গ্রিন ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশ

বাংলাদেশের একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়

গ্রিন ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশ বাংলাদেশের একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়। [১] এটি ২০০৩ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়। [২]

গ্রিন ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশ
Green University Of Bangladesh
গ্রিন ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশের মনোগ্রাম.png
গ্রিন ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশের মনোগ্রাম
ধরনবেসরকারী বিশ্ববিদ্যালয়
স্থাপিত২০০৩
আচার্যরাষ্ট্রপতি আব্দুল হামিদ
উপাচার্যঅধ্যাপক ড. মো: গোলাম সামদানী ফকির
শিক্ষার্থী৮০০০
ঠিকানা
২২০/ডি, বেগম রোকেয়া সরণি
, , ,
২৩°৪৭′১৩″ উত্তর ৯০°২২′৩৯″ পূর্ব / ২৩.৭৮৭০০১° উত্তর ৯০.৩৭৭৫৩৪° পূর্ব / 23.787001; 90.377534স্থানাঙ্ক: ২৩°৪৭′১৩″ উত্তর ৯০°২২′৩৯″ পূর্ব / ২৩.৭৮৭০০১° উত্তর ৯০.৩৭৭৫৩৪° পূর্ব / 23.787001; 90.377534
শিক্ষাঙ্গনশহুরে
রঙসমূহ    
সংক্ষিপ্ত নামGUB
অধিভুক্তিবিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশন
ওয়েবসাইটwww.green.edu.bd

বিভাগ সমূহসম্পাদনা

আন্ডারগ্রাজুয়েট প্রোগ্রামগুলোসম্পাদনা

  • বিবিএ (মেজর ইন একাউন্টিং,ফিন্যান্স, মার্কেটিং এন্ড মানবসম্পদ ব্যবস্থাপনা)
  • বিএ অনার্স ইন ইংলিশ
  • বিএসএস ইন সোস্যালজি
  • বিএসএস ইন জার্নালিজম এন্ড মিডিয়া কমিউনিকেশন
  • এলএলবি অনার্স (৪ বছর)
  • বিএসসি ইন কম্পিউটার সাইন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং
  • বিএসসি ইন কম্পিউটার সাইন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং (৩ বছর ৪ মাস)- ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারদের জন্য সান্ধ্যকালীন প্রোগ্রাম।
  • বিএসসি ইন ইলেকট্রিক্যাল এবং ইলেকট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ারিং।
  • বিএসসি ইন ইলেকট্রিক্যাল এবং ইলেকট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ারিং (৩ বছর ৪ মাস)- ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারদের জন্য-সান্ধ্যকালীন প্রোগ্রাম।
  • বিএসসি ইন টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারিং (৪ বছর)
  • বিএসসি ইন বিএসসি ইন টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারিং (৩ বছর ৪ মাস)- ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারদের জন্য-সান্ধ্যকালীন প্রোগ্রাম।

গ্রাজুয়েট প্রোগ্রামগুলোসম্পাদনা

  • এমবিএ রেগুলার (মেজর ইন একাউন্টিং, ফিন্যান্স, মার্কেটিং এন্ড হিউম্যান রিসোর্স এন্ড ম্যানেজমেন্ট)
  • এক্সিকিউটিভ এমবিএ (মেজর ইন একাউন্টিং, ফিন্যান্স, মার্কেটিং এন্ড হিউম্যান রিসোর্স এন্ড ম্যানেজমেন্ট)
  • এমবিএ (মেজর ইন একাউন্টিং, ফিন্যান্স, মার্কেটিং এন্ড হিউম্যান রিসোর্স এন্ড ম্যানেজমেন্ট) (১ বছর )- বিবিএ এর জন্য- সান্ধ্যকালীন প্রোগ্রাম।
  • এলএলবি (১ বছর)

