বরিশাল মডেল স্কুল ও কলেজ

বরিশাল মডেল স্কুল ও কলেজ বাংলাদেশের বরিশাল শহরে অবস্থিত একটি সরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। [১] ২০০৭ সালে এটি প্রতিষ্ঠিত হয়। এখানে মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক ছাত্রছাত্রীদের পাঠদান করে থাকে।

বরিশাল মডেল স্কুল ও কলেজ
বরিশাল মডেল স্কুল ও কলেজের লোগো.png
ঠিকানা
রাজা বাহাদুর সড়ক


, ,
৮২০০
তথ্য
বিদ্যালয়ের ধরনসরকারি মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক
নীতিবাক্যজ্ঞানই শক্তি
প্রতিষ্ঠাকাল২০০৭ (2007)
স্থাপিত২০০৭
প্রতিষ্ঠাতাবাংলাদেশ সরকার
অধ্যক্ষড.এহতেশাম
লিঙ্গসমন্বিত
ভাষার মাধ্যমবাংলা
ভাষাবাংলা
ক্যাম্পাসশহুরে পরিবেশ
আয়তন১.৮০ একর
রঙ        
ক্রীড়াফুটবল, ক্রিকেট
ডাকনামBGMSC
বর্ষপুস্তকস্ফুরণ
শিক্ষা বোর্ডবরিশাল শিক্ষা বোর্ড

ইতিহাসসম্পাদনা

 
বরিশাল মডেল স্কুল ও কলেজ প্রাঙ্গণ

বাংলাদেশ শিক্ষা মন্ত্রণালয় এর অধীনে ১১৪ কোটি টাকা ব্যয়ে ঢাকা মহানগরী সহ দেশের ৬টি বিভাগীয় শহরে ১১টি মডেল স্কুল ও কলেজ প্রতিষ্ঠার প্রকল্প হাতে নেয়া হয়। ঐ ১১টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের মধ্যে মাঝে ঢাকা মহানগরীতে ৫টি, বাকী ৫টি বিভাগীয় শহরে ৫টি এবং বগুড়াতে একটি বিদ্যালয় স্থাপনের পরিকল্পনা করা হয়। ২০০৬ সালের ৩১ জানুয়ারি জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির এক সভায় প্রকল্পটি গৃহীত হয় ও বাস্তবায়নের উদ্যোগ নেয়া হয়। এ প্রকল্পের অংশ হিসেবে ঢাকা মহানগরীতে ৪ টি (মোহাম্মদপুরে ১টি, মিরপুরের রূপনগরে ১টি, শ্যমপুরে ১টি, লালবাগে ১টি) এবং রাজশাহী, চট্টগ্রাম, সিলেট, বরিশাল ও খুলনায় ১টি করে মোট ৯টি মডেল কলেজ প্রতিষ্ঠা করা হয়। বাকি দু’টি প্রতিষ্ঠান (ঢাকা ও বগুড়ায়) বর্তমানে বিয়াম ফাউন্ডেশন কর্তৃক পরিচালিত হচ্ছে।

২০০৭ সালে বরিশাল শহরের রাজাবাহাদুর সড়কের পাশে ১.৮০ একরের উপরে বরিশাল মডেল স্কুল অ্যান্ড কলেজ প্রতিষ্ঠিত হয়। প্রফেসর নুরুল আমিন ১৫ এপ্রিল ২০০৭ এ প্রতিষ্ঠানটির প্রথম অধ্যক্ষ হিসেবে যোগদান করেন। পর্যায়ক্রমে শিক্ষক ও কর্মচারীদের নিয়োগ দেয়া হয় ও ২০০৭-২০০৮ শিক্ষাবর্ষে উচ্চমাধ্যমিক শ্রেনীর ছাত্রছাত্রীদের জন্য ভর্তির ঘোষণা করা হয়। পরবর্তীতে ২০০৮ সালে মাধ্যমিক ছাত্রছাত্রীদের জন্য ষষ্ঠ - দশম শ্রেনীর কার্যক্রম শুরু হয়। [২]

অবকাঠামোসম্পাদনা

বরিশাল মডেল স্কুল ও কলেজ এর একাডেমিক ভবনটি পাঁচ তলা। এতে ৭৫টি কক্ষ, ১০টি বিজ্ঞানাগার, ৫০টি কম্পিউটার সমৃদ্ধ ১টি ল্যাব, একটি লাইব্রেরী ও ব্যয়ামাগার রয়েছে। চতুর্ভুজ আকৃতির ভবনটির মাঝখানে একটি বাগান রয়েছে। ভবনটির উত্তর ও দক্ষিণে দুটি পৃথক প্রবেশ পথ রয়েছে। এর সামনের দিকে ঐতিহ্যবাহী বেলস পার্ক উদ্যান বিস্তৃত। [২]

শিক্ষা কার্যক্রমসম্পাদনা

এই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে তৃতীয় শ্রেণী হতে দ্বাদশ শ্রেণী পর্যন্ত শিক্ষা কার্যক্রম চালু আছে । এই প্রতিষ্ঠান এর শিক্ষকরা তাদের শিক্ষার্থীদের প্রতি প্রচুর যত্নবান। ফলে শিক্ষার্থীরা সফলতার সাথে পি এস সি,জে এস সি,এস এস সি এবং এইচ এস সি পরিক্ষায় অংশগ্রহণ করছে ও ভাল ফলাফল করছে।

শিক্ষা-সহায়ক কার্যক্রমসম্পাদনা

  • সাহিত্য-সংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পালন
  • শরীরচর্চা শিক্ষা
  • লাইব্রেরি অনুশীলন
  • বিতর্ক প্রতিযোগিতা
  • শিক্ষা সফর
  • দেয়াল পত্রিকা প্রকাশ
  • কলেজ বার্ষিকী প্রকাশ
  • বিএনসিসি
  • রেড ক্রিসেন্ট
  • বাংলাদেশ স্কাউটসের বিভিন্ন প্রোগ্রাম ও বিশ্ব স্কাউট জাম্বুরী সহ একাধিক আন্তর্জাতিক ক্যাম্পে সক্রিয় অংশগ্রহন
  • স্কাউট গ্রুপের সদস্যের বাংলাদেশ স্কাউটসের সর্বোচ্চ স্বীকৃতি "প্রেসিডেন্ট'স স্কাউট অ্যাওয়ার্ড" অর্জন

আরও দেখুনসম্পাদনা

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "আট বোর্ডের সেরা দশ - প্রধান খবর -Samakal Online Version"দৈনিক সমকাল। ৫ মার্চ ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩ মে ২০১৫ 
  2. "বরিশাল মডেল স্কুল অ্যান্ড কলেজের ইতিহাস"। সংগ্রহের তারিখ ৩ মে ২০১৫ [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]