জার'এডো ওয়েন্স গুজব

"জার'এডো ওয়েন্স" (ইংরেজি: Jar'Edo Wens) একটি উদ্দেশ্যপ্রণোদিত কাল্পনিক উইকিপিডিয়া নিবন্ধ যা ইংরেজি উইকিপিডিয়ায় ২০১৪ সালের নভেম্বরে শনাক্ত করার আগ মুহূর্ত পর্যন্ত প্রায় দশ বছর টিকে ছিল। ভুয়া নিবন্ধ হিসেবে শনাক্ত করার পর ২০১৫ সালের মার্চে মুছে ফেলা হয়। বিদ্যমান অবস্থায় এটি উইকিপিডিয়ার অন্যান্য ভাষায় অনূদিত হয়। এটি ২০১২ সালে একটি বইয়েও উদ্ধৃত হয়। অপসারণের আগ পর্যন্ত, এটি উইকিপিডিয়ার ইতিহাসে আবিষ্কৃত সবচেয়ে দীর্ঘস্থায়ী প্রতারণামূলক নিবন্ধ ছিল।

বেনামী (আইপি) ব্যবহারকারীর তিনটি সম্পাদনা যারা প্রতারণা যোগ করেছে

উৎপত্তি সম্পাদনা

নিবন্ধটি ২০০৫ সালের ২৯ মে, একটি আইপি ব্যবহারকারী কর্তৃক তৈরী হয়েছিল। তবে মাত্র দুই বাক্যের নিবন্ধে কোন তথ্যসূত্র ছিলনা। নিবন্ধের বর্ণনা অনুযায়ী জের'এডো ওয়েন্স অস্ট্রেলিয় আদিবাসীদের "বৈশ্বয়িক জ্ঞান ও শারীরিক শক্তির" দেবতা। মানুষ যেন খুব বেশি অহংকারী না হয় বা আত্ম-অহংকার না করে তা নিশ্চিত করার জন্য এই দেবতাকে আদিবাসীদের স্বপনজগত 'আল্টজিরা' দ্বারা তৈরি করা হয়েছে। এই দেবতা বিজয় এবং বুদ্ধিমত্তার সাথে সম্পর্কিত। প্রকৃত পক্ষে অস্ট্রেলিয় আদিবাসীদের পৌরাণিক কাহিনিতে এই নামের কোন দেবতার অস্তিত্ব নেই। নিবন্ধের শিরোনাম সম্ভবত ইংরেজি ব্যক্তিনাম "জ্যারেড ওয়েন্স" (ইংরেজি:Jared Owens) কে প্রায় সম-উচ্চারণের ভিন্ন বর্ণ, বিরাম চিহ্ন ব্যবহার করে তৈরি করা হয়েছিল।[১][২][৩][৪][৫]

নিবন্ধের লেখক, অস্ট্রেলিয় আইপি ঠিকানায় একজন অনিবন্ধিত ব্যবহারকারী ছিলেন।[৪] ২০০৫ সালের মে মাসে মাত্র এগারো মিনিটের জন্য উইকিপিডিয়ায় সক্রিয় ছিলেন। তার দ্বিতীয় অবদান ছিল অস্ট্রেলিয় দেবতাদের তালিকায় "ইয়োরমুম" (ইংরেজি:Yohrmum; সম্ভবত ইংরেজি "Your Mum"-এর পুনর্বিন্যাস্ত বানান) যোগ করা। যদিও এটি দ্রুত চিহ্নিত করে মুছে ফেলা হয়েছিল।

বিস্তার সম্পাদনা

প্রায় এক দশক ধরে টিকে থাকা "জার'এডো ওয়েন্স" নিবন্ধটি ফ্রেঞ্চ, পোলিশ, রাশিয়ান এবং তুর্কি ভাষার উইকিপিডিয়ায় অনূদিত হয়েছিল। দুটি ভাষার সংস্করণে স্বল্পস্থায়ী "ইয়োরমুম" পাতাও অন্তর্ভুক্ত ছিল। উইকিউপাত্তেও একটি ভুক্তি তৈরী করা হয়েছিল। ২০১২ সালে ম্যাথিউ ম্যাকক্রোমিক তার নাস্তিক্যবাদ নিয়ে লিখিত এথিজম অ্যান্ড দ্য কেস এগেইনস্ট ক্রাইস্ট বইয়ের দশম অধ্যায়ে "ইতিহাসের আনুকূল্যের বাইরে চলে যাওয়া ৫০০ ধর্ম ও দেবতার তালিকা"তে অনেকটা যাচাই না করে জার'এডো ওয়েন্স অন্তর্ভূক্ত করেছিলেন।[৫][৬]

