বাংলা টিভি একটি ইংল্যান্ড ভিত্তিক স্যাটেলাইট টেলিভিশন চ্যানেল যার লক্ষ্য হলো ইংল্যান্ডের ও ইউরোপের বাংলায় কথা বলা মানুষ।

বাংলা টিভি
বাংলা টিভি লোগো
উদ্বোধন১৬ ডিসেম্বর ১৯৯৯
স্লোগানআপনার ভাষায় কথা বলে
দেশইংল্যান্ড
প্রধান কার্যালয়লন্ডন
ওয়েবসাইটwww.banglatv.co.uk
banglatv.tv
প্রাপ্তিস্থান
কৃত্রিম উপগ্রহ
স্কাইচ্যানেল ৭৮৬
ইউরো বার্ড ১২৮.৫°E ১১৩৪৪ H এস আর ২৭৫০০ এফইসি ২/৩[১]

ইতিহাসসম্পাদনা

১৯৯৮ সালে বাংলা টিভি পরীক্ষামূলক সম্প্রচার শুরু করে ও ১৯৯৯ সালে বাংলা টিভি আনুষ্ঠানিক ভাবে ইংল্যান্ডের প্রথম বাংলা ভাষার টেলিভিশন চ্যানেল হিসেবে যাত্রা শুরু করে। ২০০৫ সালের আগ পর্যন্ত এটা ছিল অর্থের বিনিময়ে প্রচারিত চ্যানেল। তখন চ্যানেল এস নামের মুক্ত ও বিনামূল্যের চ্যানেল চালু হলে বাংলা টিভি প্রতিযোগিতায় টিকে থাকতে এর সেবা বিনামূল্যের করে দেয়।

সাময়িক বাতিলসম্পাদনা

১লা জুলাই ২০১০ সালে স্কাই ও চ্যানেল ৭৮৬ বাংলা টিভিকে বাতিল করে দেয় কোন ব্যাখা ছাড়াই।[২] পরে ৯ জুলাই আবার ফিরে আসে।

বিরোধসম্পাদনা

চ্যানেল এসের আগমনের পর বাংলা টিভির সাথে তাদের বিরোধ বাঁধে। এর আগে বাংলা টিভি ছিল মনোপলি সেবা দাতা এবং অনেক অনুষ্ঠান প্রচার করত ব্রিটেনে অবস্থিত বাংলাদেশী সম্প্রদায়ের যেমন- বৈশাখী মেলা, বাংলাদেশ ফ্লিম এডোয়ার্ড ও পিঠা উৎসব। এর মধ্যে পিঠা উৎসবই ছিল প্রধান।

ফার্স্ট সল্যুশন মানি ট্রান্সফার কলঙ্কসম্পাদনা

২০০৭ সালে ফার্স্ট সল্যুশন মানি ট্রান্সফার যা চ্যানেল এসের ব্যবস্থাপনা পরিচালক চালাতেন উদ্যোগ নেয় জনসাধারণের মালিকানাধীন টাকা তরলীকরণ করতে। বাংলা টিভি জনগণের এই হতাশা ও রাগ প্রচার করে এবং জনসাধারণের মতামত প্রকাশ করে।এটা ব্যর্থ কোম্পানীর পরিচালককে ও ব্যতিক্রমীভাবে ব্যক্তিগত বিস্তারিত তথ্য যাতে ঠিকানা ও গাড়ির নাম্বারও লেখা ছিল। চ্যানেল এসের ব্যবস্থাপনা পরিচালক তাদের ওয়েবসাইটের তথ্য বিবরণীতে প্রকাশ করেন যা বাংলা টিভি দায়িত্বজ্ঞানহীন ও এসব রাগী লোকের কথা প্রচার করে তিনি ও তার পরিবারকে পিছিয়ে দিতে চাইছে ও ঐ টিভি থামবে না যতক্ষণ পর্যন্ত না ওনারা রাস্তায় উলঙ্গ হয়ে যাচ্ছেন।তিনি আরো বলেন বাংলা টিভি তাদের সম্প্রদায়ের মাঝে আতঙ্ক ছড়াচ্ছে তারা দেউলিয়া হয়ে গেছেন যা আসলে হয়নি ২৫শে জুন ২০০৭ সালে।বাংলা টিভির এই বাজে উপস্থাপনের পর তাদের আর কোন উপায় ছিল না লিকুডেটরদের ডাকা না ছাড়া যেহেতু বিনিয়োগ ও ক্যাশ ইঞ্জেকশন ঐ সময়ে কমে যাচ্ছিল।[৩]

চ্যানেল এসের চেয়ারম্যান মাহি ফেরদৌস জলিল একটি মানহানির মামলা করেন কিছু ব্যক্তির বিরুদ্ধে যারা বাংলা টিভিতে তার বিরুদ্ধে অভিযোগ করছিল।এর সাথে সাথে বাংলা টিভির ইনজাঙ্কশন জারি করে তাদের অপপ্রচার বন্ধ করতে।যাইহোক, তিনি এখন জেলে ও সেখানে তিনি খুব কমই করতে পারবেন তাদের বিরুদ্ধে।[৪]

জনপ্রিয় অনুষ্ঠানসম্পাদনা

  • লাইভ ৪ লাইফ -উপস্থাপনায় জাকের উল্লাহ

বাংলাদেশেসম্পাদনা

১৯ মে ২০১৭ তারিখে বাংলা টিভি বাংলাদেশে সম্প্রচার শুরু করে। জাতীয় সংসদের স্পিকার ও ইন্টার পার্লামেন্টারি ইউনিয়নের (আইপিইউ) নির্বাহী কমিটির চেয়ারপারসন ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী চ্যানেলটির আনুষ্ঠানিক সম্প্রচারের উদ্বোধন করেন।[৫]

আরও দেখুনসম্পাদনা

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "LyngSat Eurobird 1" (ইংরেজি ভাষায়)। LyngSat। 
  2. "Bangla TV removed from Sky Digital" (ইংরেজি ভাষায়)। Biz Asia। ২০১০-০৭-০৫। ২০১০-০৭-১০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১০-১১-১২ 
  3. "First Solution Money Transfer Official Site"। ৯ আগস্ট ২০০৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ 
  4. Press Conference by Mahee (Chairman of Channel S) refuting allegations linking him to First Solution
  5. "বাংলাদেশে সম্প্রচার শুরু 'বাংলা টিভি'র"এনটিভি। ১৯ মে ২০১৭। সংগ্রহের তারিখ ২৪ অক্টোবর ২০১৮ 

বহিঃসংযোগসম্পাদনা