টাইগন হল পুরুষ বাঘস্ত্রী সিংহীর মিলনে সৃষ্ট সংকর প্রাণী।

টাইগন
Tigon4.jpg
বৈজ্ঞানিক শ্রেণীবিন্যাস
জগৎ: Animalia
পর্ব: কর্ডাটা
শ্রেণী: Mammalia
বর্গ: মাংশাশী
পরিবার: Felidae
গণ: Panthera
প্রজাতি: Panthera tigris × Panthera leo

বর্ণনাসম্পাদনা

 
ক্যানবেরা চিড়িয়াখানায় টাইগন

লাইগার যতটা জনপ্রিয় টাইগন ততটা জনপ্রিয় নয়। টাইগন দেখতে অনেকটা বাঘের মত, কিন্তু এর রঙ সিংহের মত। এদের গায়ে ডোরাকাটা দাঘ বাঘ অপেক্ষা হালকা হয়।

আকারসম্পাদনা

একদিকে সংকর জীব লাইগার হয় বিশাল, কিন্তু অন্যদিকে টাইগন হয় খুব ছোট। এক বিশেষ জিনগত কারণে টাইগন রা বাঘ বা সিংহের তুলনায় ছোট হয়। এদের ওজন ১০০-১৮০ কিলোগ্রাম হয়।

জীববিজ্ঞানসম্পাদনা

টাইগন তার বাবা-মা উভয় এর জিনই বহন করে। এদের দেহে ছোট বেলায় স্পট দেখা যায় যা সে তার মা সিংহীর কাছ থেকে পেয়েছে। অন্যদিকে, এদের ডোরাকাটা দাগ আছে যা সে তার বাবা বাঘের কাছ থেকে পেয়েছে। সিংহীদের শরীরে গ্রোথ আটকানোর এক বিশেষ জিন থাকে, যা বাঘদের থাকে না। তাই টাইগন ছোট বা বামন হয়ে যায়। আর এদের ওজন কখনওই ১৮০ কিলোগ্রাম এর বেশি হয় না।

জননসম্পাদনা

সাধারণ ভাবে টাইগনরা অনুর্বর হয়। তবে স্ত্রী টাইগনদের উর্বরতার কথা শোনা গেছে। স্ত্রী টাইগনরা পুরুষ বাঘ বা সিংহের সাথে মিলিত হয় যথাক্রমে টিটিগনলিটিগন এর জন্ম দিতে পারে।

আরও দেখুনসম্পাদনা

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

বহিঃসংযোগসম্পাদনা