নুরি আল-মালিকি

নুরি কামিল মোহাম্মদ হাসান আল-মালিকি (আরবি: نوري كامل محمد حسن المالكي‎‎; জন্ম ২০ জুন ১৯৫০), জাওয়াদ আল-মালিকি নামেও পরিচিত (جواد المالكي) অথবা আবু ইসরা (أبو إسراء), হলেন একজন ইরাকি রাজনীতিবিদ, যিনি ২০০৬ থেকে ২০১৪ সাল পর্যন্ত ইরাকের প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেন। এছাড়াও তিনি ২০১৬ থেকে ২০১৮ পর্যন্ত ইরাকের ভাইস প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। বর্তমানে তিনি ইসলামিক দাওয়া পার্টির সেক্রেটারি জেনারেল।

নুরি আল-মালিকি
نوري كامل المالكي
Portrait of Nouri al-Maliki.jpg
ইরাকের ভাইস প্রেসিডেন্ট
কাজের মেয়াদ
১০ অক্টোবর ২০১৬[১] – ২ অক্টোবর ২০১৮
Serving with ওসামা আল-নুজাইফিআয়াদ আলাওয়ি
রাষ্ট্রপতিফুয়াদ মাসুম
পূর্বসূরীনিজেই
উত্তরসূরীশূন্য
কাজের মেয়াদ
৮ সেপ্টেম্বর ২০১৪ – ১১ আগস্ট ২০১৫[২]
Serving with ওসামা আল-নুজাইফিআয়াদ আলাওয়ি
রাষ্ট্রপতিফুয়াদ মাসুম
পূর্বসূরীখোদায়ের আল-খোজায়ি
উত্তরসূরীনিজেই
৪৭তম ইরাকের প্রধানমন্ত্রী
কাজের মেয়াদ
২০ মে ২০০৬ – ৮ সেপ্টেম্বর ২০১৪
রাষ্ট্রপতিজালাল তালাবানি
ফুয়াদ মাসুম
ডেপুটি
পূর্বসূরীইবরাহীম আল-জাফরি
উত্তরসূরীহায়দার আল-আবেদি
স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়
কাজের মেয়াদ
২১ ডিসেম্বর ২০১০ – ৮ সেপ্টেম্বর ২০১৪
পূর্বসূরীজাওয়া আল-বুলানি
উত্তরসূরীমোহাম্মদ আল-গাব্বান
কাজের মেয়াদ
২০ মে ২০০৬ – ৮ জুন ২০০৬
পূর্বসূরীবাকির জাবের আল-জুবেইদি
উত্তরসূরীজাওয়াদ আল-বুলানি
প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়
কাজের মেয়াদ
২১ ডিসেম্বর ২০১০ – ১৭ আগস্ট ২০১১
পূর্বসূরীকাদির ওবেইদি
উত্তরসূরীসাদুন আল-দুলাইমি
ইসলামিক দাওয়া পার্টির নেতা
দায়িত্বাধীন
অধিকৃত কার্যালয়
১ মে ২০০৭
পূর্বসূরীইবরাহীম আল-জাফরি
ব্যক্তিগত বিবরণ
জন্মনুরি কামিল মোহাম্মদ হাসান আল-মালিকি
(1950-06-20) ২০ জুন ১৯৫০ (বয়স ৭০)
হিন্দিয়া, ইরাক
রাজনৈতিক দলইসলামিক দাওয়া
অন্যান্য
রাজনৈতিক দল
স্ট্যাট অব ল কোয়ালিশন
দাম্পত্য সঙ্গীফালিহা খলিল
সন্তান
প্রাক্তন শিক্ষার্থীউসুল আল-দীন কলেজ
ইউনিভার্সিটি অব সালাহদ্দীন
ধর্মশিয়া ইসলাম

আল-মালিকি ১৯৭০ এর দশকের শেষের দিকে শিয়া বিরোধী হিসাবে সাদ্দাম হুসেন এর শাসনামলে তার রাজনৈতিক জীবন শুরু করেছিলেন এবং ২৪ বছর নির্বাসনে গিয়ে মৃত্যুদণ্ডে পালিয়ে যাওয়ার পরে তিনি খ্যাতি অর্জন করেছিলেন। বিদেশে থাকাকালীন তিনি ইসলামিক দাওয়া পার্টি এর সিনিয়র নেতা হয়েছিলেন, সাদ্দাম বিরোধী গেরিলাদের তৎপরতার সমন্বয় সাধন করেছিলেন এবং ইরানী ও সিরিয়ার কর্মকর্তাদের সাথে সম্পর্ক গড়ে তোলেন যার সাহায্যে তিনি সাদ্দামকে ক্ষমতাচ্যুত করার জন্য সাহায্য চেয়েছিলেন। ২০১১ সালের শেষের দিকে আল-মালিকি ইরাকের মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও জোট বাহিনীর সাথে নিবিড়ভাবে কাজ করেছিলেন।

১৪ ই আগস্ট ২০১৪-এ তিনি ইরাকের প্রধানমন্ত্রী পদ থেকে পদত্যাগের ঘোষণা করেন।[৩] ২০১৪ সালের সেপ্টেম্বরে আল-মালিকি ইরাকের তিন জন ভাইস প্রেসিডেন্ট এর মধ্যে একজন নির্বাচিত হয়েছিলেন, এই পদটি বিলুপ্ত করার চেষ্টা সত্ত্বেও তিনি এখনও একটি পদে রয়েছেন।[৪]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "Iraqi court nullifies Abadi's earlier decision to sack 3 vice president posts"। Xinhua। ১১ অক্টোবর ২০১৬। 
  2. Aldosary, Salman (১ সেপ্টেম্বর ২০১৫)। "Iraq: Maliki, Nujaifi say PM's decision to cancel vice president posts "unconstitutional""। Asharq al-Awsat। ২২ ডিসেম্বর ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৪ ডিসেম্বর ২০১৫ 
  3. Al Jazeera English (১৪ আগস্ট ২০১৪)। "Maliki steps down as Iraqi prime minister"Al Jazeera English। সংগ্রহের তারিখ ১৪ আগস্ট ২০১৪ 
  4. Asharq al-Awsat (১ সেপ্টেম্বর ২০১৫)। "Iraq: Maliki, Nujaifi say PM's decision to cancel vice president posts "unconstitutional""Asharq al-Awsat। ২২ ডিসেম্বর ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১১ ডিসেম্বর ২০১৫