প্রধান মেনু খুলুন

টমি লি জোন্স

মার্কিন অভিনেতা ও চলচ্চিত্র নির্মাতা

টমি লি জোন্স (ইংরেজি: Tommy Lee Jones; জন্ম: ১৫ সেপ্টেম্বর ১৯৪৬) হলেন একজন মার্কিন অভিনেতা ও চলচ্চিত্র নির্মাতা। তিনি চারটি একাডেমি পুরস্কারের মনোনয়ন লাভ করেছেন এবং ১৯৯৩ সালের থ্রিলার চলচ্চিত্র দ্য ফিউজিটিভ-এ মার্শাল স্যামুয়েল জেরার্ড চরিত্রে অভিনয় করে শ্রেষ্ঠ পার্শ্ব অভিনেতা বিভাগে একটি পুরস্কার জয় করেন। তিনি জেএফকে (১৯৯২)-এ ক্লে শ ও লিংকন (২০১২)-এ র‍্যাডিক্যাল রিপাবলিকান কংগ্রসম্যান টাডেউস স্টিভেন্স চরিত্রে অভিনয় করে শ্রেষ্ঠ পার্শ্ব অভিনেতা বিভাগে অপর দুটি অস্কার মনোনয়ন এবং ইন দ্য ভ্যালি অব এলাহ (২০০৭) চলচ্চিত্রে হ্যাঙ্ক ডিয়ারফিল্ড চরিত্রে অভিনয় করে শ্রেষ্ঠ অভিনেতা বিভাগে অপর একটি অস্কার মনোনয়ন অর্জন করেন।

টমি লি জোন্স
Tommy Lee Jones 2017.jpg
২০১৭ সালে টোকিও আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে জোন্স
স্থানীয় নাম
Tommy Lee Jones
জন্ম (1946-09-15) ১৫ সেপ্টেম্বর ১৯৪৬ (বয়স ৭২)
বাসস্থানটেরেন্স হিল, টেক্সাস
শিক্ষাস্নাতক
যেখানের শিক্ষার্থীহার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়
পেশাঅভিনেতা, চলচ্চিত্র নির্মাতা
কার্যকাল১৯৬৯-বর্তমান

তার অন্যান্য উল্লেখযোগ্য কাজ হল টিভি মিনি ধারাবাহিক লোনসাম ডাভ-এ টেক্সাসের রেঞ্জার উড্রো এফ. কল, মেন ইন ব্ল্যাক চলচ্চিত্র ধারাবাহিক অ্যাজেন্ট কে, আন্ডার সিজ (১৯৯২)-এ সন্ত্রাসী উইলিয়াম "বিল" স্ট্রেনিক্স, ন্যাচারাল বর্ন কিলার্স (১৯৯৪)-এ ওয়ার্দেন ডোয়াইট ম্যাক্লাস্কি, ব্যাটম্যান ফরেভার (১৯৯৫)-এ খল অভিনেতা টু-ফেস, ম্যান অব দ্য হাউজ (২০০৫)-এ টেক্সাসের রেঞ্জার রোলান্ড শার্প, নো কান্ট্রি ফর ওল্ড মেন (২০০৭)-এ শেরিফ এড টম বেল চরিত্রে অভিনয় করেন। তিনি দ্য থ্রি বিউরিয়ালস্‌ অব মেলকোয়াইডস এস্ত্রাদা (২০০৫) চলচ্চিত্র পরিচালনা করেন এবং এতে রেঞ্চার পিট পারকিন্স চরিত্রে অভিনয় করেন। তিনি ক্যাপ্টেন আমেরিকা: দ্য ফার্স্ট অ্যাভেঞ্জার্স (২০১১)-এ কর্নেল চেস্টার ফিলিপস, জেসন বর্ন (২০১৬)-এ সিআইএ পরিচালক রবার্ট ডিউয়ি চরিত্রে অভিনয় করেন।

কর্মজীবনসম্পাদনা

১৯৯০-এর দশকে তিনি কয়েকটি ব্লকবাস্টার হিট চলচ্চিত্র - দ্য ফিউজিটিভ (১৯৯৩)-এ হ্যারিসন ফোর্ডের সাথে ব্যাটম্যান ফরেভার (১৯৯৫)-এ ভাল কিলমারের সাথে এবং মেন ইন ব্ল্যাক চলচ্চিত্র ধারাবাহিকে উইল স্মিথের সাথে অভিনয় করে নিজেকে হলিউডের অন্যতম সর্বোচ্চ পারিশ্রমিক গ্রহীতা ও চাহিদাসম্পন্ন অভিনেতা হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করেন। দ্য ফিউজিটিভ-এ মার্শাল স্যামুয়েল জেরার্ড চরিত্রে তার অভিনয় ব্যাপক সমাদৃত হয় এবং তিনি শ্রেষ্ঠ পার্শ্ব অভিনেতা বিভাগে একাডেমি পুরস্কারগোল্ডেন গ্লোব পুরস্কার অর্জন করেন। পরবর্তীকালে তিনি এই চলচ্চিত্রের অনুবর্তী পর্ব ইউ.এস. মার্শালস (১৯৯৮) ছবিতেও অভিনয় করেন।

