পাকুরিয়া শরীফ কছিমিয়া সিনিয়র ফাযিল মাদরাসা

রংপুর বিভাগের রংপুর জেলার গংগাচড়া উপজেলার বড়বিল ইউনিয়নের একটি ফাযিল মাদ্রাসা।

পাকুরিয়া শরীফ কছিমিয়া সিনিয়র ফাযিল মাদরাসা রংপুর বিভাগের রংপুর জেলার গংগাচড়া উপজেলার বড়বিল ইউনিয়নের একটি ফাযিল মাদ্রাসা।[১][২]

পাকুরিয়া শরীফ কছিমিয়া সিনিয়র ফাযিল মাদরাসা, রংপুর
ধরনমাদ্রাসা
স্থাপিত১ জানুয়ারি ১৯৫৭; ৬৫ বছর আগে (1957-01-01)
প্রতিষ্ঠাতাআফজালুল হক পীর সাহেব
অধিভুক্তিইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়, বাংলাদেশ (২০০৬ – ২০১৬)
ইসলামি আরবি বিশ্ববিদ্যালয় (২০১৬ – বর্তমান)
অধ্যক্ষআব্দুল ওহাব
শিক্ষায়তনিক ব্যক্তিবর্গ
২৪ জন
শিক্ষার্থী৬০০
ঠিকানা
পাকুরিয়া শরীফ, গংগাচড়া উপজেলা
, ,
ইআইআইএন১২৭২৭৪
ক্রীড়াক্রিকেট, ফুটবল, ভলিবল, ইসলামি সংগীত
ওয়েবসাইটপ্রাতিষ্ঠানিক ওয়েবসাইট

ইতিহাসসম্পাদনা

মাদরাসাটি ১৯৫৭ সালে পীর আফজালুল হক তার পিতা পীর কছিম উদ্দিনের নামে পাকুরিয়া শরীফ গ্রামে প্রতিষ্ঠা করেন। মাদরাসায় প্রথম সুপারের দায়িত্ব পালন করেন মাওলানা সাইফুল ইসলাম। মাদরাসাটি ১৯৬০ সালে দাখিল এবং ১৯৬৩ সালে আলিম খোলার অনুমতি পায়। পরে মাদরাসায় ফাযিল খোলা হয়। এ মাদরাসার লাইব্রেরীতে অনেক দুস্প্রাপ্য গ্রন্থ আছে। এ মাদরাসার অধ্যক্ষ মাওলানা নজিরুল্লাহ একজন আল্লাহর অলি ছিলেন।[৩]


জমির পরিমাণসম্পাদনা

মাদরাসাটি ২.০৭ একর জমির উপর স্থাপিত। মাদরাসার ১০.৩৩ একর জমি বাইরে আবাদি হিসাবে আছে।[৪]

ভবনের বিবরণসম্পাদনা

মাদরাসাটিতে ৩টি ভবন আছে-

  1. প্রশাসনিক ভবন-১টি।
  2. একাডেমিক ভবন-২টি।

অন্যান্যসম্পাদনা

  1. বিজ্ঞানাগার-১টি
  2. কম্পিউটার ল্যাব-১টি
  3. পাঠাগার- ১টি

পোশাকসম্পাদনা

ছাত্রের জন্য সাদা পায়জামা, পাঞ্জাবি, টুপি ও জুতা এবং মেয়েদের কালো বোরখা ও সাদা ওড়না। আইডি কার্ড সঙ্গে থাকা বাধ্যতামূলক।

সাংস্কৃতিক কর্মকান্ডসম্পাদনা

মাদাসার অনেক ছাত্র-ছাত্রী জাতীয় পর্যায়ে রচনা, ইসলামি সংগিত, কেরাত ও খেলাধুলা প্রতিযোগিতায় অংশ গ্রহণ করে বিজয়ী হয়েছে।

ফলাফলসম্পাদনা

প্রতিবছর মাদরাসাটি বোর্ড ও বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষায় কৃতিত্বের স্বাক্ষর রাখে।২০২০ সালে জেডেসিতে ১০০%, দাখিলে ৯৬% এবং আলিমে ১০০% পাশ করে।


তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "PAKURIA SHARIF SE. FAZIL MADRASAH"127274.ebmeb.gov.bd। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৬-২৪ 
  2. "গংগাচড়া উপজেলা" |ইউআরএল= এর মান পরীক্ষা করুন (সাহায্য)http (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৬-২৪ [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  3. আলম (২০১৩)। গংগাচড়া উপজেলার ইতিহাস ও ঐতিহ্য। রংপুর: লেখক সংসদ। পৃষ্ঠা ১১৪। আইএসবিএন 9789848923450 
  4. "PAKURIA SHARIF SE. FAZIL MADRASAH"127274.ebmeb.gov.bd। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৬-২৪