প্রধান মেনু খুলুন

কল্কেকাশি হল বাংলা সাহিত্যে গোয়েন্দা চরিত্র গুলির অন্যতম। খ্যাতনামা সাহিত্যিক শিবরাম চক্রবর্তী এই কাল্পনিক গোয়েন্দা চরিত্রের স্রষ্টা।

চরিত্র চিত্রণসম্পাদনা

শিশুসাহিত্যিক মনোরঞ্জন ভট্টাচার্যের গোয়েন্দা চরিত্র হুকাকাশির আদলে শিবরাম সৃষ্টি করেন মজার গোয়েন্দা কল্কেকাশিকে।হুকাকাশি জাপানী আর কল্কেকাশি কোরিয়ান ডিটেকটিভ। তিনি বিপুল বপু, খেতে ভালবাসেন। লেখকের নিজের ভাষায় "তপ্ত কল্কের মতো গনগনে আর কাঁসির মতো খনখনে দাপট কল্কেকাশির"। 'টিকটিকির ল্যাজের দিক' গল্পের শুরুতে লেখক নিজেই বলে দেন তাঁর কল্কেকাশি হল 'হুঁকাকাশি'র (হুকাকাশি নন) ভায়রাভাই। গোয়েন্দা কল্কেকাশির বাড়ি কলকাতার নিকট ডায়মন্ড হারবার রোডে।[১]

কাহিনীসম্পাদনা

শিবরাম চক্রবর্তী মাত্র কয়েকটি গল্প লিখেছেন গোয়েন্দা কল্কেকাশিকে নিয়ে। প্রথম কাহিনী 'টিকটিকির ল্যাজের দিক' মৌচাক পত্রিকায় (পৌষ ১৩৫৬) প্রকাশিত হয়। এছাড়া অন্যান্য গল্পগুলি হল 'কল্কেকাশির কাণ্ড’, 'কল্কেকাশির অবাক কাণ্ড', 'ইতরবিশেষ', 'সূত্র'। 'কল্কেকাশির অবাক কান্ড'তে শিবরামের বিখ্যাত চরিত্র হর্ষবর্ধন ও গোবর্ধনও এসেছেন। আরো একটি গল্পে কল্কেকাশিকে খুব সামান্যই পাওয়া যায় তার নাম 'রহস্যময় হর্ষবর্ধন'।[১][২]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "আর তাঁর সেই কল্কেকাশি?"। আনন্দবাজার পত্রিকা। ২৭ জুলাই ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ ১ এপ্রিল ২০১৭ 
  2. অখণ্ড সংস্করণ (১৪১৮ বংগাব্দ)। শিবরাম রচনা সমগ্র। কলকাতা: অন্নপূর্ণা প্রকাশনী। পৃষ্ঠা ২৪৪।  এখানে তারিখের মান পরীক্ষা করুন: |তারিখ= (সাহায্য)