কলকাতার মসজিদ

উইকিমিডিয়ার তালিকা নিবন্ধ

কলকাতার মসজিদ বলতে মূলত ভারতের কলকাতা শহরের মসজিদগুলোকে নির্দেশ করে।

কলকাতার একটি বিখ্যাত মসজিদ

কলকাতা ভারতের পূর্বাঞ্চলে অবস্থিত পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের রাজধানী। ৩০০ বছরের বেশি পুরনো এই শহরটি ১৯১১ সাল পর্যন্ত ব্রিটিশ ভারতের রাজধানী ছিলো। এই শহরে বহু গীর্জা, মন্দির ও মসজিদসহ বিভিন্ন ধর্মের উপাসনালয় রয়েছে। কলকাতায় মুসলিমদের আগমন ঘটে উনবিংশ শতাব্দীতে, তবে এই আগমনের গতি বৃদ্ধি পায় ১৮৫০ সালের পরবর্তী সময়ে বিহার এবং আগ্রা ও অওধের যুক্ত প্রদেশের অর্থনৈতিক মন্দার ফলে।

প্রায় ৪৫০ টি মসজিদ কলকাতা শহরে রয়েছে (ওয়ার্ড ১ থেকে ওয়ার্ড ৪১)। শহরের কেন্দ্রীয় অংশে জনঘনত্ব ও মুসলিমদের জনসংখ্যা সবচেয়ে বেশি। বিখ্যাত মসজিদগুলো হচ্ছে :

  1. বশরী শাহ মসজিদ ৮ শেঠ পুকুর সড়কে অবস্থিত যা ১৮০৪ সালে নির্মিত। এটি কলকাতার প্রাচীনতম মসজিদ।[১]
  2. নাখোদা মসজিদ, বড় বাজারের নিকটে জাকারিয়া স্ট্রিট ও রবীন্দ্র সরণী ক্রসিং এ অবস্থিত, যা ১৯২৬ সালে নির্মিত। একই এলাকায় আরো অনেক প্রাচীন ও সুন্দর সুন্দর মসজিদ রয়েছে। অন্যান্য উল্লেখযোগ্য মসজিদগুলো হলো;
  3. টিপু সুলতান মসজিদ;
  4. রাজাবাজার বারী মসজিদ;
  5. কুলুটোলা ছোট মসজিদ;
  6. আহল্-এ-হাদিস মসজিদ আলীমুদ্দীন স্ট্রিটের নিকটে মার্কুইস লেনে অবস্থিত;
  7. হাবিব-উল-মসজিদ রাফি আহমেদ কিদওয়াই সড়কে অবস্থিত;
  8. মসজিদ-এ-মোহাম্মদী পার্ক সার্কাসে অবস্থিত;
  9. জুম্মা মসজিদ যা মল্লিকবাজারে অবস্থিত;
  10. লাল মসজিদ কুলুটোলায় অবস্থিত একটি মসজিদ;
  11. কারবালা মসজিদ মেটিয়াবুরুজে অবস্থিত একটি শিয়া মসজিদ;
  12. হাক্কানী আঞ্জুমানের দুটি হাক্কানী মসজিদ (মুর্শিদ আজানগাছী সাহেব দ্বারা প্রতিষ্ঠিতি) কলকাতা শহরে বিদ্যমান। একটি মসজিদ বাগমারীতে ও আরেকটি মানিকতলায় অবস্থিত যেখানে প্রতি বেলা নামাজের পর হাক্কানি ওয়াজিফা পড়ে শোনানো হয়।
  13. আহমদিয়া মসজিদ পার্ক সার্কাসের নিউ পার্ক স্ট্রিটে অবস্থিত।[২][৩]

সব বর্ধনশীল শহরের মত স্থানের অভাব কলকাতায় একটি বড় সমস্যা। বর্ধনশীল জনসংখ্যাকে পর্যাপ্ত সেবা দেওয়ার উদ্দেশ্যে বেশিরভাগ মসজিদগুলো সম্প্রসারণ করা হচ্ছে। মসজিদের কাঠামোগুলো পুরনো শৈলী থেকে নতুন শৈলীতে পরিবর্তন করার পাশাপাশি নির্মাণশৈলীর পরিবর্তনও আনা হচ্ছে।

১৯৪২ সালে কলকাতার শেষ মসজিদটি নির্মিত হয় (এন্টালিতে)।

তথ্যসূত্র সম্পাদনা

  1. জেনিস লেওশকো। কলকাতা থ্রু থ্রি হান্ড্রেড ইয়ার্স (ইংরেজি ভাষায়)। 
  2. শাহ, জিয়া এইচ. (২৬ জুলাই ২০১৪)। "কন্টাক্ট আহমদিয়া মুসলিম কমিউনিটি ইন এশিয়া"দ্যা মুসলিম টাইমস (ইংরেজি ভাষায়)। ৫ মার্চ ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১২ মার্চ ২০১৭ 
  3. "যোগাযোগ"www.ahmadiyyabangla.org। ২৪ জানুয়ারি ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১২ মার্চ ২০১৭