কেওড়া সুন্দরবনের অন্যতম প্রধান বৃক্ষ। সুন্দরবনের নদীখালের তীর এবং চরে এ গাছ বেশি জন্মায়।[১]

Sonneratia apetala
Sonneratia apetala (5354534393).jpg
বৈজ্ঞানিক শ্রেণীবিন্যাস
জগৎ: Plantae
(শ্রেণীবিহীন): Angiospermae
(শ্রেণীবিহীন): Eudicots
বর্গ: Myrtales
পরিবার: Lythraceae
গণ: Sonneratia
প্রজাতি: S. apetala
দ্বিপদী নাম
Sonneratia apetala
Buch.-Ham., 1800

বর্ণনাসম্পাদনা

কেওড়া দ্রুত বর্ধনশীল গাছ। এর গড় উচ্চতা ২০ মিটার। এ গাছের পাতা চিকন, ফল আকারে ছোট ও গোলাকার , এই ফল টক বা অম্ল স্বাদের। এই ফলের বহিত্বক সাধারণত খাদ্য হিসেবে ব্যবহার করা হয়। সুন্দরবন এবং এর পাশ্ববর্তী এলাকার মানুষ এর ফল থেকে একধরনের সুস্বাদু খাবার বানিয়ে থাকে । লবনাক্ত মাটিতে জন্ম নেওয়া এই উদ্ভিদে শ্বাসমূল দেখা যায়। জোয়ার ভাটার জলে পুষ্ট সুন্দরবনে স্বাসমূল এই গাছের বায়ুতে থাকা শ্বাসমূলগুলো গ্রহণ করতে সাহায্য করে। মিষ্টি জলের এলাকাতে এই গাছ জন্মেনা বললেই চলে । কেওড়া গাছের পাতা ও ফল হরিণবানরের প্রিয় খাবার। এই গাছের নিচে হরিণ ও বানরের দল বেশি দেখা যায়। এ গাছের কাঠ ঘরের বেড়া, দরজা-জানালা ইত্যাদি তৈরিতে ব্যবহৃত হয়।[১]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. দেখুন সুন্দরবনঃ মুস্তাফিজ মামুন; পৃষ্ঠাঃ ৪৩ ও ৪৪; সংস্করণঃ ফেব্রুয়ারি, ২০১২; প্রকাশনা সংস্থাঃ অবসর