প্রধান মেনু খুলুন

দিমিত্রি মেদভেদেভ

দিমিত্রি আনাতোলিয়েভিচ মেদভেদেভ (রুশ: Дми́трий Анато́льевич Медве́дев, উচ্চারণ: Dmitriy Anatolyevich Medvedev, আ-ধ্ব-ব[ˈdʲmʲitrʲɪj ɐnɐˈtolʲjɪvʲɪtɕ mʲɪˈdvʲedʲɪf] (এই শব্দ সম্পর্কেশুনুন); জন্ম: ১৪ সেপ্টেম্বর, ১৯৬৫) লেনিনগ্রাদে জন্মগ্রহণকারী রাশিয়ার বিশিষ্ট রাজনীতিবিদ। ২০১২ সাল থেকে রাশিয়ার দশম প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।[২][৩] এরপূর্বে ২০০৮ থেকে ২০১২ সাল মেয়াদে রাশিয়ার তৃতীয় রাষ্ট্রপতি হিসেবে দেশ পরিচালনা করেন দিমিত্রি মেদভেদেভ। ৪২ বছর বয়সে রাষ্ট্রপতির দায়িত্ব পালনের মাধ্যমে তৃতীয় সর্বকনিষ্ঠ রুশের মর্যাদা পান।

দিমিত্রি মেদভেদেভ
Дмитрий Медведев
Dmitry Medvedev’s interview with CNN (2013-01-27).jpeg
রাশিয়ার প্রধানমন্ত্রী
দায়িত্বাধীন
অধিকৃত কার্যালয়
৮ মে, ২০১২
রাষ্ট্রপতিভ্লাদিমির পুতিন
ডেপুটিইগর শুভালভ
পূর্বসূরীভ্লাদিমির পুতিন
রাশিয়ার ৩য় রাষ্ট্রপতি
কাজের মেয়াদ
৭ মে, ২০০৮ – ৭ মে, ২০১২
প্রধানমন্ত্রীভ্লাদিমির পুতিন
পূর্বসূরীভ্লাদিমির পুতিন
উত্তরসূরীভ্লাদিমির পুতিন
ইউনিয়ন স্টেট মন্ত্রী পরিষদের সভাপতি
দায়িত্বাধীন
অধিকৃত কার্যালয়
১৮ জুলাই, ২০১২
পূর্বসূরীভ্লাদিমির পুতিন
ইউনাইটেড রাশিয়ার দলনেতা
দায়িত্বাধীন
অধিকৃত কার্যালয়
৩০ মে, ২০১২
পূর্বসূরীভ্লাদিমির পুতিন
স্টেট দুমায় ইউনাইটেড রাশিয়ার দলনেতা
দায়িত্বাধীন
অধিকৃত কার্যালয়
২৪ সেপ্টেম্বর, ২০১১
পূর্বসূরীবরিস গ্রিজলভ
রাশিয়ার প্রথম উপ-প্রধানমন্ত্রী
কাজের মেয়াদ
১৪ নভেম্বর, ২০০৫ – ১২ মে, ২০০৮
প্রধানমন্ত্রীমিখাইল ফ্রাদকভ
ভিক্টর জুবকভ
পূর্বসূরীমিখাইল কাসিয়ানভ
উত্তরসূরীভিক্টর জুবকভ
ইগর শুভালভ
ক্রেমলিনের চীফ অব স্টাফ
কাজের মেয়াদ
৩০ অক্টোবর, ২০০৩ – ১৪ নভেম্বর, ২০০৫
রাষ্ট্রপতিভ্লাদিমির পুতিন
পূর্বসূরীআলেকজান্ডার ভলোশিন
উত্তরসূরীসার্গে সবিয়ানিন
ব্যক্তিগত বিবরণ
জন্মদিমিত্রি আনাতোলিয়েভিচ মেদভেদেভ
(1965-09-14) ১৪ সেপ্টেম্বর ১৯৬৫ (বয়স ৫৪)
লেনিনগ্রাদ, রুশ সমাজতান্ত্রিক প্রজাতন্ত্র, সোভিয়েত ইউনিয়ন
জাতীয়তারুশ
রাজনৈতিক দলসোভিয়েত ইউনিয়নের কমিউনিস্ট পার্টি (১৯৯১-এর পূর্বে)
স্বতন্ত্র (১৯৯১-২০১১)[১]
ইউনাইটেড রাশিয়া (২০১১-বর্তমান)
দাম্পত্য সঙ্গীসভেতলানা লিননিক (বি. ১৯৯৩)
সন্তানইলিয়া
প্রাক্তন শিক্ষার্থীলেনিনগ্রাদ স্টেট ইউনিভার্সিটি
ধর্মরুশ অর্থোডক্স
স্বাক্ষর
ওয়েবসাইটda-medvedev.ru

