প্রধান মেনু খুলুন

দিলি (পর্তুগিজ / তেতুম: দিলি, ইন্দোনেশিয়ান: কোটা দিলি), "শান্তির শহর" নামেও পরিচিত,[২] এটি পূর্ব তিমুর এর রাজধানী। একই সাথে পূর্ব তিমুরের বৃহত্তম শহর, প্রধান বন্দর এবং (তিমো-লেস্ট) এর বাণিজ্যিক কেন্দ্র। দিলি, তিমোর লেস্ট – ইন্দোনেশিয়া – অস্ট্রেলিয়া গ্রোথ ট্রায়াঙ্গল (টিআইএ-জিটি) মুক্ত বাণিজ্য অঞ্চলের একটি অংশ,। [৩]

দিলি
Díli
শহর
দিলিতে অবস্থিত ফতুহাদার সুকো। বাম কোনে পূর্ব তিমুরের বৈদেশিক যোগাযোগ মন্ত্রনালয়ের এর কিছু অংশ দেখা যাচ্ছে।
দিলিতে অবস্থিত ফতুহাদার সুকো। বাম কোনে পূর্ব তিমুরের বৈদেশিক যোগাযোগ মন্ত্রনালয়ের এর কিছু অংশ দেখা যাচ্ছে।
স্থানাঙ্ক: ৮°৩৪′ দক্ষিণ ১২৫°৩৪′ পূর্ব / ৮.৫৬৭° দক্ষিণ ১২৫.৫৬৭° পূর্ব / -8.567; 125.567স্থানাঙ্ক: ৮°৩৪′ দক্ষিণ ১২৫°৩৪′ পূর্ব / ৮.৫৬৭° দক্ষিণ ১২৫.৫৬৭° পূর্ব / -8.567; 125.567
দেশ East Timor
জেলা Dili
প্রতিষ্ঠা১৫২০
সরকার
 • জেলা প্রশাসকJaime Correia (2012)[১]
আয়তন
 • শহর৪৮.২৭ কিমি (১৮.৬৪ বর্গমাইল)
উচ্চতা১১ মিটার (৩৬ ফুট)
জনসংখ্যা (২০১৫)
 • শহর২,২২,৩২৩
 • জনঘনত্ব৪৬০০/কিমি (১২০০০/বর্গমাইল)
 • মহানগর২,৩৪,৩৩১
সময় অঞ্চলপূতিস (ইউটিসি+০৯:০০)
ClimateAw

ইতিহাসসম্পাদনা

 
দিলির আগেকার প্রতীক(কোট অব আর্মস)
 
দিলি, ২০১৮
 
পর্তুগিজদের নির্মিত প্রাক্তন মার্কেট হল

পর্তুগিজরা আনুমানিক ১৫২০ সালে দিলি প্রতিষ্ঠা করে, তারা এই শহরটিকে ১৭৬৯ সালে পর্তুগিজ তিমুরের রাজধানী করে। পরবর্তীতে ১৮৬৪ সালে এটিকে একটি শহর হিসেবে ঘোষণা করে। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময়, পর্তুগাল এবং এর উপনিবেশগুলি নিষ্ক্রিয় ছিল, তবে মিত্ররা পূর্ব তিমুরকে জাপানি আক্রমণের একটি সম্ভাব্য লক্ষ্য হিসাবে আশংকা করে এবং অনতিবিলম্বে অস্ট্রেলিয়ান ও ডাচ বাহিনী ১৯৪১ সালে এই দ্বীপটি দখল করে নেয়। ১৯৪২ সালের ১৯ ফেব্রুয়ারি রাতে, জাপানিরা প্রায় ২০,০০০ সৈন্যের একটি বাহিনী নিয়ে আক্রমণ করে এবং উপনিবেশের উপনিবেশগুলিতে ছড়িয়ে পড়ার আগেই দিলি দখল করে নেয়।

১৯৪৫ সালের ২৬ সেপ্টেম্বর, জাপানিরা আনুষ্ঠানিকভাবে দ্বীপটির নিয়ন্ত্রণ পর্তুগালকে ফিরিয়ে দেয়।

