এস আলম রিফাইন্ড সুগার ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড

এস আলম রিফাইন্ড সুগার ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড বাংলাদেশের চট্টগ্রাম জেলায় অবস্থিত একটি ভারী শিল্প প্রতিষ্ঠান।[১] এটি বাংলাদেশের অন্যতম প্রধান একটি চিনি পরিশোধনকারী প্রতিষ্ঠান;[২] স্থানীয় বাজারে এই কোম্পানির পণ্যটি তুর্কি সুগার (Turkey Sugar) নামে প্রচলিত।[৩]

এস আলম রিফাইন্ড সুগার ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড
S. Alam Refined Sugar Industries Ltd.
স্থানীয় নাম
এস আলম সুগার মিলস
বেসরকারি
শিল্পচিনি শিল্প
প্রতিষ্ঠাকাল২০০৪; ১৬ বছর আগে (2004)
সদরদপ্তরকর্ণফুলী ঘাট, চট্টগ্রাম, বাংলাদেশ
বাণিজ্য অঞ্চল
বিশ্বব্যাপী
প্রধান ব্যক্তি
ব্যবস্থাপনা পরিচালক
পণ্যসমূহচিনি
মালিকএস আলম লিমিটেড
মূল প্রতিষ্ঠানএস আলম লিমিটেড
ওয়েবসাইটsalamgroupbd.com

অবস্থানসম্পাদনা

বাংলাদেশের দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলের চট্টগ্রাম জেলার কর্ণফুলী নদীর তীরবর্তী এলাকায় এই শিল্প কমপ্লেক্সটি অবস্থিত।[১]

ইতিহাসসম্পাদনা

২০০৪ সালে এই শিল্প প্রতিষ্ঠানটি স্থাপিত হয়;[৩] পরবর্তীতে ২০১১ সালের নভেম্বর মাসে আরো একটি ইউনিট এতে যুক্ত করা হয়।;[৪]

অবকাঠামোসম্পাদনা

এই বৃহদায়তন শিল্প-কমপ্লেক্সটি চিনি পরিশোধন কারখানা, বর্জ্য পরিশোধনাগার, অফিস ও আবাসন ভাবনের সমন্বয়ে গঠিত।

উৎপাদন ক্ষমতাসম্পাদনা

এই মিলটি আমদানীকৃত র' সুগার থেকে দৈনিক ২,৮০০ মে. টন এবং বার্ষিক ৮ লাখ ৪০ হাজার মেট্রিক টন পরিশোধিত চিনি উৎপাদনে সক্ষম।[৫][৬]

উৎপাদিত পণ্যসম্পাদনা

এস আলম রিফাইন্ড সুগার ইন্ডাস্ট্রিজ বিদেশ থেকে অপরিশোধিত চিনি ('র সুগার) আমদানী করে তা পরিশোধন (রিফাইন্ড) করে প্যাকেটজাত করার মাধ্যমে বাজারজাত করে থাকে এবং স্থানীয় চাহিদার ১০ শতাংশ এককভাবে পূর্ণ করে।[৭]

আরও দেখুনসম্পাদনা

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "রাষ্ট্রায়ত্ত ১৫ চিনিকলে লোকসান ৫২৮ কোটি ২৭ লাখ টাকা"দৈনিক নয়া দিগন্ত, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৪। ৩০ জুন ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৬ জুলাই ২০১৫ 
  2. "বাজারে অস্থিতিশীলতা রোধে চিনি আমদানিতে কোটা"দৈনিক বণিক বার্তা, ২৫ মার্চ ২০১৫। ২০১৫-০৭-০২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৬ জুলাই ২০১৫ 
  3. "কোম্পানি প্রোফাইল"এস আলম গ্রুপ, ২০১০। সংগ্রহের তারিখ ২৬ জুলাই ২০১৫ 
  4. "কোম্পানির প্রতিষ্ঠা"এস আলম গ্রুপ, ২০১০। সংগ্রহের তারিখ ২৬ জুলাই ২০১৫ 
  5. "রফতানি অথবা ভর্তুকি নইলে উৎপাদন বন্ধ!"দৈনিক ডেসটিনি। সংগ্রহের তারিখ ২৬ জুলাই ২০১৫ 
  6. "চিনি রপ্তানির তোড়জোড়"দৈনিক যায় যায় দিন। সংগ্রহের তারিখ ২৬ জুলাই ২০১৫ 
  7. "রমজানে চিনির দাম বাড়ানোর পাঁয়তারা"দৈনিক আলোকিত বাংলাদেশ, ০২ জুন ২০১৩। সংগ্রহের তারিখ ২৬ জুলাই ২০১৫ [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]

বহি:সংযোগসম্পাদনা