প্রিয়া আমার প্রিয়া

২০০৮ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত বাংলা ভাষার চলচ্চিত্র

প্রিয়া আমার প্রিয়া বদিউল আলম খোকন পরিচালিত ২০০৮ সালে বাংলাদেশী রোম্যান্টিক চলচ্চিত্র। এতে প্রধান চরিত্রে অভিনয় করেন শাকিব খান, সাহারা, প্রবীর মিত্র, ও মিশা সওদাগর[২] এটি ২০০২ সালের পুনীত রাজকুমার অভিনীত কন্নড় চলচ্চিত্র আপ্পুর পুনঃনির্মাণ, যা তেলেগু ভাষায় ইডিয়ট (২০০২),[৩] তামিল ভাষায় দম (২০০৩) ও বাংলা ভাষায় হিরো (২০০৬) নামে পুনঃনির্মিত হয়েছিল। পূর্বনির্মিত চলচ্চিত্র অবলম্বনে এই ছবির কাহিনী লিখেছেন মনির হোসেন এবং সংলাপ লিখেছেন শচীন নাগ। কচি আহমেদ নিবেদিত ছবিটি প্রযোজনা ও পরিবেশনা করে আশা প্রডাকশন্স।

প্রিয়া আমার প্রিয়া
প্রিয়া আমার প্রিয়া.jpg
প্রিয়া আমার প্রিয়া
পরিচালকবদিউল আলম খোকন
প্রযোজককচি আহমেদ
রচয়িতাশচীন নাগ (সংলাপ)
কাহিনীকারমনির হোসেন
শ্রেষ্ঠাংশে
সুরকারআলী আকরাম শুভ
প্রযোজনা
কোম্পানি
আশা প্রডাকশন্স
পরিবেশকআশা প্রডাকশন্স
মুক্তি১৩ জুন, ২০০৮[১]
দৈর্ঘ্য১৩২ মিনিট
দেশবাংলাদেশ
ভাষাবাংলা

চলচ্চিত্রটি ২০০৮ সালের ১৩ জুন বাংলাদেশে মুক্তি পায়। এই চলচ্চিত্রে অভিনয়ের জন্য শাকিব খান শ্রেষ্ঠ চলচ্চিত্র অভিনেতা বিভাগে ইউরো-সিজেএফবি পারফরমেন্স পুরস্কার ও মেরিল-প্রথম আলো পুরস্কার লাভ করেন।[৪]

কাহিনী সংক্ষেপসম্পাদনা

হৃদয় (শাকিব খান) একজন কলেজ ছাত্র। সে থানার হেড কনস্টেবলের ছেলে। হৃদয় একদিন কিছু সন্ত্রাসীদের সাথে মারপিঠ করে। তারা তাকে আঘাত করে পালিয়ে যায়। প্রিয়া (সাহারা) তাকে হাসপাতালে নিয়ে যায় এবং রক্ত দেয়। হৃদয় তাকে না দেখেই শুধু বন্ধুদের কাছে তার প্রশংসা শুনে প্রেমে পড়ে যায়। সুস্থ হয়ে সে প্রিয়ার পিছু নেয় এবং বাড়ির কাজের লোককে দিয়ে চিঠি পাঠায়। প্রিয়া পুলিশ কমিশনার রাশেদ রায়হান চৌধুরীর (মিশা সওদাগর) একমাত্র বোন। সে তার ভাইকে হৃদয়ের পিছু নেওয়ার বিষয়টি জানায়। হৃদয়কে প্রিয়ার ভাই প্রথমে ভয় দেখায় এবং পরে মারধোরও করে প্রিয়াকে ভুলে যাওয়ার জন্য। হৃদয়ের বাবা তা সহজভাবে মেনে নেয় না।

আইনের লোক হয়ে কিছু করতে না পারায় প্রিয়ার ভাই একজন সন্ত্রাসীকে দিয়ে হৃদয়কে খুন করাতে চায়। কিন্তু হৃদয়ের পরিবর্তে প্রিয়া আঘাতপ্রাপ্ত হয় এবং হৃদয়ও কিছুটা আঘাতপ্রাপ্ত হয়ে দুজনে হাসপাতালে ভর্তি হয়। হাসপাতালে বন্ধুদের সহযোগিতায় হৃদয় পালিয়ে প্রিয়াকে দেখতে যায়। প্রিয়া হৃদয়ের প্রতি আকৃষ্ট হয়। কিন্তু প্রিয়ার ভাই তাদের সম্পর্ক মেনে নিতে চায় না এবং হৃদয়কে যে কোন মূল্যে প্রিয়ার জীবন থেকে সরিয়ে দিতে চায়। প্রিয়ার ভাবী ও হৃদয়ের বন্ধুদের সহযোগিতায় তারা বাড়ি থেকে পালিয়ে যায়। অবশেষে প্রিয়ার ভাই তাদের সম্পর্ক মেনে নেয়।

কুশীলবসম্পাদনা

সঙ্গীতসম্পাদনা

প্রিয়া আমার প্রিয়া চলচ্চিত্রের সঙ্গীত পরিচালনা করেছেন আলী আকরাম শুভ। গানের কথা লিখেছেন কবির বকুল। ছবিতে পাঁচটি গান রয়েছে। গানে কণ্ঠ দিয়েছেন সাবিনা ইয়াসমিন, এন্ড্রু কিশোর, আসিফ আকবর, ও এস আই টুটুল

গানের তালিকা
নং.শিরোনামকণ্ঠশিল্পী(রা)দৈর্ঘ্য
১."প্রিয়া আমার প্রিয়া"এস আই টুটুল 
২."ফার্স্ট ইয়ার ড্যাম কেয়ার"আসিফ আকবর 
৩."আমি যে তোমারই"সাবিনা ইয়াসমিন 
৪."চুপি চুপি"সাবিনা ইয়াসমিন ও আসিফ আকবর 
৫."তোমায় ছাড়া"সাবিনা ইয়াসমিন ও এন্ড্রু কিশোর 

পুরস্কারসম্পাদনা

মেরিল-প্রথম আলো পুরস্কার
ইউরো-সিজেএফবি পারফরমেন্স পুরস্কার
  • বিজয়ী: শ্রেষ্ঠ চলচ্চিত্র অভিনেতা - শাকিব খান

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "Movie List 2008"বাংলাদেশ চলচ্চিত্র প্রযোজক পরিবেশক সমিতি। ১৭ নভেম্বর ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৯ জুন ২০১৭ 
  2. "'প্রিয়া আমার প্রিয়া'র পর আবার শাকিব ও সাহারা"দৈনিক প্রথম আলো। ১ জুন ২০১০। সংগ্রহের তারিখ ২৯ জুন ২০১৭ 
  3. Shenoy, Megha (২৯ নভেম্বর ২০০৯)। "Inspiration for remakes"ডেকান হেরাল্ড। সংগ্রহের তারিখ ২৯ জুন ২০১৭ 
  4. "Meril-Prothom Alo Award ceremony held"দ্য ডেইলি স্টার। ১১ এপ্রিল ২০০৯। সংগ্রহের তারিখ ২৯ জুন ২০১৭ 

বহিঃসংযোগসম্পাদনা