পূর্ব তিমুর একতরফাভাবে ১৯৭৫ সালের ২৮ নভেম্বর পর্তুগাল থেকে স্বাধীন হিসেবে ঘোষিত হয় । তবে এর নয় দিন পরে ৭ ডিসেম্বর ইন্দোনেশিয়ান বাহিনী দিলি আক্রমণ করে । ১৭ জুলাই ১৯৭৬,ইন্দোনেশিয়া পূর্ব তিমুর কে ইন্দোনেশিয়ার অন্তর্ভুক্ত করে এবং একে ২৭ তম প্রদেশ তিমুর হিসেবে ঘোষণা করে। ইন্দোনেশীয় তিমুর কে দিলির রাজধানী করে। ১৯৭৫ থেকে ১৯৯৯ সাল পর্যন্ত ইন্দোনেশিয়ান ও স্বাধীনতাপন্থী বাহিনীর মধ্যে একটি গেরিলা যুদ্ধ হয়, এই যুদ্ধে ১০ হাজার পূর্ব তিমুরবাসী এবং কিছু বিদেশী বেসামরিক মানুষ মারা যায়। ১৯৯১ সালে দিলি গনহত্যা মিডিয়া কভারেজ পেলে আন্তর্জাতিক সমর্থন পুনরুজ্জীবিত হয় এবং পূর্ব তিমুরবাসীর স্বাধীনতা আন্দোলনে সহায়তা করে।

১৯৯৯ সালে পূর্ব তিমুরকে জাতিসংঘের তত্ত্বাবধানে নেয়া হয় এবং ২০ শে মে ২০০২-এ দিলি সদ্য স্বাধীন গণতান্ত্রিক প্রজাতন্ত্রের তিমুর-লেস্ট এর রাজধানী হয়। ২০০৬ সালের মে মাসে, সামরিক শক্তিগুলোর মধ্যে দ্বন্দ্বের কারণে লড়াই ও দাঙ্গা ছড়িয়ে পড়ে এবং শহরটির উল্লেখযোগ্য ক্ষতি হয়। শহরটিতে শান্তি শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনতে বিদেশী সামরিক হস্তক্ষেপের প্রয়োজন পড়ে।

ভূগোল ও প্রশাসনসম্পাদনা

 
দিলি জেলা প্রশাসন

দিলি লেসর সুন্দা দ্বীপপুঞ্জের পূর্বতম তিমোর দ্বীপের উত্তর উপকূলে অবস্থিত। এটি দিলি পৌরসভা প্রশাসনের কেন্দ্র যা এই অঞ্চলের প্রশাসনিক সত্তা। এতে আতাউরো দ্বীপ এবং দিলি শহরের নিকটবর্তী বেশ কিছু শহরও অন্তর্ভুক্ত রয়েছে। শহরটিকে নাইন ফেটো, ভেরা ক্রুজ, ডম এলেক্সো এবং ক্রিস্টো রে প্রশাসনিক থানা তে (পূর্বে উপ- জেলাগুলিতে ) এবং কয়েকটি সুকোতে বিভক্ত করা হয়, যার প্রত্যেকটির নেতৃত্বে রয়েছে এক একজন নির্বাচিত শেফে দ্য সুকো । ৪টি থানার ২৬ টির মধ্যে ১৮ টি সুকো শহর হিসেবে তালিকাভুক্ত করা হয়। [৪]

পৌরসভায় একজন নির্বাচিত মেয়র ও কাউন্সিল রয়েছে। [৫]

জনসংখ্যাসম্পাদনা

২০১০ সালের আদমশুমারি থেকে জানা যায়, দিলির বিভিন্ন শহরে মোট জনসংখ্যা ১৯৩,৫৬৩ জন। আতাউরো এবং মেটিনারোর মতো গ্রামীণ অঞ্চল সহ পুরো জেলার জনসংখ্যা ২৩৪,৩৩১।