প্রারম্ভিক জীবনসম্পাদনা

তৎকালীন সোভিয়েত ইউনিয়নের লেনিনগ্রাদে আনাতোলি আফানাসিয়েভিচ মেদভেদেভ ও জুলিয়া ভেনিয়ামিনোভনা মেদভেদেভা দম্পতির সন্তানরূপে জন্মগ্রহণ করেন। বাবা আফানাসিয়েভিচ লেনিনগ্রাদ স্টেট ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজীতে রসায়ন প্রকৌশল বিষয়ে অধ্যাপনা করতেন।[৪][৫] মা জুলিয়া ভরোনেজ বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা শেষে হারজেন স্টেট পেডাগোজিক্যাল ইউনিভার্সিটিতে রুশ ভাষা শিক্ষা দেন।[৬] লেনিনগ্রাদের কুপচিনো জেলার ৬ বেলা কুন স্ট্রীটের ৪০ বর্গমিটারের অ্যাপার্টমেন্টে মেদভেদেভের পরিবার বসবাস করতেন।[৭][৮] পরিবারের একমাত্র সন্তান ছিলেন তিনি। একসময় এ পরিবারকে অন্যতম বুদ্ধজীবী পরিবাররূপে গণনা করা হতো।[৮]

শৈশবেই তিনি বইয়ের দিকে ঝুঁকে ছিলেন। তৃতীয় গ্রেডে থাকা অবস্থায় বাবার সাথে দশ খণ্ডের ছোট সোভিয়েত এনসাইক্লোপেডিয়া পড়েন।[৮] সপ্তম গ্রেডে ভবিষ্যতের পত্নী সভেতলানা লিনিকের সাথে একত্রে অধ্যয়ন করেন।[৮] শিক্ষানুরাগী পরিবারের সন্তান মেদভেদেভ লেনিনগ্রাদ স্টেট ইউনিভার্সিটি থেকে ১৯৮৭ আইনে স্নাতক ডিগ্রী লাভ করেন।[৯] ১৯৯৯ সাল পর্যন্ত সেন্ট পিটার্সবার্গ স্টেট ইউনিভার্সিটিতে নাগরিক ও রোমান আইন বিষয়ে অধ্যাপনা করেন।

