প্রধান মেনু খুলুন
অ্যাপোলো ১৭ থেকে দৃশ্যমান পৃথিবী

পৃথিবীর বয়স প্রায় ৪৫৪ ± ৫ কোটি বছর (৪.৫৪ × ১০ বছর ± ১%)।[১][২][৩][৪] এই বয়স উল্কার রেডিওমেট্রিক বয়স নির্ণয় থেকে প্রাপ্ত[৫] এবং প্রাপ্ত সবচেয়ে প্রাচীন পার্থিব ও চাঁদের পাথরের রেডিওমেট্রিক বয়সের সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ।

বিংশ শতাব্দীর শুরুর দিকে রেডিওমেট্রিক বয়স নির্ণয় পদ্ধতি আবিষ্কারের পর ইউরেনিয়াম-সীসা বয়স নির্ণয় পদ্ধতিতে দেখা যায় ইউরেনিয়াম সমৃদ্ধ খনিতে এমন সীসা বিদ্যমান যার বয়স ১০০ কোটি বছরের বেশি হবে।[৬] এই ধরনের খনি থেকে প্রাপ্ত সবচেয়ে পুরনো ছোট ও স্বচ্ছ বস্তু হল গোমেদ-মণি, যা পশ্চিম অস্ট্রেলিয়ার জ্যাক হিলস নামক স্থানে পাওয়া যায়, যার বয়স কমপক্ষে ৪৪০.৪ কোটি বছর।[৭][৮][৯] সৌরজগতে গঠিত উল্কাপিন্ডের মধ্যে ক্যালসিয়াম-অ্যালুমিনিয়াম সমৃদ্ধ সবচেয়ে প্রাচীন কঠিন বস্তুর বয়স প্রায় ৪৫৬.৭ কোটি বছর।[১০][১১]

আধুনিক ভূতাত্ত্বিক ধারনার উন্নয়নসম্পাদনা

পাললিক শিলার গবেষণা থেকে দেখা যায় পাথর এবং পৃথিবীর স্তরবিন্যাস, প্রকৃতিবিদদের এই ধারণা প্রদান করে যে পৃথিবী তার অস্তিত্বের সময় থেকে অনেক পরিবর্তনের মধ্য দিয়ে গেছে। এই স্তরগুলিতে অজানা প্রাণীর জীবাশ্ম বিদ্যমান, যা স্তর থেকে স্তর থেকে জীবের অগ্রগতি ব্যাখ্যা করে থাকে।[১২][১৩]

সপ্তদশ শতকে নিকোলাস স্টেনো প্রথম প্রকৃতিবিদ ছিলেন যিনি জীবাশ্ম অবশিষ্টাংশ এবং পাললিক শিলার মধ্যে সম্পর্কের ধারণা প্রদান করেন। তার পর্যবেক্ষণসমূহ তাকে কিছু গুরুত্বপূর্ণ স্তরবিজ্ঞান তত্ত্ব (যেমন, "উপরিপাত নীতি" এবং "মূল আনুভূমিক নীতি") প্রণয়ন করে।[১৪] ১৭৯০-এর দশকে উইলিয়াম স্মিথ অনুমান করেন যদি বিভিন্ন স্থানে শিলার দুটি স্তরের অনুরূপ জীবাশ্ম পাওয়া যায়, তাহলে সম্ভাবনা রয়েছে যে দুটি স্তরের বয়স একই।[১৫] উইলিয়াম স্মিথের ভাতিজা এবং ছাত্র, জন ফিলিপস পরে এই ধরনের গড় নিয়ে গণনা করে বলেন পৃথিবীর বয়স প্রায় ৯.৬ কোটি বছর।[১৬]

অষ্টাদশ শতকের মাঝামাঝি সময়ে প্রকৃতিবিদ মিখাইল লমনোসভ বলেন যে পৃথিবী মহাবিশ্বে অন্য কিছুর থেকে আলাদা ভাবে এবং কয়েক'শ হাজার বছর পূর্বে গঠিত হয়েছে। লমনোসভের ধারণা ছিল মূলত কাল্পনাপ্রসূ। ১৭৭৯ সালে কমতে দ্যু বুফন একটি পরীক্ষামূলক পদ্ধতি গ্রহণ করে পৃথিবীর বয়স একটি মান অর্জন করার চেষ্টা করেন: তিনি একটি ছোট গ্লোব তৈরি করেন যা পৃথিবীর গঠনতন্ত্রের অনুরূপ এবং তারপর তার শীতলীকরণের হার পরিমাপ করেন। এই পরীক্ষার দ্বারা তিনি একটি সিদ্ধান্তে উপনীত হন যে পৃথিবীর বয়স প্রায় ৭৫,০০০ বছর।