কাজের সন্ধানে দেশজুড়ে যুবকদের দিলিতে অভ্যন্তরীণ অভিবাসনের কারনে দিলি বিভিন্ন জাতিগোষ্ঠীর এক মিশ্রনে পরিনণত হয়েছে। এটি আরেকটি প্রকট সমস্যার (লিঙ্গ ভারসাম্যহীনতা)জন্ম দিয়েছে। দিলিতে পুরুষের সংখ্যা নারীদের চেয়ে বেশি। ২০০১ থেকে ২০০৪ সালের মধ্যে, দিলি জেলার জনসংখ্যা ১২.৫৮% হারে বৃদ্ধি পায়, যার মধ্যে শুধু মাত্র ৫৪% বসবাসকারী শহরে জন্মগ্রহণ করে। বাউকেতে জন্মগ্রহণ করে শতকরা ৭%,বোবোনারো এবং ভিকিউকিতে  জন্মগ্রহণ করে শতকরা ৫%, এরমেরার জন্মগ্রহণ করে শতকরা ৪% এবং বাকি মানুষ অন্যান্য জেলা ও বিদেশে জন্মগ্রহণ করে।[৬]

জলবায়ুসম্পাদনা

কোপেন জলবায়ু শ্রেণিবিন্যাস অনুযায়ী দিলি ক্রান্তীয় আর্দ্র এবং শুষ্ক জলবায়ুর শহর।

Dili (1914–1963)-এর আবহাওয়া সংক্রান্ত তথ্য
মাস জানু ফেব্রু মার্চ এপ্রিল মে জুন জুলাই আগস্ট সেপ্টে অক্টো নভে ডিসে বছর
সর্বোচ্চ °সে (°ফা) রেকর্ড ৩৬٫০
(৯৭)
৩৫٫৫
(৯৬)
৩৬٫৬
(৯৮)
৩৬٫০
(৯৭)
৩৫٫৭
(৯৬)
৩৬٫৫
(৯৮)
৩৪٫১
(৯৩)
৩৫٫০
(৯৫)
৩৪٫০
(৯৩)
৩৪٫৫
(৯৪)
৩৬٫০
(৯৭)
৩৫٫৫
(৯৬)
৩৬٫৬
(৯৮)
সর্বোচ্চ °সে (°ফা) গড় ৩১٫৩
(৮৮)
৩১٫১
(৮৮)
৩১٫২
(৮৮)
৩১٫৫
(৮৯)
৩১٫৩
(৮৮)
৩০٫৭
(৮৭)
৩০٫২
(৮৬)
৩০٫১
(৮৬)
৩০٫৩
(৮৭)
৩০٫৫
(৮৭)
৩১٫৪
(৮৯)
৩১٫১
(৮৮)
৩০٫৮৯
(৮৭٫৬)
দৈনিক গড় °সে (°ফা) ২৭٫৭
(৮২)
২৭٫৬
(৮২)
২৭٫৪
(৮১)
২৭٫৪
(৮১)
২৭٫০
(৮১)
২৬٫৮
(৮০)
২৫٫৫
(৭৮)
২৫٫১
(৭৭)
২৫٫৪
(৭৮)
২৬٫০
(৭৯)
২৭٫২
(৮১)
২৭٫৪
(৮১)
২৬٫৭১
(৮০٫১)
সর্বনিম্ন °সে (°ফা) গড় ২৪٫১
(৭৫)
২৪٫১
(৭৫)
২৩٫৫
(৭৪)
২৩٫৫
(৭৪)
২২٫৮
(৭৩)
২১٫৯
(৭১)
২০٫৮
(৬৯)
২০٫১
(৬৮)
২০٫৫
(৬৯)
২১٫৫
(৭১)
২৩٫০
(৭৩)
২৩٫৬
(৭৪)
২২٫৪৫
(৭২٫২)
সর্বনিম্ন °সে (°ফা) রেকর্ড ১৯٫০
(৬৬)
১৬٫২
(৬১)
১৬٫৫
(৬২)
১৮٫২
(৬৫)
১৩٫২
(৫৬)
১৪٫৫
(৫৮)
১২٫৪
(৫৪)
১১٫৮
(৫৩)
১৩٫৪
(৫৬)
১৬٫১
(৬১)
১৮٫০
(৬৪)
১৬٫৭
(৬২)
১১٫৮
(৫৩)
গড় অধঃক্ষেপণ মিমি (ইঞ্চি) ১৩৯٫৫
(৫٫৪৯)
১৩৮٫৭
(৫٫৪৬)
১৩২٫৭
(৫٫২২)
১০৪٫৩
(৪٫১১)
৭৪٫৯
(২٫৯৫)
৫৮٫৪
(২٫৩)
২০٫১
(০٫৭৯)
১২٫১
(০٫৪৮)
৯٫০
(০٫৩৫)
১২٫৮
(০٫৫)
৬১٫৪
(২٫৪২)
১৪৪٫৯
(৫٫৭)
৯০৮٫৮
(৩৫٫৭৭)
অধঃক্ষেপণ দিনের গড় (≥ ১.০ mm) ১৩ ১৩ ১১ ১১ ৮০
গড় আর্দ্রতা (%) ৮০ ৮২ ৮০ ৭৭ ৭৫ ৭২ ৭১ ৭০ ৭১ ৭২ ৭৩ ৭৭ ৭৫
মাসিক গড় সূর্যালোকের ঘণ্টা ১৮৯٫১ ১৬১٫০ ২৩৫٫৬ ২৩৪٫০ ২৬৬٫৬ ২৪৬٫০ ২৭২٫৮ ২৯১٫৪ ২৮৮٫০ ২৯৭٫৬ ২৭০٫০ ২২০٫১ ২,৯৭২٫২
দৈনিক গড় সূর্যালোকের ঘণ্টা ৬٫১ ৫٫৭ ৭٫৬ ৭٫৮ ৮٫৬ ৮٫২ ৮٫৮ ৯٫৪ ৯٫৬ ৯٫৬ ৯٫০ ৭٫১ ৮٫১২
উৎস: Deutscher Wetterdienst[৭]