রাজনৈতিক জীবনসম্পাদনা

সেন্ট পিটার্সবার্গের মেয়র আনাতোলি সবচাকের রাজনৈতিক পরামর্শক ছিলেন।[১০] এরপূর্বে রাজনৈতিক প্রচারণা ব্যবস্থাপক হিসেবে রাজনৈতিক জীবনে প্রবেশ করেন। এ সময়ে ভ্লাদিমির পুতিনের সাথে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক গড়ে উঠে। নভেম্বর, ১৯৯৯ সালে রুশ রাষ্ট্রপতির প্রশাসনে উপ চীফ অব স্টাফ হিসেবে কাজ করেন। ২০০০ সালের রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে পুটিনের প্রচারণা ব্যবস্থাপক ছিলেন। ১৪ নভেম্বর, ২০০৫ তারিখে প্রথম উপ-প্রধানমন্ত্রী হিসেবে মনোনীত হন ও জাতীয় অগ্রাধিকার প্রকল্পগুলো দেখাশোনা করেন। ১০ ডিসেম্বর, ২০০৭ তারিখে রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে চারটি রাজনৈতিক দল: ইউনাইটেড রাশিয়া, ফেয়ার রাশিয়া, আগ্রারিয়ান পার্টি অব রাশিয়া এবং সিভিলিয়ান পাওয়ারের পক্ষ থেকে অনানুষ্ঠানিকভাবে প্রার্থী হিসেবে প্রচারণা চালায়।[১১] ১৭ ডিসেম্বর, ২০০৭ তারিখে আনুষ্ঠানিকভাবে তাকে ইউনাইটেড রাশিয়ার প্রার্থী হিসেবে ঘোষণা করা হয়। বিদায়ী রাষ্ট্রপতি ভ্লাদিমির পুতিনের ছত্রচ্ছায়ায় তার প্রার্থীতা প্রভাববিস্তার করে। ২ মার্চ, ২০০৮ তারিখে অনুষ্ঠিত নির্বাচনে ৭০.২৮% ভোটে তিনি বিজয়ী হন ও ৭ মে, ২০০৮ তারিখে গ্র্যান্ড ক্রেমলিন প্রাসাদে শপথ নেন।[১২] দ্বিতীয় মেয়াদে তিনি রাষ্ট্রপতি প্রার্থী হননি। কিন্তু, ৭ মে, ২০১২ তারিখে রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে বিজয়ী পুতিন তাকে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে নিয়োগ দেন।[১৩][১৪] ২৬ মে, ২০১২ তারিখে তাকে আনুষ্ঠানিকভাবে ইউনাইটেড রাশিয়া পার্টি’র প্রধান হিসেবে ঘোষণা করা হয়।

মূল্যায়ণসম্পাদনা

তিনি তার পূর্বসূরীদের তুলনায় অধিক উদারবাদী হিসেবে বৈশ্বিকভাবে স্বীকৃতি পান। ব্যাপক ও বিস্তৃত পরিকল্পনা নিয়ে আধুনিকায়ণ, রাশিয়ার অর্থনীতি ও সমাজব্যবস্থাকে আধুনিকবাদে উজ্জ্বীবিত করা, গ্যাস ও তেলের উপর নিয়ন্ত্রণ গ্রহণ মেদভেদেভের রাষ্ট্রপতিত্বকালে শীর্ষ কাজ হিসেবে গ্রহণ করেন। রুশ-জর্জিয়া যুদ্ধে জয় পান।[১৫][১৬] রাশিয়ার অন্যতম সমস্যা হিসেবে দূর্নীতির বিরুদ্ধে প্রচারণা চালান ও আইন-শৃঙ্খলা স্বাভাবিক রাখেন। বৈদেশিক নীতিতে রাশিয়া-যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যকার সম্পর্ক পুণঃস্থাপনে নিউ স্টার্ট চুক্তিতে স্বাক্ষর করেন। ব্রিকসভূক্ত দেশগুলোর সাথে সহযোগিতামূলক মনোভাবের পাশাপাশি ২০১১ সালে বিশ্ব বাণিজ্য সংস্থার সদস্যরূপে রাশিয়া অন্তর্ভুক্ত হয়।