স্কলারশীপের ব্যবস্থাসম্পাদনা

এখানে গরীব এবং মেধাবী শিক্ষার্থীদের জন্য রয়েছে স্কলারশীপের ব্যবস্থাসহ টিউশন ফি থেকে বিশেষ ছাড় প্রদান করা হয়ে থাকে। আন্ডার গ্রাজুয়েট প্রোগ্রামের জন্য ২৫% থেকে ১০০% ছাড় সুবিধা পাওয়া যায়।[৩]

একাডেমিক সেশনসম্পাদনা

জিইউবি তে শিক্ষা বছরকে তিনটি সেমিস্টারে ভাগ করা হয়েছে, তা নিম্নরুপ:

  • স্প্রিং সেমিস্টার: জানুয়ারি থেকে এপ্রিল
  • সামার সেমিস্টার: মে থেকে আগস্ট
  • ফল সেমিস্টার: সেপ্টেম্বর থেকে ডিসেম্বর

লাইব্রেরী সুবিধাসম্পাদনা

শিক্ষার্থীদের মেধা এবং মননের বিকাশ ঘটাতে এখানে পড়াশোনার পাশাপাশি রয়েছে লাইব্রেরী সুবিধা রয়েছে। মেম্বার কার্ডের মাধ্যমে শিক্ষার্থীগন বই বাসায় নিতে পারেন। লাইব্রেরীতে বই পড়ার সুবিধা রয়েছে। লাইব্রেরীতে রয়েছে পর্যাপ্ত দেশী-বিদেশী বইয়ের সংগ্রহ।

শিক্ষার্থীদের জন্য অন্যান্য সুবিধাসম্পাদনা

  • সুপ্রশস্ত এবং শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত ক্লাসরুম।
  • ব্যবহারিক ক্লাসের জন্য ল্যাব সুবিধা।
  • ভাষা জ্ঞানকে উন্নত করার জন্য রয়েছে ল্যাঙ্গুয়েজ ল্যাবরেটরী।
  • শিক্ষার্থীদের বিনোদনের জন্য রয়েছে কমন রুম।
  • হালকা নাস্তা করার জন্য রয়েছে ক্যাফেটিরীয়া।
  • শিক্ষার্থীদের কম্পিউটার এবং ইন্টারনেট ব্যবহারের জন্য রয়েছে আইটি ক্লাব।

বিশ্ববিদ্যালয় ক্লাবসমূহসম্পাদনা

  • গ্রিন ইউনিভার্সিটি ডিবেটিং ক্লাব (GUDC)
  • গ্রিন ইউনিভার্সিটি টেক্সটাইল ক্লাব(GUTC)
  • গ্রিন ইউনিভার্সিটি ইইই ক্লাব
  • গ্রিন ইউনিভার্সিটি 'ল' ক্লাব
  • গ্রিন ইউনিভার্সিটি কম্পিউটার ক্লাব(GUCC)
  • গ্রিন ইউনিভার্সিটি বিজনেস ক্লাব
  • গ্রিন ইউনিভার্সিটি স্পোর্টস ক্লাব(GUSC)
  • গ্রিন ইউনিভার্সিটি ফটোগ্রাফি ক্লাব
  • গ্রিন ইউনিভার্সিটি ক্লাব ফর ল্যাংগুয়েজ(GUCL)
  • গ্রিন ইউনিভার্সিটি কালচারাল ক্লাব(GUCC)
  • গ্রিন ব্লাড ক্লাব (GBC)
  • গ্রিন ইউনিভার্সিটি সোস্যাল বন্ডিং ক্লাব(GUSB)

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন"। ১২ মে ২০১৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১২ আগস্ট ২০১২ 
  2. "বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশন"www.ugc-universities.gov.bd (ইংরেজি ভাষায়)। ২০১৮-১০-০৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০৯-২৪ 
  3. "বিশেষ ছাড়ে গ্রিন ইউনিভার্সিটিতে চলছে ভর্তি মেলা"JagoNews24। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৯-০২ 

বহিঃসংযোগসম্পাদনা

অন্যান্যসম্পাদনা