ভবন এবং কীর্তিস্তম্ভসম্পাদনা

 
দিলি সিটি হল
 
দিলির প্রধান গির্জা
 
তিমুরের প্রধানমন্ত্রীর সরকারী অফিস)

১৯৯৯ তে, ইন্দোনেশিয়ান সামরিক এবং স্থানীয় ইন্দোনেশিয়া সমর্থক মিলিশিয়াদের সহিংসতায় দিলির বেশিরভাগ ভবন ক্ষতিগ্রস্ত বা ধ্বংসপ্রাপ্ত হয়ে যায় (অপারেশন স্কর্চড আর্থ)।[৮] তবে এই শহরটিতে এখনও পর্তুগিজ যুগের অনেকগুলি ভবন রয়েছে।উদাহরণস্বরূপ, ১৯৩০ এর দিকে নির্মিত প্রাক্তন মার্কেট হল যা এখন কংগ্রেস সেন্টার হিসাবে ব্যবহৃত হয়। প্রাক্তন পর্তুগিজ গভর্নরের কার্যালয় এখন প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়। এটি পূর্বে ইন্দোনেশিয়ান-নিযুক্ত গভর্নর এবং পূর্ব তিমুর (ইউ এন টি এ ই টি) এর জাতিসংঘের ট্রানজিশনাল প্রশাসন দ্বারাও ব্যবহৃত হতো।

 
পুরা গিরিনাথ হিন্দু মন্দির, নির্মাণ কালঃ ইন্দোনেশিয়ান আয়ত্তে থাকাকালীন.

এমনকি ইন্দোনেশিয়ান শাসনে পর্তুগিজ নিষিদ্ধ হওয়া সত্ত্বেও, আভিনিদা, মেরেচাল, কারমোনার মতো পর্তুগিজ রাস্তার নামগুলি অপরিবর্তিত থেকে যায়, যদিও পরে সেগুলির নামের শুরুতে ইন্দোনেশিয়ান শব্দ জালান বা 'রাস্তা' যোগ করে দেয়া হয়। ইন্দোনেশিয়ান শব্দ Jalan বা 'রাস্তা'। মোটায়েলের রোমান ক্যাথলিক চার্চ ইন্দোনেশিয়ান দখল প্রতিরোধের কেন্দ্রবিন্দুতে পরিণত হয়। জাকার্তার দখলে ছিল চার্চ অব দ্য ইম্যামাকুলেট কনসেপ্ট, ডোলির রোমান ক্যাথলিক ডায়োসিসের আসন, দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার বৃহত্তম গির্জা,এবং 'ইন্টিগ্রেশন মনুমেন্ট' যা ১৯৭৬ সালে এই অঞ্চলটির ইন্দোনেশীয়ার সাথে যুক্ত হওয়ার একটি স্মৃতি। স্মৃতিস্তম্ভটি পূর্ব তিমোরের ঐতিহ্যবাহী পোশাক পরহিত একটি মূর্তি যার কব্জির শেকল ভাঙা, স্মৃতিস্তম্ভটি এখনও চূর্ণ করা হয়নি।

