, যা পরে ২০০১ সালে চলচ্চিত্রে রূপান্তর করা হয়। ছবিটি সত্যজিৎ রায় রচিত একই নামের উপন্যাস অবলম্বনে নির্মিত এবং সত্যজিৎ রায় ভিন্ন অন্য পরিচালকের ফেলুদা ধারাবাহিকের প্রথম চলচ্চিত্রায়ন।[২] ১৯৯৬ সালে নির্মিত টেলিছবিটি ডিডি বাংলায় প্রচারিত হয়। পরে ২০০১ সালে চলচ্চিত্র হিসেবে নাদান কমপ্লেক্সে মুক্তি দেওয়া হয় এবং ডিভিডি ও ভিসিডিতে বের হয়।

বাক্স-রহস্য
পরিচালকসন্দীপ রায়
প্রযোজকছায়াবানী প্রাইভেট লিমিটেড
চিত্রনাট্যকারসন্দীপ রায়
উৎসসত্যজিৎ রায় কর্তৃক 
বাক্স-রহস্য
শ্রেষ্ঠাংশে
সুরকারসত্যজিৎ রায়
চিত্রগ্রাহকবরুণ রাহা
সম্পাদকসুব্রত রায়
পরিবেশকভেনাস
মুক্তি১৯৯৬ (টেলিভিশন), ২০০১ (চলচ্চিত্র)
দৈর্ঘ্য৯৮ মিনিট
দেশভারত
ভাষাবাংলা
নির্মাণব্যয়₹২,২২২[১]

এতে ফেলুদার ভূমিকায় অভিনয় করেন সব্যসাচী চক্রবর্তী[৩] এবং তার প্রধান সহকারী তোপসের ভূমিকায় অভিনয় করেন শাশ্বত চট্টোপাধ্যায়। এছাড়া অন্যান্য ভূমিকায় অভিনয় করেন রবি ঘোষ, হারাধন বন্দ্যোপাধ্যায় প্রমুখ।[৪]

কাহিনী সংক্ষেপসম্পাদনা

ধনী ব্যবসায়ী দীননাথ লাহিড়ী রাজধানী এক্সপ্রেসে চলাকালীন তার তল্পিতল্পাসহ বাক্সটি হারিয়ে ফেলেন। মূলত বাক্সটি সিমলাবাসী এক ব্যবসায়ী মিঃ ধমিজার সাথে সেটা বদল হয়ে যায়। তিনি ব্যক্তিগত তদন্তকারী প্রদোষ চন্দ্র মিত্র ওরফে ফেলুদাকে নিয়োগ করেন তার হারিয়ে যাওয়া বাক্স উদ্ধারে করতে। তদন্ত করতে গিয়ে ফেলুদা, তোপসে জানতে পারে বাক্সে ছিল বিখ্যাত ভূ-পর্যটক শম্ভুচরণ বোস লিখিত তিব্বত সম্পর্কে অপ্রকাশিত ভ্রমণকাহিনী অ্যা বেংগলি ইন লামাল্যান্ড-এর পাণ্ডুলিপি। সিধু জ্যাঠার কাছ থেকে ফেলুদা জানতে পারে এই পান্ডুলিপি সাহিত্যের এক অমুল্য সম্পদ। সেদিন ট্রেনে যারা ছিল তাদের সকলের কাছে খোঁজ নিয়ে ফেলুদা নিশ্চিত হয় বাক্স বদল হয়েছে সিমলা নিবাসী ধমীজার সাথে। ট্রেনের এক যাত্রী মিঃ পাকড়াশীও অযাচিতভাবে পান্ডুলিপিটির প্রতি আগ্রহ প্রকাশ করেন। কিন্তু ফেলুদা পাকড়াশীর উৎকোচ প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করে। ইতিমধ্যে ফেলুদার ওপর কলকাতায় অন্ধকার গলিতে বাক্স ছিনিয়ে নেবার জন্যে হামলা হয়। শেষে ফেলুদা, তপেশ, জটায়ু ওরফে ললালমোহনবাবু, তিনজন সিমলা রওনা দেন। মাঝপথে দিল্লীতে হোটেলে ফেলুদার ওপর আবার হামলা হয় ও বাক্স ছিনতাই হয়ে যায়। ফেলুদা বুঝতে পারে এতে আরও এমন কিছু যার জন্যে অপরাধীরা এই বাক্স পেতে সক্রিয় হয়ে উঠেছে। নকল বাক্স তৈরী করে সেই বাক্স ধমীজার কাছে দিয়ে দীননাথ বাবুর বাক্সটি নিয়ে ফেরার পথে অজ্ঞাত আততায়ী তাদের পথ আটকায়। বরফে ঢাকা রাস্তায় ছোটখাটো লড়াইয়ের পর ধরা পড়ে আসল অপরাধী।

কুশীলবসম্পাদনা

আরও দেখুনসম্পাদনা

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "Baksha Rahasya - Budget"ইন্টারনেট মুভি ডেটাবেজ। সংগ্রহের তারিখ ৮ জানুয়ারি ২০১৭ 
  2. "Feluda: A genre, an escape and a philosophy"নিউ এইজ। ২৬ মার্চ ২০০৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৮ জানুয়ারি ২০১৭ 
  3. মারিয়া, শান্তা (২০১৫-০৫-০২)। "পর্দার ফেলুদা"বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম। সংগ্রহের তারিখ ৮ জানুয়ারি ২০১৭ 
  4. "Blood and brandy"। দ্য টেলিগ্রাফ। ৮ জানুয়ারি ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৮ জানুয়ারি ২০১৭ 

বহিঃসংযোগসম্পাদনা