প্রধান মেনু খুলুন

বব বারবার

ইংরেজ ক্রিকেটার

রবার্ট উইলিয়াম বব বারবার (ইংরেজি: Bob Barber; জন্ম: ২৬ সেপ্টেম্বর, ১৯৩৫) ম্যানচেস্টারের উইদিংটন এলাকায় জন্মগ্রহণকারী বিখ্যাত ও সাবেক ইংরেজ ক্রিকেট তারকা। ইংল্যান্ড ক্রিকেট দলের অন্যতম সদস্য ছিলেন তিনি। ১৯৫৪ থেকে ১৯৬৯ সময়কালে ঘরোয়া প্রথম-শ্রেণীর ইংরেজ কাউন্টি ক্রিকেটে কেমব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয়, ল্যাঙ্কাশায়ার ও ওয়ারউইকশায়ারের প্রতিনিধিত্ব করেছেন।[১] দলে তিনি মূলতঃ বামহাতি ব্যাটসম্যান হিসেবে খেলতেন। এছাড়াও লেগ ব্রেক ও গুগলি বোলিংয়ে পারদর্শিতা দেখিয়েছেন বব বারবার

বব বারবার
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নামরবার্ট উইলিয়াম বারবার
জন্ম (1935-09-26) ২৬ সেপ্টেম্বর ১৯৩৫ (বয়স ৮৪)
উইদিংটন, ম্যানচেস্টার
ব্যাটিংয়ের ধরনবামহাতি
বোলিংয়ের ধরনলেগ-ব্রেক ও গুগলি
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা টেস্ট এফসি
ম্যাচ সংখ্যা ২৮ ৩৮৬
রানের সংখ্যা ১,৪৯৫ ১৭,৬৩১
ব্যাটিং গড় ৩৫.৫৯ ২৯.৪৩
১০০/৫০ ১/৯ ১৭/৯০
সর্বোচ্চ রান ১৮৫ ১৮৫
বল করেছে ৩,৪২৬ ৩১,৭৯৮
উইকেট ৪২ ৫৪৯
বোলিং গড় ৪৩.০০ ২৯.৪৬
ইনিংসে ৫ উইকেট ১২
ম্যাচে ১০ উইকেট
সেরা বোলিং ৪/১৩২ ৭/৩৫
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ২১/০ ২১০/০
উৎস: ক্রিকইনফো, ১৩ জুলাই ২০১৮

প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটে অংশগ্রহণসম্পাদনা

রুথিন স্কুলে অধ্যয়নরত অবস্থায় অসাধারণ ক্ষুদে ক্রিকেটারের মর্যাদা লাভ করেছেন। ১৯৫৫ সালে কেমব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষে প্রথম খেলতে নামেন। তবে, শুরুতে তাকে বেশ হোচট খেতে হয়েছিল। ১৯৫৯ সালে প্রথমবারের মতো সহস্রাধিক রান তুলতে সক্ষম হন। এরপর তাকে ল্যাঙ্কাশায়ারের অধিনায়কের দায়িত্বভার অর্পণ করা হয়েছিল।

কমিটির হস্তক্ষেপ ও আয়োজক দলের দর্শকদের উত্যক্ততার কারণে বারবার তার সেরা খেলা উপহার দিতে পারছিলেন না।[২] বিশেষ করে টেস্টে অংশগ্রহণকারী লেগ স্পিনার টমি গ্রীনহাউ এবং গ্রীভস ও বুথের ন্যায় অল-রাউন্ডারের কারণে লেগ স্পিনার হতে পারেননি। এরফলে, দলে অন্তর্ভূক্তিতে তাকে বেশ কঠিন পরিস্থিতির মুখোমুখি হতে হয়। ১৯৬২ সালে জো ব্ল্যাকলেজের স্থলাভিষিক্ত হন তিনি।

ওয়ারউইকশায়ারে যোগদানের পর বারবার তার প্রিয় শটগুলো খেলতে থাকেন ও ইংল্যান্ডের পক্ষে নিয়মিতভাবে উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান হিসেবে খেলেন।

টেস্ট ক্রিকেটসম্পাদনা

সমগ্র খেলোয়াড়ী জীবনে ইংল্যান্ড দলের পক্ষে ২৮ টেস্টে অংশগ্রহণ করেছেন বব বারবার। ১৯৬৫-৬৬ মৌসুমের অ্যাশেজ সিরিজে ব্যক্তিগত সেরা ইনিংসটি উপহার দেন। সিডনিতে অনুষ্ঠিত সফরকারী ইংল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজের তৃতীয় টেস্টে সিডনি ক্রিকেট গ্রাউন্ডে খেলোয়াড়ী জীবনের একমাত্র সেঞ্চুরিটি করেন। ২৫৫ বলে ১৮৫ রান তুলেন তিনি। এ সময় প্রথম উইকেট জুটিতে জিওফ বয়কটের সাথে ২৩৪ রানের জুটি গড়েন। অদ্যাবধি অ্যাশেজ টেস্টের উদ্বোধনী দিনে যে-কোন ইংরেজ ক্রিকেটারের সর্বোচ্চ রানরূপে স্বীকৃত।

১৯৬৭ সালে উইজডেন কর্তৃক অন্যতম বর্ষসেরা ক্রিকেটার হিসেবে মনোনীত হন।

অবসরসম্পাদনা

১৯৬৯ সালে কাউন্টি ক্রিকেট থেকে অবসরের ঘোষণা করেন বব বারবার। তবে, ১৯৭১ সাল পর্যন্ত জন প্লেয়ার লীগে অংশ নেন। জিলেট কাপের শুরুর দিকে দক্ষতা দেখাতে শুরু করলেও ৪০-ওভারের খেলায় খুব কমই সাড়া জাগাতে পেরেছেন। অবসরকালীন ব্যবসায়ে মনোনিবেশ ঘটান ও সুইজারল্যান্ডে বসবাস করতে থাকেন।

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. Bateman, Colin (১৯৯৩)। If The Cap Fits। Tony Williams Publications। পৃষ্ঠা 17। আইএসবিএন 1-869833-21-X 
  2. WISDEN 1960-2

আরও পড়ুনসম্পাদনা

বহিঃসংযোগসম্পাদনা