প্রধান মেনু খুলুন

গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বাংলাদেশের একজন রাজনীতিবিদ ও সাবেক প্রতিমন্ত্রী। তিনি বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের (বিএনপি) সর্বোচ্চ নীতিনির্ধারণী ফোরাম ‘স্থায়ী কমিটির’ একজন সদস্য হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।

গয়েশ্বর চন্দ্র রায়
পরিবেশ ও বন মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী
কাজের মেয়াদ
১৯৯১ – অক্টোবর ১৯৯৩
ব্যক্তিগত বিবরণ
জন্ম (1951-11-01) ১ নভেম্বর ১৯৫১ (বয়স ৬৭)
কেরাণীগঞ্জ, ঢাকা
রাজনৈতিক দলবাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল (বিএনপি)
পেশারাজনীতিবিদ

প্রারম্ভিক জীবনসম্পাদনা

গয়েশ্বর চন্দ্র রায় ১৯৫১ সালের ১ নভেম্বর ঢাকার কেরাণীগঞ্জে জন্মগ্রহণ করেন।[১] তার পিতার নাম জ্ঞানেন্দ্র চন্দ্র রায় ও মাতার নাম সুমতি রায়।[১]

রাজনৈতিক জীবনসম্পাদনা

গয়েশ্বর চন্দ্র রায় ছাত্রজীবনে প্রগতিশীল রাজনীতির সাথে যুক্ত ছিলেন। ১৯৭৮ সালে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী যুবদল গঠিত হলে তিনি যুবদলে যোগদান করেন।[২] পরবর্তীতে যুবদলের সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেন। ১৯৯১ সালে পঞ্চম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিজয়ী হয়ে বিএনপি সরকার গঠন করার পর তিনি টেকনোক্র্যাট কোটায় তৎকালীন পরিবেশ ও বন মন্ত্রণালয়ের (বর্তমান পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয়) প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব পান।[২] এরপর তিনি বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব ও পরবর্তীতে স্থায়ী কমিটির সদস্য মনোনীত হন।[২]

২০০৮ সালে নবম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে প্রথমবারের মত গয়েশ্বর ঢাকা-৩ আসন থেকে বিএনপির মনোনয়নে জাতীয় সংসদ নির্বাচন করে ৭৮,৮১০ ভোট লাভ করেন এবং আওয়ামী লীগের নসরুল হামিদের কাছে পরাজিত হন।[৩][৪][৫] ২০১৮ সালে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে তিনি পুনরায় একই আসন থেকে বিএনপির মনোনয়ন লাভ করেন।[৪][৫]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "Election Commission Bangladesh: Candidate Disclosure"IIS Windows Server। ২৫ জুন ২০০৯। সংগ্রহের তারিখ ২৫ ডিসে ২০১৮ 
  2. "গয়েশ্বরকে নিয়ে একাট্টা বিএনপি"সমকাল। ১৮ ডিসে ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ ২৫ ডিসে ২০১৮ 
  3. "দেখে নিন পূর্ববর্তী ফলাফল"BBC News বাংলা। ১৮ ডিসে ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ ২৫ ডিসে ২০১৮ 
  4. "একাদশ সংসদ নির্বাচন - সমকাল"সমকাল। ১৮ ডিসে ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ ২৫ ডিসে ২০১৮ 
  5. "গয়েশ্বর চন্দ্র রায়"প্রথম আলো। ১০ নভে ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ ২৫ ডিসে ২০১৮ [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]