আরও দেখুনসম্পাদনা

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "Age of the Earth" (ইংরেজি ভাষায়)। U.S. Geological Survey। ১৯৯৭। ২৩ ডিসেম্বর ২০০৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৪ অক্টোবর ২০১৭ 
  2. Dalrymple, G. Brent (২০০১)। "The age of the Earth in the twentieth century: a problem (mostly) solved"। Special Publications, Geological Society of London (ইংরেজি ভাষায়)। 190 (1): 205–221। doi:10.1144/GSL.SP.2001.190.01.14বিবকোড:2001GSLSP.190..205D 
  3. Manhesa, Gérard; Allègre, Claude J.; Dupréa, Bernard & Hamelin, Bruno (১৯৮০)। "Lead isotope study of basic-ultrabasic layered complexes: Speculations about the age of the earth and primitive mantle characteristics"। Earth and Planetary Science Letters (ইংরেজি ভাষায়)। 47 (3): 370–382। doi:10.1016/0012-821X(80)90024-2বিবকোড:1980E&PSL..47..370M 
  4. Braterman, Paul S. (২০১৩)। "How Science Figured Out the Age of Earth" (ইংরেজি ভাষায়)। Scientific American। 
  5. Hedman, Matthew (২০০৭)। "9: Meteorites and the Age of the Solar System"। The Age of Everything (ইংরেজি ভাষায়)। University of Chicago Press। পৃষ্ঠা 142–162। 
  6. Boltwood, B. B. (১৯০৭)। "On the ultimate disintegration products of the radio-active elements. Part II. The disintegration products of uranium"। American Journal of Science (ইংরেজি ভাষায়)। 23 (134): 77–88। doi:10.2475/ajs.s4-23.134.78 
    For the abstract, see: Chemical Abstracts Service, American Chemical Society (১৯০৭)। Chemical Abstracts (ইংরেজি ভাষায়)। New York, London: American Chemical Society। পৃষ্ঠা 817। সংগ্রহের তারিখ ৪ অক্টোবর ২০১৭ 
  7. Wilde, S. A.; Valley, J. W.; Peck, W. H.; Graham C. M. (২০০১-০১-১১)। "Evidence from detrital zircons for the existence of continental crust and oceans on the Earth 4.4 Gyr ago"। Nature (ইংরেজি ভাষায়)। 409 (6817): 175–178। doi:10.1038/35051550PMID 11196637 
  8. Valley, John W.; Peck, William H.; Kin, Elizabeth M. (১৯৯৯)। "Zircons Are Forever" (PDF)The Outcrop, Geology Alumni Newsletter (ইংরেজি ভাষায়)। University of Wisconsin-Madison। পৃষ্ঠা 34–35। সংগ্রহের তারিখ ৪ অক্টোবর ২০১৭ 
  9. Wyche, S.; Nelson, D. R.; Riganti, A. (২০০৪)। "4350–3130 Ma detrital zircons in the Southern Cross Granite–Greenstone Terrane, Western Australia: implications for the early evolution of the Yilgarn Craton"। Australian Journal of Earth Sciences51 (1): 31–45। doi:10.1046/j.1400-0952.2003.01042.xবিবকোড:2004AuJES..51...31W 
  10. Amelin, Y; Krot, An; Hutcheon, Id; Ulyanov, Aa (সেপ্টে ২০০২)। "Lead isotopic ages of chondrules and calcium-aluminum-rich inclusions"। Science (ইংরেজি ভাষায়)। 297 (5587): 1678–83। doi:10.1126/science.1073950PMID 12215641আইএসএসএন 0036-8075বিবকোড:2002Sci...297.1678A 
  11. Baker, J.; Bizzarro, M.; Wittig, N.; Connelly, J.; ও অন্যান্য (২০০৫-০৮-২৫)। "Early planetesimal melting from an age of 4.5662 Gyr for differentiated meteorites"। Nature436 (7054): 1127–1131। doi:10.1038/nature03882PMID 16121173বিবকোড:2005Natur.436.1127B 
  12. Lyell, Charles, Sir (১৮৬৬)। Elements of Geology; or, The Ancient Changes of the Earth and its Inhabitants as Illustrated by Geological Monuments (Sixth সংস্করণ)। New York: D. Appleton and company। সংগ্রহের তারিখ ৪ অক্টোবর ২০১৭ 
  13. Stiebing, William H. (১৯৯৪)। Uncovering the Past। Oxford University Press US। আইএসবিএন 0-19-508921-9 
  14. Brookfield, Michael E. (২০০৪)। Principles of Stratigraphy। Blackwell Publishing। পৃষ্ঠা 116। আইএসবিএন 1-4051-1164-X 
  15. Fuller, J. G. C. M. (২০০৭-০৭-১৭)। "Smith's other debt, John Strachey, William Smith and the strata of England 1719–1801"Geoscientist। The Geological Society। ২৪ নভেম্বর ২০০৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০০৮-১২-১৯ 
  16. Burchfield, Joe D. (১৯৯৮)। "The age of the Earth and the invention of geological time"। Geological Society, London, Special Publications143 (1): 137–143। doi:10.1144/GSL.SP.1998.143.01.12বিবকোড:1998GSLSP.143..137B 