ক্রিস্টো রে হল ২ মিটার (৮৮.৬ফুট) উঁচু যীশুর একটি মূর্তি যা একটি ভূগোলকের উপর দাঁড়িয়ে আছে। ক্রিস্টো রে, দিলির পেনিন্সুলা উপদ্বীপের শেষে অবস্থিত। এটি শহরের অন্যতম প্রধান একটি আকর্ষণ। ক্রিস্টো রে ছিল পূর্ব তিমুরের জন্য ইন্দোনেশিয়ার একীকরনের ২০তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে ইন্দোনেশিয়ান সরকারের উপহার।

.

শিক্ষাসম্পাদনা

দিলির স্কুলগুলির মধ্যে "সেন্ট জোসেফ হাই স্কুল" (Colégio de São José)অন্যতম। দিলিতে পাঁচটি আন্তর্জাতিক বিদ্যালয় রয়েছে। তিমুরের মালিকানাধীন এবং পরিচালিত "সেন্ট অ্যান্টনি ইন্টারন্যাশনাল স্কুল", যা ইংরেজি মাধ্যমে পড়ায় এবং পরিবর্তিত অস্ট্রেলিয়ান পাঠ্যক্রম অনুসরন করে, "এসকোলা পর্তুগুয়েসা রুই সিনাট্টির" নামে একটি পর্তুগিজ স্কুল, "দিলি ইন্টারন্যাশনাল স্কুল" নামে একটি অস্ট্রেলিয়ান পরিচালিত স্কুল, "কিউএসআই ইন্টারন্যাশনাল স্কুল অফ দিলি" নামে পরিচিত একটি আমেরিকান পাঠ্যক্রম স্কুল, এবং "মহার্লিকা আন্তর্জাতিক স্কুল" (পূর্বে ডিলি শিক্ষা ও উন্নয়ন কেন্দ্র), এবং একটি ফিলিপাইন আন্তর্জাতিক স্কুল। দিলি ভিত্তিক "ইউনিভারসিডাইডে ন্যাশনাল দ্য তিমোর লেস্টে" (ইউএনটিএল) হল পূর্ব তিমুরের প্রধান উচ্চতর শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। দিলিতে অবস্থিত অন্যান্য বিশ্ববিদ্যালয়গুলির মধ্যে রয়েছে বেসরকারী স্নাতক বিশ্ববিদ্যালয়, "ইউনিভার্সিডেড দা পাজ" (ইউএনপিএজেড), "ইউনিভার্সিডেড দিলি "(ইউএনডিআইএল) এবং একটি কমিউনিটি ভিত্তিক ও অলাভজনক শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান "দিলি ইনস্টিটিউট অফ টেকনোলজি" (ডিআইটি) ।

পরিবহনসম্পাদনা

 
দিলি এর ক্রিস্ট রেই,পেনিন্‌সুলা উপদ্বীপের বাইরে

রাষ্ট্রপতি নিকোলাউ লোবাটো আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর স্বাধীনতা সংগ্রাম নেতা রাষ্ট্রপতি নিকোলাউ লোবাটো আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর নিকোলাউ লোবাটোর নামানুসারে দিলি বিমান বন্দরটির নামকরণ করা হয়[৯] এটি দিলির একমাত্র কার্যকরী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর, যদিও পূর্ব তিমুরের বাউকাউ, সুয়েই অকুয়েজ এ কিছু বিমান ঘাঁটি আছে যেগুলো দেশের ভেতরে বিমান সেবায় ব্যবহার হয়। কিছুদিন আগ পর্যন্তও, দিলি এর এয়ারপোর্ট রানওয়ে বোয়িং 737 বা সি-130 হারকিউলিস এর চেয়ে বড় বিমানের জন্য অনুপুযক্ত ছিল। কিন্তু জানুয়ারী ২০০৮ সালে, পর্তুগিজ চার্টার এয়ারলাইন ইউরোআটলান্টিক এয়ারওয়েজের মাধ্যমে লিসবন থেকে গারদা নাশিওনাল রিপাব্লিকানার বিমান ১৪০ জন সদস্য সহ একটি সরাসরি বিমান ভ্রমণ পরিচালনা করে [১০]