ব্যক্তিগত জীবনসম্পাদনা

শৈশবকালের বন্ধু ও বিদ্যালয়ের সহপাঠিনী সভেতলানা ভ্লাদিমিরোভনা মেদভেদেভার সাথে ১৯৮২ সাল পর্যন্ত পড়াশোনা করলেও কয়েক বছর পর প্রণয়ে আবদ্ধ হন।[১৭] ১৯৯৫ সালে ইলিয়া দিমিত্রিভিচ মেদভেদেভ নামের এক পুত্র সন্তান জন্মগ্রহণ করে। ব্যস্ততম সময় কাটালেও প্রতিদিন সকাল ও সন্ধ্যায় ঘন্টাকাল সাঁতারে ব্যয় করেন[১৮] ও ওজন ঠিক রাখতে প্রশিক্ষণ নেন। প্রতিদিন দুইবার ১,৫০০ মিটার সাঁতার কাটেন। দাবা খেলাসহ যোগব্যয়ামেও অংশ নেন তিনি। শখের অন্যতম বিষয় হচ্ছে মিখাইল বুলগাকভের গ্রন্থ পড়া। এছাড়াও, তিনি হ্যারি পটার সিরিজের একনিষ্ঠ ভক্ত। এপ্রিল, ২০০৯ সালে লন্ডনে অনুষ্ঠিত জি-২০ সম্মেলনে জে. কে. রাউলিংয়ের অটোগ্রাফ নেন।[১৯] নিজ শহরের পেশাদার এফসি জেনিত সেন্ট পিটার্সবার্গ ফুটবল দলের সমর্থক তিনি।[২০] শৌখিন ফটোগ্রাফার হিসেবেও তার পরিচিতি রয়েছে। জানুয়ারি, ২০১০ সালে তার একটি ফটো দাতব্য তহবিলে দানের উদ্দেশ্যে ৫১ মিলিয়ন রুবলে বিক্রয় হয় যা অন্যতম ব্যয়বহুল চিত্র হিসেবে স্বীকৃত।[২১] নিজ কার্যালয়ে অ্যাকোয়ারিয়াম রয়েছে তার এবং মাছগুলোর যত্ন তিনি নিজ হাতেই করেন।[২২] ২০০৭ সালে তার বার্ষিক আয় ছিল ৮০,০০০ ডলার। একই পরিমাণ অর্থ তিনি ব্যাংকে সঞ্চয় করেন। মস্কোয় জলোতি ক্লায়াচিতে তারা বসবাস করছেন।[২৩] মাতৃভাষা রুশের পাশাপাশি ইংরেজিতেও কথা বলে থাকেন। কিন্তু স্বাক্ষাৎকালে তিনি কেবলমাত্র রুশ ভাষাতেই কথা বলেন।[২৪]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. First Deputy Prime Minister Dmitry Medvedev Endorsed for the Next President's Post[স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ], Voice of Ruddia, 10 December 2007.
  2. Russian Parliament approves Medvedev's candidacy for premiership, RT
  3. Medvedev becomes Russia's PM: Voice of Russia ওয়েব্যাক মেশিনে আর্কাইভকৃত ১২ মে ২০১৩ তারিখে. The Voice of Russia (8 May 2012). Retrieved 10 May 2012.
  4. Медведев Дмитрий Анатольевич Viperson.ru
  5. Потомок пахарей и хлеборобов ওয়েব্যাক মেশিনে আর্কাইভকৃত ১২ মার্চ ২০০৯ তারিখে Ekspress Gazeta 4 April 2008
  6. "Transcript interview, First Deputy Chairman of the Government of the Russian Federation Dmitry Medvedev" (Russian ভাষায়)। Government of the Russian Federation। ২৪ জানুয়ারি ২০০৮। সংগ্রহের তারিখ ২৬ জুলাই ২০০৮ [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]{
  7. "Dmitry Medvedev: Biography"। Kremlin.ru। ২০০৮। ২৫ মার্চ ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৩ নভেম্বর ২০১৫ 
  8. Treisman, Daniel (২০১১)। The Return: Russia's Journey from Gorbachev to Medvedev। Free Press। পৃষ্ঠা 123–163। আইএসবিএন 978-1-4165-6071-5 
  9. Levy, Clifford J.; p. A18
  10. Umland, Andreas (11 December 2007)। "The Democratic Roots of Putin's Choice"Washington Post। সংগ্রহের তারিখ 10 May 2008; Galina Kozhevnikova and Vladimir Pribylovskii Rossiiskaia vlast' v biografiiakh I: Vysshie dolzhnostnye litsa RF v 2004 g. Stuttgart: ibidem-Verlag, 2007, p. 117  এখানে তারিখের মান পরীক্ষা করুন: |সংগ্রহের-তারিখ= (সাহায্য)
  11. Дмитрий Медведев выдвинут в президенты России (Russian ভাষায়)। Lenta.Ru। ১০ ডিসেম্বর ২০০৭। সংগ্রহের তারিখ ৩০ নভেম্বর ২০০৮ 
  12. "ABC Live"। Abclive.in। ২৭ মে ২০০৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৮ সেপ্টেম্বর ২০১০ 
  13. Putin returns as Russia's president amid protests – CNN.com. Edition.cnn.com (7 May 2012). Retrieved 10 May 2012.
  14. Putin Proposes Medvedev As Russian Prime Minister. Rttnews.com (7 May 2012). Retrieved 10 May 2012.
  15. Lavrov, Anton (২০১০)। Ruslan Pukhov, সম্পাদক। The Tanks of August। Centre for Analysis of Strategies and Technologies। পৃষ্ঠা 49। আইএসবিএন 978-5-9902320-1-3 
  16. Treisman, p.153
  17. (রুশ) Из школы, где учился Дмитрий Медведев, похищены его фото ওয়েব্যাক মেশিনে আর্কাইভকৃত ১৩ ডিসেম্বর ২০০৭ তারিখে Factnews.ru
  18. Putin's Purple reign man Guardian Unlimited, 10 December 2007
  19. "Russian President Harry Potter fan, asks for Rowling's autograph"। Mosnews। সংগ্রহের তারিখ ২৮ সেপ্টেম্বর ২০১০ 
  20. Nicholas II, FC Zenit, Black Sabbath – Medvedev's favorite things, ITAR-TASS, 11 December 2007.
  21. "Снимок Медведева стал четвертым в списке самых дорогих фотографий мира"। Lenta। সংগ্রহের তারিখ ২৮ সেপ্টেম্বর ২০১০ 
  22. Baby-faced Dmitry Medvedev keeps fish tank in his office and listens to Black Sabbath, Pravda, 12 December 2007.
  23. "187 Following tax statements by the presidential contenders" ওয়েব্যাক মেশিনে আর্কাইভকৃত ৩ মার্চ ২০১৪ তারিখে. Novayagazeta. Retrieved 27 February 2014
  24. "Medvedev shows media-savvy side"। BBC। ২৯ মার্চ ২০০৮। সংগ্রহের তারিখ ৩১ মার্চ ২০০৯ 