আবিষ্কার সম্পাদনা

প্রতারণামূলক নিবন্ধটি ইংরেজি উইকিপিডিয়ায় নয় বছর, নয় মাস এবং তিন দিন বিদ্যমান ছিল।[৭] ২০০৫ সালের সেপ্টেম্বরে সাংবাদিক জন সিজেনথ্যালারের ভুয়া জীবনী নিবন্ধ শনাক্তের পরপর নতুন নিবন্ধ তৈরি শুধু নিবন্ধিত ব্যবহারকারীদের জন্য সীমাবদ্ধ ছিল। এরফলে নতুন ভুয়া নিবন্ধ রচনা আরো কঠিন হলেও, (বিশেষত কম-প্রচারিত হওয়া) বিদ্যমান প্রতারণামূলক নিবন্ধগুলি নিয়মিত টহল/পর্যবেক্ষণ এড়িয়ে টিকে থাকতে পারে।[৮]

২০০৯ সালে, নিবন্ধটি তথ্যসূত্রের অভাবসহ "একাধিক সমস্যা" শ্রেণীবিভাগের সাথে ট্যাগ করা হয়েছিল।[৯] ২০১৪ সালের নভেম্বর নিবন্ধটিকে সম্ভাব্য প্রতারণা হিসাবে চিহ্নিত করা হয়েছিল। ২০১৫ সালের ১ মার্চ অপসারণের জন্য প্রস্তাব করা হয়েছিল এবং দু'দিন পরে একজন প্রশাসক এটি অপসারণ করেছিলেন। উইকিপিডিয়ার সমালোচক ওয়েবসাইট উইকিপিডিওক্রেসি, ২০১৫ সালের ১৫ মার্চ এই প্রতারণামূলক নিবন্ধ সম্পর্কে প্রতিবেদন প্রকাশ করে,[১০] সবার নজরে আসার পর সাধারণ সংবাদ মাধ্যমের ওয়েবসাইটে এ ঘটনার আরো প্রচারিত হয়েছিল।[৪]

আরও দেখুন সম্পাদনা

তথ্যসূত্র সম্পাদনা

  1. "The story behind Jar'Edo Wens, the longest-running hoax in Wikipedia history"ওয়াশিংটন পোস্ট (ইংরেজি ভাষায়)। ২০১৫-০৪-১৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৭-০৯-০১ 
  2. ডেউই, কেইটলিন (২০১৫-০৪-১৭)। "The story of Jar'Edo Wens, the longest-running Wikipedia hoax, and why it's so hard to police the free encyclopedia"ন্যাশনাল পোস্ট (ইংরেজি ভাষায়)। ২০১৫-০৪-১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  3. কেইটলিন, ডেউই (২০১৫-০৪-১৭)। "The Wikipedia hoax that lasted nearly 10 years"দ্য হেমিল্টন স্পেক্টেটর। ২০১৫-১০-১৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৫-০৪-১৮ 
  4. "Aussie's Jar'Edo Wens prank sets new record as Wikipedia's longest-running hoax"দ্য সিডনি মর্নিং হেরাল্ড (ইংরেজি ভাষায়)। ২০১৫-০৩-২৩। ২০১৫-০৭-০১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৫-০৪-১৮ 
  5. কুশ, এন্ডি। "How One Man Made Himself Into an Aboriginal God With Wikipedia"উইয়ার্ড ইন্টারনেট (ইংরেজি ভাষায়)। গকার মিডিয়া। ২০১৫-০৭-০৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  6. ম্যাকক্রোমিক, ম্যাথিউ এস. (২০১২)। "Five Hundred Dead Gods and the Problems of Other Religions"এথিজম অ্যান্ড দ্য কেস এগেইনস্ট ক্রাইস্ট। প্রমিথিউস বুকস। আইএসবিএন 9781616145828। ২০২০-০৮-০৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৫-১০ 
  7. মেরস্কিন, ডেবরা এল. (২০১৯-১১-১২)। The SAGE International Encyclopedia of Mass Media and Society (ইংরেজি ভাষায়)। SAGE Publications। পৃষ্ঠা ১৯০০। আইএসবিএন 978-1-4833-7554-0 
  8. গুডিন, ড্যান (২০০৫-১২-০৬)। "False claim has Wikipedia revising article-creation rules"সিয়াটল টাইমস (ইংরেজি ভাষায়)। ২০১৬-০৩-০৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৫-১০-০৫ 
  9. পিটার বোডকিন (২০১৫-০৩-২৩)। "Wikipedia's longest-lived hoax has finally been outed"দ্য জার্নাল ডট আইই (ইংরেজি ভাষায়)। ইয়াহু নিউজ ইউকে ও আয়ারল্যান্ড। ২০২১-০১-০৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৫-১০ 
  10. "Jared Owens, God of Wikipedia"Wikipediocracy (ইংরেজি ভাষায়)। ২০১৫-০৩-১৬। ২০১৯-০৮-১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৮-১৬