২০০৫ সালে তিনি দ্য থ্রি বিউরিয়ালস্‌ অব মেলকোয়াইডস এস্ত্রাদা চলচ্চিত্র পরিচালনা করেন।[১] এতে তিনি রেঞ্চার পিট পারকিন্স চরিত্রে অভিনয় করেন এবং এতে তাকে ইংরেজি ও স্পেনীয় দুই ভাষাতেই কথা বলতে দেখা যায়। ছবিটি ২০০৫ সালে কান চলচ্চিত্র উৎসবে প্রদর্শিত হয় এবং তিনি সেখান থেকে শ্রেষ্ঠ অভিনেতার পুরস্কার অর্জন করেন।

২০০৭ সালে দুটি চলচ্চিত্রে তার শক্তিশালী অভিনয় তার কর্মজীবনকে পুনরুজ্জীবিত করে, প্রথমটি হল ইন দ্য ভ্যালি অব এলাহ ছবিতে হারানো সৈনিক পুত্রকে খুঁজতে থাকা অবরুদ্ধ পিতা হ্যাঙ্ক ডিয়ারফিল্ড ও দ্বিতীয়টি নো কান্ট্রি ফর ওল্ড মেন ছবিতে একজন গুপ্তঘাতককে খুঁজতে থাকা শেরিফ এড টম বেল। ইন দ্য ভ্যালি অব এলাহ চলচ্চিত্রে তার কাজের জন্য তিনি শ্রেষ্ঠ অভিনেতা বিভাগে একাডেমি পুরস্কারের মনোনয়ন লাভ করেন।

তিনি ক্যাপ্টেন আমেরিকা: দ্য ফার্স্ট অ্যাভেঞ্জার্স (২০১১)-এ কর্নেল চেস্টার ফিলিপস ভূমিকায় কাজ করেন।[২] ২০১২ সালে আরেকবার জোন্সের কর্মজীবনের মোড় ঘুরিয়ে দেয় গোয়েন্দা চলচ্চিত্র মেন ইন ব্ল্যাক থ্রি-এ তার পূর্বে করা এজেন্ট কে চরিত্র, প্রণয়ধর্মী হাস্যরসাত্মক নাট্য হোপ স্প্রিংস এবং স্টিভেন স্পিলবার্গের জীবনীমূলক লিংকন-এ র‍্যাডিক্যাল রিপাবলিকান কংগ্রসম্যান টাডেউস স্টিভেন্স চরিত্র। লিংকন ছবিতে তার অভিনয়ের জন্য তিনি শ্রেষ্ঠ পার্শ্ব অভিনেতা বিভাগে তার চতুর্থ অস্কারের মনোনয়ন আভ করেন।[৩]

২০১৬ সালে তিনি জেসন বর্ন ছবিতে সিআইএ পরিচালক রবার্ট ডিউয়ি চরিত্রে এবং অ্যালিস ইন হলিউড ছবিতে অভিনয় করেন।[৪]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. ডি প্যারিস, জেনিফার (৭ সেপ্টেম্বর ২০১৩)। "দ্য কাউবয়েজ রিমেকে টমি লি"বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম। সংগ্রহের তারিখ ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮ 
  2. "Tommy Lee Jones Officially Comes Aboard Captain America: The First Avenger"মুভি ওয়েব (ইংরেজি ভাষায়)। ২৬ মে ২০১০। সংগ্রহের তারিখ ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮ 
  3. "অস্কারে মার্কিন দর্শকরা দেখতে চান লিংকনের বিজয়"ডয়চে ভেলে। ১৬ জানুয়ারি ২০১৩। সংগ্রহের তারিখ ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮ 
  4. সুলতানা, তাহমিনা (২১ এপ্রিল ২০১৬)। "অ্যালিস ইন হলিউড"দৈনিক ইত্তেফাক। সংগ্রহের তারিখ ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮ 

বহিঃসংযোগসম্পাদনা