প্রধান মেনু খুলুন

চোখের বালি (চলচ্চিত্র)

চলচ্চিত্র

চোখের বালি ( ইংরেজি: Chokher Bali; literally translated to "sand in the eye", figuratively to "constant irritant") রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের চোখের বালি উপন্যাস অবলম্বনে চিত্রায়িত। ২০০৩ সালে এটি পরিচালনা করেছেন ঋতুপর্ণ ঘোষ এবং অভিনয় করেছেন ঐশ্বরিয়া রাই বচ্চন প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায় রাইমা সেন। ঐশ্বরিয়া এখানে 'বিনোদিনী' ও রাইমা সেন 'আশালতা' চরিত্রে অভিনয় করেন। পরে এটি হিন্দিতে মুক্তি পায় এবং এই ভাষাতেই আন্তর্জাতিক মুক্তি দেয়া হয়।

চোখের বালি
চোখের বালি চলচ্চিত্রের প্রচ্ছদ.jpg
পরিচালকঋতুপর্ণ ঘোষ
প্রযোজকশ্রীকান্ত মেহতা
মেহেন্দ্র সনি
রচয়িতাঋতুপর্ণ ঘোষ
উৎসরবীন্দ্রনাথ ঠাকুর কর্তৃক 
চোখের বালি
শ্রেষ্ঠাংশেঐশ্বরিয়া রাই বচ্চন
প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়
রাইমা সেন
টোটা রায়চৌধুরী
সুরকারদেবজ্যোতি মিশ্র
প্রযোজনা
কোম্পানি
মুক্তি
  • ২ অক্টোবর ২০০৩ (2003-10-02) (ভারত)
দৈর্ঘ্য১৬৭ মিনিট
দেশভারত
ভাষাবাংলা
নির্মাণব্যয়২ কোটি

মুক্তির পরে, চোখের বালি ইতিবাচক সমালোচনা এবং ভালো ব্যবসা করে।[১][২][৩]

চোখের বালি সেরা বাংলা চলচ্চিত্র হিসেবে জাতীয় চলচ্চিত্র অ্যাওয়ার্ড লাভ করে। চলচ্চিত্রটি ৩৪তম 'ইন্টারন্যাশনাল ফিল্ম ফেস্টিভাল অফ ইন্ডিয়া'-তে প্রদর্শিত হয়।

কাহিনীসম্পাদনা

সঙ্গীতসম্পাদনা

এই চলচ্চিত্রটিতে সঙ্গীত পরিচালনা করেছেন দেবজ্যোতি মিশ্র। এখানে উল্লেখ্য যে, এই ছবিতে কোন গান নেই। এই ছবিতে ঐশ্বরিয়া রাই বচ্চনের কণ্ঠ দিয়েছেন শ্রীলা মজুমদার এবং রাইমা সেনের কণ্ঠ দিয়েছেন সুদিপ্তা চক্রবর্তী।

অভিনয়সম্পাদনা

সমালোচনা পুরষ্কারসম্পাদনা

ঐশ্বরিয়া রাই বচ্চন এই চলচ্চিত্রে অন্যতম সেরা অভিনয় করেছে।[৪][৫][৬][৭]

Professional reviews
IMDb            link
PlanetBollywood           link
ABC Australia       link

এর আগে তিনি দেবদাস ছবিতে একই ভাবে সমলাচোনায় এসেছিলেন।

ব্যবসাসম্পাদনা

এই ছবিটি ব্যাবসাসফল হিসাবে ঘোষিত।[৮] ছবিটি ঐশ্যরিয়ার ক্যারিয়ারের উল্লেখযোগ্য একটি ছবি।

অন্যান্য শিরোনামসম্পাদনা

  • Choker Bali: A Passion Play (International: English title)
  • Sand in the Eye (India: English title)
  • Binodini (India: English title)

তথ্যসুত্রসম্পাদনা

  1. "Alluring Ash"The Hindu। Chennai, India। ২০০৩-১১-১৩। 
  2. "| Bollywood News | Hindi Movies News | Celebrity News"। BollywoodHungama.com। সংগ্রহের তারিখ ২০১২-০৭-০৮ 
  3. "Bengali films zoom in on profits"। Rediff.com। ২০০৪-০১-১০। সংগ্রহের তারিখ ২০১২-০৭-০৮ 
  4. "Ash will be remembered in Chokher Bali"Rediff। ২০০৩-০৫-০৫। সংগ্রহের তারিখ ৫ মে ২০০৩ 
  5. "Aishwarya's screen presence and passion play"Rediff.com। সংগ্রহের তারিখ ২০০৩-১০-০৭ 
  6. "Chokher Bali will widen my horizon"The Times Of India। সংগ্রহের তারিখ ২০০৩-০৬-০৬ 
  7. "A director's film"The Hindu। ২০০৬-১১-৩০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০০৩-১১-১৬ 
  8. "'Chokher Bali' is a hit | Chokher Bali (2003) | Latest Movie News"। Bollywood Hungama। ২০০৩-১০-১১। সংগ্রহের তারিখ ২০১২-০৭-০৮ 

বহিঃসংযোগসম্পাদনা