কাটোয়া জংশন রেলওয়ে স্টেশন

পশ্চিমবঙ্গের জংশন রেলওয়ে স্টেশন

কাটোয়া জংশন রেলওয়ে স্টেশন হলো একটি গুরুত্বপূর্ণ রেলওয়ে জংশন স্টেশন যা ব্যান্ডেল-কাটোয়া লাইনবারহারওয়া–আজিমগঞ্জ–কাটোয়ার লুপ লাইনের সংযোগস্থল। উত্তর ও দক্ষিণবঙ্গের রেলওয়ে যোগাযোগব্যবস্থায় কাটোয়া জংশন স্টেশন একটি গুরুত্বপূর্ণ এবং ব্যস্ত স্টেশন। এটি পূর্ব রেলওয়ে জোনের হাওড়া রেল বিভাগ এর তত্ত্বাবধানে রয়েছে এবং এটি ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের পূর্ব বর্ধমান জেলার কাটোয়া শহরে অবস্থিত।[১] এই স্টেশনের কোড কেডব্লুএই।[২]

কাটোয়া রেলওয়ে স্টেশন

রেলপথসম্পাদনা

১৯১৩ সালে, ব্যান্ডেল-কাটোয়া লাইন এবং বাহারওয়ার–আজিমগঞ্জ–কাটোয়া রেলওয়ে বাহারওয়া–আজিমগঞ্জ–কাটোয়া লুপ লাইনটি তৈরি করে ইস্ট ইন্ডিয়া রেলওয়ে কোম্পানী। ব্যান্ডেল-কাটোয়া লাইন ও বারহারওয়া–আজিমগঞ্জ–কাটোয়ার লুপ লাইনের সংযোগ ছাড়াও কাটোয়া রেলওয়ে জংশন বর্ধমান-কাটোয়া রেলপথ ও কাটোয়া-আহমদপুর রেলপথের সীমান্ত স্টেশন। ২০০৭ সালের ৩০ জুন কাটোয়া–বর্ধমান ন্যারো গেজ রেল লাইনের পরিবর্তে লাইনের সূচনা হয় এবং ব্রডগেজ প্রকল্পের শিলান্যাস করেন তৎকালীন রেলমন্ত্রী লালুপ্রসাদ যাদব[৩] ২০১৮ সালের ২৪ মে কাটোয়া থেকে আমোদপুর পর্যন্ত ন্যারোগেজের পরিবর্তে ব্রডগেজ লাইন চালু হয়।[৪]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. roy, Joydeep। "Katwa Station - 46 Train Departures ER/Eastern Zone - Railway Enquiry"indiarailinfo.com। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৪-১৪ 
  2. "Katwa Railway Station (KWAE) : Station Code, Time Table, Map, Enquiry"www.ndtv.com (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৪-১৪ 
  3. https://www.aajkaal.in। "ব্রডগেজে ট্রেন চালু হল কাটোয়া থেকে বর্ধমান"https://www.aajkaal.in/ (ইংরেজি ভাষায়)। ২০১৮-০১-১৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৪-১৪  |ওয়েবসাইট= এ বহিঃসংযোগ দেয়া (সাহায্য)
  4. "চলে মোটে একটি ট্রেন, কাটোয়ায় ক্ষুব্ধ যাত্রীরা"। সংগ্রহের তারিখ ১৪ এপ্রিল ২০২০