এক টুকরো চাঁদ একটি বাংলাভাষী রহস্যকাহিনী মূলক চলচ্চিত্র যার পরিচালক ছিলেন পিনাকী চৌধুরী। ২০০১ সালের এই ছবিটি সুনীল গঙ্গোপাধ্যায় রচিত কাকাবাবু সিরিজের উপন্যাস সন্তু ও এক টুকরো চাঁদ অবলম্বনে নির্মিত।[১] ন্যাশনাল ফিল্ম ডেভেলপমেণ্ট কর্পোরেশন প্রযোজিত এই ছবিতে কাকাবাবু চরিত্রে অভিনয় করেন সব্যসাচী চক্রবর্তী[২][৩]

কাহিনীসম্পাদনা

কলকাতা জাদুঘর থেকে একটি দামী জিনিস চুরি হয়ে যায়, জিনিসটি হল চাঁদ থেকে আনা একটি পাথরের টুকরো। এই ঘটনার সাথে ঘটনাচক্রে জড়িয়ে পড়ে সন্তু ও তার গল্পবাজ বন্ধু জোজো। অন্যদিকে কাকাবাবু ওরফে রাজা রায়চৌধুরীর কাছে কেন্দ্রীয় সরকারের গোয়েন্দা দপ্তরের আধিকারিক ও কাকাবাবুর বন্ধু নরেন্দ্র ভার্মা আসেন একটি প্রস্তাব নিয়ে। ভারত সরকারের অতিথি আফ্রিকার একটি দেশ বুরুন্ডির রাষ্ট্রদূত সাইমন বুবুম্বাও নিখোঁজ হয়ে যান একই সাথে। বুবুম্বা আবার সেদেশের রাষ্ট্রপতির ভাই, সেই সূত্রে অত্যন্ত সম্মানিত অতিথি। কাকাবাবু তদন্ত শুরু করেন। রাঁচীর ক্ষমতাবান জমিদার ঠাকুর সিং এই অপহরনের ঘটনায় জড়িত আছে এমন সন্দেহে কাকাবাবু সেখানে যান। ইতিমধ্যে সাইমন বুবুম্বার মুক্তিপণ চেয়ে চিঠি আসলে কাকাবাবু নিজেই সেই টাকা দিতে যান সাহসে ভর করে। তিনি বুঝতে পারেন সাইমন বুবুম্বার অপহরণ আদতে কোনো অপহরণই নয়, যার পেছনে আছে বিরাট চক্রান্ত এবং তার সাথে জড়িত আছে চাঁদের পাথর চুরির রহস্য।[৩]

অভিনয়সম্পাদনা

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "সন্তু ও এক টুকরো চাঁদ (কাকাবাবু, #16)"www.goodreads.com। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৮-১৮ 
  2. "Ek Tukro Chand (2010)"gomolo.com। ২০১৮-০৯-২৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৮-১৮ 
  3. "Children's Film Society, India" (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৮-১৮