বন্ডেজ (বিডিএসএম)

কঠোর যৌন আচরণ

বন্ডেজ (ইংরেজি: Bondage) হল আনন্দ-বেদনা নীতি ব্যবহার করে এক ধরনের যৌন তৃপ্তি। নকল দাসত্বের আকারে, একজন ব্যক্তি অন্যকে বেঁধে রাখে এবং সংযত করে, উভয়ের যৌন উত্তেজনা বাড়ায়। এটি প্রায়ই অপমান, হুমকি এবং বিপদের কাজ করে।

স্তন বাঁধা এবং দড়ি ব্যবহার করে একটি অস্বস্তিকর অবস্থানে আবদ্ধ একটি মডেল
বন্ডেজে বাঁধা মহিলা শুয়ে আছে
কুকুর বেঁধে রাখার উপযোগী এধরনের কলার বিডিএসএম-এর সাধারণ প্রতীক হিসেবে ধরা হয়।

বন্ডেজ দ্বারা একজাতীয় যৌন উদ্দীপক আচরণ বোঝানো হয় যেখানে কেউ যৌন আনন্দ লাভের জন্য সঙ্গীকে বেঁধে রাখে অথবা বিভিন্ন শারীরিক প্রতিবন্ধকতা (চোখ বাঁধা, মুখে কাপড় দিয়ে কথা বলা রোধ করা ইত্যাদি) আরোপ করে। সাধারণত এসব কাজে দড়ি, হ্যান্ডকাফ, শিকল, টেপ, চামড়ার বেল্ট ইত্যাদি ব্যবহৃত হয়। বন্ডেজ বিডিএসএম এর অন্তর্ভুক্ত একটি ক্রিয়া। বিডিএসএম (ইংরেজি: BDSM) হচ্ছে কয়েকটি শব্দ ও শব্দগুচ্ছের সংক্ষিপ্তরূপ। শব্দগুলো হচ্ছে বন্ডেজ (bondage) ও ডিসিপ্লিন (discipline) (B&D, B/D, বা BD); ডোমিন্যান্স অ্যান্ড সাবমিশন (dominance and submission) (D&s, D/s, বা Ds); এবং স্যাডিজম এবং ম্যাসাকিজম বা মর্ষকাম (sadism and masochism) (S&M, S/M, or SM)।[১]

বিডিএসএম বিভিন্ন রকমের অনেকগুলো কর্মকাণ্ড নিয়ে গঠিত। এর সাথে আন্তব্যক্তিগত সম্পর্ক, এবং বিভিন্ন উপসংস্কৃতিও জড়িত। এটি মূলত একপ্রকার যৌনচর্চা, যদিও তা স্বাভাবিক বিচারে সুস্থ ধরা হয় না। কিন্তু এটি বাস্তব, কারণ বিডিএসএম-এর চর্চা এর চর্চাকারীদের বিভিন্নভাবে কামোদ্দীপনা জাগায়। এই চর্চার বিভিন্ন দিক স্বাভাবিক যৌনাচারের সাথে যায় না, বরং বিপরীত, এবং কিছুক্ষেত্রে বিপদজ্জনকও।

বিডিএসএম-এর চর্চা সবসময় যৌন সম্পর্ক সংশ্লিষ্ট নয়। তবে সর্ব ক্ষেত্রেই এটির চর্চা কামোদ্দীপক। এটির বিপজ্জনকতা এবং এটির চর্চা কীভাব হবে তা সবসময়ই নির্ভর করে এই চর্চায় অংশগ্রহণকারীদের ওপর। বিডিএসএম-এর ক্ষেত্রে অংশগ্রহণকারীদের দুইটি প্রকার আছে। প্রথমত, ডোমিন্যান্ট (dominant) বা যিনি প্রভাব বিস্তার করেন, বা খাটান, বা শাসন করেন এবং দ্বিতীয়ত, যিনি প্রভাবান্বিত হন বা শাসিত হন। এই দুইপ্রকারের অংশগ্রহণকারী থাকলেও অংশগ্রহণকারীরর সংখ্যা দুই বা ততোধিক হতে পারে।

বিডিএসএম যৌনবিকৃতি হিসাবে স্বীকৃত। বিংশ শতাব্দীর শেষপাদে পর্নোগ্রাফিতে এরূপ যৌনক্রিয়ার প্রাদুর্ভাব হয়েছে।

চোখ এবং আবদ্ধ অবস্থায় একজন পুরুষ মডেল

শয্যাসম্পাদনা

অনেক যুগলেরাই শয্যাসঙ্গীকে খাটের সাথে বেঁধে তার সাথে যৌনকর্ম করে আনন্দ পেয়ে থাকেন। এসময় বেঁধে রাখা সঙ্গী নিষ্ক্রিয় থাকলেও অন্য সঙ্গী দ্বারা পীড়িত হয়ে তিনি যৌনসুখ লাভ করেন। শয়নঘরে খাটের উপর বন্ডেজ মৃদু শ্রেণীর এবং তাতে ক্ষতির সম্ভাবনা কম থাকে। প্রায়ই আবদ্ধ সঙ্গীর চোখ বেঁধে দেওয়া হয়, যেন মুক্ত সঙ্গীর ক্রিয়া সে দেখতে না পারে। মুক্ত সঙ্গী সাধারণত হস্তমৈথুন, আঙ্গুলের স্পর্শ, মুখমেহন, কম্পনসৃষ্টিকারী যন্ত্র ইত্যাদির সাহায্যে আবদ্ধ সঙ্গীকে উত্তেজিত করে আনন্দ দেন এবং নিজেও আনন্দ পান।

