পরশুরাম (সংস্কৃত: परशुराम) বিষ্ণুর ষষ্ঠ অবতার। নামরে আক্ষরিক অর্থ কুঠার হস্তে রাম। তিনি ত্রেতা যুগে এবং দ্বাপর যুগে বর্তমান ছিলেন। পরশুরামের পিতা জমদগ্নি ব্রাহ্মণ হলেও, মা রেণুকা ছিলেন ক্ষত্রিয়[১] কঠোর তপস্যা করে তিনি শিবের নিকট হতে পরশু লাভ করেন এবং যুদ্ধবিদ্যা শেখেন। কথিত আছে, তিনি সমুদ্রের আগ্রাসন থেকে কোঙ্কণমালাবার অঞ্চলকে রক্ষা করেছিলেন। এই কারণে কেরল ও কোঙ্কণ উপকূলীয় অঞ্চলকে পরশুরাম ক্ষেত্র বলা হয়। পরশুরাম ছিলেন ব্রহ্মক্ষত্রিয়। তিনিই ছিলেন প্রথম যোদ্ধা ঋষি। তার মা অযোধ্যার সূর্যবংশের সন্তান ছিলেন। উল্লেখ্য, এই বংশেই রামচন্দ্রের জন্ম হয়। পরশুরাম ছিলেন শিবের উপাসক। বর্তমান বাংলাদেশ বগুড়া জেলার শিবগঞ্জ উপজেলায় অবস্থিত মহাস্থানগড়, ভগবান শ্রী পরশুরামের রাজ্যে ছিল ।

পরশুরাম
দেবনাগরীपरशुराम

আরও দেখুনসম্পাদনা

  1. https://books.google.com.bd/books?id=Z7LKAgAAQBAJ&pg=PA63&redir_esc=y