আরও পড়ুনসম্পাদনা

  • Baadsgaard, H.; Lerbekmo, J.F.; Wijbrans, J.R., 1993. Multimethod radiometric age for a bentonite near the top of the Baculites reesidei Zone of southwestern Saskatchewan (Campanian-Maastrichtian stage boundary?). Canadian Journal of Earth Sciences, v.30, p. 769–775.
  • Baadsgaard, H. and Lerbekmo, J.F., 1988. A radiometric age for the Cretaceous-Tertiary boundary based on K-Ar, Rb-Sr, and U-Pb ages of bentonites from Alberta, Saskatchewan, and Montana. Canadian Journal of Earth Sciences, v.25, p. 1088–1097.
  • Eberth, D.A. and Braman, D., 1990. Stratigraphy, sedimentology, and vertebrate paleontology of the Judith River Formation (Campanian) near Muddy Lake, west-central Saskatchewan. Bulletin of Canadian Petroleum Geology, v.38, no.4, p. 387–406.
  • Goodwin, M.B. and Deino, A.L., 1989. The first radiometric ages from the Judith River Formation (Upper Cretaceous), Hill County, Montana. Canadian Journal of Earth Sciences, v.26, p. 1384–1391.
  • Gradstein, F. M.; Agterberg, F.P.; Ogg, J.G.; Hardenbol, J.; van Veen, P.; Thierry, J. and Zehui Huang., 1995. A Triassic, Jurassic and Cretaceous time scale. IN: Bergren, W. A. ; Kent, D.V.; Aubry, M-P. and Hardenbol, J. (eds.), Geochronology, Time Scales, and Global Stratigraphic Correlation. Society of Economic Paleontologists and Mineralogists, Special Publication No. 54, p. 95–126.
  • Harland, W.B., Cox, A.V.; Llewellyn, P.G.; Pickton, C.A.G.; Smith, A.G.; and Walters, R., 1982. A Geologic Time Scale: 1982 edition. Cambridge University Press: Cambridge, 131p.
  • Harland, W.B.; Armstrong, R.L.; Cox, A.V.; Craig, L.E.; Smith, A.G.; Smith, D.G., 1990. A Geologic Time Scale, 1989 edition. Cambridge University Press: Cambridge, p. 1–263. আইএসবিএন ০-৫২১-৩৮৭৬৫-৫
  • Harper, C.W., Jr., 1980. Relative age inference in paleontology. Lethaia, v. 13, p. 239–248.
  • Obradovich, J.D., 1993. A Cretaceous time scale. IN: Caldwell, W.G.E. and Kauffman, E.G. (eds.). Evolution of the Western Interior Basin. Geological Association of Canada, Special Paper 39, p. 379–396.
  • Palmer, Allison R. (compiler), 1983. The Decade of North American Geology 1983 Geologic Time Scale. Geology, v. 11, p. 503–504. September 12, 2004.
  • Powell, James Lawrence, 2001, Mysteries of Terra Firma: the Age and Evolution of the Earth, Simon & Schuster, আইএসবিএন ০-৬৮৪-৮৭২৮২-X

বহিঃসংযোগসম্পাদনা