প্রকারভেদসম্পাদনা

 
একটি বল মডেল যার মুখ বন্ডেজ জোতা এবং বন্ডেজ কলার ব্যবহার করে আবদ্ধ

রূপের বৈচিত্র্যের কারণে, বন্ডেজকে তার প্রেরণার উপর ভিত্তি করে বিভিন্ন ধরণের বিভিন্ন ভাগে ভাগ করা যায়।

একটি উদ্দেশ্যে বন্ডেজসম্পাদনা

এই বন্ডেজ শব্দটি বিডিএসএম-এ সর্বাধিক পরিচিত, এবং নিষ্ক্রিয় অংশীদারকে একটি বাহ্যিক উদ্দেশ্যে সংযত করাকে বোঝায়, যেমন একটি চমত্কারীর জন্য তাদের আরও সহজলভ্য করা। নিজস্ব স্বার্থে বন্ডেজ এই বিভাগে বিবেচিত হয় না।

ধাতব বন্ধনসম্পাদনা

 
স্টিলের কলার এবং স্টিলের হাতকড়া পরা একজন মহিলা।

ধাতব বন্ডেজ হল বন্ধন যা ধাতব যন্ত্রপাতি ব্যবহার করে বিডিএসএম ক্রিয়াকলাপের অংশ হিসাবে একটি বশ্যতা প্রতিরোধ করে। দেহকে সুরক্ষিত করার জন্য দড়ি ব্যবহারের বিপরীতে, ধাতব বন্ধনে সাধারণত সতর্কতার সাথে প্রস্তুতির প্রয়োজন হয়, কারণ আরো অসাধারণ যন্ত্রগুলি তৈরি করতে হয় বা বিশেষজ্ঞের কাছ থেকে কিনতে হয়। সাধারণ হাতকড়া বা শিকল থেকে বিশেষভাবে পরিকল্পনা করা চেয়ার বা জটিল বার সংযোগ পর্যন্ত যন্ত্রের পরিসীমা উল্লেখযোগ্যভাবে পরিবর্তিত হতে পারে।

কৌশলসম্পাদনা

 
এক্সোক্সিকা ২০১৩-তে দুই মহিলা ডাক্ট টেপ দিয়ে মমি করে, তাদের পুরো শরীরকে সংযত করে

বন্ডেজের কৌশলগুলি ছয়টি প্রধান বিভাগে ভাগ করা যেতে পারেঃ

  • শরীরের অঙ্গগুলি, যেমন হাত বা পা, একসাথে বাঁধা।
  • সংযত সঙ্গীকে বাইরের বস্তুতে বেঁধে রাখা, যেমন চেয়ার বা টেবিল।
  • সংযত অংশীদারকে সিলিং থেকে বরখাস্ত করা।
  • সংযত সঙ্গীর চলাচলে বাধা দেওয়া বা ধীর করা, যেমন একটি হোবল স্কার্ট বা একটি করসেট দিয়ে।
  • সংযত সঙ্গীকে নরম, স্থিতিস্থাপক উপাদানে মোড়ানো, এইভাবে তাদের পুরো শরীরকে সংযত করে। এটি মমিকরণ নামে পরিচিত।

অনেকে মনে করেন যে বন্ডেজ অবশ্যই "রুক্ষ এবং শক্ত" হতে হবে, যেমনটি বন্ডেজ অনেক ছবিতে দেখা যায়, তবে এটি সর্বদা সত্য নয়। তথাকথিত "নরম বন্ডেজ" এ, সক্রিয় অংশীদার কেবল তাদের নিজের হাত দিয়ে সংযত সঙ্গীর হাত একসাথে ধরে রাখতে পারে, সংযত সঙ্গীকে হাতকড়া পরানো, অথবা কোনও শারীরিক সংযম ব্যবহার না করে সংযত সঙ্গীকে কেবল তাদের হাত না সরানোর আদেশ দিতে পারে। এই পরবর্তী মামলাটি, যাকে "মৌখিক বন্ডেজ" বলা হয়, অনেক মানুষের কাছে আবেদন করে এবং বেশিরভাগ মানুষের মনে হয় নরম বন্ডেজের চেয়ে অনেক বেশি সাধারণ।

উপকরণসম্পাদনা

দড়িঃ দড়ি সবচেয়ে বেশি প্রচলিত উপচার। সাধারণত সুতার বা পাটের দড়ি ব্যবহার করা হয়।

ধাতব অনুষঙ্গঃ ধাতব হাতকড়া, শিকল, থাম্বকাফ (বৃদ্ধাঙ্গুল বাঁধার হাতকড়া) ইত্যাদি ব্যবহার করা হয়। তাছাড়া বৈদ্যুতিক তার দিয়েও সঙ্গীকে বাঁধা যায়।

চামড়াঃ অনেকে চামড়া থেকে আলাদা যৌনসুখ পেয়ে থাকেন। তারা চামড়ার ফিতা দিয়ে বন্ডেজ করেন।

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "BDSM Terms"। A Slave's Heart। সংগ্রহের তারিখ ২০০৮-০১-২৭