পর্তুগিজ শাসনের অধীনে, দীর্ঘ রানওয়ে বিশিষ্ট বাউকাউ বিমানবন্দরটি আন্তর্জাতিক বিমান যাত্রার কাজে ব্যবহৃত হত, তবে ইন্দোনেশীয় আগ্রাসনের পরে এটি ইন্দোনেশিয়ান সামরিক বাহিনী দখল করে নেয় এবং বেসামরিক যান চলাচল বন্ধ করে দেয়।

টুইন টাউন(বোন শহর)সম্পাদনা

দিলির বেশ কিছু শহরের সাথে চুক্তিবদ্ধ। নিচে শহরগুলির তালিকা দেয়া হলঃ

সিটি প্রদেশ বা অঞ্চল দেশ বছর
লিসবন   লিসবন জেলা   পর্তুগাল 2001[১১]
Praia   Praia   কেপ ভার্দে 2001[১১]
Coimbra   Coimbra জেলা   পর্তুগাল 2002[১২]
Margão গোয়া   ভারত 2001[১১]
ডারউইন   Northern Territory   অস্ট্রেলিয়া সেপ্টেম্বর 2003[১৩]
Ambon   Maluku   ইন্দোনেশিয়া সেপ্টেম্বর 2003
ম্যাকাও   Macau   চীন জুন 2002
ওকিনাওয়ার টেমপ্লেট:দেশের উপাত্ত Okinawa   জাপান নভেম্বর, 2005[১৩]]
বার্সেলোনা   Catalonia   স্পেন জুন 2008[১৩]]
সিডনি   New South Wales   অস্ট্রেলিয়া সেপ্টেম্বর 2010[১৩]]
ম্যানিলা মেট্রো ম্যানিলা   ফিলিপাইন নভেম্বর 2011
ক্যানবেরা   Australian Capital Territory   অস্ট্রেলিয়া জুন, 2004[১৩][১৪]
 
দিলির পূর্ব দিকে অবস্থিত "জিযাস ব্যাকসাইড বিচ"

আরও দেখুনসম্পাদনা

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "MoJ publishes the land maps for the Nain Feto and Vera Cruz sub-districts, Dili district « Government of Timor-Leste"। Timor-leste.gov.tl। সংগ্রহের তারিখ ১২ মার্চ ২০১৫ 
  2. "City of Peace", VisitEastTimor.
  3. "Boosting Growth through the Growth Triangle"
  4. "Jornal da Republica" (PDF)। Jornal.gov.tl। ৩ ফেব্রুয়ারি ২০১০ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১২ মার্চ ২০১৫ 
  5. "MAEOT - News"। Estatal.gov.tl। ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০০৯। ৮ এপ্রিল ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১২ মার্চ ২০১৫ 
  6. "Housing Ownership, 2006 - Percentage of Population Living in Band Housing by Census Division"। ২০১০। 
  7. "Klimatafel von Díli, Insel Timor / Ost-Timor" (PDF)Baseline climate means (1961-1990) from stations all over the world (German ভাষায়)। Deutscher Wetterdienst। সংগ্রহের তারিখ ২৯ জানুয়ারি ২০১৬ 
  8. "Profile of Dili District : Topography" (PDF)। Estatal.gov.tl। ৮ এপ্রিল ২০১৫ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১২ মার্চ ২০১৫ 
  9. Arriving at Dili´s Airport, VisitEastTimor.
  10. "সংরক্ষণাগারভুক্ত অনুলিপি" (PDF)। ২৭ জুন ২০০৮ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২ আগস্ট ২০১৯ 
  11. http://www.uccla.pt/membro/dili
  12. "Geminações de Cidades e Vilas: Coimbra" (Portuguese ভাষায়)। Associação Nacional de Municípios Portugueses। সংগ্রহের তারিখ ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৫ 
  13. "Ministry of Foreign Affairs and Cooperation, Timor-Leste: Index Page(English)"। Web.archive.org। ১৫ মে ২০১৩। ৩ মে ২০১৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১২ মার্চ ২০১৫ 
  14. "Dili, Timor-Leste - Chief Minister, Treasury and Economic Development Directorate"। Cmd.act.gov.au। সংগ্রহের তারিখ ১২ মার্চ ২০১৫ 

বহিঃ সংযোগসম্পাদনা