গ্রন্থপঞ্জীসম্পাদনা

  • Photo book: Medvedev, Dmitry (২০১২)। President Dmitry Medvedev 
  • Black, J. L. (২০১৫)। The Russian Presidency of Dmitry Medvedev, 2008-2012: The next step forward or merely a time out?। Routledge। 
  • Svanidze, Nikolai; Svanidze, Marina (২০০৮)। Medvedev। Saint Petersburg: Amfora। আইএসবিএন 978-5-367-00743-5 
  • Sakwa, Richard (২০১১)। The Crisis of Russian Democracy: Dual State, Factionalism and the Medvedev Succession। Cambridge University Press। আইএসবিএন 978-0-521-14522-0 
  • Treisman, Daniel (২০১১)। The Return: Russia's Journey from Gorbachev to Medvedev। Free Press। আইএসবিএন 978-1-4165-6071-5 
  • White, Stephen, সম্পাদক (২০১০)। Developments in Russian Politics 7। New York: Palgrave McMillan। আইএসবিএন 978-0-230-22449-0 

বহিঃসংযোগসম্পাদনা

উইকিসংকলন-এ এই লেখকের লেখা মূল বই রয়েছে:
রাজনৈতিক দপ্তর
পূর্বসূরী
আলেকজান্ডার ভলোশিন
রাষ্ট্রপতির প্রশাসনের সভাপতি
২০০৩-২০০৫
উত্তরসূরী
সার্গেই সবিয়ানিন
পূর্বসূরী
মিখাইল কাসিয়ানভ
রাশিয়ার প্রথম উপ-প্রধানমন্ত্রী
২০০৫-২০০৮
উত্তরসূরী
ইগর শুভালভ
পূর্বসূরী
ভ্লাদিমির পুতিন
রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি
২০০৮-২০১২
উত্তরসূরী
ভ্লাদিমির পুতিন
রাশিয়ার প্রধানমন্ত্রী
২০১২-বর্তমান
নির্ধারিত হয়নি
পার্টির রাজনৈতিক কার্যালয়
পূর্বসূরী
বরিস গ্রিজলভ
স্টেট দুমায় ইউনাইটেড রাশিয়ার দলনেতা
২০১১-বর্তমান
নির্ধারিত হয়নি
পূর্বসূরী
ভ্লাদিমির পুতিন
ইউনাইটেড রাশিয়ার দলনেতা
২০১২-বর্তমান