প্রফুল্লচন্দ্র সেন

ভারতীয় রাজনীতিবীদ

প্রফুল্লচন্দ্র সেন (জন্ম ১০ এপ্রিল ১৮৯৭ - ২৫ সেপ্টেম্বর ১৯৯০ ) একজন ভারতীয় বাঙালি রাজনীতিবিদ স্বাধীনতা সংগ্রামী গান্ধীবাদি নেতা। তিনি পশ্চিমবঙ্গের তৃতীয় মুখ্যমন্ত্রী ছিলেন। তার জন্ম বর্তমান বাংলাদেশের খুলনা জেলার সেনহাটিতে। পিতা গোপালচন্দ্র সেন। পিতার কর্মস্থান বিহারে তার স্কুলজীবন কাটে। দেওঘরের আর কে মিত্র ইন্সটীটিউশন থেকে ম্যাট্রিক ও কলকাতার স্কটিশ চার্চ কলেজ থেকে পদার্থ বিজ্ঞানে ১৯১৮ সালে অনার্স নিয়ে বিএসসি পাশ করেন। [১]

প্রফুল্লচন্দ্র সেন
প্রফুল্লচন্দ্র সেন.jpg
প্রফুল্লচন্দ্র সেন
৩য় পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী
কাজের মেয়াদ
৮ই জুলাই, ১৯৬২ –১৫ মার্চ, ১৯৬৭
পূর্বসূরীবিধানচন্দ্র রায়
উত্তরসূরীঅজয় কুমার মুখোপাধ্যায়
সংসদীয় এলাকাআরামবাগ
ব্যক্তিগত বিবরণ
জন্ম(১৮৯৭-০৪-১০)১০ এপ্রিল ১৮৯৭
সেনহাটি,খুলনা বর্তমানে বাংলাদেশ
মৃত্যু২৫ সেপ্টেম্বর ১৯৯০(1990-09-25) (বয়স ৯৩)
রাজনৈতিক দলভারতীয় জাতীয় কংগ্রেস
ধর্মহিন্দু

রাজনীতিসম্পাদনা

১৯২১ সালে গান্ধীজির অসহযোগ আন্দোলনের আহ্বানে সাড়া দিয়ে তিনি রাজনৈতিক জীবন বেছে নেন। ১৯২২ সালে হুগলির গ্রামে গ্রামে তিনি চরকা ও খদ্দর-প্রচারে তৎপর হন । একসময় হুগলির বিদ্যামন্দিরে শিক্ষকতা করেছেন । দুর্গম এবং ম্যালেরিয়া অধ্যুষিত হুগলির আরামবাগকেই নিজের কর্মকেন্দ্র বেছে নিয়ে দীর্ঘ ষাট বৎসর সেখানেই কাটান। কালক্রমে তিনি "আরামবাগের গান্ধী" নামে পরিচিত হন। কাঁথি ও তমলুকে 'লবণ আইন' অমান্য আন্দোলনে, ১৯৪০ সালে 'সত্যাগ্রহ আন্দোলনে' ও ১৯৪২ সালে 'ভারত ছাড়ো' আন্দোলনে সক্রিয়ভাবে অংশ নিয়ে কারাদণ্ড ভোগ করেন। দেশ স্বাধীন হওয়ার পর ১৯৪৮ সালে ডাঃ বিধানচন্দ্র রায়ের মন্ত্রীসভায় অসামরিক সরবরাহ দপ্তরের মন্ত্রীরূপে রোগ দেন । ডাঃ রায়ের মৃত্যুর পর ১৯৬২ থেকে ১৯৬৭ সালে পর্যন্ত তিনি পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী ছিলেন। ১৯৬৭ সালে আরামবাগে তিনি অজয় মুখোপাধ্যায়ের কাছে হেরে যান। তবে ১৯৭১ সালে তিনি পুনরায় নির্বাচিত হন । কংগ্রেস দ্বিধাবিভক্ত হলে তিনি কংগ্রেসে থেকে যান। ১৯৭৫ সালে ইন্দিরা গান্ধীর আমলে দেশে জরুরি অবস্থা ঘোষিত হলে তিনি তার বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানান। এক সময় জনতা পার্টিতে যোগ দিয়ে দলের রাজ্য কমিটির সভাপতি হন। ১৯৭৭ সালে ওই দলের প্রার্থী হিসেবে লোকসভার সদস্যও হন। তিনি সৎ জীবনযাপনের এক উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত রেখে গেছেন । কখনো কোনো সরকারি অর্থসাহায্য ও দাক্ষিণ্য গ্রহণ করেননি ।

মৃত্যুসম্পাদনা

অকৃতদার প্রফুল্লচন্দ্র সেন ইংরাজী ১৯৯০ সালের ২৫ শে সেপ্টেম্বর ৯৩ বৎসর বয়সে প্রয়াত হন ।

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. সেনগুপ্ত, সুবোধচন্দ্র (২০০২)। অঞ্জলি বসু, সম্পাদক। সংসদ বাঙ্গালি চরিতাভিধান। দ্বিতীয় খন্ড (চতুর্থ সংস্করণ সংস্করণ)। কলিকাতা: সাহিত্য সংসদ। পৃষ্ঠা ১৯০ পৃঃ। আইএসবিএন 8185626650 
রাজনৈতিক দপ্তর
পূর্বসূরী
বিধানচন্দ্র রায়
পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী
১৯৬২—১৯৬৭
উত্তরসূরী
অজয়কুমার মুখোপাধ্যায়