প্রধান মেনু খুলুন

নতুনের গান

বাংলাদেশের রণসংগীত, কাজী নজরুল ইসলাম রচিত গান

নতুনের গান বাংলাদেশের জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম কর্তৃক ১৯২৯ খ্রিস্টাব্দে রচিত এবং সুরারোপিত সন্ধ্যা কাব্যগ্রন্থের অন্তর্গত একটি গান। দাদরা তালের এই সঙ্গীতটি ১৯৭২ সালের ১৩ই জানুয়ারি অনুষ্ঠিত বাংলাদেশের তৎকালীন মন্ত্রীসভার প্রথম বৈঠকে বাংলাদেশের রণ-সঙ্গীত হিসেবে নির্বাচন করা হয়।[১] বাংলাদেশের যে কোনো সামরিক অনুষ্ঠানে এই গানটির ২১ লাইন যন্ত্রসঙ্গীতে বাজানো হয়।[২][৩] গানটি ২০০৬ সালে বিবিসি বাংলার করা জরিপে সর্বকালের শ্রেষ্ঠ বিশটি বাংলা গানের ১৮তম স্থান অধিকার করে।[৪]

নতুনের গান
Nazrul.jpg
কাজী নজরুল ইসলাম, নতুনের গান গানের রচয়িতা ও সুরকার

 বাংলাদেশ-এর রণ সঙ্গীত
কথাকাজী নজরুল ইসলাম, ১৯২৯
সুরকাজী নজরুল ইসলাম, ১৯২৯
গ্রহণের তারিখ১৩ই জানুয়ারি ১৯৭২
সঙ্গীতের নমুনা

পরিচ্ছেদসমূহ

ইতিহাসসম্পাদনা

১৯২৮ সালের ফেব্রুয়ারি মাসের প্রথম সপ্তাহে নজরুল মুসলিম সাহিত্য সমাজের ২য় বার্ষিক সম্মেলনের উদ্দেশ্যে ঢাকায় আসেন। ঢাকায় সৈয়দ আবুল হোসেনের বাসভবনে অবস্থানকালে তিনি এই গানটি রচনা করেন। গানটি "নতুনের গান" শিরোনামে প্রথম প্রকাশিত হয় শিখা পত্রিকায়। পরে এটি সন্ধ্যা কাব্যগ্রন্থের অন্তর্ভুক্ত হয়।[৫]

গানের কথাসম্পাদনা

নতুনের গান

চল চল চল!
ঊর্দ্ধ গগনে বাজে মাদল
নিম্নে উতলা ধরণি তল,
অরুণ প্রাতের তরুণ দল
চল রে চল রে চল
চল চল চল।।

ঊষার দুয়ারে হানি' আঘাত
আমরা আনিব রাঙা প্রভাত,
আমরা টুটাব তিমির রাত,
বাধার বিন্ধ্যাচল।

নব নবীনের গাহিয়া গান
সজীব করিব মহাশ্মশান,ক[›]
আমরা দানিব নতুন প্রাণ
বাহুতে নবীন বল!
চল রে নও-জোয়ান,
শোন রে পাতিয়া কান
মৃত্যু-তরণ-দুয়ারে দুয়ারে
জীবনের আহবান।
ভাঙ রে ভাঙ আগল,
চল রে চল রে চল
চল চল চল।।


কোরাসঃ
ঊর্ধ্ব আদেশ হানিছে বাজ,
শহীদী-ঈদের সেনারা সাজ,
দিকে দিকে চলে কুচ-কাওয়াজ—
খোল রে নিদ-মহল!

কবে সে খেয়ালী বাদশাহী,
সেই সে অতীতে আজো চাহি'
যাস মুসাফির গান গাহি'
ফেলিস অশ্রুজল।

যাক রে তখত-তাউস
জাগ রে জাগ বেহুঁশ।
ডুবিল রে দেখ কত পারস্য
কত রোম গ্রিক রুশ,
জাগিল তা'রা সকল,
জেগে ওঠ হীনবল!
আমরা গড়িব নতুন করিয়া
ধুলায় তাজমহল!
চল্‌ চল্‌ চল্।।

পাদটীকাসম্পাদনা

^ ক: পাকিস্তান আমলে (১৯৪৭-১৯৭১) এই কবিতাটি স্কুলে পড়ানো হতো, তখন স্কুলপাঠ্য সরকারি বইতে "মহাশ্মশান"-এর পরিবর্তে "গোরস্থান" শব্দটি প্রতিস্থাপন করা হয়েছিল।

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. প্রধানমন্ত্রীর কার্য্যালয়ের বিবরণী
  2. "knowledge bank"। ৪ মার্চ ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২২ জানুয়ারি ২০১৩ 
  3. সংক্ষেপে বাংলাদেশ
  4. "সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাংলা গান"বিবিসি বাংলা। সংগ্রহের তারিখ ১১ সেপ্টেম্বর ২০১৭ 
  5. বাংলাহিলি[স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]

আরো দেখুনসম্পাদনা